টপিকঃ ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

http://4.bp.blogspot.com/-ApCnLMI_gF0/UBD0b5ZTTdI/AAAAAAAAAFo/ykRccgvZpgg/s320/mkjhu.png
বাংলা কি মাস এটা, উফ মনে হচ্ছে গরমে অয়ন নিজেই হাফ বয়েল হয়ে গেছে।  ১৪ই এপ্রিল থেকে যদি বৈশাখ শুরু হয় তবে এখন চলছে ইংরেজি মে ...... কিরে এই গরমে ছাদে কি করিস? রানার আওয়াজে ভাবনায় ছেদ পড়লো অয়নের। আর বলিস না গরমে গরম কাটানোর জন্য এসেছিলাম মানে ফুঁকতে এসেছিলাম কিন্তু পকেট হাতরে শুধু একটা......... আহা আহা তবে তো খাসা সময় এসে পড়েছি দেখা যায়, আমাকে ও দু টান দিস দোস্ত। আরে আবুল আগে তো কথা শেষ করতে দিবি না কি! পকেটে ম্যাচ আছে একটা কিন্তু ধরানোর জিনিস নাই। তোর কাছে আছে না, বের কর দেখি। এয়্য ইয়ে না মানে নাই আমার কাছে ও নাইরে। নাইরে না, তাইরে নাইরে নাইরে বের কর বলছি, কিপটা শালা, দেখা তোর পকেট দেখা। রানার পকেট থেকে শেষ পর্যন্ত সিগারেট বের হল, ব্যটা আচ্ছা চালাক কিছু চাইলেই মাসুম চেহারা করে বলবে, নাইরে!  আমি নাহয় এই দুপুর রোদের গরমে নিজের ছাদে পুড়ছি তুই কি মনে করে বাসা থেকে বের হয়েছিস, পাঙ্খা চালিয়ে ঘুম দিতিস। আর বলিস না গজব, গজবের মধ্যে আছি। পড়ালেখা করা এক গজব আর এই গজব শেষ হওয়া তো আরও বড় গজব। ভোল্টেজ আপ ডাউনে ফ্যানের কয়েল গেছে, আর তা মেরামতের বদলে আব্বা যেয়ে ফ্যানটাই বেচে এসেছেন। কাকের জন্য ভাত বহুত ছিটিয়েছেন আর নাকি ছিটাবেন না, নিজের টাকায় পাঙ্খা কেন চাইলে কুলার লাগাও তবে খরচের বেলায় আব্বা আর নাই। হুহ এই একই হাল তো অয়নের ও, রেজাল্টের আগে যন্ত্রণা যাও একটু কম ছিল কিন্তু রেজাল্ট বের হওয়ার পর থেকে, মাস্টার্স পাস ছেলে চাকরি বাকরির জোগাড় নাই; আত্মীয় স্বজন সবার মুখে একই কথা! অয়নের নাহয় তবু সেকেন্ড ক্লাস এসেছে কিন্তু বেচারা রানার থার্ড ক্লাস রেজাল্টের পর থেকে বাসায় কি যে হ্যস্ত ন্যস্ত অবস্থা তা মুখ দেখলেই বোঝা যায়। রানার সিগারেট মেরে দেয়া ঠিক হয় নাই, বেচারাকে বিকালে চা সিঙ্গারা খাওয়াতে হবে। থাম থাম সিঁড়িতে পায়ের শব্দ পাচ্ছিস, তোর আব্বা বাসায় নাকিরে অয়ন। হু, এই জন্যই তো ছাদে এসেছিলাম। দু টান দেয়া সিগারেট ছুঁড়ে ফেলে দিলো অয়ন আর তখন ই ভেজা কাপড়ের বালতি হাতে বুয়াকে ছাদে দেখা গেলো। চাকরি না পাওয়ার আফসোসে নয় আস্ত সিগারেটের অপচয়ে দুজনের মেজাজ খিটখিট করছে।


