টপিকঃ উইন্ডোজ ভিসতা

ভিসতা নিয়ে এত হাউ কাউ শুনেছিলাম (এখনো শুনছি) যে ভয়ই হচ্ছিল ভিসতা ব্যবহার করা যাবে কী না। প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ব্যবহার করছি। আমার কাছে তো ভালই লাগছে। ৬৪বিটের জন্য কিছু সফটওয়্যার হয়তো ব্যবহার করা যায়না তবে আমি মূলত যা ব্যবহার করি সেটা ফ্রি-ই পাওয়া যায়। এ পর্যন্ত যা অভিজ্ঞতা তাতে ভালই বলতে হবে। অবশ্যই এক্সপি'র চেয়ে আমি ভিসতাকে এগিয়ে রাখব।

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

প্রকৃতিপ্রেমিক লিখেছেন:

এ পর্যন্ত যা অভিজ্ঞতা তাতে ভালই বলতে হবে।

সহমত

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

এখনো ব্যবহার করি নাই, কনফিগারেশন নাই। পি.সি আপডেট দিলে ব্যবহার করে দেখব কি অবস্থা।

... After A Long long Time ...

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

হুম........গ্রাফিক্স আমার কাছে ভাল লেগেছিল। বিরক্ত লেগেছিল প্রতিবার প্রোগ্রাম এক্টিকিউট হওয়ার আগে পারমিশনের ব্যাপারটি।

তবে আমার কম্পিউটারে RAM ১ গিগা। তারপরে আবার শেয়ারড। যেহেতু অনেক প্রোগ্রাম নিয়ে কাজ করতে হয় তাই পরে ভিসতা বাদ দিয়েছি। RAM বাড়িয়ে পরে আবার ইনস্টল দিব।

[img]http://twitstamp.com/thehungrycoder/standard.png[/img]
what to do?

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

পারমিশনের ব্যাপারটা মনে হয় উইথড্র করা যায়। তবে প্রোগ্রাম এক্সিকিউটের সময়তো এটা হয়না! হয় কেবল প্রোগ্রাম ইনস্টল করার সময়।

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন হাসিব (০১-০৪-২০০৮ ১২:৪৮)

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

উইজার এ্যাকাউন্ট কন্ট্রোল ডিসএ্যাবল করা যায় সহজেই । আর ভিসতা ভালো, কিন্তু এতে যথেষ্ট ড্রাইভা্র সাপোর্ট নেই, দুই গিগা রেম লাগে, প্রসেসরও ডুয়াল কোর হওয়া উচিত । এ্ছাড়া প্রগ্রামিঙ করতে ঝামেলায় পড়বেন নিশ্চিত ।

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

হাসিব লিখেছেন:

উইজার এ্যাকাউন্ট কন্ট্রোল ডিসএ্যাবল করা যায় সহজেই । আর ভিসতা ভালো, কিন্তু এতে যথেষ্ট ড্রাইভা্র সাপোর্ট নেই, দুই গিগা রেম লাগে, প্রসেসরও ডুয়াল কোর হওয়া উচিত । এ্ছাড়া প্রগ্রামিঙ করতে ঝামেলায় পড়বেন নিশ্চিত ।

দেখুন প্রথমে যখন এক্সপি এসেছিল তখনও অনেকে এরকম কথা বলেছে... প্রথমে এক্সপি চালানোর সময়ও র‍্যাম নিয়ে চিল্লাচিল্লি হয়েছে, হয়েছে প্রসেসর মান নিয়ে এরপর এক্সপি অনেক স্ট্যাবল হয়ে গেছে এখন অনেকেই এক্সপি ছাড়তে চাননা....

ভিস্তাও সময়ের সাথে সাথে স্ট্যাবল হয়ে যাবে এবং ভবিষ্যতে র‍্যামের দাম কমে আসলে ও মেইনস্ট্রিম প্রসেসর আরও উন্নত হলে তখন সবাই ভিস্তা ব্যবহার করবে। আর ভিস্তার পরবর্তী ওএস রিলিজ হলেও একই রকম চিল্লাচিল্লি করবে সবাই এবং ভিস্তাতেই থেকে যেতে চাবে।

এখন দেখার বিষয় উইন্ডোজ ৭ কি নতুন জিনিস নিয়ে আসবে আমি এখনও কম্পিউটার আপডেট করি নাই উইন্ডোজ ৭ -এর রিকয়ার্মেন্ট দেখে তারপর পিসি আপগ্রেড করব বা নতুন পিসি কিনব।

(আচ্ছা আপনাদের কি মনে হয় উইন্ডোজ ৭ আসলেই ২০০৯-এ রিলিজ হবে?? আমি তো কোন নতুন খবরই শুনছিনা উইন্ডোজ ৭ নিয়ে... আবারও ভিস্তার মত ৬-৭ বছর অপেক্ষা করতে হবে নাকি??)

