সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন নবনীতা_সেন (১০-১১-২০০৮ ১৫:৩৫)

টপিকঃ "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

সারা দিন  অফিসের কাজ কর্ম সেরে  রাতে ক্লান্ত শরীরে বিছানায় শুয়ে  কাতার ভাবতে থাকে,কত বসন্ত পার হয়ে গেলো তার জীবনে এখনো  কোকিল ডাকলো না,বাগানে কোন ফুলও ফুটলো না। হায়!হায়!তার জীবনটা কি এই মরুভুমির দেশে থেকে থেকে মরুভুমির খুরমা খেজুর হয়ে গেলো না তো? নাহ!সে কিছুতেই তার জীবনটা এরকম হতে দিবেনা। এবার যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেশে গিয়ে নিজেকেই একটা উদ্যেগ নিতে  হবে। কারোও উপর আর অত ভরসা করা যাবে না। কতজন তো কত পাত্রী দেখলো,কাজের কাজ কিছুই হলোনা। এসব ভাবতে ভাবতে কখন যে ঘুমিয়েছে,স্বপ্নে দেখে---
একটা অপুর্ব সুন্দরী মেয়ে এবং সে একটা খেঁজুর গাছের নীচে পাশাপাশি বসে  আছে। কাতার কিছুটা লজ্জাবনত ভাবে একটা খেঁজুরের কাঁটা নিয়ে দাঁত খুঁচাইতেছে। মেয়েটি হঠাৎ প্রশ্ন করে--তুমি এতদিন  নিজেকে মরুভুমির  মত করে রেখেছিলে কেন?

কাতারঃ এতদিন তোমাকে খুঁজে পাইনি বলে।
মেয়েঃ আচ্ছা তুমি আমাকে কতটা ভালোবাস।
কাতারঃ আমি ঠিক তোমাকে বুঝাতে পারবনা। জানো তোমার কথা ভাবলে আমার,খাইলে ক্ষুধা লাগে না,ঘুমাইলে চোখে দেখিনা।
মেয়েঃ খুঁশি হয়ে কিছুটা আহ্লাদি কন্ঠে তবুও  আবার বলে,আহা বলোনা গো কতটা।
কাতারঃ কি বলবে বুঝতে পারে না। হঠাৎ দুহাত দুদিকে প্রসারিত করে যেইনা বলতে গেছে এই এতটা-- অমনি হাতের খেঁজুরের কাঁটাটি  গিয়ে লাগে মেয়েটির কপালে। দেখে কাঁটার আঘাতে মেয়েটির কপালের মাঝখানে একটু কেঁটে গেছে। কাতার তখন নিরুপায় হয়ে করুন সুরে বলে সরি,আমি ঠিক ভাবিনি এরকমটা হবে।
মেয়েঃ ঠিক আছে,তুমিতো ইচ্ছে করে করোনি। ভালই হলো তোমার দেয়া ভালোবাসার আঘাতের চিহ্ন সারা জীবন আমার কপালে আঁকা থাকবে।
কাতারঃ খুঁশিতে গদ গদ হয়ে বলে,তোমার আর কখনো টিপ পড়া লাগবে না। এই দাগটাই পারমানেন্ট টিপ হয়ে গেলো। জানো দেবদাস পার্বতীর কপালে এরকম একটি  দাগ দিয়েছিল। তাই আজ থেকে আমি দেবদাস আর তুমি পার্বতী। আমার পারু।
মেয়েঃ কিন্তু  দেবদাস তো রাগ করে ওরকম দাগ দিয়ে দিয়েছিল ,পার্বতী ওকে পরে আর বিয়ে করতে চায়নি বলে।
কাতারঃ হাঁ তুমিও যখন আমার দেওয়া এই দাগ নিয়ে আমাকে ছেড়ে অন্যের ঘরে যাবে,তখন আমি মজনু হয়ে লাইলির কাছে যাব।
মেয়েঃ কি?তুমি আমাকে ছেড়ে লাইলির কাছে যাবে?
কাতারঃ আহা!আমি কি তাই বলেছি?আমাকে না পেয়ে তুমি যখন আত্মহত্যা করবে,তখন তোমার অতৃপ্ত আত্মা আর একটি মেয়ের রুপ ধরে লাইলি হয়ে বলবে-
লাইলি তোমার এসেছে ফিরে আজ-- মজনু গো আখিঁ খোল ।
মেয়েঃ কি?আমি তোমার জন্য আত্মহত্যা করবো?তবে রে-বলে একটা খেঁজুরের ডাল নিয়ে  কাতারকে তাঁড়িয়ে মারতে আসে। কাতার নিরুপায় হয়ে ভয়ে খেঁজুরের গাছের আগায় উঠে বলে,না-না তুমিই আমার সব। তোমাকে ছেরে আমি আর কোন লাইলি ফাইলির কাছে যাবনা। বিশ্বাস কর।
মেয়েঃ বিশ্বাস তোমাকে আর করিনা।তুমি সব পারবে। এই আমি চললাম।
কাতারঃ তখন চিৎকার করে বলে পারু তুমি আমাকে ছেড়ে যেওনা (দুহাত ভুলে ছেড়ে দিয়ে)পারুউউউউউউউউউউউউউউউউ
অমনি গাছ থেকে নিচে মাটিতে ধপাস!
ঘুম ভেঙ্গে দেখে  কোলবালিশ সহ খাট থেকে  পড়ে গিয়ে নিচে পারু বলে চিৎকার করছে সে। মনে পড়ে এতক্ষন সে ঘুমের ঘোরে স্বপ্ন দেখছিল। আহা মেয়েটি কি সুন্দর। এরকম মেয়ে হলে তো আমি আর কিছু চাইনা। উঠে ফ্রেশ হয়ে সকালের নাস্তা সেরে ফুরফুরে মেজাজে কাতার অফিসে আসে। কিন্তু অফিসে এসে কোনও কাজে মন বসাতে পারে না। বারে বারে স্বপ্নে দেখা মেয়েটির কথাই ভাবতে থাকে।

