টপিকঃ রানী ক্লিওপেট্রার মৃত্যু কিভাবে হয়?

রানী ক্লিওপেট্রা মাত্র ৩৯ বছর তিনি বেঁচে ছিলেন। এই স্বল্প সময়েই তিনি একের পর এক নাটকীয় ঘটনার সৃষ্টি করেন। সে যুগের কোনো পুরুষের পক্ষেও যে ধরনের কাজ করা ছিল প্রায় অসম্ভব, তিনি সেসব কাজ‌গুলি বিনাবা‌ধায় করেন।

https://qph.fs.quoracdn.net/main-qimg-0feee760da366dcbea5967a48922ef8a-pjlq

রাজনৈতিক কারণেই হোক আর বেকায়দায় পড়ে হোক, প্রথমে সিজার ও পরে তিনি অ্যান্টনিকে বিয়ে করেন। কিন্তু অক্টাভিয়াস অ্যান্টনিকে পরাজয় করার পর তিনি বেশ ভেঙ্গে পড়েন। তবে ক্লিওপেট্রা অক্টাভিয়াসকে সম্মোহিত করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পুরোপুরি ব্যর্থ হন।

ক্লিওপেট্রা বুঝতে পারলেন অক্টাভিয়াস বুঝি তাকে লাঞ্ছিত করবে। অপমানের আশঙ্কায় তিনি ভেঙে পড়েন।এই অপমানের চেয়ে মৃত্যুই তার কাছে শ্রেয় মনে হলো। তাই তদানীন্তন রাজকীয় প্রথা হিসেবে বিষধর এক বিশেষ ধরনের সাপের ছোবলে আত্মহত্যা করেন। ওই সময়ে মিসরে মনে করা হতো সাপের কামড়ে মারা যাওয়া মানুষ অমরত্ব লাভ করে। তাই কিওপেট্রা ওই পথই বেছে নিলেন। দিনটি ছিল খ্রিষ্টপূর্ব ৩০ সালের ৩০ আগস্ট।

https://qph.fs.quoracdn.net/main-qimg-a76a8a10bb4f31319f442ef315e23d56-pjlq
https://qph.fs.quoracdn.net/main-qimg-e0078861b955cd8c09d13175b63b2764-pjlq
https://qph.fs.quoracdn.net/main-qimg-913127ef6d365afd617b5eb22e357f28-pjlq

সিনেমাতে এভাবেই ক্লিওপেট্রা মৃত্য চিত্রায়িত হয়েছে। মৃত্যকালে সিনেমায় তার সংলাপগুলো হল:

Come, Take me to lsis! Again! Put your backs into it! Get these doors open!

Lie me down, One night more, then the sun will be reborn...And the waters of the Nile...The Nile will rise...and...fall...lt's giving! Come on!

Leave us

#সংগৃহীত

"We want Justice for Adnan Tasin"