টপিকঃ তাদের আত্মাও কি কাঁদবে?

“পৃথিবীর সকল মৃত্যুই কি সমান?মানে সকল মৃত্যুতেই কি সমান কষ্ট হয়?”

এই প্রশ্নটা চিরন্তন থেকে যাবে আমাদের মাঝে।কেউ কখনো এর উত্তর বলে যেতে পারবে না।আমরাও তাই কখনোই জানতে পারবো না এই প্রশ্নটার উত্তর।এটা প্রকৃতির একটা খেলা।এমন খেলা প্রকৃতি আমাদের সাথে কেন খেলে কে জানে! কিন্তু তবুও আমার মনে হয় সব মৃত্যুর কষ্টটা সমান না।একেকটা মৃত্যুর একেক রকম কষ্ট হয়।

“স্পার্ক অফ লাইফ” বইতে পড়েছিলাম, নাৎসি বাহিনী জার্মান ইহুদীদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে তাদের বন্দী শিবিরে।সেই বন্দীদের কিছু মানুষকে তারা একেবারে মেরেও ফেলছে না।সেই বন্দীদের প্রতিদিন একটা একটা করে হাত পায়ের নখ উপড়ে ফেলা হচ্ছে।আজ ডান হাতের বুড়ো আঙুলের নখ তোলা হয়েছে তো আগামীকাল ঠিক একই সময়ে তর্জনীরটা তোলা হবে।প্রতিদিন সেই সময়টা আসলেই বন্দী লোকটা ভয়ে কুঁকড়ে যেত।সে তখন ঈশ্বরের কাছে শুধু একটা প্রার্থনা করতো, “হে ঈশ্বর, দোহাই তোমার! আমায় তুমি নিয়ে নাও!"

সেই বন্দীদের হত্যা করা হয়েছিল ধীরে ধীরে।দিনের পর দিন তাদের ওপর এক ভয়ঙ্কর খেলা চালিয়ে।এখন আপনি যদি কোন সুস্থ স্বাভাবিক যুক্তি দিয়ে বিচার করেন তাহলে এটা অবশ্যই বলবেন যে এই হত্যার বিচারে খুনিদেরও একইভাবে হত্যা করা উচিত।সেই খুনিদের ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দিলাম আর হয়ে গেল এমনটা হবে না।

কিন্তু এসব আসলে আমাদের দ্বারা সম্ভব না।এই পৃথিবীর মনুষ্য নির্মিত আদালত কখনো সত্যিকারের বিচার করতে পারে না।এই মনুষ্য নির্মিত আইন কখনো সত্যিকারের শাস্তি দিতে পারে না।হয় বেশি দিয়ে ফেলে না হয় কম।

কিন্তু কিছু কিছু অপরাধের কোন শাস্তিই হয় না, হবে না।এসব ভয়ঙ্কর অপরাধের শাস্তি দিলে আমরা হয়তো ঠিকভাবে দিতে পারবো না বলেই প্রকৃতি দিতে দেয় না। প্রকৃতি এর প্রতিশোধ নিজে নিতে চায়।এক ভয়ঙ্কর প্রতিশোধ! হুমায়ূন আহমেদ বলেছিলেন, “র্যাবের রিমান্ডে থেকে পালিয়ে বাঁচা যায় কিন্তু প্রকৃতির রিমান্ডে থেকে পালানো যায় না।”

আমার কেন যেন মনে হচ্ছে সাগর-রুনির হত্যার কোন বিচার হবে না।খুনি তার শাস্তি কোন দিন পাবে না এই পৃথিবীতে।
মনে হচ্ছে আমার বয়সী তনু মেয়েটার ভয়ঙ্কর নির্যাতনের আর হত্যার কোনদিন বিচার হবে না।ধর্ষক আর খুনিরা তাদের শাস্তি পাবে না।
এই হত্যাগুলো হয়তো খুব বেশিই অন্যায় ছিল, খুব বেশিই ভয়ঙ্কর ছিল।তাই এদের শাস্তি হয়তো প্রকৃতি নিজে হাতে দিতে চায়।ভয়ঙ্কর এক শাস্তি!
কিন্তু যারা তনুর বাবা-মা কিংবা মেঘের মনের শান্তির জন্য যে বিচার সেটাও কেড়ে নিয়েছে তাদের কিন্তু এর চাইতেও ভয়ঙ্কর শাস্তি হবে।মনে রেখো, তনু তোমাদের কোনদিন ক্ষমা করবে না।

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: তাদের আত্মাও কি কাঁদবে?

খুবই সুন্দর করে বর্ননা করেছেন