ভাবতে ভাবতে  আনমনে কম্পিউটারে একটা কবিতা লিখে-------

            ঘুম ভেঙ্গে গেলে টুথব্রাসে  টুথপেষ্ট লাগাতে গিয়ে
                       মনে পড়ে তোমার কথা
                  তোমার দাঁতগুলি বড় ঝকঝকে
                              মুক্তার মত।
               রাত্রির ক্লান্তি মুছে ফেলতে বাথরুমে গিয়ে
                         কাপর ছাড়তে ছাড়তে
                  নির্লজ্জের মত মনে পড়ে তোমাকে
                        তুমি নাকি খুব ধবধবে
                        দুধে আলতা মেশানো।
                আয়নার সামনে আমার হতশ্রী মুখটা দেখে
                          মনে পড়ে তোমাকে
                       শ্লোকের মত দু ভ্রুর নিচে   
                     একজোড়া ক্লান্ত মায়াবী চোখ
                  কপালের মাঝখানে কারুকার্য খচিত
                   আমার দেওয়া আজন্ম টিপ পরা
                           তোমার মুখখানি
                             কতনা সুন্দর।
                  গোধুলী আলো জানালা গলিয়ে
                     যখন আমার বিছানায় এসে
                            দীপাবলী সাজায়
                     তখন মনে পড়ে তোমাকে ।
                        আমার নিঃস্ব ঘরটিতে
                         তুমি শেষ বিকেলের
                             সুর্যস্নান রত
                      আমার সুর্যমুখী দেবী।   

কবিতা লিখা হলে কাতার ভাবে কি নাম দিব কবিতার। খুঁজে না পেয়ে সিদ্ধান্ত নেয় থাকনা শিরোনামহীন হয়ে কবিতাটি।
এদিকে কাতারের বস  মিঃ হাঙ্গরিকোডার(ফরেনার) অনেক ক্ষন থেকে  কাতারকে পর্যবেক্ষন  করে শেষপর্যন্ত এসে জিগ্যেস করে--- হোয়াট হাপেন মিঃ কাটার। হঠাৎ বসকে সামনে দেখে দাঁড়াতে গিয়ে যন্ত্রনায় চেঁচিয়ে উঠে-- উঁউঁউঁউঁ
বসঃ হোয়াট উঁউঁউঁউঁ
কাতারঃ এতক্ষনে বুঁজতে পারে স্বপ্নে বিছানা থেকে সকালে পড়ে গিয়ে কতটা ব্যাথা পেয়েছে কোমরে। কোনরকমে বস কে বলে--- ইয়ে মানে- স্যার- আজ স্বপ্নে (ড্রীম)-মানে -বিছানা থেকে নিচে ধপাস মানে পড়ে গিয়েছি। মানে- ড্রীম এ্যান্ড বেড টু আন্ডার ফ্লোর ধপাস।
এক কথায় ড্রীম পলিউশন স্যার।
আন্ডাস্ট্যান স্যার।
বসঃ হুমম---?
কাতারঃ হোয়াট স্যার?
বসঃ ধপাস!!!



