টপিকঃ বেড-টি সংক্রান্ত

সবজান্তা মেহেদী: পেপারে কি খুইজা এতো পেরেশান উদা'দা?

কবি উদা'দা: পত্রিকাতে খুঁজছিরে ভাই আমার জন্য পাত্রী
       বিয়ের পথে পা বাড়ানো, আমি অধম যাত্রী।

অবস্থা আসলেই সঙ্গিন, এখন দেখি কথাও কয় কবিতার ছন্দে ghusi

সবজান্তা মেহেদী:  বিয়া করার জন্য এতো ব্যস্ততা হঠাৎ?
 
কবি উদা'দা: সকাল বেলা বেড-টি হাতে বউ ভাঙাবে ঘুম
       মাছিরা সব গাইছে যে গান ধুম মাচালে ধুম ......... আহা!

সবজান্তা মেহেদী: মাছির গান ধুম মাচালে ধুম! ghusi

কবি উদা'দা: ইয়ে না মানে, ছন্দের খাতিরে... তবে এমন ও হতে পারে
    সকাল বেলা বেড-টি হাতে বউ ভাঙাবে ঘুম
       আফগানিস্তানে বোমা পরলো বুম বুম বুম অথবা
       ধনধান্য পুষ্পে ভরা আমাদের এই রুম.........

সবজান্তা মেহেদী: থামেন থামেন, আপনার রুম ধনধান্যে ভরা! আচ্ছা যাই হোক, আসল কথা আপনি বেড-টি পাওয়ার জন্য বিয়া করতে চাইতাছেন। কিন্তু আপনি তো ঘুমান চাঁটাই বিছাইয়া, বিয়া করলেও তো বেড-টি খাইতে পারবেন না।

কবি উদা'দা: কিনিতে হইবে বেড তবে টাকাই এক সমস্যা
       আকাশ জুড়ে চাঁদ উঠেছে, আজকে ভরা আমাবস্যা।

সবজান্তা মেহেদী:  আকাশে চাঁদ আর আমাবস্যা! ghusi

কবি উদা'দা: ওহে অবুঝ বালক, এসব বলেছি মিলাতে গিয়ে ছন্দ
       আমি হলেম ভালো মানুষ আর সকলেই মন্দ
       জানালা কেন করেছো বন্ধ তাই নিয়ে মনে লেগেছে দ্বন্দ্ব
       কাছে এসে শুঁকে দেখো, আমার গায়ে সেন্টের সু-গন্ধ ............
       ..........................................
       ...........................

সবজান্তা মেহেদী:  আর না আর না, খ্যন্ত দ্যন দাদা, আজ্ঞা হলে একটা পরামর্শ দিতাম তাতে আপনার সাপ ও মরতো আর লাঠিও ভাঙত না।

কবি উদা'দা: সাপ, উই
       সাপ মারিতে ভাঙবো আমি লক্ষ কোটি লাঠি
       ওরে মেহেদী এ কি আনলি;  লাঠি নয় এ যে কাঠি

             
সবজান্তা মেহেদী: ওহহো কবি দাদা, আচ্ছা সাপ আর লাঠি ছাড়ুন। আমার পরামর্শ মত চললে আম আর ছালা দুটোই আপনার হবে গো।

কবি উদা'দা: আম ও আমার ছালাও আমার! এটা বলেছ বেশ
      ছালা ভরা আম নিয়ে আমি ঘুরবো দেশ বিদেশ।
yahoo

সবজান্তা মেহেদী: ও আল্লাহ্‌! আপনি আমের ছালা নিয়া দেশ বিদেশ ঘুরতে যাইবেন ক্যন? আচ্ছা ধানাই পানাই বাদ। সোজা কথা কই, আমার পরামর্শ মত চললে টাকা ও খরচ করা লাগবো না আর বেড ও কিনা লাগবো না কিন্তু বেড-টি ঠিকই খাইতে পারবেন।

কবি উদা'দা: আচ্ছা, তাই নাকি ভাই, আছে এমন উপায় জানা
       খুশির জোয়ার বইছে মনে ধিন তানা ধিন তানা
       মন চাইছে সবাইকে আজ ডাকি আমি নানা 

সবজান্তা মেহেদী: সবাইরে নানা ডাকবেন! যারে ইচ্ছা ডাকেন খালি নিজের বউরে নানা ডাইকা বইসেন না তাইলে কিন্তু ............ কথা হইলো আপনার বউরে কইয়েন সকালে চা বানানোর সময় চা এর মধ্যে এক চামচ হলুদের গুড়া, এক চামচ মরিচের গুড়া আর তিন আঙ্গুলের এক চিমটি লবণ মিশাইতে।

