সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন natunbarta (০৫-০৪-২০১৩ ১৩:২৭)

টপিকঃ নো বলের ‘নতুন আইন’

ওয়ানডে, টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নো বলের নতুন নিয়মের চালু করতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। নতুন এ আইনে বোলার বোলিং মার্ক থেকে বোলিং অ্যাকশনে দৌড়ানোর পর, বল না করেই নন স্ট্রাইকারের উইকেট ভাঙ্গলে আম্পায়ার তা নো বলের ঘোষণা দেবেন। আগে যা ডেড বল বলে স্বীকৃত ছিল।

তিন মে বুলাওয়েতে জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশের মধ্যে হতে চলা প্রথম ওয়ানডেতে নো বলের নতুন এ আইন কার্যকরী হবে বলে জানিয়েছে আইসিসি। এ বিষয়ে ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির জেনারেল সেক্রেটারি জিওফ অ্যালারডাইচ বলেন, “পরিস্থিতি সামলাতে আগের ডেড বল সিস্টেম অকার্যকর মনে হওয়ায় আমরা মেরিলিয়ান ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) পরামর্শে নতুন এই আইনের প্রবর্তন করেছি।”     

উল্লেখ্য, গত বছর হেডিংলি টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হোম সিরিজে ইংল্যান্ডের ফাস্ট বোলার স্টিভ ফিন বোলিং করতে গিয়ে মাঝ পথে থেমে বারবার নন স্ট্রাইকের উইকেট ভেঙ্গেছিলেন। যা খেলার গতি থামিয়ে দিয়েছিল, ব্যাটসম্যানদের মনযোগেরও ব্যাঘাত ঘটিয়েছিল। এজন্য আপত্তি জানিয়েছিল ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা। এর প্রেক্ষিতে পুরো বিষয়টি বিবেচনা করে আইসিসি নো বলের নতুন এই নিয়ম করে।

http://www.natunbarta.com/sports/2013/0 … e8156e24fe

Re: নো বলের ‘নতুন আইন’

ইংরেজী থেকে বাংলা করার সময় আপনার অবশ্যই উচিত ছিল কোনো ভালো অনুবাদক এর সাহায্য নেয়া। কারণ হিসাবে দেখুন ডন পত্রিকা কী বলেছে এবিষয়েঃ

A dead ball had previously been called when bowlers disturbed the non-striker’s stumps during their delivery stride but the ICC’s General Manager – Cricket, Geoff Allardice, said it had “not adequately dealt with the situation”.

Although a rarity in the international game, it became a regular occurrence last year with England bowler Steven Finn’s repeated breaking of the wickets at the non-striker’s end eventually drawing complaints from opponents South Africa.

He was denied the wicket of South Africa captain Graeme Smith at Headingley when a dead ball was called after he clipped the stumps before having Smith caught behind at the other end.

The new condition will come into effect on April 30 and the first international match to be played under the new regulation will be the opening one-day international between Zimbabwe and Bangladesh in Bulawayo on May 3.

“The introduction of this playing condition will now provide greater certainty for all involved when a bowler breaks the wickets during the act of delivery,” added Allardice.

আবার দেখুন ক্রিকইনফো কী বলেছেঃ

The ICC has introduced a largely-anticipated new playing condition to international cricket with a no-ball set to be called when a bowler breaks the non-striker's end stumps in the delivery stride.

The MCC had already announced a change to the Laws of the game from October 1 and the ICC has taken the initiative to introduce a new playing recognition for Tests, ODIs and T20s from April 30.

Previously, when the non-striker's end stumps were broken in the delivery stride a dead-ball was called, following an initial warning, regardless of the outcome of the delivery. The new regulation provides clarity on what had been an issue of controversy.

The change was prompted by England bowler Steven Finn who repeatedly broke the non-striker's end stumps against South Africa in 2012. In the Headingley Test, Graeme Smith complained that he was being distracted and the umpires decided to begin calling a dead-ball. Smith was subsequently caught at slip when Finn had broken the stumps and a dead-ball was called.

ICC's General Manager - Cricket, Geoff Allardice, said a change in playing conditions was necessary because the current solution of a dead-ball was inadequate. "The MCC recently decided to address this issue by introducing a new no-ball Law. The ICC cricket committee noted the MCC's decision and recommended that a playing condition, mirroring the new Law, be introduced to international cricket as early as possible."

The decision was ratified at the ICC chief executives committee meeting in Dubai. "The ICC has decided to introduce this playing condition five months prior to the MCC changing the Law because there is a lot of important cricket to be played before October 1, including the ICC Champions Trophy in June," Allardice said.

"The introduction of this playing condition will now provide greater certainty for all involved when a bowler breaks the wickets during the act of delivery."

এখন এর আসল বাংলা কী জানেন? বাংলা করলে যা দাঁড়াবে তা হচ্ছেঃ
বোলিং করতে গিয়ে যখন বোলার এর হাতের আঘাতে উইকেট এর বেল পড়ে যাবে তখন আগে সেটাকে ডেড বল আখ্যা দেয়া হতো। এতে বোলার এর দোষের কারণে ব্যাটসম্যানরা অনেক সময় অনেক রান থেকে বঞ্ছিত হতো। এজন্য এনিয়ম পরিবর্তন করে এখন থেকে বোলার এর হাতের আঘাতে যদি বেল পড়ে যায়, তাহলে সেটা আর ডেড বল না হয়ে নো বল হবে।

আর আপনি যে ব্যাখা দিলেন সেই ব্যাখা কিন্তু আইসিসির নিয়মের বিপরীত। কারণ উইকিপিডিয়াতে এসম্পর্কে বলা আছেঃ

As a bowler enters his delivery stride, the non-striking batsman usually 'backs up'. This means he leaves his popping crease and walks towards the other end of the wicket so that it will take him less time to reach the other end if he and his batting partner choose to attempt a run.
Sometimes a batsman, whilst backing up, leaves the popping crease before the bowler has actually delivered the ball. Where this has happened, the bowler may attempt to run the non-striking batsman out. Getting a batsman out this way, though legal, is generally considered to be against the spirit of the game as the non-striker usually accidentally leaves the crease. By convention, the bowler is meant to warn the batsman to stay in his crease rather than to take his wicket. If he fails, and the batsman gets home, the delivery is called a dead ball. When it has happened in first-class cricket, it has been controversial.

আর সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, এমসিসির পূর্ণ রূপ হচ্ছেঃ
Marylebone Cricket Club
যার বাংলা করলে দাঁড়ায় মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাব। এটা মোটেওঃ

natunbarta লিখেছেন:

মেরিলিয়ান ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি)

না।

এরপর থেকে জেনে নিয়ে তারপর খবর প্রকাশ করবেন বলে আশা প্রকাশ করছি।