বিঃদ্রঃ সম্পাদনা করার অনুমতি থাকলো।
(মা,খা,ই,ন--বিখ্যাত উক্তিবীদ -আল জুলু)
***অবশেষে সেই থেকে আল-কাতার খেঁজুর গাছে উঠতে ভয় পায়।

গোপন গহীন বন্ধনের টান ছিন্ন করে ,চলে যাব একদিন
                             দুরে,বহুদুরে
                           নক্ষত্রের ওপারে

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

টপিকের নামটা কি পরিবর্তন করা যায়???

এগিয়ে চলেছি প্রতিমুহূর্তে, অদৃশ্য জীবনের রং এর খোঁজে.........
.............কলাপাতা সবুজ রং থেকে, ............
পিংক-ভায়োলেট-মেজেন্টা, .............আরও কত রং এর যুগে।।

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

অরন্য লিখেছেন:

টপিকের নামটা কি পরিবর্তন করা যায়???

যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পরিবর্তন করা দরকার(y)(y)

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

কণিষ্ক লিখেছেন:
অরন্য লিখেছেন:

টপিকের নামটা কি পরিবর্তন করা যায়???

যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পরিবর্তন করা দরকার(y)(y)

ধন্যবাদ নবনীতা সেন। thumbs_upthumbs_up(y)

এগিয়ে চলেছি প্রতিমুহূর্তে, অদৃশ্য জীবনের রং এর খোঁজে.........
.............কলাপাতা সবুজ রং থেকে, ............
পিংক-ভায়োলেট-মেজেন্টা, .............আরও কত রং এর যুগে।।

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

এবার আর কোন খুত রইল না।
ধন্যবাদ নবনীতা সেন, এত বড় একটা লেখা দেওয়ার জন্য, কবিতাটিও ভাল হয়েছে thumbs_upthumbs_up

রক্তের গ্রুপ B+
যুদ্ধাপরাধী ও রাজাকারদের ঘৃণা করি।

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

হায়রে আমার উদীয়মান প্রেম খেজুর কাটা আর খেজুর গাছের জন্য ভেস্তে গেল:-x:-x:-x:-x:-x
থাকুম না আর এই খেজুর গাছে। hairpull
পারুওওওওওওওওও্‌ওওওওওওওওওওও কই তুমিইইইইইইইইইইইইইইইইইইইইইই--(

[ হাসতে হাসতে আমার জান শেষ]=))=))=))=))=))=))=))=))=))=))=))=))=))=))=))

রক্তের গ্রুপ AB+

microqatar'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

অবশেষে সেই থেকে আল-কাতার খেঁজুর গাছে উঠতে ভয় পায়।

এটাই কি খেজুর গাছের তলায় থাকার আসল কাহিনী নাকি...;D;D
lol2lol2

[img]http://fixpc.co.za/iplocator/flag.php[/img] Let's Go BIG!! [img]http://g.imagehost.org/0746/biggrin.gif[/img]

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন মেহেদী আকরাম (১০-১১-২০০৮ ১৫:২৭)

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

সব মিলিয়ে ভাল হয়েছে।
এখন দেখি কাতার ভাই দেশে এসে কি করে>>>

সবকিছুর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি, এমনকি মৃত্যুর জন্যও...
রয়েল টেকনোলজি | সমকাল দর্পণ | আমার ফেসবুক প্র্রোফাইল | আমার ফেসবুক পেজ | আমার গুগল+

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

অনেকদিন পর মজার একটা লেখা পড়লাম।
ধন্যবাদ নবনীতা সেন।


ফোরামে একটা সময় পোস্ট হতো নিজেকে নিয়ে বা সদস্যদের নিয়ে। লেখাগুলো পড়ে বেশ মজা পাওয়া যেত। এখন কেউ তেমন পোস্ট করে না। নিজেদের নিয়ে কথাবার্তাও বলে না।:(:(:(

জোবায়ের সুমন
রক্তের গ্রুপ: B(-)

১০ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন ইয়ানূর (১০-১১-২০০৮ ১৭:০৫)

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

নবনীতা_সেন লিখেছেন:

