সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন ?????_?????_??? (০৬-০৪-২০০৭ ১৮:০৯)

টপিকঃ একটি বেরসিক ভ্রমণ

এটা ছিলো আমার জন্য সত্যই এ্যাডভেঞ্চার! ঢাকা বিমান বন্দর হতে ইস্তাম্বুল আমাকে একাই আসতে হয়েছিলো। যেখানে ঢাকার বাইরে কোথায়ও একা যাবার সাহস ছিলোনা সেখানে এতোগুলো পথ কি করে এলাম এটা এক রহস্য! আমার টিকেট ছিলো ইকনোমি ক্লাসে(এ্যামিরাত এয়ার)। আমার চারপাশে ছিলো প্রায় ডজন কানেক বাঙালী ছেলে (আদম)। তাদের সবার হাতে ছিলো একই ধরনের ব্যাগ (রেকসিনের ছোট হ্যান্ড ব্যাগ)। চেহারা ছিলো যুবুথুবু। আমার চাইতেও তাদের ঢেড় অসহায় লাগছিলো। কৌতুহলে জানতে চাইলাম। বললো: তারা মোট ১১ জন এবং সাথে মূল আদম। যাবে আবুধাবী।

এ্যামিরাতের সার্ভিস সত্যই ভালো ছিলো। এসে পৌছলাম দুবাই এয়ারপোর্ট। দেখার মতো একটা জিনিস! দুবাই এসে জানতে পারলাম আমার ট্রান্জিট ৮ ঘন্টা (অপ্রত্যাশিত ভাবে)। ভয়ে আর দুঃখে আমার কাঁদতে ইচ্ছা করছিলো। একে তো মেয়ে মানুষ তার উপর কিছুই জানিনা, কিছুই বুঝিনা! ৫ মিনিট পর পর শুধু মনিটর দেখছিলাম- পাছে প্লেইন ফেল না করি! এদিকে ক্ষুধায় পেটের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হয়েছে। কি করি কি করি। গেলাম একটা ক্যাফেতে। চাইনিজ এক মেয়ে কে বললাম- কমলার রস আর স্লাইচ্ কেক দিতে। দাম নিলো- ১৮ ডলার! এদের মায়া দয়া বলে কিছু নেই! সবুজ কে ফোন করলাম। ফোনে কিছু বলতে পারলাম না- কেঁদে ফেলেছিলাম। সবুজ বললো-“তুমি খোজ নাও, ৮ ঘন্টা ট্রান্জেকশান হলে ওরা খাবারের ব্যবস্থা করবে। এ্যামিরাত কাউন্টারে (এয়ার রেস্টুরেন্ট) গিয়ে দেখি প্রায় ৪০ জনের লাইন, এরা সবাই খাবারের জন্য এসেছে। এখান হতে কিছু ফাস্ট-ফুড আর জুস খেলাম। ঘন্টা খানিক ফ্লোরে বসে ঘুমিয়েছিলাম। শেষ সময়ে ৩ যুবকের দেখা পেলাম। এদের বাড়ি নারায়নগঞ্জ। ইউরোপে যেতে চেয়েছিলো। সম্ভব হয়নি। বাংলাদেশে ফিরে চলেছে। বিমানের ফ্লাইট না থাকায় ৩ দিন ধরে বিমান বন্দরে আবস্থান করছে। পানি আর পটাটো চিপস্ খেয়ে দিন যাপন করছে। পরবর্তী ফ্লাইট পর্যন্ত এরা আমাকে যারপরনাই সাহায্য করেছিলো।

বিকেল ৪ টার দিকে দুবাই হতে ইস্তাম্বুল এর উদ্দেশ্যে রওনা হই। প্রায় ৫ ঘন্টার পথ। এ সময়টা খুব নিঃশ্চিন্তে কেটেছে। আমার পাশের ছিটে  বসেছিলো মিশরিয় এক মধ্যবয়সী ভদ্রলোক। বেশ হাসি খুশি কথা বলছিলো আমার সাথে।

