টপিকঃ ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

না ভাই কথাটা আমি বলছি না। আজ টেলিভিশনে দেখলাম ( ক্রলিং শিরোনামে ) বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান কোচ জিমি সিডন্স বলেছেন " ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের প্রধান সমস্য"

আপনি কি মনে করেন ?

তবে উনার কথার সাথে আমি সম্পুর্ন দ্বিমত পোষন করি। shameshame[-X কারনটা একটু পড়েই বলছি। আগে আপনাদের মতামত একটু জেনে নেই। আপনাদের মতামতের সঙ্গে আমার মতামত মিলেো যেতে পারে।

আলহামদুলিল্লাহ্ !    আমার বংশে কোন পুলিশ নাই।

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

কিসে ধারাবাহিকতা? হারায় না জেতায়? roll

অ আ ই ঈ উ ঊ ঋ এ ঐ ও ঔ
ক খ গ ঘ ঙ চ ছ জ ঝ ঞ ট ঠ ড ঢ ণ ত থ দ ধ ন প ফ ব ভ ম য র ল শ ষ স হ ক্ষ ড় ঢ় য়
ৎ ং ঃ ঁ

আলোকিত'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আলোকিত লিখেছেন:

কিসে ধারাবাহিকতা? হারায় না জেতায়? roll

জেতার ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারে না।
আর হারের ক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা বলতে হয় না। এমনিতেই বজায় রাখে টাইগাররা।

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আশরাফুল দের বার বার ব্যর্থতা? নাকি সামর্থের অভাব? angry

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আশরাফুল দেরই ব্যর্থতা

"We want Justice for Adnan Tasin"

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

oxyzen লিখেছেন:

আশরাফুল দের বার বার ব্যর্থতা? নাকি সামর্থের অভাব? angry

অবশ্যই সামর্থের ওভাব। কারন সমর্থ নয় বলেই ব্যার্থতা।

আলহামদুলিল্লাহ্ !    আমার বংশে কোন পুলিশ নাই।

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আমি মনে করি সামর্থ নয় বরং নেতিবাচক মন্তব্য ও অত্যধিক প্রতাশ্যাই খারাপ খেলার জন্য মূল কারন
ভালো কিছু দেখাতে গিয়ে খারাপ শট খেলে বসে....

আমি বাঙালী, আমি বাংলাদেশী, আমি দক্ষিণ এশীয়.... কিন্তু সবার উপরে আমি একজন মানুষ... এটিই আমার পরিচয়।

আমি মুক্ত জীবনে বিশ্বাসী তাই আমি লিনাক্স ব্যবহার করি।

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আশাবাদী লিখেছেন:

আমি মনে করি সামর্থ নয় বরং নেতিবাচক মন্তব্য ও অত্যধিক প্রতাশ্যাই খারাপ খেলার জন্য মূল কারন
ভালো কিছু দেখাতে গিয়ে খারাপ শট খেলে বসে....

সহমত(y)

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আশাবাদী লিখেছেন:

আমি মনে করি সামর্থ নয় বরং নেতিবাচক মন্তব্য ও অত্যধিক প্রতাশ্যাই খারাপ খেলার জন্য মূল কারন
ভালো কিছু দেখাতে গিয়ে খারাপ শট খেলে বসে....

আমিও এটাই মনে করি একটা প্রধান কারণ হারার ক্ষেত্রে। আপনি যদি মাশরাফির ব্যাটিং দেখেন, এক ম্যাচে দেখেছিলাম ৭ বল খেলল, এর মধ্যে সব বলেই উইকেট ছেড়ে এসে খেলল। ফলে ভাগ্যে লেগে গিয়ে ২টা ছক্কা যায়, আর সর্বশেষ বলটাতে বোল্ড। ফলে দেখতেই পারেন যে, এরা বেশী রান চায়। শেষে দেখে বেশী তো দূরের কথা স্বল্পটুকুও হল না।