আচ্ছা আসিফ ফোন ধরে না ক্যন বলতো রানা, গতকাল ১০০ বার ট্রাই করেছি। ওহো ওই ব্যটা তো নাম্বার ই চেঞ্জ করে ফেলেছে,  জানিস না! পরিচিত জনেরা ফোন করে খোঁচায় চাকরির খবর কতদূর আবার ফ্রেন্ডদের মধ্যে যারা গোল্ড ডিয়ার পেয়েছে তারা ফোন করে সান্ত্বনা দিতে আসে, এই সব বিরক্তি থেকে বাঁচতে পুরানো সিম ই ফেলে দিয়েছে ওই ব্যটা হা হা হা। হাসি থামা, গোল্ড ডিয়ার মানে... ওঃ সোনার হরিণের কথা বলছিলামরে অয়ন, চাকরির আরেক নাম তো এখন তাই ই। নে আসিফের নতুন নাম্বার রাখ তবে আমার নাম্বার ও বদলে ফেলবো ভাবছি। তোর আর আসিফের তো আজ না হয় কাল কিছু একটা হবেই আমি থার্ড ক্লাস বেকুবকে কি আর তোরা গনায় ধরবি।


রাতে এখন আর সবার সাথে খেতে বসে না অয়ন। খাওয়ার টেবিলের একই কথা, কোথায় কোথায় এপ্লাই করেছে, ইন্টার্ভিউ কেমন হয়েছে হ্যন ত্যন হাবিজাবি! চারিদিকের উঁচু উঁচু দালান ঘেরা অয়নদের এই দোতলা বাড়ি। আর নিজের রুমের চেয়ে এই বাড়ির ছাদেই এখন অয়নের সময় কাটে বেশি। আসিফের নতুন নাম্বার টিপল অয়ন, উদ্দেশ্য মিস কল দেয়া। পিপ পিপ এর বদলে গান বাজতে শুরু করলো, ''বধূ কোন আলো লাগলো চোখে হে বধূ কোন আলো লাগলো চোখে''
হ্যালো, কে বলছেন? মেয়ে কণ্ঠ! লাইন কেটে দিলো অয়ন। আসিফের নাম্বার এটা হতেই পারে না, কিছু গড়বড় আছে। কি মনে করে কিছুক্ষণ পর আবার একই নাম্বারে কল দিলো অয়ন, গান বাজতে শুরু করলো তবে এবার কেউ রিসিভ করলো না উল্টো ওপাশ থেকেই লাইন কেটে দিলো।বধূ আর আলো মার্কা গান মাথায় নিয়ে ঘুমোতে গেলো অয়ন।


সকালের চা হাতে ছাদে এলো অয়ন, রাতের ফোন কলের কথা মনে করে নিজের উপর ই বিরক্ত হল। মিষ্টি গলায় কেউ জিজ্ঞাস করলো, ''কে বলছেন'' আর সে লাইন কেটে দিলো! বললেই হতো, এটা কি আসিফের নাম্বার? মিষ্টি গলায় রংনাম্বার তো শোনা হত অন্তত। মোবাইল টিপে নাম্বারটা আবার দেখলো অয়ন, কেমন হবে যদি আবার কল দেয়। ধুর কি ছেলে মানুষী করছে অয়ন। মন মাঝে সাঝে মস্তিষ্ককে শাসন করে আর তাই না চাইতেও আবার সেই নাম্বারে কল দিয়ে ফেলল অয়ন। বেশ কিছুক্ষণ গান শুনতে পারলো এবার, ''বধূ কোন আলো লাগলো চোখে হে বধূ কোন আলো লাগলো চোখে'' আচমকা কেউ ফোন রিসিভ করতেই লাইন কেটে দিলো অয়ন। কি হ্যংলামো করছে সে, কেন ই বা করছে। গান শোনার জন্য নাকি ওপাশের কণ্ঠ আরেকবার শোনার জন্য। যদি তাই হয় তবে লাইন কেন কেটে দিচ্ছে! অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা আর সেই কারখানা থেকে নির্দেশ এলো একটা ম্যাসেজ দিলে কেমন হয়!


আপনাকে বিরক্ত করার কোন উদ্দেশ্য নেই আমার কিন্তু একটা অনুরোধ, দয়া করে ফোন রিসিভ করবেন না।আমি শুধু গান শোনার জন্য কল দিয়েছি।
ম্যাসেজ দিয়েই মনে হল এ কেমন কাণ্ড করে বসলো অয়ন, এ তো ১৬/১৭ বছরের ছেলেদের মত আচরণ হয়ে গেলো। পত্রিকায়  চাকরির বিজ্ঞাপন দেখে বাকিটা দিন পার হয়ে গেলো। বিকেলে রানা আর আসিফের সাথে আড্ডা দিতে যাওয়ার সময় পকেটে মোবাইলের টুং টুং আওয়াজ, ম্যাসেজ! আরে এ তো ওই নাম্বার থেকেই রিপ্লাই এসেছে দেখা যাচ্ছে। দুরু দুরু বুকে ইন-বক্স ওপেন করলো অয়ন, ''আচ্ছা ঠিক আছে, আর রিসিভ করবো না'' আরে বাঃ!


