টপিকঃ সামিউলকে ‘খ্রিস্টান’ দাবি করে বিদেশিদের অপপ্রচার

সংবাদটি শেয়ার করছি তাদের মতামতরে যারা শুধু মাত্র এক গষ্ঠির*** কথায় কথায় দোষ ধরেন

সিলেটে নির্মম নির্যাতনে নিহত শিশু শেখ সামিউল আলম রাজনকে নিয়ে ষড়যন্ত্রমূলক প্রচার শুরু হয়েছে। তাকে নির্যাতনের ভিডিওচিত্র দেখিয়ে বলা হচ্ছে ‘খ্রিস্টান শিশু’কে পিটিয়ে ও নির্যাতন করে হত্যা করেছে ‘মুসলিমরা’। রাজন হত্যাকে ইসলামবিরোধী প্রচারের হাতিয়ার করেছে খ্রিস্টানদের একটি ওয়েবসাইট। এই প্রচারে নেতৃত্ব দিচ্ছেন উগপন্থী খ্রিস্টান ওয়ালিদ শুয়েবাত।

গত বৃহস্পতিবার ওয়ালিদের অপপ্রচারের মাধ্যম ‘শুয়েবাত ডটকম’-এ রাজনকে ‘খ্রিস্টান শিশু’ আখ্যা দিয়ে একটি লেখা প্রকাশ করা হয়েছে। এটি লিখেছেন খ্রিস্টান উগ্রপন্থী সংগঠন ‘রেসকিউ খ্রিস্টান’ এর জনসংযোগ পরিচালক থিওডোর শুয়েবাত।

নিহত সামিউলকে খ্রিস্টান বলে দাবি করা হয়েছে এশীয় ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের সংবাদ সংস্থা ইউসিএ নিউজ-এ প্রকাশিত ঢাকার স্টিফেন উত্তম নামে এক খ্রিস্টানের প্রতিবেদনের বরাতে। ‘শুয়েবাত ডটকম’-এর ওই লেখায় রাজন ছাড়াও সম্প্রতি নিহত শিশু মুহাম্মদ রাকিব ও রবিউলের প্রসঙ্গও উল্লেখ করা হয়েছে।

ওই লেখায় দাবি করা হয়, ‘সম্প্রতি বাংলাদেশে একটি ভিডিও ফাঁস হয়েছে যাতে দেখা গেছে মুসলমানরা একজন ‘খ্রিস্টান শিশু’কে নির্যাতন করে মেরে ফেলছে। ‘ভিডিওতে দেখা গেছে, খ্রিস্টান ধর্মবিরোধী মুসলমানরা শিশুটিকে দড়ি দিয়ে এমনভাবে বেঁধে রেখেছে যেন সে পালাতে না পারে। তারা শিশুটিকে পৈশাচিকভাবে পেটাচ্ছে আর অট্টহাসি হাসছে।’ এরপর ওই লেখায় মন্তব্য করা হয়, ‘বাংলাদেশে খ্রিস্টান শিশুদেরসহ শিশু হত্যার হার উদ্বেগজনকহারে বেড়ে চলেছে।’

স্টিফেন উত্তমের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ২০ আগস্ট জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘নারী ও শিশুদের ওপর সহিংসতা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে’ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে ‘বাংলাদেশ খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশন’, ‘ন্যায় ও শান্তি কমিশন’ এবং ‘কারিতাস বাংলাদেশ’ নামে তিনটি সংগঠন।

জানা গেছে, শিশু নির্যাতনের ব্যাপারে প্রতিবেদনটির কোথাও বা মানববন্ধনে উপস্থিত কেউই খ্রিস্টান শিশু নির্যাতন বা হত্যার কথা দাবি করেনি। কিন্তু শুয়েবাত ডটকমের প্রতিবেদনে উদ্দেশ্যমূলকভাবে রাজনকে ‘খ্রিস্টান শিশু’ দাবি করা হয়েছে।

রাজনকে খ্রিস্টান দাবির খবরে বিস্ময় ও ক্ষোভ প্রকাশ করে তার পিতা শেখ আজিজুর রহমান বলেন, আমরা ঐতিহ্যগতভাবে মুসলিম। আমার ছেলেকে আমি জন্ম দিয়েছি। আমাদের ধর্ম ইসলাম। কোনোভাবেই আমরা খ্রিস্টান নই। যারা রাজনকে খ্রিস্টান বলে দাবি করছেন, তারা ঘৃণ্য কাজ করছেন মন্তব্য করে তিনি এর নিন্দা জানান।

একইভাবে এখবরে বিস্ময় প্রকাশ করে সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট রুহুল আনাম মিন্টু বলেন, সামিউল মুসলিম শিশু। যারা তাকে ‘খ্রিস্টান’ বলে দাবি করছে তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।

রাজনকে নিয়ে অপপ্রচার প্রসঙ্গে সিলেট জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন বলেন, বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হবে। অপপ্রচারের ঘটনাটি সত্যি হলে সরকারিভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, নিহত সামিউল আলম রাজনের বাড়ি সিলেট নগরের কুমারগাঁও বাসস্ট্যান্ডের পাশে সদর উপজেলার কান্দিগাঁও ইউনিয়নের বাদেআালী গ্রামে। রাজনের বাবা শেখ আজিজুর রহমান পেশায় একজন মাইক্রোবাস চালক। তার দুই ছেলের মধ্যে রাজন বড়। অনন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করা সামিউল আলম রাজন সবজি বিক্রি করত।
- See more at: http://www.sheershanewsbd.com/2015/08/2 … UUkgu.dpuf