১০

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আমিও আশাবাদীর সাথে একমত,সামর্থ নয় বরং নেতিবাচক মন্তব্য ও অত্যধিক প্রতাশ্যাই খারাপ খেলার জন্য মূল কারন(y)

"We want Justice for Adnan Tasin"

১১

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

হুম..
জানেন আমি দুই হাত নাড়িয়ে আকাশে উড়তে পারি। আমার সে সামর্থ আছে। কি বিশ্বাস হল না? না হবারই কথা কারন কারন সেটা আমি কখনই কাউকে করে দেখাতে পারি নাই। যেটা করে দেখানো যায় এবং তার গ্রহন যোগ্য ধারাবাহিকতা বজায় থাকে সেটাই তার সামর্থ বলেই আমি জানি। (অবশ্য সংগা আকারে বলতে গেলে অনেকেই যুক্তি খন্ডন করতে পারবেন। কিন্তু আমি মুল ভাবটা বোঝাতে চাচ্ছি) আমি বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের বিরোধী নই। তাদের বিজয়ে আমিও আনন্দে উদ্বেলিত হই। কিন্তু মুর্ছা যাই না। (অনেকেই মুর্ছা যায়তো তাই বললাম lol) ধরুন শাহরিয়ার নাফিস ২০০ ম্যাচ খেলে ২০০০ রান করল। তার মধ্যে প্রথম ২৫টা ম্যাচে ১৯ টা শতক আছে। কি কেমন লাগছে স্কোরটা ১৯ টা সেন্চুরী! ২৫ ম্যাচে, দারুন না? কিন্তু যখন টোটাল ম্যাচের সংখ্যা দেখা যাবে তখন কেমন লাগবে?..

প্রথম ২৫ ম্যাচ পর আর কিছুদিন দেখার পর যখন দেখব যে ধারাবাহিক ভাবে সে ০ রান করছে তখন খুব বেশি হলে আমি ৩৫ ম্যাচ পরই তাকে ফেলে দেব কারন সে ভাল খেলার সামর্থ হারিয়েছে।

অনেকেই বলেছেন সামর্থ নাই এটা ঠিক না নেতিবাচক মম্তব্যই ব্যার্থতার কারন। তো ভাই আপনাদেরকে বলছি আসুন আমরা সবাই মিলে সবার জন্য আর কোন নেতি বাচক মন্তব্য না করে একে বারে সম্পুর্ন ইতি বাচক মন্তব্য করা শুরু করি এবং প্রয়োজনে এদের নাম জিকির করা শুরু করি দেখি পাকিস্তান সফর একটু ভাল হয় কিনা।( সিরিজ জয় আমি আশা করছি না, শুধু হাড্ডাহাড্ডি লড়াই) ইতি বাচক মন্তব্য তাদের ভাল পারফরম্যান্স এনে দেবে তার কি গ্যারান্টি আছে। আর যদি না হয় তাহলে কি বলবেন?

আরও একটি কথা সমর্থ হলেই কিন্তু সামর্থ পরিমাপ করা যায়। আমি কখনই ৪০০ মিটারের বাইরে ছক্কা মারতে পারি নাই। কারন বল হারিয়ে যাক আমি তা চাই না।:-O এই খেঁারা যুক্তি কি আপনারা মানবেন নাকি বলবেন সেটা আমার সামর্থের বাইরে কোনটা।

আপনারর কি বলবেন তারা ২০-২৯ গড় রান করারই সমর্থ তাহলে তো ৪০ গড় এর উপরে যাওয়ার ক্ষেত্রে তারা অসমর্থ। অর্থাৎ তাদের সামর্থ নেই সেই পর্যায়ে যাওয়ার। আশরাফুল এর গড় কত? আর কত ম্যাচ খেললে তার গড় ৪০ হবে। আপনারা কি নিশ্চয়তা দিতে পারবেন, যে প্রথম সারির ৫জন ব্যাটস ম্যানরা আগামী ১০ ম্যাচে ৫*৩০ * ১০ = ১৫০০ রান করতে পারবে। 

