৬০১

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

সদস্য_১ লিখেছেন:

...
৫.ঈশ্বর আছে। এবং মানবজাতি সম্মন্ধে তিনি কেয়ারও করেন। কিন্তু বর্তমানে প্রচলিত ধর্ম সমুহের নিয়ম কানুন এবং নির্দেশনা গুলো তিনি দেননি। ধর্মের এই নিয়ম কানুন এবং নির্দেশনা গুলো আসলে শয়তানের দেয়া।

এটা জটিল ছিল  lol

আচ্ছা, ইসলাম নিয়ে আমরা একটু বেশি জানি বলেই (মুলত) ইসলাম বনাম সায়েন্স রিপ্লাই হচ্ছে। ক্রিস্টিয়ানিটি হিসাব কিতেব তো আরো আজিব লাগে(ক্রিস্টিয়ান দের কাসে মাফি চাই)

বাইবেল হিসেবে সব কিছু স্রস্টি হয়েছে মাত্র ছয় দিনে। আর গোটা ব্রহ্মাণ্ডের সুচনা মাত্র সাড়ে ছ্য় কি ৭ হাজার বছর আগে। প্একটা জিনিষ ভালো যে তারা বিশ্বাস করে ঈশ্বর তার নিজের ইমেজ থেকে মানুষ তৈরি করেছে আর তিনি চান মৃত্যুর পর আমরা তার সাথে (বেহেশতে) থাকি
এমন ভাবলে কেমন হয় যে ঈশ্বর আমাদেরকে তৈরি করার পর ভেবে দেখলেন আমাদেরকে শিক্ষিত করতে হবে। এবং প্রপার এডুকেশনের জন্য আমাদেরকে পাঠালেন দুনিয়ায়। আমাদের মধ্যে সবাই পাশ করতে পারবে না। যারা যারা ঠিক ঠাক মত শিক্ষিত হবে (মানে ভালো মানুষ) তাদেরকে মৃত্যুর পর বেহেশতে রেখে দেবেন। আর যারা ভালো মানুষ হতে পারে নাই। মৃত্যুর পর আবার দুনিয়ায় পাঠাবে আরো শিক্ষা লাভের জন্য tongue এইভাবে চলতে থাকবে।
তবুও প্রশ্ন থেকে যায় ! শিক্ষা দেয়ার জন্য এইভাবে টাইম নস্ট করে দুনিয়ায় পাঠানোর তার দরকার নাই। তিনি সব পারলে শিক্ষা দীক্ষা সেটাপ দিয়ে মানুষ বানাতে পারতেন  tongue_smile
আসল কাহিনী কি !

মুইছা দিলাম। আমি ভীত !!!

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৬০২

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

কুরানের আদী Manuscript নিয়ে ঘাটতে ঘাটতে ফোরামের আলোচনা পড়লাম। এখানে Christoph Luxenberg এর "Die syro-aramäische Lesart des Koran: Ein Beitrag zur Entschlüsselung der Koransprache" বইটিকে এতো উচু করে তুলে ধরা হয়েছে যা পড়লে মনে হয় কুরআন এর অস্তিত্ব শেষ হয়ে গেল। কিন্তু আসলে কি তাই? আমাদের মুসলমানদের সমস্যা হোল invarbrass এর মতো পড়ালেখা করা কেউ যখন কোন বিষয় নিজের মতো উপস্থাপন করেন তখন সেটাই মেনে নেই কিন্তু তার বিপরীত কিছু অনলাইনে কিছু আছে কিনা খোজ করি না। এখানে invarbrass, Christoph Luxenberg এর ব্যাপারে কত কিছু বললেন অথচ এর বিপরীতে কারো কোন কথা নাই কিন্তু অনলাইনে দুর্দান্ত একটা রিফিউটাল আছে যা পড়লে invarbrass এর কথার চাতুরীতে প্রলুব্ধ হবার কিছু থাকে না। কারো সময় থাকলে লিঙ্ক দিচ্ছিঃ From Alphonse Mingana To Christoph Luxenberg: Arabic Script & The Alleged Syriac Origins Of The Qur'an - http://www.islamic-awareness.org/Quran/ … vowel.html

First Composed: 20th December 2004
Last Modified: 3rd May 2007

সেই ২০০৪/২০০৭ সালে Luxenberg বই এর যাবতীয় দুর্বলতা দারুনভাবে তুলে ধরা হয়েছে এরপরো ২০১২/২০১৩ তে এসে invarbrass এমনভাবে বিষয়টা তুলে ধরলেন যেন অনেক গোপন সত্য বের হয়ে এসেছে। যাদের সময় আছে পড়ে দেখুন আর একটা মজার বিষয় দেখুনঃ

http://www.islamic-awareness.org/Quran/Text/Mss/luxcover.jpg

One would expect that the author would have unearthed an important piece of evidence in the form of a manuscript, or an inscription to show the evidence of syro-aramäische reading of the Qur'an. Such an evidence on the cover page of the book would have befittingly matched the flowery title. However, to everyone's surprise the title page is from a first century Qur'anic manuscript MS. Arabe 328a located at the Bibliothèque Nationale, Paris.

দেখুন বইটার কভার পেজের ইমেজ নিয়েই কি চাতুরতা করা হয়েছে। আর ভেতরের কন্টেন্ট এর প্রতিটি টুইস্টগুলো ধরে ধরে ভুল প্রমান করে দেওয়া হয়েছে http://www.islamic-awareness.org/Quran/ … vowel.html লিঙ্কটিতে। সময় থাকলে সবাই পড়ে নিবেন আশা করি। Quranic Manuscript নিয়ে এখানে invarbrass / @mon যাই লিখেছেন তার প্রতিটি টপিক এর ব্যাখ্যা অনলাইনে আছে। কারো সন্দেহ হলে প্রতিটি বিষয়ে নিয়ে সার্চ করুন। পক্ষে বিপক্ষে লেখাগুলো পড়ুন। আশা করি উত্তর পেয়ে যাবেন। And Allah knows best!