আমি বাঙালী, আমি বাংলাদেশী, আমি দক্ষিণ এশীয়.... কিন্তু সবার উপরে আমি একজন মানুষ... এটিই আমার পরিচয়।

আমি মুক্ত জীবনে বিশ্বাসী তাই আমি লিনাক্স ব্যবহার করি।

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

একটা ওএস চালু করতেই যদি ৭০০মেবা র‍্যাম লাগে। তাহলে কাজ করবেন কী দিয়ে? গত সপ্তাহেও আমাদের অফিসে পাঁচটা নতুন কম্পিউটার কেনা হয়েছে এক্সপি নিয়ে। কারণ ২গিবা মেমরির ভিস্তার ওয়াও গ্রাফিক্স দেখানোর চাইতে অন্য অনেক প্রয়োজনীয় কাজ রয়েছে।

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

একসময় কিন্তু ১ মেগা ড়্যাম দিয়েও পিসি চলেছে। এখন ২ গিগা লাগে। একসময় আসবে যখন ৪ গিগা ছাড়া চলবেই না। তখনো অনেকেই একই কথা বলবে-- আগেরটাই ভাল ছিল। একসময় টেকিরা বলতো এক্সপি আসার পরেও ৯৮ থেকে কেউই সরে আসবেনা। এখনো সবাই বলছে একই কথা-- সবাই নাকি এক্সপিতে থাকতে চায়। খুবই হাসির কথা। তবে হ্যা, এখন অলটারনেটিভ রয়েছে, তখন হয়তো ততটা সুবিধার ছিলনা।

১০

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

আমি এখনও আমার iMac G5 চালাই, যার র‍্যাম মাত্র ৫১২মেবা। যার অপারেটিং সিস্টেম ম্যাক ওএস এক্স (টাইগার)। যাকে নকল করেই ভিস্তা তৈরী করেছে মাইক্রোসফট। এটাতে আমি ভিস্তার যত ওয়াও গ্রাফিক্স আছে, সব ইফেক্ট পাই ভিস্তা বাজারে আসার বছরখানেক আগে থেকেই (মানে তখন আমি কিনেছি আর কি, ম্যাক ওএস এক্সের জন্ম হয়েছে ২০০০-এ যখন এক্সপি নতুন বের হয়েছে)। এখন যে উবুন্তু থেকে লিখছি, এটার মেমরি ১গিবা। এটাতেও কম্পিজ ফিউশনের ইফেক্টসহ কমপক্ষে ১০টা প্রোগ্রাম খোলা থাকে সর্বদা। যার মধ্যে ভার্চুয়ালবক্সের ভেতর উইন্ডোজ এক্সপিও চলে ম্যাথমেটিকা সহ, আর ফায়ারফক্সের দুটো ভিন্ন প্রোফাইলের দুটো উইন্ডোতে ১০-১২খানা ট্যাবতো আছেই। এবং গোটা দশেক পিডিএফ ফাইল।

আমার কলিগ যার কিনা ভিস্তা ল্যাপটপ, সে দেখে বলে এত কিছু ওপেন করে রাখো কেন কম্পিউটার স্লো হয়ে যাবে। আমি শুধু হাসি।

ওহ, আমার ছোট ভাইতো ২৫৬মেবা র‍্যামের কম্পিউটার চালায়। আমার পরিচিত অনেক মানুষই এখনও তাদের পাঁচ থেকে দশ বছর পুরনো কম্পিউটার চালায় এমনকি ৬৪মেবা র‍্যামওয়ালা কম্পিউটারও এখনও অনেকেই চালায় (উইন্ডোজ ৯৮-এ)।

সাধারণ ব্যবহারকারী যারা ইন্টারনেট আর ওয়ার্ড ব্যবহার করেন, তাদের জন্য ২গিবা র‍্যামের কী প্রয়োজন সেটাই বুঝি না। অবশ্য তাদের চাহিদা মেটাতেই ভিস্তার আগমন। সাধারণ ব্যবহারকারীরা তো বেশি বেশি কনফিগারেশনওয়ালা কম্পিউটারই চায়। ওসব কনফিগারেশন অপচয় না করে ভিস্তার ওয়াও ইফেক্ট চালানো একেবারে খারাপ না।

