সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সামিউল (২০-০৪-২০০৮ ১৬:৪৮)

টপিকঃ সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

গতকাল সিডনিতে আমরা পহেলা বৈশাখ পালন করলাম। সে এক অভূতপূর্ব অভিজ্ঞতা। সেই অভিজ্ঞতা আপনাদের সাথে শেয়ার করার জন্য লিখছি। আমি অবশ্য ভাল লিখি না। তাই ব্লগ শুরু করে আবার শেষ করে দিয়েছি। কথা না বাড়িয়ে বিস্তারিত আলোচনায় যাই। তবে লেখা বড় হলে অনেকে নাও পড়তে পারে।

মেলা হয় সিডনির অলেম্পিক স্টেডিয়ামে। আমি মেলায় যাই দুপুর ৩ টায়। আমার এক বন্ধু সিডির স্টল দিয়েছে। সেই স্টলে ছিলাম এবং মেলা উপভোগ করলাম। এটা বাঙ্গালীর সবচেয়ে বড় মেলা এই অস্ট্রেলিয়ায়। আমি মেলায় গিয়ে এত মানুষ দেখেছি যে আমার দেশের কথা মনে পড়ে সাথে সাথে মন খারাপ হয়ে গেছে। মেলায় অনেক স্টল ছিল। তবে বেশীর ভাগই খাবারের। আমি কিছু ছবি দিয়েছি পোস্টের শেষে দেখলে বুঝতে পারবেন। আর ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অব্শ্য স্টলে থাকার কারণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখার সৌভাগ্য হয়নি। যাই হোক মেলায় অনেককে দেখলাম বৈশাখীর শাড়ি পড়ে আসতে তবে তা সংখ্যায় বেশী নয়। তারপরেও অনেকে শাড়ী পরে এসেছেন দেখে ভাল লাগল। ছেলেরা বেশীর ভাগই গেঞ্জি আর জিনস পড়ে গেছে দেখে আমার angryangry। আমি অবশ্য পাঞ্জাবি পড়ে গেছিলাম। যদিও এখানে এখন শীত শুরু হয়ে গেছে। তাই পাঞ্জাবীর নিচে মোটা গেঞ্জি পড়ে গেছিলাম। শত হলেও আমাদের নববর্ষ। পাঞ্জাবী না পড়লে কি হয়? সবার মধ্যে ছিল নববর্ষ নববর্ষ ভাব। সবাই খুব আনন্দ করেছে দেখে ভাল লেগেছে। তবে মেলায় বাংলাদেশের মত এখানেও দাম অতিরিক্ত বেশী। সবাই নাকি এই মেরার জন্য প্রতিবছর অপেক্ষায় থাকে। সিডনিতে যে এত বাঙ্গালি আছে তা মেলায় না গেলে বুঝতে পারতাম না। তারপরেও লোকজন অনেক কম এসেছে। এর একটা কারণ ছিল আবহাওয়া। সারাদিন আকাশে মেঘ ছিল এবং বিকেলে বৃষ্টি ছিল। তাই অনেকে যায়নি। আমার পরিচিত অনেকেই যায়নি। তবে মেলায় সবচেয়ে খারাপ লেগেছে কিছু মেয়েকে দেখে। তারা বাঙ্গালী দেখে কেউ বুঝবে না। তাদের দেখে আমার মেজাজ আবার angryangry:-@। তাদের ভাব আমরা প্রতিদিন এরকম ড্রেস পড়ি একদিন কেন শাড়ী পড়তে যাব বা সেলোয়ার কামিজ পড়ব? এছাড়া মেলার সব কিছু ছিল বেশ উপভোগ্য।

মেলার কিছু ছবি পাবেন এখানে

আর কিছু ছবি আমার মোবাইল দিয়ে তোলা, যা নিচে।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image005.jpg
আমি যাওয়ার পরে তোলা।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image006.jpg
বিকেলে মানুষের ভীড়