৬০৩ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সদস্য_১ (২০-০২-২০১৫ ২১:০১)

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

ফারহান খান লিখেছেন:
সদস্য_১ লিখেছেন:

...
৫.ঈশ্বর আছে। এবং মানবজাতি সম্মন্ধে তিনি কেয়ারও করেন। কিন্তু বর্তমানে প্রচলিত ধর্ম সমুহের নিয়ম কানুন এবং নির্দেশনা গুলো তিনি দেননি। ধর্মের এই নিয়ম কানুন এবং নির্দেশনা গুলো আসলে শয়তানের দেয়া।

এটা জটিল ছিল  lol

lol আপনি বিষয়টা শয়তানের ভিউপয়েন্ট থেকে চিন্তা করুন। খোদা মানুষ বানিয়েছেন। তারপর তিনি নিজেই তাদের ভাল মন্দ বিচার করার ক্ষমতা দিয়েছেন। শয়তানের কাজ হল এই সব মানুষদের খারাপ পথে চালিত করা। খোদা যে সব কাজ করতে বারন করেছেন সেসব কাজ করানো। এখন, এই কাজগুলো মানুষকে দিয়ে করাতে হলে শয়তানের দুটো রাস্তা খোলা আছে.... ১। মিলিওন মানুষের ব্রেনকে হ্যাক করা এবং খোদা প্রদত্য "ভাল-মন্দ যাচাই ও সেপথে চলার ক্ষমতা" কে নষ্ট করে দেয়া। ২। খোদা যেহেতু শুধু বইয়ের মাধ্যমে মানুষের সাথে যোগাযোগ করেন (বাইবেল, কোরান, গীতা...) সেহেতু সেই বই গুলো হ্যাক করা এবং সেখানের নির্দেশাবলী বদলে শয়তানের ইচ্ছেমত নির্দেশাবলী ঢুকিয়ে দেয়া (যেমন: জিহাদ করা, অন্যকে (বিধর্মী) খতম করা ইত্যাদি ইত্যাদি)।

প্রশ্ন হল, আপনি যদি শয়তান হন তাহলে কোনটা করবেন? মানুষের মাথাকে হ্যাক করতে চেষ্টা করবেন? নাকি সামান্য কয়েকটা বইকে বদলে দিতে চেষ্টা করবেন? ভেবে দেখুন ৭/৮ শতকে... মানে গুটেনবার্গ ছাপাখানা আবিস্কারের আগে... সারা দুনিয়ায় গোটা কয়েক কপি বাইবেল এবং গোটা কয়েক কপি কোরান ছিল। সেগুলো রাখা হত কুড়ে ঘরে... না ছিল কোন সিসি ক্যামেরা, না ছিল কোন লেজার ট্রিপিং এলার্ম। আলৌকিক ক্ষমতাধারী শয়তান যে কিনা খোদার নিজের হাতে বানানো মানুষের ব্রেন কে হ্যাক করার ক্ষমতা রাখে... সেকি রাতের অন্ধকারে সবগুলো বাইবেল এবং কোরানের লেখাগুলো বদলে দিতে পারতনা?

এখন যদি আমার ব্রেন এবং পবিত্র বইয়ের মধ্যে কন্ট্রাডিকশন দেখি... যেমন আমার ব্রেন মদ খেতে চায়, অথচ বইয়ে লেখা আছে মদ খাওয়া নিষেধ। যদিও বই এবং ব্রেন দুটাই খোদার বানানো। তাহলে কোনটাকে বিশ্বাষ করব। ব্রেনকে? না বইকে? দুটোর মধ্যে একটা তো অবশ্যই হ্যাক হয়েছে। না হলে দুটো দুই জিনিস চাইতোনা।

ভেবে দেখার বিষয়... দিনের মধ্যে এতোবার প্রেয়ার করছি... শয়তানের জন্য করছিনাতো  thinking



@mamun1978 ভাই এতো কষ্ট করে সাইন আপ করলেন, আরেকটু কষ্ট করে ওখানে কি বলা আছে তার সারমর্ম দুলাইন টাইপ করুন। ইনভার ভাই সত্য/মিথ্যা/চাতুরী যাই করেছেন এখানে লিখে করেছেন। উনি নিজে পড়ে যা বুঝেছেন তা আমাদের নিজের ভাষায় বুঝাতে চেয়েছেন। শুধু একটি লিংক ধরিয়ে দিয়ে চলে যাননি।

৬০৪

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

দেখুন এখানে invarbrass কোরআনের উতস বিষয়ে যেই কথাগুলো বলেছেন তা নতুন কিছু না (তিনি অবশ্যই তা দাবীও করেন নি)। তবে তার কথাগুলো Answering Islam, A Christian-Muslim Dialog and Apologetic (www.answering-islam.org) সাইটের কথাগুলোর সাথে মিলে যায় কারন কোরয়ানের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো ঘুরে ফিরে প্রায় একই। এই এন্সারিং ইসলামের সাইটের কথাগুলোই ঘুরে ফিরে invarbrass এবং অন্যান্যরা বলেছেন। সত্যি কথা বলতে www.answering-islam.org এর টপিকগুলো রিফিউট করার মতো সাইট নেই বললেই চলে যার মধ্যে http://www.islamic-awareness.org/ এবং www.answering-christianity.com অন্যতম।

