টপিকঃ কোন নীল এজেন্ডা বাস্তবায়নে একজন সাংবাদিকের হাতে দুরভিসন্ধির কলম থাকতে

কোন নীল এজেন্ডা বাস্তবায়নে একজন সাংবাদিকের হাতে দুরভিসন্ধির কলম থাকতে পারে না। বরদাশত করা যায় না। ব্যাপকভাবে পরিচিত ও প্রশংসিত সভ্যতার এই বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে নির্বিঘ্নে ম্লান করা কোন ব্যক্তির ব্রত হওয়া উচিত। লাখো কোটি নিপীড়িত মানুষের আর্তনাদ, হাহাকার ও ন্যায়বিচার পাওয়ার আকাংখা যে সব ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের উপর তাদের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের তথ্য যাচাই বাছাই না করেই মিথ্যা, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিমূলক মানহানিকর সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশ করে (যা ইতিমধ্যে সম্পাদক জনাব মাহ্ফুজ আনাম ‘News Hour Extra- Talk Show’- তে  স্বীকারও করেছেন)সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন ও নানাভাবে হয়রানির শিকারে আবদ্ধ করানো আর এদেশের, নিরীহ এজাতির রক্তে পুষ্ট মুষ্ঠিমেয় শ্বাপদদের জন্য কলম ধরা লজ্জার, পরাজয়ের ও অমার্জনীয় অপরাধের শামিল। যে তথ্য অপরাধের পক্ষে, যে তথ্য একটি স্বচ্ছ উন্মুক্ত আইনী বিচার প্রক্রিয়াকে বিভ্রান্তির বেড়াজালে নিক্ষেপ করতে চায়, যে তথ্য আসল অপরাধীদের বাঁচাতে সচেষ্ট, যে তথ্য ন্যায়বিচারের পথকে প্রসারিত করে না, যে তথ্য সহিংসতা, হত্যা, নির্যাতন, বর্বরতা ও পাশবিকতার সহযোগী, যে তথ্য দেশ তথা গো্টা আন্তর্জাতিক মহলকে নাড়া দেয়, সেই তথ্যের উৎস বা ভিত্তিকে তো সঙ্কুচিত করতেই হবে। তার জন্য বিলাপ করা, তার সুরে সুর মিলানো আর যাই হোক কোন ব্যক্তি, দল, প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার মানাবে না। বরং ‘ডেইলি স্টার’-এর সম্পাদক জনাব মাহ্ফুজ আনামের বিরুদ্ধে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতসহ দেশের বিভিন্ন আদালতে যে মানহানি,  রাষ্ট্রদ্রোহ এবং  অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়েছে তাতে আইনগত ব্যবস্থা নিয়ে সাংবাদিকতা পেশার তথা সকল নাগরিকের মিথ্যা, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিমূলক মানহানিকর সংবাদ পরিবেশন করার শাস্তি সম্পর্কে দৃষ্টান্ত সৃস্টি করা জরুরি নয় কি?

Re: কোন নীল এজেন্ডা বাস্তবায়নে একজন সাংবাদিকের হাতে দুরভিসন্ধির কলম থাকতে

আপনার এজেন্ডা টা কি সেটা একটু খুলে বললে ভালো হোতো। আর যে সোর্স থেকে তথ্য নেওয়া হয়েছে তাদের কি কোনো জবাবদিহিতা থাকবেনা ? অবশ্য আমরা সবাই এখন উটপাখি ভালোবাসি।

Re: কোন নীল এজেন্ডা বাস্তবায়নে একজন সাংবাদিকের হাতে দুরভিসন্ধির কলম থাকতে

mahiya mahi লিখেছেন:

কোন নীল এজেন্ডা বাস্তবায়নে একজন সাংবাদিকের হাতে দুরভিসন্ধির কলম থাকতে পারে না। বরদাশত করা যায় না। ব্যাপকভাবে পরিচিত ও প্রশংসিত সভ্যতার এই বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে নির্বিঘ্নে ম্লান করা কোন ব্যক্তির ব্রত হওয়া উচিত। লাখো কোটি নিপীড়িত মানুষের আর্তনাদ, হাহাকার ও ন্যায়বিচার পাওয়ার আকাংখা যে সব ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের উপর তাদের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের তথ্য যাচাই বাছাই না করেই মিথ্যা, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিমূলক মানহানিকর সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশ করে (যা ইতিমধ্যে সম্পাদক জনাব মাহ্ফুজ আনাম ‘News Hour Extra- Talk Show’- তে  স্বীকারও করেছেন)সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন ও নানাভাবে হয়রানির শিকারে আবদ্ধ করানো আর এদেশের, নিরীহ এজাতির রক্তে পুষ্ট মুষ্ঠিমেয় শ্বাপদদের জন্য কলম ধরা লজ্জার, পরাজয়ের ও অমার্জনীয় অপরাধের শামিল। যে তথ্য অপরাধের পক্ষে, যে তথ্য একটি স্বচ্ছ উন্মুক্ত আইনী বিচার প্রক্রিয়াকে বিভ্রান্তির বেড়াজালে নিক্ষেপ করতে চায়, যে তথ্য আসল অপরাধীদের বাঁচাতে সচেষ্ট, যে তথ্য ন্যায়বিচারের পথকে প্রসারিত করে না, যে তথ্য সহিংসতা, হত্যা, নির্যাতন, বর্বরতা ও পাশবিকতার সহযোগী, যে তথ্য দেশ তথা গো্টা আন্তর্জাতিক মহলকে নাড়া দেয়, সেই তথ্যের উৎস বা ভিত্তিকে তো সঙ্কুচিত করতেই হবে। তার জন্য বিলাপ করা, তার সুরে সুর মিলানো আর যাই হোক কোন ব্যক্তি, দল, প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার মানাবে না। বরং ‘ডেইলি স্টার’-এর সম্পাদক জনাব মাহ্ফুজ আনামের বিরুদ্ধে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতসহ দেশের বিভিন্ন আদালতে যে মানহানি,  রাষ্ট্রদ্রোহ এবং  অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়েছে তাতে আইনগত ব্যবস্থা নিয়ে সাংবাদিকতা পেশার তথা সকল নাগরিকের মিথ্যা, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিমূলক মানহানিকর সংবাদ পরিবেশন করার শাস্তি সম্পর্কে দৃষ্টান্ত সৃস্টি করা জরুরি নয় কি?


লেখিকার সাথে পূণ সহমত পোষণ করছি। প্রথম আলো এবং ডেইলী স্টার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বাংলাদেশ রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন এজেন্ডা বাস্তবায়নে বিদেশী কিছু গোপন সংস্থা, এনজিওর পক্ষে কাজ করে আসছে। সবোচ্চ শাস্তি চাই মতিউর রহমান ও মাহফুজ আনামের।

আল্লাহ্ তা’আলার বাণীঃ আর যারা নামায প্রতিষ্ঠা করে, যাকাত দান করে এবং যারা কৃত প্রতিজ্ঞা সম্পাদনকারী এবং অভাবে, রোগে-শোকে ও যুদ্ধের সময় ধৈর্য্য ধারণকারী তারাই হল সত্যাশ্রয়ী, আর তারাই পরহেযগার।”(২:১৭৭)

Re: কোন নীল এজেন্ডা বাস্তবায়নে একজন সাংবাদিকের হাতে দুরভিসন্ধির কলম থাকতে

সবাই এজেন্ডা নিয়ে ব্যাস্ত ।  কিছু সংগঠীত ব্লগার ও আছেন যারা বিভিন্ন এজেন্ডা ও অপপ্রচার চালায় বিভিন্ন ব্লগে ।

বাংলা ভাষায় প্রথম ও সর্ববৃহৎ আর্টিকেল ডিরেক্টরি ওয়েবসাইট
BanglaArticle.com