সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সাইফুল_বিডি (১৮-০১-২০১৩ ১৬:০৭)

টপিকঃ ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

এই টপিক খোলার উদ্দেশ্য যারা ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার করেন / করেছেন তাদের ভালো লাগা মন্দ লাগা শেয়ার করার জন্য। চাইলে কেউ ২-৪ টা ওয়্যারলেস প্রোডাক্টের রিভিউ দিতে পারেন  wink

যাই হোক নিজেকে দিয়েই শুরু করছি
১.ইনফারেডঃ ২০০৮ সালে প্রথম নোকিয়া ৬৫১০ সেলফোনে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করার অভিজ্ঞতা হয় , প্রথমে বেশ লাগলেও ব্লুটুথ  ব্যবহার  করার পর আর ভালো লাগেনি।আমি এই প্রযুক্তি ব্যবহার করেছি মাল্টিপ্লেয়ার গেম (স্নেক) খেলার জন্য।
http://studentcomputing.med.harvard.edu/images/clarinet_pda.jpg

২.ব্লুটুথঃ এই প্রযুক্তির সাথে পরিচয় হয় ২০০৮ সালে সিমেন্স সি ৭৫ এর সুবাদে, আমার ব্যবহার করা প্রথম ক্যামেরা ফোন।এখন পর্যন্ত এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে যাচ্ছি , যদিও খুব কম সময় এবং সেটা পিসি তে।
http://img.diytrade.com/cdimg/540669/7173213/0/1224649967/USB_bluetooth_device.jpg

৩.GPRS: এই প্রযুক্তির সাথে দেখা হয় ২০০৮ সালে , গ্রামিন ফোন আর নেকিয়া ৬৫১০ এই সুবাদে , সেই সাদা কালো ফোনটিতে এই প্রযুক্তি ছিল যেটা অনেকেই বিশ্বাস করে না। তখন ই প্রথম তারবিহীন ইন্টারনেট প্রযুক্তির সাথে পরিচয়।
http://www.extragsm.com/images/phone/big/Nokia/6510/Nokia-6510-02.jpg

৪.GPS: ২০১০ সালের শেষের দিকে পরিচয় হয় এই প্রযুক্তির সাথে , যদিও সেতা খুব একটা ভালো অভিজ্ঞতা ছিল না , GPS সিগনাল পাওয়ার জন্য এরুম থেকে ও রুম করা খুব এক্তা ভালো অভিজ্ঞতা ছিল না। যাই হোক এই প্রযুক্তির সাথে পরিচয় নোকিয়া ৫৮০০ ফোনের সুবাদে।


৫.ওয়্যারলেস হেডফোনঃ ২০১১ এর শেষের দিকে এটা ব্যবহার করার অভিজ্ঞতা হয়। দোকানে এটা দেখে কিনে আনা , অভিজ্ঞতা খুবই খারাপ , কারন মনো সাউন্ডে হেডফোন চিন্তা করতে কেমন জানি লাগে। যাই হোক সিগনাল ভালোই ছিল শুধু সাউন্ড টাই খারাপ ছিল।
http://image.made-in-china.com/2f0j00bCcEngJslkop/Wireless-Headphone-WST-2001-.jpg

৬.ব্লু-টুথ হেডফোনঃ ২০১১ তে এই জিনিশের সাথে পরিচয় , ছোট ভাইয়ের বন্ধুর সুবাদে , সাউন্ড কোয়ালিটি ভালো লাগলেও আমাকে খুব একটা টানেনি কারন ততদিনে মাল্টিমিডিয়া ছেড়ে নোকিয়া ১২০০ ব্যবহার শুরু করেছিলাম।
http://im.tech2.in.com/gallery/2012/may/bluetooth_headset_drive_300927596516.jpg

৭.ওয়্যারলেস মাউসঃ ২০১৩ তে এই প্রযুক্তির সাথে আমার পরিচয় (কেননা আমার মাউস গত ২ বছরে কোনো সমস্যা করেনি) , কিনে আনার পর ভালোই লেগেছিল , কিন্তু এখন কিছু সমস্যায় আছি সেটা হল ডঙ্গল খুলা আর লাগানো । এই সমস্যার কারনে খুব একটা আনন্দ পাচ্ছি না।
http://www.productwiki.com/upload/images/logitech_wireless_mouse_m515.jpg