কুরয়ানের বিরুদ্ধে invarbrass এবং অন্যানরা যা বলেছেন তার প্রায় সবগুলোর Refutation এই একটি মাত্র লিঙ্ক ঘুরে আসলেই পাবেনঃ http://www.islamic-awareness.org/Quran/Sources/

invarbrass  যেমন Moon God বিষয়ে বলেছেন তার উপর চার চারটা রিফিউটেশন আছে যাতে ধরে ধরে সেই থিউরী ভুল প্রমান করা হয়েছে। এছাড়া বাকী অভিযোগগুলোর খন্ডন তো আছেই।

নাস্তিকদের একটা সুবিধা হোল তারা আপনাকে নানা বিষয়ে সহীহ বুখারী ধরে বা সহীহ হাদিস ধরে প্রমান দেবার চেষ্টা করবে। তারা যখন খুশী সহীহ হাদীস ব্যাবহার করবে এবার আপনি তাদের নীচের হাদিসগুলোর ব্যাপারে ব্যাখ্যা চান। বলুন এগুলো সহীহ হাদিস তারা এগুলো মানে কিনা। মানলে এগুলো মুহাম্মদ (সাঃ) এর মিরাকল মানতে হবে আর না মানলে তাদের হাদীস এর উদাহরন টানতে মানা করুন। দেখুন তারা কি করে !

Food Multiplication

Sahih al-Bukhari Volume 4, Book 56, Number 780:

Narrated by Jabir:

My father died in debt. So I came to the Prophet and said, "My father left unpaid debts, and I have nothing (to pay back the debt), except the yield of his Date Palm Trees; and their yield for many years will not cover his debt. So please come with me (to meet the creditors), so that the creditors may not misbehave with me." The Prophet went around one of the heaps of dates and invoked (Allah’s) blessings, and then did the same with another heap and sat on it and said, "Weigh (the dates)." He (Prophet Mohammad) paid them (the debtors) what they were entitled to and what remained was as much as had been paid to them.


Water Multiplication

Sahih al-Bukhari Volume 4, Book 56, Number 779:

Narrated by Abdullah:

Once we were with Allah's Messenger (Prophet Mohammad) on a journey, and we ran short of water. He said, "Bring the water remaining with you." The people brought a container which had little water left. He placed his hand in it and said, "Come to the blessed water, and the Blessing is from Allah." I saw the water flowing from among the fingers of Allah's Messenger, and no doubt, we heard the meal glorifying Allah, when it was being eaten (by him).



Sahih al-Bukhari Volume 4, Book 56, Number 777:

Narrated by Al-Bara:

We were one-thousand-and-four-hundred (1400) persons on the day of Al-Hudaibiya (Treaty). (At) Al-Hudaibiya, (there) was a well. We drew out its water, not leaving even a single drop. The Prophet sat at the edge of the well and asked for some water, with which he rinsed his mouth. Then he threw it out into the well. We stayed for a short while. Then, we drew water from the well and quenched our thirst.  Even our riding animals drank water to their satisfaction.



Sahih al-Bukhari Volume 1, Book 7, Number 340:

Narrated by Imran:

Once we were traveling with the Prophet …. After he (Prophet Mohammad) finished the prayer, he saw a man sitting alone who had not prayed with the people. He asked, "O so and so! What has prevented you from praying with us?" He replied, "I am Junub (impure because he ejaculated semen, usually involuntarily during sleep) and there is no water. " The Prophet said, "Perform Tayammum with (clean) earth and that is sufficient for you."

Then the Prophet proceeded on and the people complained to him of thirst. Thereupon, he (the Prophet) got down and called a person (the narrator 'Auf added that Abu Raja' had named him but he forgot his name) and 'Ali, and ordered them to go and bring water.

So, they went in search of water and met a woman who was sitting on her camel between two bags of water. They asked, "Where can we find water?" She replied, "I was there (at the place of water) this hour yesterday and my people are behind me."

They requested from her to accompany them. She asked, "Where?" They said, "To Allah's Messenger." She said, "Do you mean the man who is called the Sabi, (with a new religion)?" They replied, "Yes, the same person, so come along."

They brought her to the Prophet and narrated the whole story. He said, "Help her to dismount." The Prophet asked for a pot, then he opened the mouths of the water bags and poured some water into the pot. Then he closed the big openings of the bags and opened the small ones and the people were called upon to drink and water their animals. So they all watered their animals and they (too) all quenched their thirst and also gave water to others and last of all, the Prophet gave a pot full of water to the person who was Junub and told him to pour it over his body.

The woman was standing and watching all what they were doing with her water. By Allah, when her water bags were returned, they seemed to be more full (of water) than they had been before (Miracle of Allah's Messenger).

Then, the Prophet ordered us to collect something for her; so dates, flour and Sawiq were collected which amounted to a good meal that was put in a piece of cloth. She was helped to ride on her camel and that cloth full of food-stuff was also placed in front of her and then the Prophet said to her, "We have not taken your water, but Allah has given water to us."

She returned home late. Her relatives asked her: "O so and so what has delayed you?" She said, "A strange thing! Two men met me and took me to the man who is called the Sabi' and he did such and such a thing. By Allah, he is either the greatest magician between this and this (gesturing with her index and middle fingers raising them towards the sky, indicating the heaven and the earth) or he is Allah's true Messenger."

Afterwards the Muslims used to attack the pagans around her abode, but never touched her village. One day she said to her people, "I think that these people leave you purposely. Have you got any inclination to Islam?" They obeyed her and all of them embraced Islam.

… Abul 'Ailya said, "The Sabis are a sect of people of the Scripture who recite the Book of Psalms."