আসিফ আর রানাকে গান শোনানোর জন্য ফোন টিপল অয়ন, এখন তো আর রিসিভ হয়ে যাওয়ার ভয় নেই। এই তো রিং হচ্ছে ''বধূ কোন আলো লাগলো চোখে হে বধূ কোন আলো লাগলো চোখে'' কিন্তু একি, একবার রিং হতেই কেউ ওপাশ থেকে রিসিভ করে ফেললো আবার চাপা হাসি ও শোনা যাচ্ছে।
(চলবে)

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

নাদিয়া জামান লিখেছেন:

''বধূ কোন আলো লাগলো চোখে হে বধূ কোন আলো লাগলো চোখে''

কার কন্ঠে ?
সাগর সেন নাকি কোন নারী কন্ঠে ??

একজন মানুষের জীবন হচ্ছে - ক্ষুদ্র আনন্দের সঞ্চয়। একেকজন মানুষের আনন্দ একেক রকম ...
এসো দেই জমিয়ে আড্ডা মিলি প্রাণের টানে !
   
স্বেচ্ছাসেবকঃ  ফাউন্ডেশন ফর ওপেন সোর্স সলিউশনস বাংলাদেশ, নীতি নির্ধারকঃ মুক্ত প্রযুক্তি।

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

মানুষের মন বড়ই বিচিত্র...............

সব কিছুতেই কৌতুহল

এরকম সবার ক্ষেত্রেই হয় ।

ভাল লাগল নাজাপু......... smile

জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু......
এই মেঘ এই রোদ্দুর

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

হুম, নাদিয়া জামান তো আর ছোটটি নেই; প্রেমের গল্প লিখছে hehe  যাহোক, এগুচ্ছে ভালো। মিষ্টি কণ্ঠ এখন শুনতে ইচ্ছে হচ্ছে। কী উপায়? tongue

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

উদাসীন লিখেছেন:

হুম, নাদিয়া জামান তো আর ছোটটি নেই; প্রেমের গল্প লিখছে hehe  যাহোক, এগুচ্ছে ভালো। মিষ্টি কণ্ঠ এখন শুনতে ইচ্ছে হচ্ছে। কী উপায়? tongue

রং নাম্বারে ফোন করেন............

জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু......
এই মেঘ এই রোদ্দুর

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন নাদিয়া জামান (২৬-০৭-২০১২ ১৫:২৪)

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

মাসুদ৩০১১ লিখেছেন:

কার কন্ঠে ?
সাগর সেন নাকি কোন নারী কন্ঠে ??

আমার তো মনে হয় নারী কণ্ঠ ই হবে, নইলে কি আর অয়ন এমন মায়াজালে জড়ায় whats_the_matter

ছবি-Chhobi লিখেছেন:

মানুষের মন বড়ই বিচিত্র...............

সব কিছুতেই কৌতুহল

এরকম সবার ক্ষেত্রেই হয় ।

তবে অধিক আগ্রহ মাঝে মাঝে বিষাদ ডেকে আনে বৈকি, আপনাকে ধন্যবাদ ছবি আপু মন্তব্যের জন্য।

উদাসীন লিখেছেন:

হুম, নাদিয়া জামান তো আর ছোটটি নেই; প্রেমের গল্প লিখছে   যাহোক, এগুচ্ছে ভালো। মিষ্টি কণ্ঠ এখন শুনতে ইচ্ছে হচ্ছে। কী উপায়?

