টপিকঃ সাফল্যর এক অনু্প্রেরণার নাম জ্যাক মা

যারা স্বপ্ন দেখতে জানে তারা স্বপ্ন বুনতেও চিনে। আমরা স্বপ্ন দেখি কিন্তু বুনতে গিয়েই খেতে হয় হুঁচটের উপর হুঁচট। প্রথমবারের হুঁচটে বিধস্ত হয়ে যায় আমাদের মন। যখন এই হুঁচট বাববার হতে থাকে তখন সম্পূর্ণ মানষিকতায় বিগরে যায়। আর কিছু করার মন মানষিকতা বাকি থাকে না। কিন্তু এমন কিছু মানুষ আছে যারা বার বার নয় বহু বার শুধু অকৃতকার্যই হয়েছে। সফলতার মুখও তারা কখনই দেখেনি। দেখেনি সফলতার উল্লাসিত মুহূর্ত। শুধু বুনেছে স্বপ্ন গড়ার অলৌকিক কিছু উত্তেজনা। আজ আমি আপনাকে এমন একজনের সাথে পরিচিত করাতে যাচ্ছি যার কাছে বিফলতা মাথা নুয়িয়ে দিয়েছে। তার নাম "জ্যাক মা"।

শিক্ষণীয় উক্তিঃ

১ ।যখন আমার বয়স ছিলো ১২ বছর । তখন আমি একবার পুকুরে স্নান করতে গিয়েছিলাম এবং আমার প্রায় মরার মত অবস্থা হয়ে গিয়েছিলাম কারণ, পুকুরের পানি এতই গভীর যে আমি যতটুকু গভীর চিন্তা করি তার থেকেও গভীর ।।

২।তুমি যদি চেষ্টাই না কর তবে তোমার জন্য সুযোগ আছে কিনা বুঝবে কি করে ?

৩।হাল ছেড়ে দিও না । আজকে কঠিন দিন যাবে, আগামী কালের দিনটা খারাপ যাবে । কিন্তু আগামী কালের পরের দিনটা তুমার জন্য উজ্জ্বল থাকবে।

৪।শান্তির বাণী সবসময় কঠিন ও জটিল হয় ।

৫।আমি মনে করি তরুণরা তার আগের প্রজন্ম থেকে উন্নত হয় । আপনার এই কথাটি ভালো না লাগেও পারে । আমার বাবা আমাকে বলেছিলো, "জ্যাক তুমি আমার মত হতে পারবে না ।" কিন্তু আমি তার থেকে উত্তম । আমার বাবা তার বাবার থেকে উত্তম ছিলো এবং আমার ছেলে মেয়েরা আমার থেকে উত্তম হবে ।

৬।জীবনের প্রথম দিকে আমি শুধু মাত্র বেঁচে থাকার চেষ্টা করতাম । প্রথম ৩ বছরে আমাদের অ্যায় ছিলো শূণ্য । আমার এখনো মনে আছে, যতবার আমি রেস্টুরেন্টে গিয়ে বিল প্রদান করতে চেয়েছি , রেস্টুরেন্ট ম্যানেজার আমাকে বলতেন বিল পে করা হয়ে গেছে । এবং বলতেন, " জনাব মা, আমি আলীবাবা প্রতিষ্ঠানের একজন ক্রেতা । সেখান থেকে আমি অনেক টাকা আয় করেছি । আমি জানি এটা আপনি জানেননা তাই আমি বিলটা নিজেই পে করেদিয়েছি । "

বিস্তারিত: https://bit.ly/2UpDBN0