Supplication for Rain

Sahih al-Bukhari Volume 8, Book 73, Number 115:

Narrated by Anas bin Malik:

A man came to the Prophet on a Friday, while he (the Prophet) was delivering a sermon in Medina, and said, "There is lack of rain, so please invoke your Lord to bless us with rain." The Prophet looked at the sky when no cloud could be detected. Then, he invoked Allah for rain. Clouds started gathering together and it rained till the Medina valleys started flowing with water. It continued raining till the next Friday. Then, that man (or some other man) stood up while the Prophet was delivering the Friday sermon, and said, "We are drowned; Please invoke your Lord to withhold it (rain) from us." The Prophet smiled and said twice or thrice, "O Allah! Please let it rain around us and not upon us." The clouds started dispersing over Medina to the right and to the left, and it rained around Medina and not upon Medina. Allah showed them (the people) the miracle of His Prophet and His response to his invocation.

Lights to Guide Prophet Mohammad’s Companions

Sahih al-Bukhari Volume 1, Book 8, Number 454:

Narrated by Anas bin Malik:

Once, on a dark night, two of the companions of the Prophet departed (after a meeting with the prophet) and were led by two lights like lamps (from the sky) lighting the road in front of them. And, when they parted (from each other), each of them was accompanied by one of these lights till he reached his house.



Crying of the Trunk of the Date Palm Tree

Sahih al-Bukhari Volume 4, Book 56, Number 783:

Narrated by Ibn Umar:

The Prophet used to deliver his sermons while standing beside (or leaning on) a trunk of a Date Palm tree. When he had the pulpit made, he used it (the pulpit) instead (of the Date Palm tree). The trunk (of the tree) started crying/weeping (grieving out of love for the prophet) and the Prophet approached it, rubbing his hand over it (to sooth it and stop its crying/weeping).

Comment: This story indicates that people actually heard the truck of the tree crying/weeping.



A Wolf Speaks and Recognizes Mohammad as of a Messenger of Allah

Sahih al-Bukhari Volume 3, Book 39, Number 517:

Narrated by Unais bin 'Amr:

Ahban bin Aus said, "I was amongst my sheep. Suddenly a wolf caught a sheep and I screamed at it (the wolf). The wolf sat on its tail and addressed me, saying, 'Who will look after it (i.e. the sheep) when you are busy and not able to look after it? Do you forbid me the provision which Allah has provided me?' Ahban added, "I clapped my hands and said, 'By Allah, I have never seen anything more interesting and wonderful than this!' On that, the wolf said, 'There is something more (interesting and) wonderful than this; that is, Allah's Messenger… inviting people to Allah (i.e. Islam).' "Unais bin 'Amr added, "Then Ahban went to Allah's Messenger and informed him what happened and embraced Islam.)"

৬০৫ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন mamun1978 (২১-০২-২০১৫ ২২:৫০)

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

আরেকটি বিষয়ে সবার দৃষ্টি আকর্ষন করছি invarbrass যেই ধরনের সাইট থেকে ইনফরমেশন নেন তার অনেকগুলোতেই আরবী শব্দ ট্রান্সলেশনের সময় টুইস্ট করা হয়। এখানে কুরআন সংরক্ষনের ক্ষেত্রে ইবনে মাসুদের ব্যাপারে অনেক ভ্রান্ত কথা বলা হয়েছে। invarbrass এর কাছ থেকে সহজ বাংলায় অনেক কিছু জেনেছেন এবার যাদের আগ্রহ আছে তারা একটু কষ্ট করে ইংরেজীতে সেগুলোর আরেক ভার্সন জানুনঃ http://www.letmeturnthetables.com/2011/ … quran.html


-- Ibn Masud does not think highly of today's Quran, the one collected by Zaid. In comparing himself to Zaid, he says:
“The people have been guilty of deceit in the reading of the Qur'an. I like it better to read according to the recitation of him (Prophet) whom I love more than that of Zayd Ibn Thabit. By Him besides Whom there is no god! I learnt more than seventy surahs from the lips of the Apostle of Allah, may Allah bless him, while Zayd Ibn Thabit was a youth, having two locks and playing with the youth.” (Ibn Sa'd, Kitab al-Tabaqat al-Kabir, Vol. 2, p.444) –

This is wrong translation. Translation should actually be;

“So conceal the manuscripts! I like it better to read according to the recitation of him (Prophet) whom I love more than that of Zayd Ibn Thabit. By Him besides Whom there is no god! I learnt more than seventy surahs from the lips of the Apostle of Allah, may Allah bless him, while Zayd Ibn Thabit was a youth, having two locks and playing with the youth.”

Allah knows what has lead to the addition of the words “in the reading of Qur’an” in the translation given by missionaries. See the actual Arabic text below and decide for yourself;
فَغَلَّوُا الْمَصَاحِفَ. فَلأَنْ أَقْرَأَ عَلَى قِرَاءَةِ مَنْ أُحِبُّ أَحَبَّ إِلَيَّ مِنْ أَنْ أَقْرَأَ عَلَى قِرَاءَةِ زَيْدِ بْنِ ثابت. فو الذي لا إِلَهَ غَيْرُهُ لَقَدْ أَخَذْتُ مِنْ فِيِّ رَسُولِ اللَّهِ - صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ - بِضْعًا وَسَبْعِينَ سُورَةً. وَزَيْدُ بْنُ ثَابِتٍ غُلامٌ لَهُ ذُؤَابَتَانِ يَلْعَبُ مَعَ الْغِلْمَانِ

So the translation given by missionaries makes “ghalla” to mean “deceit” while the basic meaning of the word and the one intended here is “to hide/conceal.”