আর আমি যতদুর জানি তাদের মানসিক ও শারীরিক শক্তি বর্ধনের জন্য বিশেষ মনোবিদ নিযুক্ত করা হয়েছিল এবং কিছুদিন আগে কমান্ডো ট্রেনিং নিয়ে এসেছে। সেক্ষেত্রে তাদের তো নেতিবাচক কোন কথা গায়ে লাগানো উচিৎ না। আর প্রত্যেক ম্যাচএর আগেই একটা গেম প্ল্যান সেট করা হয় যা ম্যাচ শেষে অনেক ক্ষেত্রে জানাও যায় কিন্তু দেখা যায় সে প্ল্যান কেউ কাজে লাগাতে পারে নাই। তাহলে কি প্ল্যান ঠিক হয় নাই নাকি খেলোয়াররাই পারে নাই? একই ভুলে বারবার আউট হলে তার দায় কার খেলোয়ারের নাকি নির্বাচকের?

আমি আমাদের পাড়ার ক্লাবে খেলতে গিয়ে দেখেছি অনুশীলনের ও একাগ্রতার কোন বিকল্প নাই। এই একই কথা অনেক ক্রিকেট বোদ্ধারাও বলেছেন। তাহলে আমাদের খেলোয়াররা কি অনুশীলন করছে? অয়ানডে ষ্ট্যাটাস পেয়েছে কিন্তু খুব অল্পদিনও হয় নাই। আজ আমাদের প্রত্যাশা ভাল খেলার, জিততে হবে এমনটা নয় কিন্তু আর ৬,৭ বছর পর আমরা যেকোন দলের বিরুদ্ধে বাস্তব সম্মত জয়ই চাইব। তখন কি আমাদের প্রত্যাশা করাটা অন্যায় হবে?
@ দও
মাশরাফির কাছ থেকে আমরা কিন্তু শতক বা অর্ধশতক আশা করি না। তাদের সে দায়ও নাই। তাদের দায় অন্য যায়গায়। তারা হিসাবে ২০-৩০ বল এর বেশি খেলতে পাওয়ার কথা না। আর শেষ দিকে এসে যদি ৫-১০ টা বল পায় সেটাতে তার রিস্ক নেওয়াই উচিৎ তাতে দুই বল খেলে আউট হওয়া দোষের কিছু না। আর যদি কিছু রান এনে দিতে পারে সেটা উপরি পাওয়া। রানের ক্ষেত্রে মুল দায়িত্ব কিন্তু ব্যাটসম্যানদেরই।

@আশাবাদী
হেইডেন (অন্যান্যদেরও সম্মান করছি) এর মত ছক্কা দেখাতে তারা মাঠে নামে? তাদের এত কিছু প্রয়োজন নাই। অতীত ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে স্বাভাবিক খেলাই খেলুক। আমরা এটাই চাই। ছক্কা দেখে তালি দেব বলে বল রেখে ঘুড়ে দাঁড়াক তা চাই না।
( অনেকদিন আগে জাফরুল্লাহ সরবত দু:খিত শরাফত এর এক রেডিও ধারা বিবরনীতে শুনেছিলাম, ব্যাটসম্যান ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে, ভাবলাম ভালকিছু বোধ হয় করল পড়ে উনিই জানালেন না বোলার একটা বাউন্সার দিয়েছে আর শরীর বাঁচাতে ব্যটসম্যান ১৮০ ডিগ্রি ঘুড়ে সরে গেছেন। খেলাটা ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে। ব্যটসম্যান ছিলেন জাভেদ অথবা রোকন। তবে এটুকু মনে আছে প্রথম দিনেই তাদের প্রথম ইনিংস-এ বাংলাদের তাদের অলআউট করেছিল)