কবি উদা'দা: আরে এতে তো চায়ের স্বাদ হবে নষ্ট
            খারাপ চা খেতে আমার হবে ভারি কষ্ট।

সবজান্তা মেহেদী:  আরে উদা' ভাই আপনার বউ যখন চায়ে লবণ আর মসলা মিলেবে তখন চা হবে খারাপ মানে bad- tea .... বেড(bed) না কিনে বেড-টি(bad) খাওয়ার উপায় এছাড়া আর কি হতে পারে। http://www.pic4ever.com/images/245.gif

[বিঃদ্রঃ  গল্পের সমস্ত চরিত্র ও কাহিনী কাল্পনিক, বাস্তবের সাথে এর কোন মিল নেই। কেউ মিল খুঁজে পেলে তার জন্য লেখিকা দায়ী নয়]http://www.pic4ever.com/images/139fs122428.gif

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

lol2 lol2 lol2 lol2 উদা ভাইয়ের রিপ্লাইয়ের ওয়েইট করতেছি  thinking

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

নাহ সবাই মিলে উদাসিন দা'র মত এরকম নম্র ভদ্রলেকের পিছনে লাগা ঠিক নয়  shame shame বেচারাকে সবাই মিলে পাত্রী খুঁজে দিবে তা না করে বেচারার পিছনে লেগেছে   big_smile

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

ওরে মজা হইছে রে  lol2

IMDb; Phone: Huawei Y9 (2018); PC: Windows 10 Pro 64-bit

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

অসাধারণ। অসাধারণ.............

হুজুর কইছে, "কোরআন শরীফে আছে- তোমরা নামাজ থেকে বিরত থাক।" আমি তাই নামাজ পড়ি না। হুজুর যদি ইচ্ছা করে "অপবিত্র অবস্থায়" শব্দ দুটো বাদ দেয়, তার জন্য তো আমি দায়ী না।

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

নাদিয়াপু নাকি সময় পায় না..........

এত উদ্ভট চিন্তা ধারা মাথায় আহে কিভাবে । এত গুছিয়ে লিখ কিভাবে নাজাপু...........ওফ

দারুন দারুন অসাধারণ

তবে উদা ভাইয়ার লাইগ্যা মন খারাপ লাগে ।

কেন যে নাদিয়াপু ভাইয়াটার পিছনে লাগছে রে । sad sad

জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু......
এই মেঘ এই রোদ্দুর

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

মজা লাগল  smile

roll

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

lol2 lol2...চমৎকার লাগল।

জ্ঞান হোক উম্মুক্ত

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

হে হে হে , ভালো লাগলো।

I am not far, but alone. Like a pair of rail tracks in winter morning.............

১০

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

lol2 lol2 lol2 হাসি থামাতেই পারছি না।

hit like thunder and disappear like smoke

১১

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

প্রথমে সবাইকে শুভ সকাল...

যাদের ভালো লেগেছে তাদের অনেক অনেক ধন্যবাদ কিন্তু ইলিয়াস ভাই, ছবি আপু আর মুজ্জি আপনারা আমার লেখা পুরোটা কি পড়েন নাই... শেষের লাইন
গল্পের সমস্ত চরিত্র ও কাহিনী কাল্পনিক, বাস্তবের সাথে এর কোন মিল নেই। কেউ মিল খুঁজে পেলে তার জন্য লেখিকা দায়ী নয়

আপনারা কেনো সাদা সিদা উদাসীন ভাইকে উদা'দা বানিয়ে দিলেন hehe

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১২

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

আয় হায়! নাইদ্দা জামান। খাড়ান, আপনারে চিপায় পায়া লই। এমুন দৌড়ানি দিমু, বসও কিচু করবার পারবো না!  ghusi
এই কথোপকথনে প্রীত হয়ে একখানা গল্প উপহার দিলাম hehe