১১

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

ব্যবসার ব্যাপারটা ভুলে যাচ্ছেন কেন ভাই। মাইক্রোসফট যদি নতুন সিস্টেম না বানায় তাহলে তাদের থাকার দরকার কী? তারা নাকি বলেছে ২০০৯ এর পরে এক্সপির কোন সাপোর্ট দেবেনা।

পোস্টের মূল উদ্দেশ্য ছিল এটা বলা যে ভিসতাকে যতটা খারাপ শুনেছিলাম তার সামান্যও বুঝতে পারছিনা। কোন সিস্টেম কতটা ড়্যাম দিয়ে চলে সে বিচারে যাচ্ছিনা। আমি বিনা ড়্যামের মেশিন দিয়েই শুরু করেছিলাম। এখন ২ গিগা ছাড়া চলেনা। তাই বলে তো আর পেছনে ফিরে যাবনা।

১২

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

আমার কম্পিউটারে এক্সপি, ভিস্তা আর উবুন্টু ট্রিপল বুট করা আছে।
ভিস্তাতে মাত্র ৫-৬ টি প্রোগ্রাম একসাথে চালালেই হ্যাঙ করে... আর উবুন্টুতে ২০-২৫ টা প্রোগ্রাম চালালেও হ্যাঙ করে না। উবুন্টুর কম্পিজ ইফেক্ট ভিস্তার ওয়াও ইফেক্টের চাইতে সবদিক দিয়ে উন্নত। তাহলে আমি কেন ভিস্তাকে ভাল বলব? thumbs_down

অ আ ই ঈ উ ঊ ঋ এ ঐ ও ঔ
ক খ গ ঘ ঙ চ ছ জ ঝ ঞ ট ঠ ড ঢ ণ ত থ দ ধ ন প ফ ব ভ ম য র ল শ ষ স হ ক্ষ ড় ঢ় য়
ৎ ং ঃ ঁ

আলোকিত'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

১৩

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

র‍্যামের তো অবশ্যই দরকার আছে। আমি যে iMac ৫১২মেবা এ চালাই, সেটাতেও র‍্যাম বাড়াবো বলে চিন্তা করি প্রতিদিনই। কেননা আমার যেসব সফটওয়্যার চালাই, সেগুলোর জন্য বেশি র‍্যাম খুবই দরকারী। কিন্তু প্রশ্নটা সেখানে নয়। ভিস্তার মেমরি রিকোয়ারমেন্টটাই সমস্যা। আমি যেসব প্রোগ্রাম চালাই, সেগুলোর জন্য প্রচুর র‍্যাম দরকার। অফিসে যেসব কম্পিউটারে ২গিবা র‍্যামে এক্সপি/উবুন্তু চালাই সেসব কম্পিউটারে ভিস্তা লোড করলে ৪গিবা-এর বেশি র‍্যাম লাগবে। তখন ভিস্তার ৬৪বিট ভার্সন লাগবে। তখন আরও সমস্যা দেখা দেবে হার্ডওয়্যার ড্রাইভার এবং বিভিন্ন ৩২বিট সফটওয়্যার নিয়ে। বিভিন্ন ৩২বিট সফটওয়্যারের নতুন ৬৪বিট ভার্সন কিনতে হবে যার কোনই প্রয়োজন নেই আমাদের।

আর ব্যবসাতো মাইক্রোসফটেরই। ওরা যা গিলাবে কাস্টমার তাই গিলবে। মাইক্রোসফট দুনিয়ার সবচেয়ে বাজে ওএস বানিয়ে ব্যবহারকারীদের উপর চাপিয়ে দিয়ে ওয়াও বলতে বলবে, আর কাস্টমাররা ওয়াও বলবে চোখ বন্ধ করেই। আমি আজ পর্যন্ত দেখলাম না, কোন ওয়ার্ড ব্যবহারকারীকে স্বয়ংক্রিয় সূচীপত্র বানাতে। TOC, Heading 1, Heading 2 কী জিনিষ শতকরা ৯৯ ভাগ ওয়ার্ড ব্যবহারকারী জানেনা। এগুলো সব তারা নিজ দায়িত্বে নিজ হাতেই তৈরী করে, যা কিনা ওয়ার্ডপ্যাডেই করা যায়। আর দুই লাইনের নোটিশ পাঠানোর জন্য ওয়ার্ড ফাইল বানিয়ে ইমেইল করা তো অসহনীয়। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে এসব নোটিশগুলো আমি খুলতামই না। কলিগদের কাছ থেকে জেনে নিতাম কী নোটিশ।