কিঞ্চিৎ লজ্জা পেলাম, হুম এটা আমার লেখা ১ম রোমান্টিক গল্প। বিশ্বাস করুন আর নাই করুন গল্পে কেউ কাওকে ভালোবাসবে এমন কিছু লিখতে গেলে এখনো নিজেকে ইঁচড়ে পাকা ঠাওর হয়। আর উদাসীন ভাই আমি চেষ্টা করেও আপনার গল্পের মত মধুর মধুর শব্দের বিশেষণ দিতে পারলাম না লেখায়, যাই হোক কি আর করা। হাট্টিমাটিম থেকে বের হয়ে একটু বড় হওয়ার চেস্টা এই আর কি।

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

উফ নাজাপু! এত ভাল লিখেন কি করে? ধ্যানমগ্ন হয়ে পড়ছিলাম। isee isee দ্রুত চাই পরের পর্ব। waiting waiting waiting

ইমরান তুষার'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

পরের পর্ব পাবার অপেক্ষায়  love love love

roll

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

নাদিয়া জামান লিখেছেন:

http://docs.google.com/spreadsheet/ccc?key=0Au4wdAF8ibtSdGhtYU1FMFFTNmdDRUlwQzBhaVFHeWc/mkjhu.png
বাংলা কি মাস এটা, উফ মনে হচ্ছে গরমে অয়ন নিজেই হাফ বয়েল হয়ে গেছে।  ১৪ই এপ্রিল থেকে যদি বৈশাখ শুরু হয় তবে এখন চলছে ইংরেজি মে ...... কিরে এই গরমে ছাদে কি করিস? রানার আওয়াজে ভাবনায় ছেদ পড়লো অয়নের। আর বলিস না গরমে গরম কাটানোর জন্য এসেছিলাম মানে ফুঁকতে এসেছিলাম কিন্তু পকেট হাতরে শুধু একটা......... আহা আহা তবে তো খাসা সময় এসে পড়েছি দেখা যায়, আমাকে ও দু টান দিস দোস্ত। আরে আবুল আগে তো কথা শেষ করতে দিবি না কি! পকেটে ম্যাচ আছে একটা কিন্তু ধরানোর জিনিস নাই। তোর কাছে আছে না, বের কর দেখি। এয়্য ইয়ে না মানে নাই আমার কাছে ও নাইরে। নাইরে না, তাইরে নাইরে নাইরে বের কর বলছি, কিপটা শালা, দেখা তোর পকেট দেখা। রানার পকেট থেকে শেষ পর্যন্ত সিগারেট বের হল, ব্যটা আচ্ছা চালাক কিছু চাইলেই মাসুম চেহারা করে বলবে, নাইরে!  আমি নাহয় এই দুপুর রোদের গরমে নিজের ছাদে পুড়ছি তুই কি মনে করে বাসা থেকে বের হয়েছিস, পাঙ্খা চালিয়ে ঘুম দিতিস। আর বলিস না গজব, গজবের মধ্যে আছি। পড়ালেখা করা এক গজব আর এই গজব শেষ হওয়া তো আরও বড় গজব। ভোল্টেজ আপ ডাউনে ফ্যানের কয়েল গেছে, আর তা মেরামতের বদলে আব্বা যেয়ে ফ্যানটাই বেচে এসেছেন। কাকের জন্য ভাত বহুত ছিটিয়েছেন আর নাকি ছিটাবেন না, নিজের টাকায় পাঙ্খা কেন চাইলে কুলার লাগাও তবে খরচের বেলায় আব্বা আর নাই। হুহ এই একই হাল তো অয়নের ও, রেজাল্টের আগে যন্ত্রণা যাও একটু কম ছিল কিন্তু রেজাল্ট বের হওয়ার পর থেকে, মাস্টার্স পাস ছেলে চাকরি বাকরির জোগাড় নাই; আত্মীয় স্বজন সবার মুখে একই কথা! অয়নের নাহয় তবু সেকেন্ড ক্লাস এসেছে কিন্তু বেচারা রানার থার্ড ক্লাস রেজাল্টের পর থেকে বাসায় কি যে হ্যস্ত ন্যস্ত অবস্থা তা মুখ দেখলেই বোঝা যায়। রানার সিগারেট মেরে দেয়া ঠিক হয় নাই, বেচারাকে বিকালে চা সিঙ্গারা খাওয়াতে হবে। থাম থাম সিঁড়িতে পায়ের শব্দ পাচ্ছিস, তোর আব্বা বাসায় নাকিরে অয়ন। হু, এই জন্যই তো ছাদে এসেছিলাম। দু টান দেয়া সিগারেট ছুঁড়ে ফেলে দিলো অয়ন আর তখন ই ভেজা কাপড়ের বালতি হাতে বুয়াকে ছাদে দেখা গেলো। চাকরি না পাওয়ার আফসোসে নয় আস্ত সিগারেটের অপচয়ে দুজনের মেজাজ খিটখিট করছে।