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image008.jpg
বৃষ্টির সময় মাঠ এরকম ফাঁকা হয়ে যায়।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image011.jpg
খাবারের স্টল। তবে ইফতার কেন লেখা বুঝলাম না।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image012.jpg
বনফুলের মিষ্টির দোকান। নাম বনফুল হলেও মিষ্টি জঘন্য।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image017.jpg
দর্শক বসে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখছে।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image020.jpg
গান গাচ্ছে স্থানীয় শিল্পী।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image023.jpg
গানের তালে নাচছে দর্শক।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image024.jpg
স্টেডিয়ামের একাংশ।

http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image033.jpg
মেলা শেষে আতশ বাজি।
http://forum.projanmo.com/uploads/2008/04/605_Image040.jpg

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

প্রবাসের পহেলা বৈশাখের বর্ণনা শুনে এবং ছবি দেখে ভাল লাগলো খুব smile
ছবিগুলো কিন্তু মোবাইল ক্যামেরা হিসাবে ভালই এসেছে! thumbs_up

অ আ ই ঈ উ ঊ ঋ এ ঐ ও ঔ
ক খ গ ঘ ঙ চ ছ জ ঝ ঞ ট ঠ ড ঢ ণ ত থ দ ধ ন প ফ ব ভ ম য র ল শ ষ স হ ক্ষ ড় ঢ় য়
ৎ ং ঃ ঁ

আলোকিত'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

প্রবাস জীবনেও বৈশাখ পালন করছে দেখে ভালো লাগলো।(y)

রংধনু দেখতে হলে বৃষ্টিকেও হাসিমুখে বরণ করতে হয়। বৃষ্টি নিজেই তখন রূপান্তরিত হয় আনন্দের উৎসে।

রুমন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

আহারে... আর আমি কিনা দেশে থেকেও ধরা খাইলাম crying

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

সিডনিতেওতো কম বাঙালি না।

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

ভালোই তো মজা করলেন অবশ্য আমিও কম মজা করি নাই

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন উদাসীন (২১-০৪-২০০৮ ০১:১৪)

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

বাহ! সিডনিতে তো দারুন মেলা হয়। স্টেডিয়ামও দেখি একটা যোগাড় করেছে! যে কোনো মিলনমেলা দেখতে ভালোলাগে। সামিউল কে ধন্যবাদ সিডনিতে বৈশাখ বরণের ছবিগুলো শেয়ার করার জন্য। ছেলেটা খুব একটা খারাপ নেই দেখা যাচ্ছে thinking kidding

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

সবাইকে ধন্যবাদ আমর পোস্টটা দেখার জন্য। আসলে মেরায় না গেলে আমি বুঝতাম না সিডনিতে কত বাঙ্গালী থাকে। তারপরেও বাঙ্গালী এসেছে সব মিলিয়ে ৪০-৫০% হবে। বৃষ্টির কারনে এবং কাজের কারনে অনেকে আসে নাই। আর বেশী মজা করতে পারি নাই। কারণ স্টলে ছিলাম সারাক্ষণ। মনে করেছিলাম স্টলে সুন্দরিদের সাথে দেখা হবে। কিন্তু হায় একি দেখলাম crycry;(। স্টলে সব আন্টিরা আর ভাবীরা এসেছে সিডি কিনতে cryingcrying--(--(--(--(। সুন্দরীদের দেখাই পেরাম না।

উদাসীন লিখেছেন:

স্টেডিয়ামও দেখি একটা যোগাড় করেছে! যে কোনো মিলনমেলা দেখতে ভালোলাগে। সামিউল কে ধন্যবাদ সিডনিতে বৈশাখ বরণের ছবিগুলো শেয়ার করার জন্য। ছেলেটা খুব একটা খারাপ নেই দেখা যাচ্ছে thinking kidding

এখানে প্রতি বছর সিডনি অলেম্পিক স্টেডিয়ামে মেলা হয়। স্টেডিয়ামটা অনেক বড়। আমরা মেলা করেছি শুধু এ্যাথলেটিক মাঠে। আর ভাই মেলায় গিয়ে দেশের কথা বেশী মনে হয়েছে আর বেশী খারাপ লেগেছে।

Re: সিডনিতে পহেলা বৈশাখ

আপনার পোস্টের জন্য  ও চমৎকার কিছু ছবি শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

যা আপনার দুর্বলতা, সেটাই আপনার সবচে শক্তিশালী দিক হতে পারে...