৮.WiFi: এই পযুক্তির কথা শুনি ২০০৯ সালে এবং ২০১০ এ এর মালিক হই , যদিও তখন WiFi ব্যবহার করতাম না (কারন WiFi কোনো ডিভাইস ছিল না)। যাই হোক দেয়েল ল্যাপি কেনার পর WiFi ব্যবহার শুরু হল , এখন পর্যন্ত কোনো প্রকার সমস্যা পোহাতে হয় নি এই প্রযুক্তি ব্যবহার করতে।

৯. FM রেডিওঃ এই প্রযুক্তি ব্যবহার করি ২০০৮/২০০৯ সালে সেই সাদা কালো মোবাইল ফোনে , তখন রেডিও টুডে ৩ ঘন্টার প্রোগাম করত (টেস্ট প্রোগ্রাম ছিল)।
যাক আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করলাম , এবার আপনাদের পালা।

এই ব্যাক্তির সকল লেখা কাল্পনিক , জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিল পাওয়া গেলে তা সম্পুর্ন কাকতালীয়, যদি লেখা জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিলে যায় তার দায় এই আইডির মালিক কোনক্রমেই বহন করবেন না। এই ব্যক্তির সকল লেখা পাগলের প্রলাপের ন্যায় এই লেখা কোন প্রকার মতপ্রকাশ অথবা রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।

Re: ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

প্রথম ওয়ারলেস ইউজের অভিজ্ঞতা 93তে বাজারের ষান্ডার তেল বিক্রেতার কাছে big_smile big_smile
সে তার বড় ক্যাসেট মাইক্রোর উপর রেখে দূর থেকে মাউথপিসে কথা বলত। অবাক হয়ে দেখতাম।
ছোট ছিলাম বলে এইসব মজমায় ঢুকতেই দিত না sad sad
পরে আমি আরেকদিন মজমা শুরু হবার আগে তার এসিষ্টেন্টকে  স্কুলের টিফিনের টাকা থেকে বাচানো ৫টাকা দিয়ে একটু কথা বলি সেই মাইক্রোফোনে কিযে আনন্দ।
পরে কোথায় এটা কিনতে পাওয়া যায় জেনে নিলাম।
http://image.made-in-china.com/2f0j00yMfTktQzIVcp/Wire-Wireless-Microphone-WM-308-.jpg
দেন ১৪০টাকা দিয়ে কিনে ফেলি প্রথম এফএম মাইক্রোফোন thumbs_up thumbs_up কথা বলি বাসার ন্যাশনাল ক্যাসেট কাম রেডিওতে

২০০২ সালে প্রথম ইউজ করি ওয়ারলেস মাউস।  দাম মাত্র ৮০০টাকা।
সবাই আমাকে অবিশ্বাস করবেন না!!!! এটা একটা ইনফ্রারেড নিয়ন্ত্রিত মাউস ছিল। জিনিসটা পিসির পিএস২ পোর্ট থেকে একটা তার কানেক্ট করতে হত অপর প্রান্তে একটি ডক ছিল।  সেই ডকে মাউস রেখে চার্য করা হত। দেন ৮~১২ ফুটের মধ্যে ইউজ করতে হত। কিন্তু মাউসের মাথা ঠিক ডকের বাল্বের বাতির মুখে রাখতে হত। অনেকটা টিভি রিমোটের মত। মজার ব্যাপার সেটা কিন্তু বল মাউস ছিল!!!
কিন্তু চার্য বেশী থাকত না তাই বদলে আনি।

