টপিকঃ স্বাধীনতা অর্পণ- গীতি নাট্য

দয়া করে নিচের লিঙ্ক কিল্ক করুন

[video (unkown provider)]

`আয় বাবা আয়,
দুধ, কলা, আম ভাত খাই|
তুই কত আদরের ধন,
কত সাধনার পণ,
তোর লাগি এ বাঁচার খন|`
দরজায় খট খট|


`কে এমন সময়, কোন পট!
একি এতো শেখের ব্যাটা,ভাসু,
সিকদার,মনি,ফনি,নজরুল,তাজুল মনসুর,
পাড়ার আর কতক যুবক
যারা সারাদিন করে ঘুর ঘুর|`

`মাগো, মগের খবর তো সব জানো,
তবে তোমার পোলারে চাই,মানো|`
`না বাবা, না,
অনেক কস্টের ধন,
বাঁচতে চাই এড়ে লয়ে,
এড়ে ছাড়ো, লও অন্য জন|`
`আজ যদি মগেরে না ঠেকাও,
অত্যাচারে কখন কারে মুখ দেখাও!



  লবে কেড়ে সব,
বন্ধ হবে রব,
শোননাই ঐ পাড়ার ঐ,
পাগল পিতা খোঁজে
কৈশোরী মেয়ে গেল কৈ|


  দু-দিন পর মোরা
পাই তার উলংগ শব
নদীর কিনারে আর বালা জোরা|
কি কব লজ্জার কথা
মোরা এতো জোয়ান
পারিনি ঠেকাতে সম্ভ্রম যথা।

  মগ লয়েছ যত
মাঠের ফসল,
কৃষকের ঘামের ফল|
আজ লয়েছে বৃদ্ধের
কিশোরী কন্যা, কাল
লবে মোর বোন,
আমার আছে কি বল।

  নেবে কেড়ে,যদি না রুখ তারে,
নেবে কেড়ে, সুযোগ যদি পায় বারে বারে|

  তাই এমন তরুন চাই
জন্মভূমিকে বাঁচাতে দ্বিধা নাই|`
“ রক্ত যখন দিয়াছি, তখন রক্ত
আরও দিব, তবু এদেশের মানুষকে
মুক্ত করে ছারবো, ইনশেয়াল্লাহ”।( ১৯৭১ ইং এর
৭ই মার্চ, শেখ মুজিবর রহমানে কাল জয়ী
বক্তৃতার অংশ)।

`মাগো আমি যাবো,
মগের সকল শক্তি ধ্বংস করে দেখাবো,
যাবো আমি, শেখের ব্যাটার সাথি হবো|`


  তরুন,যুবক,আধা যুবক হাঁকে,
মগদের রুখে ঝাঁকে ঝাঁকে|
গুলিতে লুটায় কত নবীন,


  জীবিত এখন তাদের একদল, প্রবীন
স্মৃতিতে আনে সে সকল দিন,


  ভাবে সেই মা র মনে সেদিন,
কি সুখের নিবাস ছিলো আসিন,
স্বীয় সুখ-আনন্দ ত্যাগি,
আদরের পুত্ররে দিয়ে বিসর্জন
শত কোটি মায়েরে
একালে দিলো `স্বাধীনতা অর্পণ`!