সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সাইয়িদ রফিকুল হক (০৮-০৬-২০১৬ ১৬:৫৪)

টপিকঃ পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?
সাইয়িদ রফিকুল হক

আমাদের মহানবী হজরত মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, রমজান-মাসে শয়তানকে বন্দী করে রাখা হয়। এর প্রতি আমাদের বিশ্বাস ও আস্থা দুইই রয়েছে। প্রিয়-নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বিশ্বাস করাটা ঈমানের অংশ। আর তাঁর বাণীও চিরঅমর। কিন্তু বাংলাদেশের একশ্রেণীর মুসলমান-নামধারী ভণ্ডদের আস্ফালন, দৌরাত্ম্য ও শয়তানী দেখে মনে হয়: বাংলাদেশের শয়তান বুঝি এখনও বন্দী হয় নাই!

সারাবিশ্বে খ্রিস্টানসম্প্রদায়ের বড়দিন-উপলক্ষে সকল পণ্যদ্রব্যের মূল্য কমে যায়। শুনেছি, বড়দিনের ২৫ দিন আগে থেকে তারা এই বিশেষ মূল্যছাড়ের ব্যবস্থা করে রাখে। আরও শুনেছি, কেউ-কেউ এর আগে থেকেও নাকি বড়দিনপালন-উপলক্ষে নিত্যব্যবহার্য সকল জিনিসপত্রের দাম কমিয়ে দেয়। আর তা ৩০% থেকে ৭০% পর্যন্ত। যাতে, খ্রিস্টানসম্প্রদায়ের মানুষজন শান্তিসুখে ও স্বাচ্ছন্দ্যে বড়দিনপালন করতে পারে। এই হচ্ছে তাদের আর মানুষের প্রকৃত-ধর্মবোধ।

আর আমরা বাংলাদেশে দেখছি এর সম্পূর্ণ উল্টা দিকটি। এখানে, মুসলমানদের পবিত্র রমজান-মাস উপলক্ষে—মানে, রমজান শুরুর কয়েকদিন আগে থেকেই জিনিসপত্রের দাম বাড়ানো শুরু হয়ে যায়। অবশ্য ভিতরে-ভিতরে সবকিছুর দামই কমবেশি বাড়তে থাকে রমজানের প্রায় মাসখানেক আগে থেকে। বাংলার মুসলমানরা খুব ধর্মভীরু। তারা রোজার মাসকে খুবই সম্মান করে থাকে। সাধারণ ধার্মিকদের নিয়ে কারও কোনো সন্দেহ নাই। এরা আসলেই ধর্মপ্রাণ-মুসলমান।

কিন্তু এই দেশে মুসলমান-নামধারী একটি শ্রেণী তাদের সারাবছরের শয়তানী জমিয়ে রাখে পবিত্র রমজান-মাসে তা প্রয়োগ করবে বলে। আর এরা এমনই নরাধম ও পাষণ্ড যে, দুনিয়ার বুকে এদের মতো পশুদের সঙ্গে আর-কারও তুলনা চলে না। এরা বন্যবরাহের চেয়েও নিকৃষ্ট। এরা চিরমূর্খ বলেই পবিত্র রমজান-মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে এমন শয়তানী করছে।   মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআনে এদের মতো জ্ঞানহীনপশুদের সম্পর্কেই বলেছেন—‘বাল হুমা আদল!’ এরা চতুষ্পদজন্তুর চেয়েও নিকৃষ্ট। এরা সমাজে-রাষ্ট্রে মুসলমানের বেশধারণ করে মুসলমানের পরিচয় দিয়ে কাজকর্ম করে থাকে ইসলামবিরোধী। এরা রমজানের পবিত্রতা বিনষ্ট করে তাদের পাঁচ টাকার জিনিস রমজান-মাসে পঁচিশ টাকা—কোনো-কোনো-ক্ষেত্রে পঞ্চাশ টাকায় পর্যন্ত তা বিক্রি করতে চায়! এই অমানুষের দল পবিত্র রমজানের ভাবমূর্তি ও গাম্ভীর্য বিনষ্ট করার জন্য রমজানের শুরু থেকে শেষপর্যন্ত সমস্ত জিনিসের দাম বাড়িয়ে জনজীবনে চরম-দুর্ভোগের সৃষ্টি করে।