ইস্তাম্বুল এসে আমার ব্যাগেজ পাওয়া গেলো না। এবার ও কাঁদতে ইচ্ছা হলো। ওখানে আমার অনেক গুরুত্বপূর্ন জিনিস ছিলো। সবুজ কে ফোন করে ওর পরামর্শে এ্যামিরাতের ব্যাগেজ কাউন্টারে নোটিস করলাম। জানাগেলো আমার ব্যাগ ভুল করে পাপুয়ানিউগিনি চলে গেছে। পাওয়া যাবে।

বিমান বন্দর হতে রাস্তায় এসে বুঝা গেল শীত কি ধরনের জিনিস। তুষার পড়ছিলো। তবুও আমার আনন্দের সীমা রইলোনা। এতো আনন্দের কারন বুঝা যাচ্ছিলো না।

একটি রাত্রি হলো এবং একটি সকাল হলো, প্রথম দিন।

লুবনা আফরিন।

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

লুবনা,

আপনার ভ্রমণ কাহিনী টা বেশ ভালো লাগলো। একটা অভিজ্ঞতাই বটে! একা একা অতদূর কিভাবে গেলেন? সবুজের হাতছানি না থাকলে মনে হয় বেশ কঠিনই হতো ব্যাপারটা:P

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন শামসী (১৭-০৪-২০০৭ ১৬:৩৩)

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

আমার পোস্টগুলো ফোরামে অর্থহীন ভেবে মুছে দিলাম

প্রত্যাবর্তনের পথে কিছু কিছু ‘কস্ট্‌লি’ অতীত থেকে যায়।
কেউ ফেরে, কেউ কেউ কখনো ফেরে না, কেউ ফিরে এসে কিছু পায়।
মৌলিক প্রেমিক আর কবি হলে অধিক হারায় - কবি হেলাল হাফিজ

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

এ জার্ণি বাই এয়ার:o:o:o

তথ্যপ্রযুক্তির সবকিছু চাই বাংলায়
খেরোখাতায় লিখি মনের কথা।

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

পানি আর পটাটো চিপস্ খেয়ে দিন যাপন করা ৩ যুবকের জন্য খারাপই লাগল।

রংধনু দেখতে হলে বৃষ্টিকেও হাসিমুখে বরণ করতে হয়। বৃষ্টি নিজেই তখন রূপান্তরিত হয় আনন্দের উৎসে।

রুমন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

আপনার অভিজ্ঞতার কথা পড়ে বেশ ভালো লাগলো...।

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

রোমঞ্চ শাখার জন্য দারুন একটা লেখা .... ....ঝরঝরে সুন্দর বর্ণনার জন্য পড়ে খুব ভাল লাগল। আর হ্যা... পানি আর পটেটো চিপস খেয়ে থাকা সেই ৩ জন যুবকের জন্য খারাপও লাগল।

(আমার একটা ভ্রমন কাহিনীর কিছুদুর ড্রাফট করে রেখেছি মাস দুয়েক হল.... এ্যাত চমৎকার হয়নি লেখা, বরঞ্চ রসিয়ে বর্ণনা করার চেষ্টা করেছি খুটিনাটিগুলো ... ... ওগুলো ছাড়তে ইচ্ছা করছে.. কিন্তু সময় আর কাজের চাপ ওটার বিপক্ষে আপাতত --- তবে নতুন করে আবার অনুপ্রাণিত হলাম)

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

শামসী লিখেছেন:

বেরসিকই বটে:(:(

শামসী সাহেব আপনি দেখছি বেশ রসালো সবকিছুর মাঝেই রস চান:P এত রস দিয়ে কি করবেন?
lollol:lol:

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

পড়ে ভাল লাগল। সময়টা কখন? ভ্রমনের বর্ণনা পড়ে ভাল লেগেছিল "ছবি দেশ, কবিতার দেশ" (নাম ঠিক আছে তো?) বইটি পড়ে।
আমিও তখনই জানলাম, ফ্লাইট মিস করলেও বিমানের টিকিট বাতিল হয় না cool

[img]http://twitstamp.com/thehungrycoder/standard.png[/img]
what to do?