এরও আগে সম্ভবত ২০০১ সালে হাতে পাই ৮২৫০ নকিয়া মোবাইল। আমি এপর্যন্ত অনেক দামী মোবাইল ইউজ করেছি। কিছু এরমত মোবাইল আজও পাইনি। হয়ত কম বয়সের কারনে।
এই মোবাইলটার একপাশে টিভির রিমোটের মাথার মত একটা অংশ ছিল।
http://st2.gsmarena.com/vv/pics/nokia/no8250_00.jpg
শুধু ম্যানুয়াল পড়ে জেনেছিলাম এটা ইনফ্রা-রেড। কিন্তু আশেপাশে কোন মোবাইল নাথাকায় এর প্রয়োগ বুঝিনি। পড়ে এবছর পরে একজনকে পেলাম সেম মোবাইল কিন্তু সে এটা পরীক্ষা করতে দিতে আগ্রহী নয় কিজানি আমি তার মোবাইলের নাম্বার বা টাকা নিয়ে নেই lol2 lol2 lol2
অনেক বুঝায়ে তার সামনেই একটু ইউজ করি !! কি যে আনন্দ বোঝাতে পারব না।
এখন ১ লাখ টাকা দিয়েও সেই আনন্দ কিনতে পারব না

এরপর ল্যাপিতে ওয়াই-ফাই ইউজ করেছি। কিন্তু এটা আমার আশা পুরনে ব্যার্থ হয়েছে।
হয়তোবা আমি এর ব্যবহার জানিনা তাই!!!

সাইফুল ভাই আমাকে জানাতে পারবেন আমি কিভাবে আমার দুটি ল্যাপিতে ওয়াই-ফাইয়ের মাধ্যমে ফাইল আদান প্রদান করতে পারব??
অথবা ল্যানের মাধ্যমে যেভাবে এক পিসি থেকে অন্য পিসির ড্রাইভ/ফাইল এক্সেস করে তেমন

Re: ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

ফায়ারফক্স লিখেছেন:

সাইফুল ভাই আমাকে জানাতে পারবেন আমি কিভাবে আমার দুটি ল্যাপিতে ওয়াই-ফাইয়ের মাধ্যমে ফাইল আদান প্রদান করতে পারব??
অথবা ল্যানের মাধ্যমে যেভাবে এক পিসি থেকে অন্য পিসির ড্রাইভ/ফাইল এক্সেস করে তেমন

একটা ল্যাপিকে হট স্পট করে নিতে হবে, হটসপ্ট করা ল্যাপীর Wifi তে অন্য ল্যাপী কানেক্ট করতে হবে , তারপর Network এ যেয়ে কানেক্টেড পিসিতে ডুকতে হবে , ডুকার সময় যে পিসিতে ডুকবেন তার পাস আর ব্যবহার কারীর নাম দিতে হবে , এর পর ফাইল কপি করে তার শেয়ারড ফোল্ডারে পেস্ট করতে হবে।
অথবা এটা ব্যবহার করতে পারেন

এই ব্যাক্তির সকল লেখা কাল্পনিক , জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিল পাওয়া গেলে তা সম্পুর্ন কাকতালীয়, যদি লেখা জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিলে যায় তার দায় এই আইডির মালিক কোনক্রমেই বহন করবেন না। এই ব্যক্তির সকল লেখা পাগলের প্রলাপের ন্যায় এই লেখা কোন প্রকার মতপ্রকাশ অথবা রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।

Re: ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

ল্যানের মাধ্যমে যেভাবে এক পিসি থেকে অন্য পিসির ড্রাইভ/ফাইল এক্সেস করে তেমন করা সম্ভব??
মানে ড্রাইভে ঢুকব, ফাইল ডিলিট করব এই রকম......... neutral neutral

Re: ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

ফায়ারফক্স লিখেছেন:

ল্যানের মাধ্যমে যেভাবে এক পিসি থেকে অন্য পিসির ড্রাইভ/ফাইল এক্সেস করে তেমন করা সম্ভব??
মানে ড্রাইভে ঢুকব, ফাইল ডিলিট করব এই রকম......... neutral neutral