একটি প্রত্যক্ষ-ঘটনা:
রমজানের দুই-তিন দিন আগে জুম্মার নামাজ পড়ে মসজিদের সামনে কাঁচামালের ভ্যান থেকে শশা কিনলাম ২০ টাকা কেজি, পটল ২০ টাকা কেজি, লেবু ১৫ টাকা হালি, আর বেগুন প্রতি কেজি ২৫-৩০ টাকা। আর এখন এই পশুর দল রমজানের পবিত্রতা বিনষ্ট করে রাতারাতি প্রতি কেজি শশার দাম ঠিক করেছে ৪০-৫০ টাকা—আর কোনো-কোনো-ক্ষেত্রে বা স্থানভেদে তা ৫০-৬০ টাকা কেজি, পটল ৩০-৪০ টাকা কেজি, লেবুর হালি ২০-২৫ টাকা, আর বেগুনের দাম একলাফে তার স্বাভাবিক-মূল্য ২৫-৩০ থেকে ৮০-১২০ টাকা! এই কি মুসলমানদের ঈমানের পরিচয়? আর এটা না মুসলমানের দেশ? আর এই কি মুসলমানদের কাজ? কে দিবে এই প্রশ্নগুলোর উত্তর?

এই দেশে হাতেগোনা শতকরা দুই-একটা দোকানদার অন্যধর্মের লোক হতে পারে। বাকীরা তো সব মুসলমান! গোরুখাওয়া মুসলমান! আর এই সুযোগে কসাই-ব্যাটা অজু-গোসল ছাড়াই মাথায় একটা সাদা-টুপি পরে গোরুর মাংসের দাম বানিয়েছে ৪২০-৪৫০, আর খাসির মাংসের দাম একলাফে ৫৬০-৬০০টাকা পর্যন্ত! আর এরাই তো মুসলমান! তাই, দেখতে পাচ্ছি, বাংলাদেশে রমজান মাস এলে একশ্রেণীর মুসলমান-নামধারী ভণ্ডদের দাপটে সাধারণ মানুষ সংসার চালাতে ভয়ানকভাবে হিমশিম খায়। যে যেখানে পারছে, ধর্মপ্রাণ-মুসলমানদের ঠকিয়ে, তাদের গলাকেটে নিজের আখের গুছিয়ে নিচ্ছে। এই পবিত্র রমজান-মাসে এদের শয়তানী যেন আরও বেড়ে যায়। আর তাই, পবিত্র রমজান-মাসে দুনিয়ার সব শয়তান যেন বাংলাদেশে এসে ভিড় করে। তাই, বলছিলাম, এই পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তানগুলোকে কি বন্দী করা হয়েছে? কেউ জানলে দয়া করে তা জানাবেন।


সাইয়িদ রফিকুল হক
মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ।
০৭/০৬/২০১৬
পহেলা রমজান

আমি মানুষ। আমি বাঙালি। আর আমি সত্যপথের সৈনিক। আমি বাংলাদেশরাষ্ট্রকে ভালোবাসি। আর আমি সকল মানুষের মঙ্গল চাই। আমি সবসময় সাহিত্য ভালোবাসি। আর দেশ, মাটি ও মানুষের জন্য আমার লিখতে ভালো লাগে। তাই, মানুষ আর মানবতার পক্ষে বলি শক্ত-কঠিন কথা। আসুন, আমরা দেশ, জাতি আর মানুষের পক্ষে দাঁড়াই।

সাইয়িদ রফিকুল হক

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

বাংলাদেশের পাবলিকদের জন্য শয়তানের বিশেষ সার্ভিস লাগে না  lol2 lol2

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সাইয়িদ রফিকুল হক (১৩-০৬-২০১৬ ১৩:১৫)

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

ঠিকই বলেছেন ভাই। এদের জন্যই আজ মানুষের শান্তি নাই।
আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ।

আমি মানুষ। আমি বাঙালি। আর আমি সত্যপথের সৈনিক। আমি বাংলাদেশরাষ্ট্রকে ভালোবাসি। আর আমি সকল মানুষের মঙ্গল চাই। আমি সবসময় সাহিত্য ভালোবাসি। আর দেশ, মাটি ও মানুষের জন্য আমার লিখতে ভালো লাগে। তাই, মানুষ আর মানবতার পক্ষে বলি শক্ত-কঠিন কথা। আসুন, আমরা দেশ, জাতি আর মানুষের পক্ষে দাঁড়াই।

সাইয়িদ রফিকুল হক

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

রমজান-মাসে শয়তানকে বন্দী করে রাখা হয়। এর প্রতি আমাদের বিশ্বাস ও আস্থা দুইই রয়েছে।

কি সব কথা বলছেন এগুলো? কোথায় নবী বলেছে যে রমজান মাসে শয়তানকে বন্দী করে রাখা হয়? শয়তানকে তো কালকেই দেখলাম দিব্যি গায়ে ফু লাগিয়ে ঘুরতে।

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সাইয়িদ রফিকুল হক (১৩-০৬-২০১৬ ১৩:১৪)

