সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সাইদুল ইসলাম (১১-১১-২০১৩ ২৩:৩৭)

টপিকঃ সাবমেরিন

কেমন আছেন সবাই?আশা করি ভাল আছেন  smile অনেকদিন পর ফোরামে এসে ঘুরতে ঘুরতে একটা টপিক করতে ইচ্ছে হল তাই করে ফেললাম,আশা করি ভাল লাগবে আজকের বিষয় সবার পরিচিত...
http://i.imgur.com/xfrFvUz.png   

হ্যা সাবমেরিন-পৃথিবীর এই বিশাল জলরাশি মানুষকে শুরু থেকেই টেনেছে কিন্তু পানির কাছে মানুষ ছিলো একদম অসহায়। কিন্তু একসময়  পানিও হার মানল সৃষ্টির সেরা জীব মানুষের কাছে ! আর তখন মানুষ তৈরি করলো নৌকা। সময়ের পরিক্রমায় এক সময় তৈরি হতে লাগলো বিশাল বিশাল আর আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন সব জাহাজ।সম্ভবত তখন মানুষের মনে চিন্তা এলো, শুধু সাগরের উপরে চললেই হবে, সাগরের নিচেও চলতে হবে। আর সেই চিন্তা থেকেই একসময় মানুষ আবিষ্কার করলো সাবমেরিন বা ডুবোজাহাজ।সাবমেরিন আসলে এক ধরনের জাহাজ।সাবমেরিন সর্বপ্রথম তৈরি করা হয় ১৭৭৫ সালে। তবে সেটা ছিল খুবই নিম্নমানের। প্রকৃতপক্ষে সাবমেরিন তৈরি করা হয় ঊনবিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে। আর সাবমেরিন জিনিসটা অদ্ভুত মনে হলেও শুরুতে এর কাজকর্ম কিন্তু মোটেও অদ্ভুত ছিলো না। কেননা, সাবমেরিন তৈরি করাই হয়েছিলো যুদ্ধ করার জন্য। পানির নিচে ডুবে থেকে সাবমেরিন বোমা মেরে উড়িয়ে দিতো শত্রুপক্ষের জাহাজ। তবে আজকাল অবশ্য সাবমেরিন সব ভালো কাজেই ব্যবহার করা হচ্ছে। সমুদ্রে ডুবে যাওয়া কোনো জাহাজ বা অন্য কিছু খোঁজা, সমুদ্রের নিচের কোনো পাইপ বা ক্যাবল মেরামত করা, পানির নিচে কোনো গবেষণার কাজে, এমনকি পানির নিচে ঘুরে বেড়াতেও আজকাল সাবমেরিন ব্যবহার করা হচ্ছে।তাহলে চলুন যুদ্ধবাজ সাবমেরিন ছাড়া কিছু ভিন্ন ধরনের সাবমেরিনের সাথে পরিচিত হই-


হাইপার-সাব
http://i.imgur.com/4v6ixxo.jpg
http://i.imgur.com/tR29O36.jpg

সুন্দর এ সাবমেরিনটির ডিজাইন করেছেন যিনি, তার নাম মেরিওন এইচএসপিডি। লম্বায় এটি ৩১ ফুট। এতে রয়েছে বায়ু আর পানি নিরোধক কেবিন। এটি সর্বোচ্চ ৪০ নট গতিতে চলতে পারে আর পানির গভীরে যেতে পারে সর্বোচ্চ ২৫০ ফিট পর্যন্ত।



হলদে সাবমেরিন
http://i.imgur.com/1qDs8Bv.jpg

এই সাবমেরিনটিকে বলা হয় ব্যক্তিগত সাবমেরিন। যারা শখের বশে সাগরতলে ঘুরতে যান, তাদের কথা মাথা রেখে এই হলদে রঙের সাবমেরিনটি বানানো হয়েছে কিনা, তাই এটির এমন নাম দেয়া হয়েছে। যদিও হাইপার-সাব থেকে এর দাম কিছুটা কম, তবে তা-ও নেহায়েত কম নয়। ২০ লক্ষ্য মার্কিন ডলার।এটি আকারে একদমই ছোট। অন্যান্য সাবমেরিনের মত এর ভেতরে ঘোরাঘুরি করা তো দূরের কথা, একটু হাত-পা ছড়িয়ে আরাম করে শোয়ার ব্যবস্থাও নেই। দুটি মাত্র সিটে দুজনকে বসে সমুদ্র ভ্রমণে যেতে হয়। পুরো ভ্রমণের সময়ই দুজনকে হাত-পা গুটিয়েই বসে থাকতে হয়।  হলদে সাবমেরিন পানির প্রায় ১০০০ ফুট নিচে পর্যন্ত যেতে পারে! অর্থাৎ এটিতে চড়ে আপনি অনেক অ-নে-ক গভীর সমুদ্রের সৌন্দর্যও উপভোগ করতে পারবেন।