দেখুন আরবী শব্দ নিয়ে খেলা করে কিভাবে এক অর্থকে আরেক অর্থে নিয়ে যাওয়া হয়।


উসমানের কোরয়ানের ব্যাপারে নানা অভিযোগের জবাব এই পিডিএফ থেকেও পেতে পারেনঃ https://thedebateinitiative.files.wordp … mphlet.pdf

invarbrass একজন মেধাবী মানুষ। তিনি ইংরেজী সাইট এবং বইগুলো পড়ে বিষয়গুলো মনে রাখতে পারেন কারন তিনি বিষয়গুলো নিয়ে আগ্রহ বোধ করেন। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তার লিখিত টপিকগুলোর কোন ব্যাখ্যা কোন মুসলমানদের নেই। এই প্রজন্ম ফোরাম খুব কম জনপ্রিয় একটি সাইট এবং এখানে invarbrass এর মানের কাছাকাছি কেউ নেই যে বিষয়গুলো বাংলায় লিখবে। আমি নিজে তার তুলনায় কিছুই না। কিন্তু আগেও বলেছি আবারো বলছি তার উত্থাপিত প্রতিটি বিষয় নতুন না এগুলো অনেক আগে থেকেই ক্রিশ্চীয়ান সাইটগুলোতে ছিল এবং একই সাথে সেগুলোর যথাযত ব্যাখ্যা মুসলিম সাইটগুলোতে আছে। আপনারা গুগল ব্যাবহার করুন। বিতর্কিত প্রতিটি টপিক নিয়ে রিসার্চ করুন। জবাব পাবেন ই পাবেন।

এই বলে বিদায় নিচ্ছি। সবাই ভাল থাকুন। একজন invarbrass কে তার জ্ঞ্যানের জন্য শ্রদ্ধা করুন কিন্তু পূর্ন বিশ্বাষ করে নিজের ধর্ম মত বদলে দেবার আগে বার বার রিসার্চ করুন। ভাল থাকবেন সবাই। বিদায়।

৬০৬ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আহমাদ মুজতবা (২১-০২-২০১৫ ২২:৫২)

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

কষ্ট করে ইংরেজীতে জানতে পারলে সবাই গুগল করলেই জানতে পারবে আপনি আর কষ্ট করে পেস্ট করে কি করবেন। এখানে আমরা গঠনমূলক আলোচনা করতে চাচ্ছি এবং সেটা বাংলায়। কে কি লিখলো কার আর্গুমেন্টের বিপরীতে এগুলা পড়ে লাভ নেই। আপনার কি মনে হয়, আপনার নিজের যুক্তি কি সেগুলা কিছু থাকলে নাহয় শেয়ার করূন আমরাও একটু শিখি। ইংরেজীতে আবার আমি খুবই কাঁচা। তাই পেস্ট করা ইনফোরমেশ পড়তে পারলাম না।

“If you can't explain it to a six year old, you don't understand it yourself.” ― Albert Einstein

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

৬০৭

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

দঃখিত আমার কাজ ছিল কেবল সবাইকে ধরিয়ে দেওয়া। যা বলার বলেছি আর কিছুই বলার নেই। যারা আগ্রহ বোধ করবে তারা ইচ্ছে করলে সাইটগুলোতে ভিজিট করে পক্ষে বিপক্ষে কথাগুলো জানতে পারবে। invarbrass / আহমাদ মুজতবা / mamun1978 এর আলোচনার চেয়েও অনেক যৌক্তিক গঠনমূলক আলোচনা সাইটগুলোতে আছে। প্রজন্ম ফোরাম যেন তাদের একমাত্র জানার উতস না হয় তাই আমার বক্তব্য। ভাল থাকুন। সবার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে নিচ্ছি। আল্লাহ হাফেজ।  thumbs_up

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

কষ্ট করে ইংরেজীতে জানতে পারলে সবাই গুগল করলেই জানতে পারবে আপনি আর কষ্ট করে পেস্ট করে কি করবেন। এখানে আমরা গঠনমূলক আলোচনা করতে চাচ্ছি এবং সেটা বাংলায়। কে কি লিখলো কার আর্গুমেন্টের বিপরীতে এগুলা পড়ে লাভ নেই। আপনার কি মনে হয়, আপনার নিজের যুক্তি কি সেগুলা কিছু থাকলে নাহয় শেয়ার করূন আমরাও একটু শিখি। ইংরেজীতে আবার আমি খুবই কাঁচা। তাই পেস্ট করা ইনফোরমেশ পড়তে পারলাম না।

৬০৮

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

@মামুন ভাই
আপনার বদলে দঃখিত আমিই হচ্ছি। চারটা লম্বা পোষ্ট করলেন অথচ কি বিষয়ে কথা বলছেন সেটাই বুঝতে পারলামনা। শুধু শুনছি ইনভার মন্দ করেছেন/ ভাল করেছেন ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু আপনি কোন মন্দ কথাটার কথা বলছেন অথবা কোন ভাল কথাটার কথা বলছেন সেটাই বুঝতে পারলামনা। শুধু বিশেষন দিয়ে কোন ভাব প্রকাশ করা যায় না। সাথে বিশেষ্য ও লাগে।

ঘটককে জিজ্ঞাসা করা হল
"পাত্র সম্মন্ধে বলুন"
ঘটক: "ছেল হল হাজারে একটা"
"তাই? কেন?"
ঘটক: "ছেলে অনেক ভাল"
"কিভাবে"
ঘটক: "আরে ভাই দারুন ছেলে, এমন ছেলেই হয়না"

ঘটক লাইনের পর লাইন বলতে পারেন। কিন্তু আসল বক্তব্য শুন্য। শুধু বিশেষন দিয়ে অর্থপুর্ন বাক্য হয়না।