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

নবীজী সা. বলেছেন। আর আপনি যে শয়তানটাকে দেখেছেন সেটি এখনও বন্দী হয়নি।
আপনাকে ধন্যবাদ।

আমি মানুষ। আমি বাঙালি। আর আমি সত্যপথের সৈনিক। আমি বাংলাদেশরাষ্ট্রকে ভালোবাসি। আর আমি সকল মানুষের মঙ্গল চাই। আমি সবসময় সাহিত্য ভালোবাসি। আর দেশ, মাটি ও মানুষের জন্য আমার লিখতে ভালো লাগে। তাই, মানুষ আর মানবতার পক্ষে বলি শক্ত-কঠিন কথা। আসুন, আমরা দেশ, জাতি আর মানুষের পক্ষে দাঁড়াই।

সাইয়িদ রফিকুল হক

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

বাংলাদেশের শয়তানও বন্দী হইছে ভাই, কিন্তু গত ১১ মাস যে শয়তানী ঢুকাইছিলো সেটাতো আর বন্দ হয় নাই  lol2 lol2 lol2 lol2

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

বন্দী হলেই ভালো। কিন্তু অনেকের হাবভাব দেখে মনে হয়: শয়তান আমাদের আশেপাশে প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করছে।
আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আর সঙ্গে রইলো একগুচ্ছ শুভেচ্ছা।

আমি মানুষ। আমি বাঙালি। আর আমি সত্যপথের সৈনিক। আমি বাংলাদেশরাষ্ট্রকে ভালোবাসি। আর আমি সকল মানুষের মঙ্গল চাই। আমি সবসময় সাহিত্য ভালোবাসি। আর দেশ, মাটি ও মানুষের জন্য আমার লিখতে ভালো লাগে। তাই, মানুষ আর মানবতার পক্ষে বলি শক্ত-কঠিন কথা। আসুন, আমরা দেশ, জাতি আর মানুষের পক্ষে দাঁড়াই।

সাইয়িদ রফিকুল হক

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

sikkhadotnet লিখেছেন:

বাংলাদেশের শয়তানও বন্দী হইছে ভাই, কিন্তু গত ১১ মাস যে শয়তানী ঢুকাইছিলো সেটাতো আর বন্দ হয় নাই  lol2 lol2 lol2 lol2

শয়তানরা অক্ষয় ১২ মাসেই, তাদের পতন নেই ধ্বংশ নেই

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

ভালোই বলেছেন ভাই। সত্য বলার জন্য আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ। আর সঙ্গে রইলো শুভেচ্ছা।

আমি মানুষ। আমি বাঙালি। আর আমি সত্যপথের সৈনিক। আমি বাংলাদেশরাষ্ট্রকে ভালোবাসি। আর আমি সকল মানুষের মঙ্গল চাই। আমি সবসময় সাহিত্য ভালোবাসি। আর দেশ, মাটি ও মানুষের জন্য আমার লিখতে ভালো লাগে। তাই, মানুষ আর মানবতার পক্ষে বলি শক্ত-কঠিন কথা। আসুন, আমরা দেশ, জাতি আর মানুষের পক্ষে দাঁড়াই।

সাইয়িদ রফিকুল হক

১০

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

MAD লিখেছেন:
sikkhadotnet লিখেছেন:

বাংলাদেশের শয়তানও বন্দী হইছে ভাই, কিন্তু গত ১১ মাস যে শয়তানী ঢুকাইছিলো সেটাতো আর বন্দ হয় নাই  lol2 lol2 lol2 lol2

শয়তানরা অক্ষয় ১২ মাসেই, তাদের পতন নেই ধ্বংশ নেই

মানুষরূপী শয়তানরা ১২ মাস থাকে  big_smile

১১

Re: পবিত্র রমজান-মাসে বাংলাদেশের শয়তান কি বন্দী হয়েছে?

আসলে তা-ই। সুন্দর বলেছেন। আর এই শয়তানগুলোই বাঙালি-জাতিকে জ্বালিয়ে খাচ্ছে।
আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ। আর সঙ্গে রইলো শুভেচ্ছা। mail dream clap

আমি মানুষ। আমি বাঙালি। আর আমি সত্যপথের সৈনিক। আমি বাংলাদেশরাষ্ট্রকে ভালোবাসি। আর আমি সকল মানুষের মঙ্গল চাই। আমি সবসময় সাহিত্য ভালোবাসি। আর দেশ, মাটি ও মানুষের জন্য আমার লিখতে ভালো লাগে। তাই, মানুষ আর মানবতার পক্ষে বলি শক্ত-কঠিন কথা। আসুন, আমরা দেশ, জাতি আর মানুষের পক্ষে দাঁড়াই।

সাইয়িদ রফিকুল হক