সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন tomalku (০৩-১০-২০২০ ১১:০৩)

টপিকঃ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মৌলিক রচনা

আমরা যখন ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর সম্পর্কে পাঠ্যবইয়ে পড়ি তখন দেখতে পাই, তিনি ছিলেন বাংলা গদ্যসাহিত্যের জনক, বাংলা সাহিত্যে আধুনিক যুগের সূচনাকারী। বিদ্যাসাগরের বিখ্যাত লেখাগুলো হচ্ছে, শকুন্তলা, বর্ণপরিচয়, বেতাল পঞ্চবিংশতি ইত্যাদি।

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের বিখ্যাত লেখার তালিকায় সবগুলোই ধার করা লেখা অর্থাৎ, অনুবাদ গ্রন্থ পাওয়া যায়। এর বাইরে বাংলা বর্ণমালা এবং সমাজ সংস্কার নিয়ে লেখা দুটি বই আলাদা করে চোখে পড়ে। অনেকের মনে হতে পারে তিনি মৌলিক কোন সাহিত্যই বোধহয় রচনা করেন নি। তাদের জন্য এই তালিকা-
১. সংস্কৃত ভাষা ও সংস্কৃত সাহিত্য বিষয়ক প্রস্তাব (১৮৫৩)
২. বিধবা বিবাহ চলিত হওয়া উচিত কিনা এতদ্বিষয়ক প্রস্তাব (১৮৫৫)
৩. বহুবিবাহ রহিত হওয়া উচিত কিনা এতদ্বিষয়ক বিচার (প্রথম খন্ড ১৮৭১, ২য় খন্ড ১৮৭৩)
৪. অতি অল্প হইল (১৮৭৩)
৫. আবার অতি অল্প হইল (১৮৭৩)
৬. ব্রজবিলাস (১৮৮৪)
৭. রত্নপরীক্ষা (১৮৮৬)
৮. প্রভাবতী সম্ভাষণ (সম্ববত ১৮৬৩)
৯. জীবন-চরিত (১৮৯১ ;
১০.মরণোত্তর প্রকাশিত)শব্দমঞ্জরী (১৮৬৪) ইত্যাদি।

তথ্যসূত্রঃ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের সাহিত্য- লেখক ডট মি