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ভারী পর্দার ফাঁক গলে সরু নলের মত একটা আলো এসে যাঈদের চোখে-মুখে ঝাঁপিয়ে পড়ল। বিগত রজনীর সুখাবেশ তখনও যাঈদের কপালে আনমনে এক্কাদোক্কা খেলছিলো। সেখানে এ কী বিড়ম্বনা! বিরক্তির ঢেউ শতভাঁজে কুঞ্চিত চামড়ায় আলোড়ন তুলছে। কিন্তু চোখ যে খুলছে না। না খুলুক। কী আসে যায় তাতে? উপুড় হয়ে বালিশে মুখ গুঁজে কী একটা মনে করে হালকা হাসির রেখাগুলি ঠোঁটের কোণে আকুলি-বিকুলি করে উঠলো। ডানহাতটা অভ্যেস মত বাড়িয়ে দিয়েই কাকে যেন জাপটে ধরতে চাইলো। কিন্তু কেউ নেই -  শূন্য জায়গাটাতে একটা মেয়েলি সুগন্ধ! নাক টেনে শ্বাস নিতে নিতে ঘুম-জড়ানো গলায়, ‘বীথি, এই বীথি। বীথি ডা-র-লি-ঙ, কোথায় গেলে?’
বীথি নিত্য দিনের মত সদ্য স্নান সেরে চুলায় পানি চাপিয়েছে। যাঈদের বেড-টীটা না হলে চলেই না। শনশন শব্দে পানি ফুটছে। রোজ রোজ বাসিমুখে ঐ জিনিস গিলে কী যে সুখ, সেটা বীথির মাথায় ঢুকে না। কিন্তু আজ একটা দুষ্টবুদ্ধি খেলে গেলো। কাল রাতে বড্ড জ্বালিয়েছে! সেটা মনে করাতে ঈষৎ রাঙা হয়ে গেলেও যাঈদকে জব্দ করার একটা রাস্তা খুঁজতে থাকে। যত্ন সহকারে চিনি বিহীন লিকারে ইচ্ছেমতো লাল মরিচ আর এক চিমটি হলুদ মিশিয়ে দিলো। একটু চেখে দেখতে জিহ্বা ছোয়াতেই – ও বাবা, ব্রহ্মতালু জ্বলে উঠলো যেন! তবে মনে মনে বেশ একটা তৃপ্তির ভাব জাগল – একদম পারফেক্ট হয়েছে! হাসি আর থামতে চাইছে না – উপচে উপচে পড়ছে যেন।
চায়ের গন্ধে অলস ঘুমটা পালিয়ে গেলো। তবে একটু ঝাঁঝাঁলো গন্ধ কি? দূর, কী সব ভাবছে? খপ করে বীথির হাতটা ধরে নিজের দিকে টানতেই বীথি হা হা করে উঠলো! সাধের বেড-টি পড়ে যাবে যে! পড়ে গেলে খাবে কী?
কেন, তোমাকে খাবো। চোখ পাকিয়ে তাকায় যাঈদ।
এহ, অসভ্য কোথাকার! এখন বসে বসে ঐ বিশ্রী জিনিসটা গেলো।
নাহ, বিশ্রী হবে কেন? তোমার হাতের স্পর্শ যেখানে, সেখানে তো খালি মধু। হা হা হা।
(বাছাধন, বুঝবে একটু পরে। মধুই তো...ঝাল মধু) মনে মনে হাসতে থাকে বীথি।
কিন্তু অবাক কাণ্ড ঘটছে। প্রায় উদাসীন ভঙ্গীতে চায়ে চুমুক দিয়ে চলেছে যাঈদ। অবাক হয়ে গেলো বীথি। ভুল দেখছে না তো! এত ঝাল লোকটা নিচ্ছে কী করে? গুনে গুনে তিন চামচ শুকনা মরিচের গুড়া দিয়েছে... এই ফলাফল তো কাঙ্খিত না! হঠাত অন্যমনস্ক হওয়াতে খেয়ালই করে নি কখন যাঈদ হাত বাড়িয়ে একটা হেঁচকা টান দিয়েছে।
হুড়মুড় করে পড়ে গিয়ে বীথির আশ্রয় ঘটলো যাঈদের বুকে। বীথির ভেজা চুলে শ্যাম্পুর চনমনে গন্ধ! ক’টা চুল যাঈদের মুখে গিয়েও পড়ে। চাঞ্চল্যকর ঘটনা বটে! তবে, যাঈদ কিন্তু অন্য কাজে ব্যস্ত – চায়ের কাপটা হতে লাল আস্তরণটা তুলে নিয়ে আয়েসে মাখাতে থাকে নিজের ঠোঁটে। তারপর সারপ্রাইজ এন্ড এটাক – এই কৌশলে শত্রুপক্ষ বধ করতে নেমে যায়। হাতিয়ার – একজোড়া আবেগী দস্যু!
আক্রমণ শেষে শত্রুর লম্ফ-ঝম্ফ শুরু হয়ে গেলো। সারা ঘরময় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বীথি। মুখে যা আসছে তাই বলে চলেছে। টার্গেট – যাঈদ। নিজের ঝাল মধুতে বীথি নিজেই কুপোকাত হয়ে গেলো। অনবরত পানি ঝরছে।
শরবতটা এক চুমুকে শেষ করে তখনও হাফাচ্ছে বীথি। ঝাল এখনও কাটে নাই। পাশে যাঈদ মিটিমিটি হাসছে।
ব্যাডবয়কে বেড-টী না দিয়ে ব্যাড-টী দিতে গেছো! এখন তো ব্যাড-স্কয়ার হয়ে গেছি। চাপা হাসি হাসতে থাকে যাঈদ। এবার তোমার নিস্তার নাই! এই এলাম বলে...
এই খবর্দার! দূরে থাকো বলছি!
ব্যাডবয়রা কাছে কাছে থাকে আর গুডিরা দূরে দূরে ......
শয়তান, বিচ্ছু! আত্মসমর্পনের প্রাক্কালে শুধু এই দু’টি শব্দই বের করতে পেরেছিলো বীথি। বাকীটা সময়ের শব্দগুলি গাঢ়তর আবেগে দ্বৈতকন্ঠের গান হয়ে গেছিলো।
কী, বিশ্বাস হলো না? তাহলে আপনি নিশ্চিত একটা শতভাগ ‘কেঠো’। হা হা হা।
------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
গল্পের সমস্ত চরিত্র ও কাহিনী কাল্পনিক, বাস্তবের সাথে এর কোন মিল নেই। কেউ মিল খুঁজে পেলে তার জন্য লেখক দায়ী নয় tongue