১৪

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

আশাবাদী লিখেছেন:
হাসিব লিখেছেন:

উইজার এ্যাকাউন্ট কন্ট্রোল ডিসএ্যাবল করা যায় সহজেই । আর ভিসতা ভালো, কিন্তু এতে যথেষ্ট ড্রাইভা্র সাপোর্ট নেই, দুই গিগা রেম লাগে, প্রসেসরও ডুয়াল কোর হওয়া উচিত । এ্ছাড়া প্রগ্রামিঙ করতে ঝামেলায় পড়বেন নিশ্চিত ।

দেখুন প্রথমে যখন এক্সপি এসেছিল তখনও অনেকে এরকম কথা বলেছে... প্রথমে এক্সপি চালানোর সময়ও র‍্যাম নিয়ে চিল্লাচিল্লি হয়েছে, হয়েছে প্রসেসর মান নিয়ে এরপর এক্সপি অনেক স্ট্যাবল হয়ে গেছে এখন অনেকেই এক্সপি ছাড়তে চাননা....

ভিস্তাও সময়ের সাথে সাথে স্ট্যাবল হয়ে যাবে এবং ভবিষ্যতে র‍্যামের দাম কমে আসলে ও মেইনস্ট্রিম প্রসেসর আরও উন্নত হলে তখন সবাই ভিস্তা ব্যবহার করবে। আর ভিস্তার পরবর্তী ওএস রিলিজ হলেও একই রকম চিল্লাচিল্লি করবে সবাই এবং ভিস্তাতেই থেকে যেতে চাবে।

এক্সপি যখন আসে তখন সেটা পুরনো পিসিগুলোতে স্লো চললেও ড্রাইভার সাপোর্ট নিশ্চিত ভাবে ৯৮থেকে ভালো ছিলো । গ্রাফিক্সের কাজগুলো রিমুভ করলে সেটা ভালোই চলতো পুরনো পিসিগুলোতে । আর প্রোগ্রামিং সফটওয়্যারগুলো চালাতেও কোন ব্যাকওয়ার্ড কম্পাটিবিলিটর সমস্যায় পড়তে হয়নি । আরোও একটা সমস্যা ভিসতা করে রেখেছে যে কারনে প্রসেসর রেমের গড়মান উন্নত হলেও ভিসতা এডপ্ট করতে সমস্যা তৈরী করবে । সেটা হলো ভিসতা একটিভেশন এখনও ক্র্যাক করা ডিফিকাল্ট । কাজ করবেই এরকম কোন ক্র্যাক এখনও পর্যন্ত নেই । যে দুটো চালু ক্র্যাক আছে সেগুলোর কার্যকারিতা নাকি সার্ভিস প্যাক ১ ইনস্টল করার সময় থাকবে না । আমার বৈধ উইন্ডোজও এক্টিভেট করতে মাইক্রোসফটে ফোন করতে হয়েছে ।

১৫

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

একটা ওএস চালু করতেই যদি ৭০০মেবা র‍্যাম লাগে। তাহলে কাজ করবেন কী দিয়ে? গত সপ্তাহেও আমাদের অফিসে পাঁচটা নতুন কম্পিউটার কেনা হয়েছে এক্সপি নিয়ে। কারণ ২গিবা মেমরির ভিস্তার ওয়াও গ্রাফিক্স দেখানোর চাইতে অন্য অনেক প্রয়োজনীয় কাজ রয়েছে।

হার্ডওয়্যার কিনতে হয়তো টাকার সংস্থান হয় । কিন্তু সমস্যা হলো এন্টারপ্রাইজগুলো এখনও আই.ই.৬ থেকেই সরতে চাচ্ছে না । কারন বেশীরভাগ বড় কোম্পানীগুলোর ইন হাউজ সফটওয়্যার গুলো আই.ই. ৭এ চলে না । এর ওপর ভিসতা ইনস্টল করলে আর দেখতে হবে না । সবকিছু বন্ধ করে নাটক সিনেমা দেখতে হবে অফিস বসে ।