সারা দিন  অফিসের কাজ কর্ম সেরে  রাতে ক্লান্ত শরীরে বিছানায় শুয়ে  কাতার ভাবতে থাকে,কত বসন্ত পার হয়ে গেলো তার জীবনে এখনো  কোকিল ডাকলো না,বাগানে কোন ফুলও ফুটলো না। হায়!হায়!তার জীবনটা কি এই মরুভুমির দেশে থেকে থেকে মরুভুমির খুরমা খেজুর হয়ে গেলো না তো? নাহ!সে কিছুতেই তার জীবনটা এরকম হতে দিবেনা। এবার যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেশে গিয়ে নিজেকেই একটা উদ্যেগ নিতে  হবে।
কারোও উপর আর অত ভরসা করা যাবে না। কতজন তো কত পাত্রী দেখলো,কাজের কাজ কিছুই হলোনা। এসব ভাবতে ভাবতে কখন যে ঘুমিয়েছে,স্বপ্নে দেখে--

ভাই কাতার, আর কতকাল মানুষকে দিয়ে নিজের কথা বলবেন? নিজে একটু মুখটা খুলেন! সবাই দেখি কাতারকেনিয়ে মহা চিন্তা গ্রস্থ। আমার মাথায় কাজ করে না? আপনি কি কারোর উপর ভরসা করেছেন তাহলেই হইছে। এ গুরু দায়িত্ব কে নিবে বলুন? বউ যদি খারপ হয়, যদি বলে এ বউ নিবো না, তখন বিশাল ঝামেলা; তাই নিজের টা নিজেই গোপনে কইরেন আমি বাধা দিবো না। আর যায় করেন ফান্দে পইরেন না?

১১

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

চিড়িআচ ভাল অইচে তয় কাতাল ভাই বিয়াটা কইরাই হালান, পাত্রী আচে টিপটপ কন্ডিছন ছামান্য রিপিয়ার কইল্লে লাইপটাইম গেরান্টি* ।  লাগলে আওয়াজ দিয়েন।

*শত্ত পোজজ্য

১২

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

কাতার ভাই !!!!! lol2lol2=))=))=))=))=))=))=))
খুব মজা পাইলাম। lol2lol2=))
ধন্যবাদ নবনীতা_সেন কাতারের গোপন রহস্য ফাঁস করার জন্য।:clap::clap: জটিল হইছে। hehehehe

আলহামদুলিল্লাহ!

১৩

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

আই আর কিছু কইতুম নু। :">:">:">:">:">:">:">
বেকে মিলে বুঝি এইবার আরে একখান বিয়া করাই ফালাইবো--(

রক্তের গ্রুপ AB+

microqatar'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

১৪

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

হায় !!!! হায় !!!  মোশারফ ভাই আমি এইটা কি দেখলাম......................
প্রথমে টপিকটা দেখে ভাবছিলাম আপনি বোধহয় মরুভুমির উত্তপ্ত বালুর মতো নিজের বুকের ভিতর জমে থাকা
কোন কষ্টের আগুন হালকা করার জন্যে লিখছেন। পড়ার পর বুঝলাম নবনীতা সেন নামের কোন এক রূপবতী তার অপরূপ লিখার মাধ্যমে
আপনার দুঃস্বপ্ন গুলো ফোরামে নিয়ে আসলো।  যাক, ধন্যবাদ নবনীতা আপনাকে clap
✿·✣·ღ»♥·:*¨*♪*☼*◦☆··♫·.۩`·☀·´۩.·♫··☆◦*☼*♪*¨*:·♥«ღ·✣·✿
আমি তো মোশারফ ভাইরে আগেই কইছিলাম খেজুর গাছের তলায় আর কত থাকবেন, সাহস কইরা আগায় উইঠা পড়েন।
আহারে আপনার কত্তোগুলা নাম: কাতার ভাই, মিঃ কাটার, কাতাল ভাই, মজনু । এত্তো নামের ভিড়ে আপনার আসল নামটাই
ভূইলা যাওয়ার সম্ভাবনা!!!  প্লিজ,,,,,,, খুরমা খাইয়া খেজুর গাছের কাঁটা দিয়া নিজের দাত আর খুঁচাইয়েন না।
হয় দেশে আইসা একখান পারু খুঁজেন নয়তো আমি চইলা আসমু কিনা বলেন কাতারের কাতারে আপনার পারুরে খুঁইজা দিতে ????
নো মোর ড্রীম পলিউশন ..............................