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৩

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

উদাসীন ভাই তো কাপিয়ে দিলেন  lol2

IMDb; Phone: Huawei Y9 (2018); PC: Windows 10 Pro 64-bit

১৪

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

@ উদাসীন - বীথি এল কোত্থেকে? আর পল্লবীর কি হল? সে এখন কোথায়? যতদূর মনে পড়ছে যাইদ শেষ পর্যন্ততো পল্লবীকে বিয়ে করেছিল  tongue_smile

গল্প-কবিতা - উদাসীন - http://udashingolpokobita.wordpress.com/
ছড়া - ছড়াবাজ - http://chhorabaz.wordpress.com/

১৫

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

নাদিয়া আপুর বাউন্সারে চমৎকার পুল উদাসীন ভাই  thumbs_up। বহুত মজা পাইলাম  big_smile

জ্ঞান হোক উম্মুক্ত

১৬

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

উদাসীন'দার মোক্ষম জবাবে না-দিয়া কুপোকাৎ  lol lol lol

১৭

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

ভাইসবেরা, আপনার বেশ হাসছেন...আমিতো ওপাশে ভয়েই মরে যাচ্ছি! না জানি নাদিয়া জামান আবার কী নিয়ে আসে? dontsee আ ভেরি ডেঞ্জারাস উম্যান cry

অরুণদা, ইয়ে ..মানে যাহাই পল্লবী, তাহাই বীথি! এই বীথি কিন্তু আমাদের নাদিয়া জামান (বীথি) নয় lol2

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৮

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

এহেন বিপদের দিনে উদাসীন ভাইয়ের আত্মার শান্তি কামনা করছি।

১৯

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

উদা ভাই @ ঝালের প্রকোট কি বেশি হয়েছিল নাকি জানতে খুব ইচ্ছে করছে  tongue , ফায়ার ব্রিগ্রেড রে খবর দেই  tongue_smile tongue_smile

নিবন্ধিতঃ১১/০৩/২০০৯ ,নিয়মিতঃ১০/০৩/২০১১, প্রজন্মনুরাগীঃ১৯/০৫/২০১১ ,প্রজন্মাসক্তঃ২৬/০৯/২০১১,
পাঁড়ফোরামিকঃ২২/০৩/২০১২, প্রজন্ম গুরুঃ০৯/০৪/২০১২ ,পাঁড়-প্রাজন্মিকঃ২৭/০৮/২০১২,প্রজন্মাচার্যঃ০৪/০৩/২০১৪।
প্রেম দাও ,নাইলে বিষ দাও

২০ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন কোথাও কেউ নেই (১৩-০৯-২০১২ ০৩:৫৮)

Re: বেড-টি সংক্রান্ত

উদাসীন ভাই ফাটায়া দিলেন। clap clap clap
বিথি আপু ।আহ বেচারি কেন যে মরিচ দিতে গেল!!!!!!!!! lol lol


উম......। দুটা প্লাস দু জণের। clap clap

ভালোবাসা উষ্ণতা জাগায় বটে......
তবে এ কাজটি দ্রুততার সাথে করে ভদকা.......