সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন মরুভূমির জলদস্যু (০৯-০৫-২০২১ ১৫:২৬)

টপিকঃ ফুলের নাম : সাদা ফুরুস

সাদা ফুরুস

https://i.imgur.com/1Umkulgh.jpg

ফুরুসের বৈজ্ঞানিক নাম Lagerstroemia indica হওয়ায় একে অনেকে দেশি ফুরুস বলতে পছন্দ করে। যদিও এটি আমাদের দেশের গাছ নয়, আর দেশি বলতে বাংলাদেশী বুঝানো হয়নি। বরং এটি  আমাদের দক্ষিণ এশিয়া বা এর আশপাশের গাছ। সম্ভবতো এটির আদি নিবাস ছিলো চীন। আমাদের দেশে এসেছে মাত্র কয়েক দশক আগে।

https://i.imgur.com/DPi8gexh.jpg

ফুরুসের ইংরেজি নাম আছে কয়েকটি, যেমন Crape myrtle, Crepe myrtle, Crepeflower. আমাদের দেশে ভুল করে এদের চেরি ফুল নামে ডাকা হয়। মূলতো নার্সারি ব্যবসায়ীরা এটিকে চেরি বলে চালিয়ে দিয়েছে।
ফুরুস বহুবর্ষজীবি গুল্মজাতীয় শোভাবর্ধক উদ্ভিদ। বর্ণবৈচিত্র, দীর্ঘ প্রস্ফুটন প্রক্রিয়া ও প্রাচুর্যের কারণে অতি অল্প সময়ের মধ্যেই আমাদের দেশের বৃক্ষপ্রমিকদের কাছে ফুরুস বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

https://i.imgur.com/kwZjjUbh.jpg

ফুরুস গাছ প্রায় চার মিটার পর্যন্ত উঁচু হতে পারে। এটি ঝোপালো ডালপালাভরা পত্রমোচী গাছ। বর্ষাকালে ডালের আগায় ছোট ছোট ফুলের অনেক বড় বড় থোকা হয়। ফুরুস ফুল সাদা, গোলাপি, লাল, বেগুনি ইত্যাদি নানান রঙের হয়। ফুলগুলি ৩ সেন্টিমিটারের মত চওড়া হয়, পাপড়ি থাকে সাধারনত ৬টি এবং পাপড়িগুলি হয় বেশ কোঁকড়ানো। ফুরুস ফুল গন্ধহীন হলেও বর্ণবৈচিত্র আর পাপড়ির গঠনের কারণে সবার নজর কাড়ে।

https://i.imgur.com/VrYWUXvh.jpg


https://i.imgur.com/8bVqcfdh.jpg

বিদেশি হলেও আমাদের দেশে এরা বেশ মানানসই। কলম ও শিকড় থেকে চারা করা যায়। বসন্তে ছেঁটে দিলে নতুন ডালে প্রচুর ফুল হয়।

https://i.imgur.com/X7cBSjIh.jpg

এই গাছের কিছু ভেষজ গুনাগুন রয়েছে।
১। ফুরুস ফুল থেঁতো করে হালকা গরম পানির সাথে খেলে পেটের ব্যথায় উপকার পাওয়া যায়।
২।  ফুরুস গাছের বাকল পানিতে সিদ্ধ করে সকাল বিকেল সেবন করলে আমাশয় দ্রুত ভালো হয়।
৩। ফুরুস পাতা ও ফুল একসাথে বেটে হাতে-পায়ে লাগালে হাত ও পায়ের জ্বালা কমে যায়।
৪। কুষ্ঠরোগ দেখা দিলে ফুরুস এর মূল থেঁতো করে ক্ষতে লাগালে ক্ষত দ্রুত ভালো হয়।

https://i.imgur.com/swfIkDch.jpg

তথ্যসূত্র : অন্তর্জাল
ছবি : বন্ধু ইস্রাফীলের ছাদবাগানে মোবাইলের ক্যামেরায় তোলা।

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।