১৬

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

আমার নতুন থিংকপে্যডে উবুন্তু ইন্সটল করব। তবে ভিসতাতে ৫-৬ টি প্রোগ্রাম চালালে হ্যাঙ করে এটা জেনারেলাইজ করা মনে হয় ঠিক না। আমার মেশিনে সিমুলেশন চালিয়ও সাথে ভিডিও চালিয়ে দেখলাম আরো ৮০টি প্রসেস সাথে চলছিল, আমারটা হ্যাঙ করেনি। তবে হ্যা উইন্ডোজের মেমোরি ম্যানেজমেন্ট ততটা ভালনা যতটা ভাল লিনাক্সের। আর ওয়াও এফেক্টের কথা বলছেন কেন? আপনি রেডহ্যাট ৫ আর বর্তমানের ফেডোরা তুলনা করে দেখুন-- ওয়াও এফেক্ট তারাও দিয়েছে যতটা পেরেছে। ব্যাপারটা এখানেই।

ওয়ার্ডের ব্যাপার আমি জানিনা, আমি ল্যাটেক ব্যবহার করি।

১৭

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

হাসিব লিখেছেন:
স্বপ্নচারী লিখেছেন:

একটা ওএস চালু করতেই যদি ৭০০মেবা র‍্যাম লাগে। তাহলে কাজ করবেন কী দিয়ে? গত সপ্তাহেও আমাদের অফিসে পাঁচটা নতুন কম্পিউটার কেনা হয়েছে এক্সপি নিয়ে। কারণ ২গিবা মেমরির ভিস্তার ওয়াও গ্রাফিক্স দেখানোর চাইতে অন্য অনেক প্রয়োজনীয় কাজ রয়েছে।

হার্ডওয়্যার কিনতে হয়তো টাকার সংস্থান হয় । কিন্তু সমস্যা হলো এন্টারপ্রাইজগুলো এখনও আই.ই.৬ থেকেই সরতে চাচ্ছে না । কারন বেশীরভাগ বড় কোম্পানীগুলোর ইন হাউজ সফটওয়্যার গুলো আই.ই. ৭এ চলে না । এর ওপর ভিসতা ইনস্টল করলে আর দেখতে হবে না । সবকিছু বন্ধ করে নাটক সিনেমা দেখতে হবে অফিস বসে ।

অতীতের ট্রন্ড বলে এরা সবাই ভিস্তাতে যাবে, একটু সময় নেবে হযতো।

১৮

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

হাসিব লিখেছেন:
আশাবাদী লিখেছেন:

দেখুন প্রথমে যখন এক্সপি এসেছিল তখনও অনেকে এরকম কথা বলেছে... প্রথমে এক্সপি চালানোর সময়ও র‍্যাম নিয়ে চিল্লাচিল্লি হয়েছে, হয়েছে প্রসেসর মান নিয়ে এরপর এক্সপি অনেক স্ট্যাবল হয়ে গেছে এখন অনেকেই এক্সপি ছাড়তে চাননা....

ভিস্তাও সময়ের সাথে সাথে স্ট্যাবল হয়ে যাবে এবং ভবিষ্যতে র‍্যামের দাম কমে আসলে ও মেইনস্ট্রিম প্রসেসর আরও উন্নত হলে তখন সবাই ভিস্তা ব্যবহার করবে। আর ভিস্তার পরবর্তী ওএস রিলিজ হলেও একই রকম চিল্লাচিল্লি করবে সবাই এবং ভিস্তাতেই থেকে যেতে চাবে।

এক্সপি যখন আসে তখন সেটা পুরনো পিসিগুলোতে স্লো চললেও ড্রাইভার সাপোর্ট নিশ্চিত ভাবে ৯৮থেকে ভালো ছিলো । গ্রাফিক্সের কাজগুলো রিমুভ করলে সেটা ভালোই চলতো পুরনো পিসিগুলোতে । আর প্রোগ্রামিং সফটওয়্যারগুলো চালাতেও কোন ব্যাকওয়ার্ড কম্পাটিবিলিটর সমস্যায় পড়তে হয়নি । আরোও একটা সমস্যা ভিসতা করে রেখেছে যে কারনে প্রসেসর রেমের গড়মান উন্নত হলেও ভিসতা এডপ্ট করতে সমস্যা তৈরী করবে । সেটা হলো ভিসতা একটিভেশন এখনও ক্র্যাক করা ডিফিকাল্ট । কাজ করবেই এরকম কোন ক্র্যাক এখনও পর্যন্ত নেই । যে দুটো চালু ক্র্যাক আছে সেগুলোর কার্যকারিতা নাকি সার্ভিস প্যাক ১ ইনস্টল করার সময় থাকবে না । আমার বৈধ উইন্ডোজও এক্টিভেট করতে মাইক্রোসফটে ফোন করতে হয়েছে ।