আলহামদুলিল্লাহ্ !    আমার বংশে কোন পুলিশ নাই।

১২

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

একটাই কথা। খেলা শুধু একদলই খেলে না।একহাতে যেমন তালি বাজে না তেমনি একটি দলের সামর্থ শুধুই তাদের শক্তির উপর নির্ভর করে না। উদাহরন স্বরুপ: বোলাররা কত জোরে বল করে তা কিন্তু গুরুত্বপূর্ন না। তার জোরে বল করার শক্তির চেয়ে অনেক বেশি দরকার ব্যাটসম্যানকে পরাহত করতে পারার ক্ষমতা যা ব্যাটসম্যানের ক্ষমতার উপর নির্ভর করে। বাংলাদেশের শক্তি আছে কিন্তু আরো শক্তিশালী দলের তুলনায় তা নগন্য বলেই তারা পারে না।

১৩

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

সেভারাসের যুক্তিটা পুরো মাথার উপর দিয়ে গেল। কিছুই বুঝলাম না

১৪

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

সেভারাসের যুক্তিটা পুরো মাথার উপর দিয়ে গেল। কিছুই বুঝলাম না

সোজায় কথায় উনি বলতে চেয়েছেন যে বাংলাদেশের প্লেয়াররা আগে দেশি মুরগী খেত বার্ড ফ্লুর কারণে তাও খেতে পারছে না আর বিদেশের প্লেয়াররা নিয়মিত ফার্মের মুরগী খায় তাই বাংলাদেশ তাদেরকে হারাতে পারছে না roll

অ আ ই ঈ উ ঊ ঋ এ ঐ ও ঔ
ক খ গ ঘ ঙ চ ছ জ ঝ ঞ ট ঠ ড ঢ ণ ত থ দ ধ ন প ফ ব ভ ম য র ল শ ষ স হ ক্ষ ড় ঢ় য়
ৎ ং ঃ ঁ

আলোকিত'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

১৫

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

আলোকিত লিখেছেন:
স্বপ্নচারী লিখেছেন:

সেভারাসের যুক্তিটা পুরো মাথার উপর দিয়ে গেল। কিছুই বুঝলাম না

সোজায় কথায় উনি বলতে চেয়েছেন যে বাংলাদেশের প্লেয়াররা আগে দেশি মুরগী খেত বার্ড ফ্লুর কারণে তাও খেতে পারছে না আর বিদেশের প্লেয়াররা নিয়মিত ফার্মের মুরগী খায় তাই বাংলাদেশ তাদেরকে হারাতে পারছে না roll

ঠিক তাই। চিকন ছেলের কাছে আমি মাস্তান আর মাস্তানের সামনে আমি সুবোধ বালক

১৬

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

সেভারাস লিখেছেন:
আলোকিত লিখেছেন:

সোজায় কথায় উনি বলতে চেয়েছেন যে বাংলাদেশের প্লেয়াররা আগে দেশি মুরগী খেত বার্ড ফ্লুর কারণে তাও খেতে পারছে না আর বিদেশের প্লেয়াররা নিয়মিত ফার্মের মুরগী খায় তাই বাংলাদেশ তাদেরকে হারাতে পারছে না roll

ঠিক তাই। চিকন ছেলের কাছে আমি মাস্তান আর মাস্তানের সামনে আমি সুবোধ বালক

১০০% ঠিক
( এই চিকন ছেলেদের কাছে - যখন এই মাস্তানী ফলাতাতে একবার ধরা খেয়েছিলো- তাকে কী বলবেন?)