১৫

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

পুরা সেইরকম হইছে। হাসতেই আছি। কাতার ভাইয়ের আসল কাহিনীডা জাইনা দুক্ষো লাগ্লো। ব্যাপার না কাতার ভাই, নেক্সট টাইম।

Gentlemen, you can't fight in here, this is the war room!

১৬

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

হা হা হা হাহ্‌....
মজার একটা লেখা হয়েছে। কল্পনা টা ভালোই আছে ওনার...(y)
কাতারের মরহুম হবার আয়োজন  hehe
ধন্যবাদ আপনাকে।

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৭

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।
@কাতার,
অবিবাহিত পাত্রির কি দরকার?
তোমার জন্য রেডিমেট (যাদের দু-একটি বাচ্চা আছে)পাত্রিই বেটার।(মা,খ,এ,ন)
তাহলে তোমার মরুভুমির মত জীবনটা ফুলে-ফলে সবুজ শ্যামলে একেবারে ভরে যাবে।
কষ্ট করে আর প্রডাকশন করতে হবে না।

গোপন গহীন বন্ধনের টান ছিন্ন করে ,চলে যাব একদিন
                             দুরে,বহুদুরে
                           নক্ষত্রের ওপারে

১৮

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

রোমাঞ্চ ফোরামে ঘটকালি হতেই পারে ..... hehe

শুধু কাহিনী দিয়ে তো হবে না .... সিভি দরকার ... ... (প্রথাগত চাকুরীর সিভি থেকে এই চাকরীর;( সিভি একটু আলাদা হয়) tongue_smile

মানুষের দুঃখে অন্যে হাসে কেন .... thinking

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৯ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন microqatar (১১-১১-২০০৮ ১৩:২১)

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

নবনীতা_সেন লিখেছেন:

সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।
@কাতার,
অবিবাহিত পাত্রির কি দরকার?
তোমার জন্য রেডিমেট (যাদের দু-একটি বাচ্চা আছে)পাত্রিই বেটার।(মা,খ,এ,ন)
তাহলে তোমার মরুভুমির মত জীবনটা ফুলে-ফলে সবুজ শ্যামলে একেবারে ভরে যাবে।
কষ্ট করে আর প্রডাকশন করতে হবে না।

অন্যের বাগানের মালি হওয়ার চাইতে, নিজের গড়া একটা বাগানের মালি হওয়াটাই আমার কাম্য। শুধু শুধু **গনি মিয়া হয়ে লাভ কি।

[** গনি মিয়ার নিজের জমি নাই , সে অন্যের জমি চাষ করে খায়। ]

শামীম লিখেছেন:

রোমাঞ্চ ফোরামে ঘটকালি হতেই পারে ..... hehe

শুধু কাহিনী দিয়ে তো হবে না .... সিভি দরকার ... ... (প্রথাগত চাকুরীর সিভি থেকে এই চাকরীর;( সিভি একটু আলাদা হয়) tongue_smile

মানুষের দুঃখে অন্যে হাসে কেন .... thinking

সিভি কি পোস্ট করবো, চিন্তাই আছি!!

উদাসীন লিখেছেন:

হা হা হা হাহ্‌....
মজার একটা লেখা হয়েছে। কল্পনা টা ভালোই আছে ওনার...(y)
কাতারের মরহুম হবার আয়োজন  hehe
ধন্যবাদ আপনাকে।

তাইরে নাইরে করে আর কতদিন, আমার স্ট্যাটাস না কিন্তু।

Hasem লিখেছেন:

হায় !!!! .....................................................
...........  প্লিজ,,,,,,, খুরমা খাইয়া খেজুর গাছের কাঁটা দিয়া নিজের দাত আর খুঁচাইয়েন না।
হয় দেশে আইসা একখান পারু খুঁজেন নয়তো আমি চইলা আসমু কিনা বলেন কাতারের কাতারে আপনার পারুরে খুঁইজা দিতে ????
নো মোর ড্রীম পলিউশন ..............................

হাসেম ভাই ,আপনি এতো দিনে আমার দুস্কটা বুঝলেন।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/11/859_Arparchinaguru.JPG

রক্তের গ্রুপ AB+

microqatar'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

২০

Re: "কাতারের দুঃস্বপ্ন"

হায়রে কপাল সেই নার্সারী থেকে বউ নাকি শুরু করেছে। তার মানে কি হলো হিহিহিহিহিহিহি>>>>