টপিকঃ আষাঢ়ে গল্প

আষাঢ়ে গল্প
গিনি
বিনয়ের প্রেম কোনো মনুষ্য নারীর সহিত নয় বরঞ্চ পৃথিবীর বাহিরের কোথাকার মানবীর সহিত হয়।বিনয় তাহার দেহের রং, আকার, অবয়ব, কিম্বা ভাষা সম্পর্কে কোনো ধারনা বন্ধুদের নিকট দিতে ব্যর্থ হইলেও তাহার অতি নরম স্পর্শ ও সুগন্ধি ভরা চলাচল বর্ণনা করিতে পাড়ে।
অনেকেই ইহা মিথ্যা বলিয়া জ্ঞান করে। তাহাদের কাছে প্রশ্ন স্বর্গ ত দেখেন নাই তবু সেখানে যাওয়ার জন্য জীবন দেন। শুধু দূর তারার মানব মানবীর ধারনা আনিতে পারেন না।
বিনয় আর মানবী নির্জন এলাকায় গভীর অভিসারে প্রায় প্রতি দিনই যায়। একদিন গ্রাম ময় খবর হয় যে, বিনয় কে কোথাও পাওয়া যাইতেছে না। শুধু তাহার পড়নের জামা-জুতা জমিদার বাগানে পাওয়া গিয়াছে। তাও আবার পুরাতন অশত গাছের উপর শাখে। পুলিশ ব্যক্তিও উহা নামানোর জন্য এক অতি সাহসী জনকে আনলো। যখন সে গাছের উপড়ে উঠিয়া কাপড়ে হাত দিল যেন এক খানা বিদ্যুৎ চমক দিল এবং সে কয়েক ডাল নীচে পরিয়া গেল। নীচে সকলে হৈ হৈ করিয়া উঠিল আর এক অদ্ভুত সু মিষ্ট গনদ্ধে এলাকা ভরিয়া গেল। অনেকেই দ্রুত সে স্থান ত্যাগ করিল।