"We want Justice for Adnan Tasin"

১৭ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন মুশাফ (০৪-০৪-২০০৮ ১৮:০৫)

Re: ধারাবাহিকতাই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্য ! ঃ কোচ আপনি কি মনে করেন?

m_Kafi লিখেছেন:

অনেকদিন আগে জাফরুল্লাহ সরবত দু:খিত শরাফত এর এক রেডিও ধারা বিবরনীতে শুনেছিলাম, ব্যাটসম্যান ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে, ভাবলাম ভালকিছু বোধ হয় করল পড়ে উনিই জানালেন না বোলার একটা বাউন্সার দিয়েছে আর শরীর বাঁচাতে ব্যটসম্যান ১৮০ ডিগ্রি ঘুড়ে সরে গেছেন। খেলাটা ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে। ব্যটসম্যান ছিলেন জাভেদ অথবা রোকন।

lol2lol2=))

বাংলাদেশের দুই ব্যাটসম্যান - এই জাভেদ আর আশরাফুল - এই দুইজনকে আমি এখনও বুঝে উঠতে পারলাম না। আশরাফুল মাঝে মধ্যে এতই ভাল খেলে টেন্ডুলকারের ব্যাটিংকেও ওর কাছে ম্লান মনে হয়। আর বাকিটা সময় এমনই খারাপ খেলে যে পাড়ার সবচেয়ে বাজে খেলোয়াড়টার চেয়েও ওকে গবেট মনে হয়। জাভেদের কথা আর কি বলব! ইদানিং দেখি একটু হাত খুলে খেলার চেষ্টা করে কিন্তু যখনই শর্ট পিচ বল দেওয়া হয় ওমনি কুঁকড়ে যায়। ক্রিকেট বলকে যার এতো ভয় তার ক্রিকেট খেলার আগ্রহ আসে কি করে বুঝি না।

m_Kafi ভাইয়ের সাথে একমত। নেতিবাচক মন্তব্য খারাপ করার কারণ না। ওদের প্রতি মানুষের পূর্ণ সমর্থনই আছে। নেতিবাচক যা কিছু বলে সেটা আশাহত হয়ে বলে। নাহলে এভাবে হারতে থাকার পরও মানুষ গ্যালারী ভর্তি করে ওদের খেলা দেখতে যায় কেন? ওরা হারলেও এত সমালোচনা করা হত না যদি ন্যূনতম একটু রুখে দাঁড়িয়ে হারত। বিদেশী কোচ, ট্রেনার ইত্যাদি অনেক কিছু দেওয়া হচ্ছে ওদের। বাংলাদেশে ক্রিকেটের পেছনে যত টাকা ঢালা হয় ফুটবল, হকি বা অন্য কোনো স্পোর্টসের পিছে এতো টাকা ঢালা হয় না। তারপরও ক্রিকেটারদের সামর্থ্য বাড়ে না কেন? ওপেনাররা নামে, কিছুক্ষণ টেকার চেষ্ট করে। ৫০/৬০ রান করার পরই দেখা যায় ৫/৬টা উইকেট নাই। এরপর লোয়ার মিডল অর্ডার দলের রান একশ পার করার যুদ্ধে নামে। টেল এন্ডারদের নিয়ে কোনো মতে দেড়'শ পার করে তারাও শেষ। প্রায় প্রতি ম্যাচে এই একই চিত্র। বোলাররা নিয়মিত ভাল করছে কিন্তু ব্যাটিং কিছুতেই পরিবর্তন হচ্ছে না। কারণটা কি? এখন পর্যন্ত কেউই এর আগা-মাথা পেল না; বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা এমনই বস্তু।

আমার তো মনে হয় ক্রিকেটারদের ইদানিং বাংলা সিনেমা বেশি দেখানো হচ্ছে। বাংলা সিনেমার প্রতি ছবিতেই যেমন একই কাহিনী সেটা দেখে দেখে ক্রিকেটারদেরও এখন ঐ রোগে ধরেছে। প্রতিটা ম্যাচই তাই এখন একই কাহিনী দিয়ে শেষ করছে। খালি লাইট, ক্যামেরা, অ্যাকশন আর স্থান, কাল, পাত্রের যা একটু চেঞ্জ। মাঝে মধ্যে দুই একটা যা জিতছে সেগুলোকে এ হিসাবে মনে হয় আর্ট ফিল্ম বলা যায়। tongue