১০

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

বাবু লিখেছেন:
শামসী লিখেছেন:

বেরসিকই বটে:(:(

শামসী সাহেব আপনি দেখছি বেশ রসালো সবকিছুর মাঝেই রস চান:P এত রস দিয়ে কি করবেন?
lollol:lol:

lollol:lol::lol::lol::lol:

১১

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

সুন্দর বর্ণনার জন্যভ্রমন কাহিনী পড়ে আমার খুব ভাল লাগল।

"We want Justice for Adnan Tasin"

১২

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

আপনার ভ্রমন কাহিনী পড়ে আমার আম্মুর কথা মনে হল।
আম্মুকে একা দেশের বাড়ি যেতে দেয় না আমার আব্বু। ৯৮ সালে আমার বড় আপুর কনসীভ করল। তারা থাকে কানাডায়। সে আবদার করল আম্মুকে যেতে হবে। আব্বুর সরকারী চাকরী আর একটা কাজের জন্য ছুটি পায়নি। কিন্তু আম্মুকে একা ছাড়তে কোন দ্বিধাই করেন নি ! তার বক্তব্য বিদেশে একা যাওয়া যায়, কিন্তু দেশে না !!!

“All our dreams can come true if we have the courage to pursue them.” - Walt Disney
http://www.amanpages.com/

১৩

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

এটা বেরসিক ভ্রমন কাহিনী নয়-
সত্যই এটি হওয়া উচিৎ রসিক ভ্রমন কাহিনী।
খুব ভালো হয়েছে।

"We want Justice for Adnan Tasin"

১৪

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

খুবই খেয়ালের বসে পোষ্টটি করেছিলাম। সবাই খুব রেসপন্স করছে! দারুন লাগছে:-j। আমি এমনিতেই নতুন বিষয়ে পোষ্ট করিনা (পারিনা--()। শুধু বেহিসেবি উক্তি করি।

একটি রাত্রি হলো এবং একটি সকাল হলো, প্রথম দিন।

লুবনা আফরিন।

১৫ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন manchumahara (০৯-০৪-২০০৭ ১৪:৪৯)

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

লুবনা আপু ইস্তাবুল নিয়ে একদিন লিখেন।যা যা দেখেছেন ,মজার কিংবা দুঃখের এবং যা আমাদের সাথে শেয়ার করা যায়।

১৬

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

তাছাড়া কিছু ঐদেশীয় রেসিপিও দিতে পারেন..... ...

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৭

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

শামীম লিখেছেন:

তাছাড়া কিছু ঐদেশীয় রেসিপিও দিতে পারেন..... ...

যা খাদ্য-যোগ্য। donttell

রংধনু দেখতে হলে বৃষ্টিকেও হাসিমুখে বরণ করতে হয়। বৃষ্টি নিজেই তখন রূপান্তরিত হয় আনন্দের উৎসে।

রুমন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৮

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

আপনাদের জ্ঞাতার্থে বলছি- তার্কির খাবার অতি ভালো, অতি মনোহর। thumbs_up

একটি রাত্রি হলো এবং একটি সকাল হলো, প্রথম দিন।

লুবনা আফরিন।

১৯

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

বেরসিক ভ্রমনের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি-

বিদেশ ভ্রমনে ব্যাগেজ হারালে কি করতে হবে।
*প্রথমেই ব্যাগেজ কাউন্টারে কেইস করতে হবে।
*এয়ার লাইন্সের নিকট ক্ষতিপুরণ দাবি করতে হবে। ক্ষতিপুরণ হিসাবে তারা নূন্যতম ৫০ ডলার দিতে বাধ্য যা দিয়ে অন্তত্য নিত্যপ্রয়োজনীয় কিছু ক্রয় করতে পারবেন।

একটি রাত্রি হলো এবং একটি সকাল হলো, প্রথম দিন।

লুবনা আফরিন।

২০

Re: একটি বেরসিক ভ্রমণ

দারুন ভ্রমন তো...

আমারও শুধু ভ্রমণ করতে ইচ্ছা করে। কিন্তু হয়ে উঠে না।

যাই হোক, খুব ভালো সুন্দর করে গুছিয়ে লিখেছেন। ধন্যবাদ।