আপনার উপরের পোষ্টে কোটকৃত লেখায় প্রথমে ভুল ট্রানন্সিলেশন পরে সঠিক ট্রানন্সিলেশন দেখালেন। কিন্তু আমার কাছে ট্রানন্সিলেশন দুটোর মর্মার্থ একই মনে হল। জিয়াদ মিয়া ছেলে বলায় দুইটা তালা নিয়া খেলত কিনা তাতে কি আসে যায়? এই টপিকের পুরোটাই তো পড়েছি কিন্তু এই ব্যাপারে ব্রাশুভাই কিছু বলেছেন বলেতো মনে পরেনা। তার লেখা থেকে যদি একটু কোট করে দিতেন তাহলে ভাল হত। মানে ইনভার ভাই ভুল কি বলেছে (বা কপি করেছেন), বাদলে সঠিকটা কি হবে, এবং উনার ভুল/ঘুরিয়ে বলার উদ্দেশ্যের ব্যাখা। এভাবে তিনটা পয়েন্ট উল্লেখ করলে তবেইনা ব্যাপারটা বুঝতে পারব।

৬০৯ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন কাঠাল পাতা (২২-০২-২০১৫ ০২:২২)

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

হযরত মুহাম্মদ হচ্ছেন মুসলমানদের কাছে সবচেয়ে আদর্শ মানব ও অমুসলিমদের কাছে মধ্যযুগের বিতর্কিত এক আরব শাসক। দয়াল নবী, দ্বীনের নবী বলে যে কাহিনী শুনানো হয় সেগুলো আদৌ সত্য কিনা প্রশ্ন সাপেক্ষ। দয়াল নবী হলে বানু কুরাইজার ইহুদীদের এইভাবে গনহত্যা করতেন না সঙ্গী সাথীদের নিয়ে। এই হত্যার বিষয় কিন্তু কোরআনে লেখা। 'তোমরা ইহুদীদের একদলকে করছো হত্যা, আর একদলকে করছো বন্দী'।  এই আয়াতেই সব স্পষ্ট। সুতরাং পাশ কাটানোর সুযোগ নেই। এই কাজ এই যুগে করলে কি হতো ভেবে দেখুন।


ঈশ্বর আছেন কিন্তু উনি শুধু একজন মানুষকে পুরো দুনিয়া রাজত্ব করতে পাঠান নি। ঈশ্বর / আল্লাহ্‌ যদি হযরত মুহাম্মদকে রাসূল হিসেবে পাঠানও তবুও উনাকে পুরো দুনিয়ার সব মানুষের জন্য পাঠানো হয় নি। তিনি শুধু আরবদের জন্য এসেছেন।

৬১০

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

কাঠাল পাতা লিখেছেন:

দয়াল নবী হলে বানু কুরাইজার ইহুদীদের এইভাবে গনহত্যা করতেন না সঙ্গী সাথীদের নিয়ে। এই হত্যার বিষয় কিন্তু কোরআনে লেখা। 'তোমরা ইহুদীদের একদলকে করছো হত্যা, আর একদলকে করছো বন্দী'।  এই আয়াতেই সব স্পষ্ট। সুতরাং পাশ কাটানোর সুযোগ নেই।

কেন হত্যা করা হয়েছিল? তা তো বললেন না। আগের ইতিহাসগুলো বলেন।

কাঠাল পাতা লিখেছেন:

এই কাজ এই যুগে করলে কি হতো ভেবে দেখুন।

এখনকার যুদ্ধগুলোতে মৃত্যুর সংখ্যা আগের চেয়ে বেশি না কম? হিটলার কত জনকে হত্যা করেছিল?
পরম(!)মানবিক অস্ত্র হিরোশিমাতে কি করেছিলো?


কাঠাল পাতা লিখেছেন:

ঈশ্বর আছেন কিন্তু উনি শুধু একজন মানুষকে পুরো দুনিয়া রাজত্ব করতে পাঠান নি। ঈশ্বর / আল্লাহ্‌ যদি হযরত মুহাম্মদকে রাসূল হিসেবে পাঠানও তবুও উনাকে পুরো দুনিয়ার সব মানুষের জন্য পাঠানো হয় নি। তিনি শুধু আরবদের জন্য এসেছেন।

"আমি আপনাকে সমগ্র মানুষের জন্য রহমত স্বরুপ প্রেরণ করেছি" এটা কোরআনের আয়াত। অবশ্য আপনি যদি কোরআনকে ধর্মগ্রন্থ হিসেব স্বীকৃতি দেন(!) আর সকল মুসলমানই বিশ্বাস করেন যে কোরআন শুধু মুসলিম নয়, বরং বিশ্বের সমস্ত মানুষের জন্য।

আমি আপনাকে personaly জানিনা। তারপরও বলছি, " আমরা যে ভাবে যে পরিবেশে বড় হয়েছি বা সমাজ-প্রকৃতি, আশেপাশের মানুষগুলো আমাদের যেভাবে শেখিয়েছে সেভাবেই শিখেছি এবং তার রেশ মৃত্যু পর্যন্ত থেকে যাবে এবং সে কারনেই সাধারনত হিন্দুর সন্তান হিন্দুই হয়... মুসলমানের ঘরে মুসলমানই... খ্রিষ্টান এর ঘরে খ্রিষ্টানই।"

আমি আপনার প্রতি কোন বিশেষ মত চাপিয়ে দিতে চাচ্ছিনা। তবে এটুকু বলব যে, কোন বিষয়বস্তু  পরিষ্কার জানার জন্য মুক্ত মনের দরকার হয়। নিজের মত করে কোন কিছু বূঝতে চাইলে তা জড়তা মুক্ত হয় না। উদাহরণ দিয়ে বলি, কোরআনের কোন আয়াত বা মর্মার্থ সম্পর্কে প্রশ্নবোধক দৃষ্টিভঙ্গি সৃষ্টির আগে কোরআনের সকল আয়াতের মর্মার্থ জানা আবশ্যিক। এতগুলো বাক্য লিখার জন্য দুঃখিত। ধন্যবাদ

????????????????????????????????????????????????????????????????????
Nothing Like Anything
????????????????????????????????????????????????????????????????????