100% , যদি ওই পিসি / ল্যাপিতে রিড / রাইট এক্সেস থাকে।

এই ব্যাক্তির সকল লেখা কাল্পনিক , জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিল পাওয়া গেলে তা সম্পুর্ন কাকতালীয়, যদি লেখা জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিলে যায় তার দায় এই আইডির মালিক কোনক্রমেই বহন করবেন না। এই ব্যক্তির সকল লেখা পাগলের প্রলাপের ন্যায় এই লেখা কোন প্রকার মতপ্রকাশ অথবা রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।

Re: ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

সফট ছাড়াই ম্যানুয়ালি কিভাবে করা যায় একটা পোষ্ট দেন না ভাই এটা নিয়ে

Re: ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

আমার আবার বিছানায় বা সোফায় শুয়ে/বসে দুর থেকে কম্পিউটার চালানোর বদঅভ্যাস! বছর চারেক আগে পঞ্চাশ ইঞ্চি টিভি পর্দায় পিসিটা কানেক্ট কারার পর থেকে বাইশইঞ্চি মনিটরে শুধু ধুলোই জমে। দুরথেকে চালাতে দুইটা ওয়ারল্যাস জিনিস আবশ্যক মাউস/কিবোর্ড আর হেডসেট। কিবোর্ডের জন্য আমি খুবই লাকি, একটা ওয়ারল্যস কিবোর্ড দির্ঘদিন চালানোর বিশ্বরেকর্ড আছে কি না কে জানে, বন্ধুদের ওয়ারল্যাস কিবোর্ড মাউস শুনি ছয়মাসেই অক্কা পায়, আমি ব্যাবাহার করছি ছয়  বছর ধরে! লিজিটেক এমএক্স ৩২০০ মাউস কিবোর্ড কম্বো! এই দীর্ঘদিনেও এটাকে আপগ্রেড করার আহমরী কোন অলটারনেটিভ পেলামনা।
হেড সেটের অভিজ্ঞতা একেবারেই ভিন্ন। শরু করেছিলাম নকিয়া বিএইচ ৫২০ কমফোর্ট আর রেঞ্জ ভালই, সাউন্ড কোয়ালিটি  মোটামুটি, আর বেটারী লাইফ ছিল পুয়র। তারপরেও মোটামুটি সন্তুস্ট ছিলাম। কিন্তু কদিন পরেই ওটা গেল ভেঙ্গে! সার্স করে দেখলাম অনেকেরই একই অবস্থা একই জায়গায় এটা ভেঙ্গে যায়। এরপর নিলাম লজিটেক এইচ৭৬০, একবারে যচ্ছেতাই সাউন্ড কোয়ালিটি! এরপর মোটোরলা এস৯, একেবারে আন কমফোর্ট! শেষে এক বুদ্ধি করলাম ভাঙ্গা নকিয়া হেড সেটটা খুলে সেটার বিল্টইন স্পিকার খুলে একজোড়া ক্রিয়েটিভ এয়ারবাড হেডফোন সোল্ডার করে দিলাম। বিল্টইন ব্যাটারী বদলে হাই ক্যাফ ব্যাটারী লাগালাম। ফলাফল অসাধারন! যদিও এটা বাইরে ব্যাবাহার করার মত নয় কারন তারের শেষে সার্কিটআর ব্যাটারির পুটলি ঝুলে থাকে কিন্তু বা বিছায় শুয়ে দুরের কম্পিউটারের সাথে ব্যাবহার করার জন্য চমৎকার!
অনেক লেখে ফেললাম

Re: ওয়্যারলেস প্রযুক্তির ব্যবহার ও আপনার অভিজ্ঞতা

হটস্পট আর শেয়ারিং , শেয়ারিং সাধারণত যেভাবে করেন এখানেও সেভাবে করলেই হবে ।

এই টপিকে কারো রেস্পঞ্জ নাই  neutral neutral

এই ব্যাক্তির সকল লেখা কাল্পনিক , জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিল পাওয়া গেলে তা সম্পুর্ন কাকতালীয়, যদি লেখা জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিলে যায় তার দায় এই আইডির মালিক কোনক্রমেই বহন করবেন না। এই ব্যক্তির সকল লেখা পাগলের প্রলাপের ন্যায় এই লেখা কোন প্রকার মতপ্রকাশ অথবা রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।