সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Shoumik (২৮-০৮-২০১৫ ১৭:০০)

টপিকঃ ২১০০ খ্রিস্টাব্দের মাইন্ড রিডার

হাসির বাক্সের পোস্টগুলো সংগৃহীতই হয়।কিন্তু আমার মন চাইলো নিজে থেকে কিছু লিখতে।তাই অনুর্বর প্রথম অভিজ্ঞতার লেখাটিই পেশ করছি।এটি ভবিষ্যৎ চিন্তার আদলে একাধারে এক অলীক গল্প।

২১০০ খ্রিস্টাব্দ চলছে।দেখতে দেখতে বিজ্ঞানের উৎকর্ষ সাধিত হয়ে এগিয়ে চলেছে বহুদূর। একবিংশ শতাব্দীতে মানুষের মনের কথা প্রকাশের
প্রধান মাধ্যম ছিল মোবাইল ফোন।তখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল মোবাইল ফেসবুক,মেসেনজার,  হোয়াটসঅ্যাপের মত অ্যাপগুলো। সাথে মোবাইলের এফএনএফে কম রেটে প্রেমালাপ জমতো চুটিয়ে, ফ্রেন্ডসিপ হতো নতুন নতুন।কিন্তু মানুষের মন বুঝা ছিল দু:সাধ্য কাজ।তাই মানুষ এতদিন অনেক ভুল করেছে, ভেঙে গেছে অনেক সম্পর্ক।কেননা, কার মনে উদ্দেশ্য কী, কে কি জন্য কার সাথে ভাব জমায় এগুলো বোঝা ছিল বড় দায়।বিচ্ছেদের হারও বেড়ে গেছে আশঙ্কাজনক হারে।
কিন্তু বর্তমানে আবিষ্কার করা হয়েছে সেই বহুল আকাঙ্খিত অ্যাপ "মাইন্ড রিডার"।একদিন তা শুধুই কল্পনা করলেও আজ তা পুরোই বাস্তব।শুধু মেসেজ করার সময় মাইন্ড রিডার অ্যাপটা এক্টিভেট করে নিতে হয়। অ্যাপটি বাংলা, ইংরেজিসহ বুঝতে পারে ১০০ টি ভাষা।মুখে যা কেউ বলছে মনের সাথে তার গরমিল থাকলেই মনে মনে আসলে কি চায় বা ভাবে তা ভেসে ওঠে স্ক্রিনে।

বিচ্ছেদ, বিবাদ কমানোর উদ্দেশ্যে মাইন্ড রিডার আবিষ্কৃত হলেও দেখা দিল নতুন বিপত্তি।
তারই কিছু নমুনা ২১০০ খ্রিস্টাব্দের নিচের চ্যাটগুলোতে-

১)বখাটে ছেলের প্রেমালাপ:
ছেলে : জানু, আমি তোমার মতই একজনকে খুঁজছিলাম। ইউ আর সো কিউট।
মেয়ে: ওহ, থ্যাঙ্ক ইয়ু জানু।
মেয়ের ফোনে এ পর্যায়ে
(মাইন্ড রিডার নোটিফিকেশন: Mind reader says,the boy is telling in his mind, "you are so hot")
মেয়ে: ছি! তুমি আমাকে নিয়ে এইসব নোংরা চিন্তা করো!তোমার সাথে আর কোন কথা নাই।
___________the end___________

২)স্বামী স্ত্রীর চ্যাট:
স্ত্রী: কোথায় তুমি? আজকে না অফিসে ঈদ বোনাস দেয়ার কথা না? কত পেলে?
স্বামী: এইতো ১০০০০ টাকার মত।
স্ত্রী: তাহলে এবার আমি ৩০০০ টাকা দিয়ে একটা ড্রেস কিনবো।
স্বামী: আচ্ছা যা চাইবে তাই হবে।
স্ত্রীর মোবাইলে নোটিফিকেশন :
(Mind reader says, "He feels sad,He thought he would go to a picnic with his female friends with that money")
স্ত্রী: কি! তুমি এইসব ভাবো!!! আসো আজকে খালি বাসায়
__________the end__________

৩)আইডিয়াল কলেজের মেয়ে নটরডেমের ছেলের সাথে প্রথম চ্যাট করছে আর সাথে তার আগের বয়ফ্রেন্ডের সাথেও চ্যাট করছে:
নটরডেমের ছেলে: হাই!
মেয়ে: হ্যালো! কেমন আছো?
নটরডেমের ছেলে: এইতো ভালো, কখন কলেজ শেষ হলো?
নটরডেমের ছেলের মোবাইলে নোটিফিকেশন:
( Mind reader says, "After seeing your profile picture, she's feeling in mind if she would fall in love with u")
ছেলে  রক্স। চান্স নিবে এখন! কিন্তু সে মেয়েকে কিছু বললোনা।
বয়ফ্রেন্ডের মেসেজ: হাই জানু,কি করো??
বয়ফ্রেন্ডের মোবাইলে নোটিফিকেশন
(Mind reader says, "she's thinking about another boy, she's thinking how cute & brilliant that boy is!")
বয়ফ্রেন্ড: ছি! এই ছিলো তোমার মনে!
মেয়ের ফোনে নোটিফিকেশন-
(the previous boy you chatted, he's thinking, he will now take a flirting chance with u)
যা বাবা, দুই কূলই গেল!!
__________the end__________

এভাবে চুন থেকে নুন খসলেই ভেস্তে যাচ্ছে সব বন্ধন,ছিন্ন হচ্ছে সম্পর্ক।

বিজ্ঞানের এ অতি উৎকর্ষে ২১০০ খ্রিস্টাব্দের কবি রবিঠাকুরের সে অমর কবিতাকে স্মরণ করে লিখছেন,
"দাও ফিরিয়ে হে মানবমন,
লও হে মাইন্ড রিডার,
লহ ফিরিয়ে মনের আড়ালের নোটিফিকেশন,
ফিরিয়ে দাও হোক সে একটু প্রতারক মন,
দাও ফিরিয়ে হে মানবমন,
লও হে মাইন্ড রিডার।"

Re: ২১০০ খ্রিস্টাব্দের মাইন্ড রিডার

৩ নাম্বারটা বেশ ভালো লাগলো thumbs_up

ইট-কাঠ পাথরের মুখোশের আড়ালে,
বাধা ছিল মন কিছু স্বার্থের মায়াজালে...

Re: ২১০০ খ্রিস্টাব্দের মাইন্ড রিডার

বিয়াপক মজা পাইলাম  lol

সব কিছু ত্যাগ করে একদিকে অগ্রসর হচ্ছি

লেখাটি CC by-nd 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ২১০০ খ্রিস্টাব্দের মাইন্ড রিডার

ধন্যবাদ আপনাদেরকে।  smile

Re: ২১০০ খ্রিস্টাব্দের মাইন্ড রিডার

মজা ও নতুন।  thumbs_up

"সংকোচেরও বিহ্বলতা নিজেরই অপমান। সংকটেরও কল্পনাতে হয়ও না ম্রিয়মাণ।
মুক্ত কর ভয়। আপন মাঝে শক্তি ধর, নিজেরে কর জয়॥"

Re: ২১০০ খ্রিস্টাব্দের মাইন্ড রিডার

মজা দেয়ার চেষ্টার জন্য সাধুবাদ

hard to hate but tough to love