টপিকঃ বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা কি ধ্বংসের পথে?

https://qph.fs.quoracdn.net/main-qimg-11b2b1744fc01850646a8f51c591cabc-mzj

বর্তমান যুবকেরা এমনিতেই আড্ডা প্রিয় ।

পড়ালিখা করতে চায় না একদমই।

ইন্টারনেট সহজলব্য হয়ে গেছে অনেক আগেই।

ডিস এন্টেনা এসে গেছে অজোপাড়া গায়ের দোকানে, বাড়িতে ।

স্কুল, কলেজ, ভার্সিটিও বন্ধ ।

এই যুবকেরা এখন করবেটা কি ?

তাদের সময় একদমই যেতে চায় না ।

স্কুল খোলা অবস্হাতেই, পড়ার চাপ থাকা অবস্হায়তেই বিভিন্ন নোংরা আড্ডা, মেয়েদের টিস করা, মোবাইলে গান, নাটক, মুভি নিয়ে মেতে থাকতো ।

আর এখন তো স্কুল-কলেজ বন্ধ ।

তাদের সাথে পায় কে !

তাদের তো এখন পুরাই বিন্দাস জীবন । বাসা-বাড়িতে টুকটাক কাজ করে ঘন্টার পর ঘন্টা ফ্রি ফায়ার আরোও বিভিন্ন গেমস এ মেতে থাকে ঘন্টার পর ঘন্টা ।

অনেকে আবার বন্ধের এই সময়টাতে লাইকি আর টিকটকে নোংরা ভিডিও বানাচ্ছে ।

তাদের এই বখে যাওয়া, চরিত্রহীন হয়ে যাওয়া এর দায়ভার কে নিবে ?

মোবাইল এর প্রতি অতিরিক্ত সময় ব্যয় তাদেরকে করে তুলতেছে উগ্র মেজাজি ।

যদিও অনেক অভিভাবক দেখছে এটা শুধু সময় ব্যয় ।

কিন্তু, এটা চরিত্রহীন হওয়ার জন্য, যুব সমাজ ধবংসের জন্য একটা একটা মোক্ষম সময় যাচ্ছে ।

স্কুল-কলেজ যদি এভাবে দিনের পর দিন বন্ধই থাকে শেষ পর্যন্ত এসব যুবকেরা চরিত্র সীমার নিচে নামতে বেশি সময় লাগবে না।

#সংগৃহীত

"We want Justice for Adnan Tasin"