টপিকঃ বাংলার দূর্গ স্থাপনা সমগ্র

বাংলাদেশের এই ভূখন্ডে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিদেশী জাতী এসে দখল করেছে। তারা তাদের নিরাপত্তা এবং প্রভাব বিস্তারের জন্য নানান স্থাপনা তৈরি করেছে। তাদের স্থাপনাগুলির মধ্যে দূর্গ বা কেল্লা একটি বিশেষ স্থান দখল করে রখেছে। বাংলাদেশের সেইসব দূর্গের কিছু ধ্বংসাবশেষ দেখার সুযোগ আমার হয়েছে। তাদের কিছু ছবি রইলো এখানে।

০১। সোনাকান্দা দূর্গ

https://i.imgur.com/m1logQGh.jpg

“সোনাকান্দা দূর্গ” মোঘল আমলে তৈরি করা একটি জলদূর্গ। তৎকালীন সমৃদ্ধ শহর ঢাকা ও তার আশপাশের এলাকাকে নদী পথে মগ ও পর্তুগিজদের আক্রমণ প্রতিহত করতে ও জলদস্যুদের আক্রমণ থেকে রক্ষ্যা করার জন্য ১৬৫০ সালের দিকে তৎকালীন বাংলার সুবাদার মীর জুমলা এ সোনাকান্দা দূর্গ নির্মাণ করেন। ঐ একই সময়ের কাছাকাছি সময়ে এমন তিনটি জলদূর্গ নির্মাণ করা হয়। যার দুটি হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যার দুই পাড়ে। একটি শীতলক্ষ্যার পশ্চিম পাড়ে “হাজীগঞ্জ দূর্গ” । অন্যটি শীতলক্ষ্যার পূর্ব পাড়ে এই “সোনাকান্দা দূর্গ” । তৃতীয়টি মুন্সিগঞ্জের “ইদ্রাকপুর দূর্গ”।

ছবি তোলার স্থান :     বন্দর, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশ।
GPS coordinate :     23°36'25.0"N 90°30'43.5"E
ছবি তোলার তারিখ :     ২৪/১২/২০১৭ ইং

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন মরুভূমির জলদস্যু (০৮-১২-২০২০ ১৩:০৮)

Re: বাংলার দূর্গ স্থাপনা সমগ্র

০২। হাজীগঞ্জ দূর্গ

https://i.imgur.com/Ndj9p5ah.jpg

হাজীগঞ্জ দুর্গ আসলে একটি জলদুর্গ। তৎকালিন ঢাকাকে রক্ষা করতে নির্মাণ করা হয় “ট্রায়াঙ্গল ওয়াটার ফোর্ট” বা  “ত্রিভুজ জলদুর্গে” । ১৬৫০ সালের কিছু আগে-পরে নির্মিত হয়েছিল এই সব দুর্গ। এই তিনটি জলদুর্গের একটি  হচ্ছে হাজীগঞ্জ দুর্গ।  অপর দুটি হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের সোনাকান্দা জলদুর্গ ও মুন্সীগঞ্জের ইদ্রাকপুর জলদুর্গ। প্রচলিতো বিশ্বাস অনুযায়ী কিল্লারপুলে অবস্থিত হাজীগঞ্জ জলদুর্গটি শায়েস্তা খাঁ নিমান করেন। শীতলক্ষ্যার পশ্চিম পাড়ে অবস্থিত এই দূর্গটি থেকে সেই সময়ে নদীর দিকে নজর রাখা হতো বলেই এটিকে জলদুর্গ বলা হয়।

ছবি তোলার স্থান : হাজীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশ।
GPS coordinate : 23°38'00.5"N 90°30'46.1"E
ছবি তোলার তারিখ : ০৮/০৭/২০১১ ইং

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।