ইজিও কমপ্যাক্ট সেমি-সাবমেরিন
http://i.imgur.com/aRgZQ1Z.jpg
http://i.imgur.com/BeFLiUx.jpg

এটিকে পুরোপুরি সাবমেরিনও বলা যায় না। আসলে এটি সেমি-সাবমেরিন। অর্থাৎ সাবমেরিনের বৈশিষ্ট্যের সবগুলো না থাকলেও অনেকগুলোই এর আছে।ছবিতে সাবমেরিনের উপরের দিকের যে অংশটুকু দেখতে পাচ্ছন সেটি ভেলার মত পানির উপর ভেসে থাকে। আর এর শরীরের বাকি অংশটুকু অর্থাৎ গোলাকার অংশটুকু পানির নীচে ডুবে থাকে।



সীব্রিচার-এক্স
http://i.imgur.com/p0omxF7.jpg

এটি দেখতে পুরোপুরি সত্যিকার হাঙরের মতোই।  তবে এরা হাঙরের মতো সত্যি সত্যি মানুষ খায় না। বরং এই হাঙরের পেটের ভেতর বসে থেকে আপনি সাগরের অসীম সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন। হাঙররূপী এই সাবমেরিনের রয়েছে শক্তিশালী একটি ইঞ্জিন যা দিয়ে এটি পানির উপরে প্রায় ৫০ মাইল বেগে আর পানির নিচে প্রায় ২৪ মাইল বেগে চলতে পারে।


ভিএএস লাক্সারি সাবমার্সিবল
http://i.imgur.com/UGYy6qd.png
সাগরতলে ভ্রমণের জন্য “নটিলাস ভিএএস লাক্সারি সাবমার্সিবল” নামের এ সাবমেরিনটির চেয়ে ভালো আর কিছু হতেই পারে না। দেখতে কিছুটা সিলিন্ডার আকৃতির এ সাবমেরিনটির ভেতরে রয়েছে আরাম আয়েশের দারুণ সব সুব্যবস্থা। ভেতরে বসে প্রায় সবি করতে পারবেন আপনি।

ছবিগুলি রিসাইজ করে দিতে পারেনি বলে দুঃখিত,টপিকের তথ্যসুত্র ও ছবি ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত...
আপনার সাবমেরিন ভ্রমন সুন্দর হোক;ভাল থাকুন  smile smile smile

۞ بِسْمِ اللهِ الْرَّحْمَنِ الْرَّحِيمِ •۞
۞ قُلْ هُوَ اللَّهُ أَحَدٌ ۞ اللَّهُ الصَّمَدُ ۞ لَمْ * • ۞
۞ يَلِدْ وَلَمْ يُولَدْ ۞ وَلَمْ يَكُن لَّهُ كُفُوًا أَحَدٌ * • ۞

Re: সাবমেরিন

Das Boot দেখার পর থেকে সাবমেরিন নিয়ে আগ্রহী হয়েছি।

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সাবমেরিন

আমি কোনোদিন সাবমেরিনে চড়তে পারবো না। পানি খুব ভয় পাই আমি। যদিও ভালো সাঁতার জানি, কিন্তু ডুব সাঁতার দিতে গেলেই আতঙ্কে হাত-পা অসাড় হয়ে পড়ে। সাবমেরিনে সাগরে ডুব দেয়া তো অনেক সাহসের ব্যাপার।

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

Re: সাবমেরিন

গৌতম লিখেছেন:

আমি কোনোদিন সাবমেরিনে চড়তে পারবো না। পানি খুব ভয় পাই আমি। যদিও ভালো সাঁতার জানি, কিন্তু ডুব সাঁতার দিতে গেলেই আতঙ্কে হাত-পা অসাড় হয়ে পড়ে। সাবমেরিনে সাগরে ডুব দেয়া তো অনেক সাহসের ব্যাপার।


আপনি তো তবুও সাঁতার জানেনে আমি সাঁতারও জানিনা।  dontsee dontsee

Re: সাবমেরিন

চমৎকার।
আমার

সাইদুল ইসলাম লিখেছেন:

সীব্রিচার-এক্স
http://i.imgur.com/p0omxF7.jpg

এইটা পছন্দ হয়েছে।  yahoo

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।

Re: সাবমেরিন

সাইদুল ভাইকে ধন্যবাদ।

IMDb; Phone: OnePlus 8T; PC: Windows 10 Pro 64-bit

Re: সাবমেরিন

সেইরাম প্রত্যাবর্তণ  thumbs_up thumbs_up 

টপিকের বিষয় বস্তু বেশ পছন্দ হইছে।

Re: সাবমেরিন

টপিকের বিষয় বস্তু বেশ পছন্দ হইছে।  dream dream dream thumbs_up thumbs_up thumbs_up

অন্ধকার ঘরে!! কাগজের টুকো চিরে!
কেটে যায়!! আমার সময়!!

ফেইসবুকে আমি

Re: সাবমেরিন

সাবমেরিনে অক্সিজেন কিভাবে, কি পরিমাণে সংরক্ষিত থাকে এবং তা কিভাবে সরবরাহ করা হয় জানতে ইচ্ছে হচ্ছিল।

...Finding...

১০

Re: সাবমেরিন

অন/অফটপিক: সাবমেরিন নিয়ে কিছু সিনেমার নাম দিতে পারবেন কেউ। কিছুদিন আগে সত্যি ঘটনার উপর ভিত্তি করে নির্মিত সিনেমা দেখলাম। নাম U-571

১১

Re: সাবমেরিন

অসাধারণ পোস্ট। এই পোস্টের জন্য পুরস্কার দেওয়া উচিত



http://prattohik.com/en/

১২

Re: সাবমেরিন

prattohik লিখেছেন:

অসাধারণ পোস্ট। এই পোস্টের জন্য পুরস্কার দেওয়া উচিত



http://prattohik.com/en/

পুরুষ্কার দেওয়া হবে নীচের সাইটের পক্ষ থেকে-

http://prattohik.com/en/

"সংকোচেরও বিহ্বলতা নিজেরই অপমান। সংকটেরও কল্পনাতে হয়ও না ম্রিয়মাণ।
মুক্ত কর ভয়। আপন মাঝে শক্তি ধর, নিজেরে কর জয়॥"

১৩

Re: সাবমেরিন

দক্ষিণের-মাহবুব লিখেছেন:

অন/অফটপিক: সাবমেরিন নিয়ে কিছু সিনেমার নাম দিতে পারবেন কেউ। কিছুদিন আগে সত্যি ঘটনার উপর ভিত্তি করে নির্মিত সিনেমা দেখলাম। নাম U-571

অবশ্যই Das Boot দেখতে পারেন। সম্ভবত সাবমেরিনের কাহিনী  নিয়ে সবচেয়ে সেরা ছবি।  U 571 টাও ঐটা থেকে অনুপ্রাণিত।

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

১৪

Re: সাবমেরিন

ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।

আল্লাহ আপনি মহান

১৫ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন দ্যা ডেডলক (২৫-১১-২০১৩ ২০:৪৯)

Re: সাবমেরিন

অসাধারণ লিখেছেন।

কিন্তু সাবমেরিন এ মূলত বিজ্ঞানের কোন থিউরি ব্যবহার করে পানির তলেও বাতাস বহন করে থাকে ?

১৬

Re: সাবমেরিন

দ্যা ডেডলক লিখেছেন:

...সাবমেরিন এ মূলত বিজ্ঞানের কোন থিউরি ব্যবহার করে পানির তলেও বাতাস বহন করে থাকে ?

বয়েন্সী

আশা ছিল ভবিস্বতে একটা সাবমেরিন বানাবো... এখন দেখা যাচ্ছে সেই সময় আসতে আসতে সস্তা কমার্সিয়াল সবামেরিনে বাজার ভরে যাবে।