রিটেইল কী দিয়ে ইন্সটল করার পদ্ধতি ফলো করুন। তাহলে আপনার কী ব্যবহার করতে হবেনা, মাইক্রোসফটে ফোনের বা এ্যক্টিভেশনেরও ঝামেলা থাকবেনা। দেখুন http://forum.notebookreview.com/showthread.php?t=144783

১৯

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

আমার ওয়াও ইফেক্টের কথাটা আপনি বুঝতে পারেননি ঠিকমত। ২০০১ সালে যখন এক্সপি বাজারে আসে, ঠিক সেই সময়ই এসব ওয়াও গ্রাফিক্স নিয়ে ম্যাক ওএস এক্স বাজারে আসে। তার প্রায় ৬ বছর পর ভিস্তা সেই ম্যাককে নকল করতে সমর্থ হয়েছে। তাও ২গিবা মেমরির বদলে। যেখানে ম্যাক ২৫৬মেগা মেমরিতে চলেছে। গ্রাফিক্স লিনাক্সে সেই রেডহ্যাট ৬ থেকেই স্মুথ। আর থ্রিডি ডেস্কটপ কম্পিজ ফিউশনও এসেছে ভিস্তার সমান সময়ে।

প্রসেসের হিসেব তো করিনি ভাই। তাহলে তো কয়েকশো প্রসেস চলছে লিনাক্স ও ম্যাক দুটোতেই। সিস্টেম প্রসেসকে তো আর হিসেবের মধ্যে আনা যায় না। এগুলোই তো ওএসকে সজীব রাখে। এগুলো যত অদক্ষ হবে, ওএস তত অদক্ষ।

২০

Re: উইন্ডোজ ভিসতা

ব্যাপারটা এভাবে ব্যাখ্যা করা যেতে পারে--

গরীব দেশে মৌলিক চাহিদা হলো তিন বেলা খাওয়া।
আর যাদের সেটা মিটে গেছে তারা চায় তিনবেলা ভালো খেতে।
ম্যাক গ্রাফিক্সের দিকে নিশ্চই সুপিরিয়র, কিন্তু তুবও ম্যাকের ব্যবহারকারি এত কম কেন?

ওয়াও এফেক্ট নিয়ে আমি যেটা বলতে চেয়েছে সেটা হয়তো আপনি মিস করেছেন। আমি বোঝাতে চেয়েছি লিনাক্সও এখন উইন্ডোজের মত স্টার্ট বাটনের দিকেই গিয়েছে। তার আগের যে লিনাক্স ১৬ মেগা ড়্যামে চলেছে (১৬ বছর আগরে কথা বলছি) সেই লিনাক্স ভালমত চালাতে অবশ্য ১০০গুন বেশী ড়্যামের দরকার হচ্ছে।

পুরা বিষয়টাই অন্য দৃষ্টি থেকেও দেখা যায়। এসব দেশে ল্যাপটপের প্রধান ক্রেতা হল কলেজ পার হওয়া বা উইনির প্রথম বর্য়ের ছাত্রছাত্রীরা। আর এদেরকে এসব গ্রাফিক্স খাওয়ানো খুবই সহজ। এরা বোঝো আই টিউন আর এমএসএন। এর বাইরে তো এদের পিসি ইউজ নেই।

এই পোস্টে আপনার অংশগ্রহনের জন্য ধন্যবাদ। গত দুই বছরে লিনাক্স (ডেস্কটপ) ব্যবহার করিনি অথচ এর মধ্যেই অনেক পরিবর্তন হয়ে গেছে। উবুন্তু একটা ট্রাই দিয়ে দেখব। তবে সিস্টেমের জন্য কতটা স্পেস রাখলে ভাল হবে তা জানালে উপকার হবে। আমি হোম-টা আলাদা পার্টিশনে রাখব আর বাকিটার জন্য কত রাখলে ভাল হবে তা জানাবেন। আর উবুন্তুতে এক্সটারনাল ইউএসবি হার্ড ড্রাইভ থেকে ড্যাটা পড়া যাবে কী না?

ধন্যবাদ