৬১১ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন কাঠাল পাতা (২৭-০২-২০১৫ ০১:০৫)

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

প্রশ্নবোধক (?) লিখেছেন:

এখনকার যুদ্ধগুলোতে মৃত্যুর সংখ্যা আগের চেয়ে বেশি না কম? হিটলার কত জনকে হত্যা করেছিল?

এটা বলে আপনি নবী মোহাম্মদকে হিটলারের সাথে তুলনা করে ফেলেছেন। যে কোনো ধরনের হত্যাই নিন্দনীয়। কা'ব ইবনে আল আশরাফ নামের এক কবিকে নবীর নির্দেশে চোরাগোপ্তা হামলা চালিয়ে হত্যা করা হলো কারন কবিতার মাধ্যমে সে নবীর সমালোচনা করেছিলো। বর্তমানে জঙ্গীরা ঐ ঘটনায় অনুপ্রানিত হয়ে চোরাগোপ্তা হামলা চালাচ্ছে।

ধর্ম প্রতিষ্ঠা করতে হলে হত্যা করতে হবে এই বিশ্বাস থাকলে আজ যে দেশের এক প্রকৌশলীকে হত্যা করলো জঙ্গীরা সেটাও সওয়াবের ও সঠিক কাজ হিসেবে মানতে হবে। ছিঃ বলতেও ঘৃনা লাগে। এভাবে উল্টো জঙ্গীরা সবাইকে (মডারেট) ধীরে ধীরে নবী বিদ্বেষী করে দিচ্ছে।

৬১২

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

কাঠাল পাতা লিখেছেন:

এটা বলে আপনি নবী মোহাম্মদকে হিটলারের সাথে তুলনা করে ফেলেছেন। যে কোনো ধরনের হত্যাই নিন্দনীয়।

আমি কখনই মোহাম্মাদকে হিটলারের তুলনা করার মত উদাহরন দিই নি। শুধু আগেকার সংখ্যা আর বর্তমানের মধ্যে পার্থক্য দেখিয়েছি। আর যে কোন হত্যাই নিন্দনীয়(?)  আপনি ভাল করে ইতিহাস অনুসন্ধান করলে জানতে পারবেন মোহাম্মাদের মুসলিম বাহিনী কখনই আগে যুদ্ধের ঘোষণা দেননি (যুদ্ধেই ফয়সালা হওয়া উচিত এমন কারণ ব্যতিত)।
কাব বিন আশরাফের ইতিহাসটা ভাল করে জানলে আপনার বুঝতে সুবিধা হবে যে কেন সে নিহত হয়েছিল। মোহাম্মাদ যদি অস্ত্রের ভাষায় ধর্ম প্রচার করতেন তাহলে মক্কা বিজয়ের দিন আরেকটা লোহিত সাগর তৈরী হত।

আপনি বর্তমানের জঙ্গীগোষ্ঠী বা উগ্রপন্থীদের মতাদর্শকে মোহাম্মদের মতাদর্শ হিসে্বে উপস্থাপন করতে চাচ্ছেন। যা দুঃখের বিষয়। আপনার সম্ভবত জানা নেই যে, " বর্তমানের অধিকাংশ তথাকথিত আলেম(জ্ঞানী) সমাজ (যারা নিজেদের islamist হিসেবে দাবী করেন অথচ ইসলামী বিষয়বস্তুকে নিজেদের স্বার্থ মোতাবেক ব্যাখ্যা করেন)। তারা স্পষ্ট জাহান্নামী(নরকবাসী)" কথাগুলো কোরআন এবং হাদীস দ্বারা স্বীকৃত ।

আমার কথা হল, আপনি মোহাম্মাদের জন্মের একশত বছর পূর্ব থেকে প্রধান চার সাহাবী(সাথী) পর্যন্ত ইসলামের ইতিহাসের মুসলিম ব্যাখ্যা পড়ুন। আগে জানুন মুসলিমরা তাদের ধর্ম সম্পর্কে কি ব্যাখ্যা দিতে চায়।

তারপর ইসলাম বিরোধী, অন্য ধর্মালম্বী, এবং তথাকথিত সংশয়বাদীদের উপস্থাপিত প্রশ্ন এবং ব্যাখ্যা দেখুন।
আশা করি clearance পাবেন।

যা ঠিক তা মানতে আমার আপত্তি নেই (যদিও তা আমার বিশ্বাসের বিপরীত যায়)।

[ বিঃদ্রঃ যদি আপনি ঘোষণা দেন যে, আপনার সকল ধর্মের সকল  বিষয়ে ষ্পষ্ট জানা আছে। তাহলে আমার কোন বাক্য নাই।
অনুগ্রহ করে আমার উল্লেখিত কথা গুলো ব্যক্তিগত আক্রোশ হিসেবে নিবেন না। এটুকু মহানুভবতা কামনা করছি। ]

????????????????????????????????????????????????????????????????????
Nothing Like Anything
????????????????????????????????????????????????????????????????????

