সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন রুপকথা (১৭-০৫-২০১৬ ১১:৩৩)

টপিকঃ শিক্ষক জাতির ???

http://dundeebarta.com/online/images/stories/May/16-m-01.jpg

শিক্ষা যদি জাতির মেরুদন্ড হয় তবে, শিক্ষক জাতির কি হবের কথা? সেই শিক্ষককেই !
একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষককে কান ধরে উঠ-বস করিয়ে ‘শাস্তি’ দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমান। সেই অমানুষিক কাজের ভিডিও আবার ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। সেলিম ওসমানের এহেন কর্মকান্ডে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ তোলপাড় শুরু হয়েছে।
সে যদি কোন অপরাধ করে থাকে তবে তার বিরুদ্ধে মামলা করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গহন করা যেত?

টাইমস নারায়ণগঞ্জ
ধর্ম নিয়ে মন্তব্য করার অভিযোগে বন্দরের একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষককে কান ধরে উঠ-বস করিয়ে ‘শাস্তি’ দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমান। সেই অমানুষিক কাজের ভিডিও আবার ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। সেলিম ওসমানের এহেন কর্মকান্ডে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ তোলপাড় শুরু হয়েছে।
নিজে একজন শিক্ষক হয়ে অন্য শিক্ষকের এমন অমানুষিক নির্যাতন কোনোভাবে মেনে নিতে পারছেন না প্রবাসী শিক্ষক ও আহসানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজির সহকারী অধ্যাপক আমিনুল হক ইসলাম। তিনি ফেসবুক স্ট্যাটাসে অত্যন্ত ক্ষিপ্ত মনে লিখেন, একজন শিক্ষককে কানে উঠ-বস করানোর চেয়ে গুলি করে মেরে ফেলাই মনে হয় ভালো ছিল।
তিনি স্ট্যাটাসে লিখেছেন, রাতে একটুও ঘুম হয়নি। বিছানায় এপাশ ওপাশ করেছি। ঠিক ঘুমাতে যাওয়ার আগে একটা ভিডিও দেখার দুর্ভাগ্য আমার হয়েছে। ওই ভিডিও'তে দেখলাম একজন সাংসদ এক স্কুল শিক্ষককে তার ছাত্র-ছাত্রী সহ অনেক মানুষের সামনে কান ধরে উঠ-বস করাচ্ছেন। শিক্ষক শ্যামল কান্তিকে এভাবে কান ধরে উঠ-বস করতে দেখে আমার বার বার মনে হয়েছে এর চাইতে গুলি করে তাকে মেরে ফেললেই মনে হয় ভালো হতো।
তবে এর চাইতেও অবাক হয়ে খেয়াল করলাম যারা এই দৃশ্য দেখছিল, তারা মনে হচ্ছিল খুব আনন্দ পাচ্ছে! একজন শিক্ষক কানে ধরে উঠ-বস করছে, সেই দৃশ্য দেখে যেই সমাজের মানুষ আনন্দ পায়, সেই সমাজ আর যাই হোক কোন সভ্য সমাজ হতে পারে না। তিনি আরও লিখেন, শিক্ষক অন্যায় করেছে কি করেনি, সেই আলোচনায় যাওয়ারই তো আসলে প্রয়োজন নেই। কারণ কেউ যদি অন্যায় করেও থাকে, তার জন্য তো দেশে আইন-আদালত আছে। কানে ধরে উঠ-বস করানোর অধিকার ওই সাংসদকে কে দিল?
অবশ্য, মালাউন শিক্ষক বলে কথা! কানে ধরে উঠ-বস'ই তো শুধু করিয়েছে। পুরো পরিবার সহ মেরে ভারতে পাঠিয়ে দেয়নি যে এই তো বেশ! আমার বার বার শিক্ষক শ্যামল কান্তির কথা মনে হচ্ছে। এই শিক্ষক কি তার বাকীটা জীবন স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরা করতে পারবেন ? এর চাইতে গুলি করে মেরে ফেলাই মনে হয় ভালো ছিল। তবে ওই সাংসদের বিচার আমি চাই না; আমি চাই এই কাজের পুরষ্কার হিসেবে ওই সাংসদকে মন্ত্রী বানানো হোক। পুরো পৃথিবী দেখুক কতটা অসভ্য, বর্বর জাতিতে পরিণত হয়েছি আমরা।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার বন্দরে আল্লাহ ও নবীজীকে নিয়ে কটুক্তি করায় বন্দরের একটি বিদ্যালয়ের প্রধাণ শিক্ষককে প্রায় ৬ ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রেখেছে বিক্ষুদ্ধ জনতা। অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে এলাকাবাসী দফায় দফায় মিছিল ও বিক্ষোভ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। কল্যান্দীস্থ পিয়ার সাত্তার লতিফ উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব একেএম সেলিম ওসমান ভন্ড শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে জনসম্মুখে ২০ বার উঠবস করিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

সংবাদ টি এখানে থেকে নেয়া হয়েছে

Re: শিক্ষক জাতির ???

এটা যদি বিরোধী জোটের কোন নেতায় করতো তবে, শুরু হতো পথ সভা, মানববন্ধন, মিছিল
আর বিভিন্ন স্থানে মানহানির মামলা
টিভির টক শো গরম হয়ে যেত মায়া কান্নায়