৬১৩

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

যেখানে যা ঘটে সব কিছুই দোষ এ্ক জায়গায় দিবার জন্য কিছু মানুষ সদা প্রশস্ত থাকে

এই সংবাদটি

৬১৪

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

নাস্তিকতায় কি সুখ আছে ,,,,,, নিশ্চয় নেই ,,,! কেননা আমরা যারা আল্লাহ কিংবা ভগবানের বা অন্য যে ধর্মেই হোক না কেন , আমাদের (আশ্তিক )রা যখন আগর বাতি , মোম বাতি জালিয়ে একটু নির্জনো সৃষ্টি কর্তার পার্থনা করি ,,,,, তাতে আমাদের মনে যেসুখ পাই , সেই সুখটুকু কেন ননষ্ট করতে যাব নাশ্তিক হয়ে ,,,,,। আর বড় কথা হল কোনও বিপদে আপদে সাহায্যে চাওয়ার মত মত কেউ থাকলে একটু নিস্তার পাওয়া যাই ,,,নাস্তিকদের সেই চাওয়ার জায়গাটাও নাই ,,,,,, mail

সেদিন একটি কবিতা লিখেছিলাম , লেখা শেষ হলে দেখি একি ?
সারা পাতা জুড়ে শুধু তোমারই নাম ।

৬১৫

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

নাস্তিকতায় কি সুখ আছে ,,,,,, নিশ্চয় নেই ,,,! কেননা আমরা যারা আল্লাহ কিংবা ভগবানের বা অন্য যে ধর্মেই হোক না কেন , আমাদের (আশ্তিক )রা যখন আগর বাতি , মোম বাতি জালিয়ে একটু নির্জনো সৃষ্টি কর্তার পার্থনা করি ,,,,, তাতে আমাদের মনে যেসুখ পাই , সেই সুখটুকু কেন ননষ্ট করতে যাব নাশ্তিক হয়ে ,,,,,। আর বড় কথা হল কোনও বিপদে আপদে সাহায্যে চাওয়ার মত মত কেউ থাকলে একটু নিস্তার পাওয়া যাই ,,,নাস্তিকদের সেই চাওয়ার জায়গাটাও নাই ,,,,,, mail

সেদিন একটি কবিতা লিখেছিলাম , লেখা শেষ হলে দেখি একি ?
সারা পাতা জুড়ে শুধু তোমারই নাম ।

৬১৬

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

http://s15.postimg.org/88h5tvonf/screenshot_234.png
National Geographic Magazine. March 2015, pg 35

৬১৭

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

ধর্ম বিষয়ে জানার জন্য তর্ক বিতর্ক করার কোন যুক্তিই আসে না, আপনি যদি নাস্তিক বা আস্তিক হয়ে থাকেন তাহলে দয়া করে ইতিহাস ঘাটাঘাটি করে দেখুন সব সত্য বেড়িয়ে আসবে। অযথা কেন মারামারি হানাহানি করবো???

৬১৮ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সীমান্ত ঈগল (মেহেদী) (১৭-০৪-২০১৫ ১১:২৯)

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

হাই মুক্তমনা ভাই ও বোনেরা (এই ফোরামেই কয়েকজন প্রকাশ্যে, কয়েকজন গুপোনে লুকিয়ে আছেন),
কেমন আছেন?

১৪ এপ্রিল কিভাবে কেটেছিলো আপনাদের? অনেক মজা করছিলেন নিশ্চয়ই! সক্কাল বেলা পান্তা-ইলিশ, সারাদিন ঘোরাঘুরি, ডেটিং, লিটনের ফ্লাট, কত্ত মজা, তাইনা? তা সেদিন সকালে মঙ্গল শোভাযাত্রায় গিয়েছিলে তো? প্যাঁচা, বাঘ, ভাল্লুক, মুখোশ ইত্যাদী সহযোগে অমঙ্গলকে দুর করে মঙ্গল কামনা করেছিলেন? তা কার কাছে মঙ্গল কামনা করলেন ড্যুড?  lol2 lol2  আপনাদের মাথার উপর ছড়ি ঘোরানোর তো কেউ নাই!!

আর মুসলিম ভাই ও বোনেরা কার কাছে মঙ্গল কামনা করলেন সেটাও জাতিকে জানিয়ে যাবেন।  shame

আপনার নাকি বিজ্ঞাণ মনষ্ক! তা প্যাঁচা, বাঘ, ভাল্লুক, মুখোশের মাধ্যমে মঙ্গল কামনা করার কাজে বিজ্ঞাণের কি খুঁজিয়া পাইলেন, জাতির কাছে তা ব্যাখ্যা করে যাবেন।

৬১৯

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

মেহেদী ভাই, কে কোনকিছু কেন করে এ ধরনের উচ্চমার্গীয় চিন্তা ভাবনা করা থেকে বিরত থাকুন। আইএনটিজে দের অনুকরন করে এসব ভাবলে আপনার স্কাল ফ্র্যাকচার ব্যাতিত অন্য কিছু অর্জিত হবে না। এর চেয়ে জোহুকুম করে করে জীবনটা কাটিয়ে বেহেস্তে চলে যাওয়াটাই বেটার প্লান।

৬২০

Re: 'ঈশ্বর ও ধর্ম' এবং আপনার বিশ্বাস

সীমান্ত ঈগল (মেহেদী) লিখেছেন:

প্যাঁচা, বাঘ, ভাল্লুক, মুখোশ ইত্যাদী সহযোগে অমঙ্গলকে দুর করে মঙ্গল কামনা করেছিলেন?

আগে জিনিশটা কি সেটা জানেন তারপর প্যাচাল করেন।

এই ব্যাক্তির সকল লেখা কাল্পনিক , জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিল পাওয়া গেলে তা সম্পুর্ন কাকতালীয়, যদি লেখা জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিলে যায় তার দায় এই আইডির মালিক কোনক্রমেই বহন করবেন না। এই ব্যক্তির সকল লেখা পাগলের প্রলাপের ন্যায় এই লেখা কোন প্রকার মতপ্রকাশ অথবা রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।