আচ্ছা আসিফ ফোন ধরে না ক্যন বলতো রানা, গতকাল ১০০ বার ট্রাই করেছি। ওহো ওই ব্যটা তো নাম্বার ই চেঞ্জ করে ফেলেছে,  জানিস না! পরিচিত জনেরা ফোন করে খোঁচায় চাকরির খবর কতদূর আবার ফ্রেন্ডদের মধ্যে যারা গোল্ড ডিয়ার পেয়েছে তারা ফোন করে সান্ত্বনা দিতে আসে, এই সব বিরক্তি থেকে বাঁচতে পুরানো সিম ই ফেলে দিয়েছে ওই ব্যটা হা হা হা। হাসি থামা, গোল্ড ডিয়ার মানে... ওঃ সোনার হরিণের কথা বলছিলামরে অয়ন, চাকরির আরেক নাম তো এখন তাই ই। নে আসিফের নতুন নাম্বার রাখ তবে আমার নাম্বার ও বদলে ফেলবো ভাবছি। তোর আর আসিফের তো আজ না হয় কাল কিছু একটা হবেই আমি থার্ড ক্লাস বেকুবকে কি আর তোরা গনায় ধরবি।


রাতে এখন আর সবার সাথে খেতে বসে না অয়ন। খাওয়ার টেবিলের একই কথা, কোথায় কোথায় এপ্লাই করেছে, ইন্টার্ভিউ কেমন হয়েছে হ্যন ত্যন হাবিজাবি! চারিদিকের উঁচু উঁচু দালান ঘেরা অয়নদের এই দোতলা বাড়ি। আর নিজের রুমের চেয়ে এই বাড়ির ছাদেই এখন অয়নের সময় কাটে বেশি। আসিফের নতুন নাম্বার টিপল অয়ন, উদ্দেশ্য মিস কল দেয়া। পিপ পিপ এর বদলে গান বাজতে শুরু করলো, ''বধূ কোন আলো লাগলো চোখে হে বধূ কোন আলো লাগলো চোখে''
হ্যালো, কে বলছেন? মেয়ে কণ্ঠ! লাইন কেটে দিলো অয়ন। আসিফের নাম্বার এটা হতেই পারে না, কিছু গড়বড় আছে। কি মনে করে কিছুক্ষণ পর আবার একই নাম্বারে কল দিলো অয়ন, গান বাজতে শুরু করলো তবে এবার কেউ রিসিভ করলো না উল্টো ওপাশ থেকেই লাইন কেটে দিলো।বধূ আর আলো মার্কা গান মাথায় নিয়ে ঘুমোতে গেলো অয়ন।


সকালের চা হাতে ছাদে এলো অয়ন, রাতের ফোন কলের কথা মনে করে নিজের উপর ই বিরক্ত হল। মিষ্টি গলায় কেউ জিজ্ঞাস করলো, ''কে বলছেন'' আর সে লাইন কেটে দিলো! বললেই হতো, এটা কি আসিফের নাম্বার? মিষ্টি গলায় রংনাম্বার তো শোনা হত অন্তত। মোবাইল টিপে নাম্বারটা আবার দেখলো অয়ন, কেমন হবে যদি আবার কল দেয়। ধুর কি ছেলে মানুষী করছে অয়ন। মন মাঝে সাঝে মস্তিষ্ককে শাসন করে আর তাই না চাইতেও আবার সেই নাম্বারে কল দিয়ে ফেলল অয়ন। বেশ কিছুক্ষণ গান শুনতে পারলো এবার, ''বধূ কোন আলো লাগলো চোখে হে বধূ কোন আলো লাগলো চোখে'' আচমকা কেউ ফোন রিসিভ করতেই লাইন কেটে দিলো অয়ন। কি হ্যংলামো করছে সে, কেন ই বা করছে। গান শোনার জন্য নাকি ওপাশের কণ্ঠ আরেকবার শোনার জন্য। যদি তাই হয় তবে লাইন কেন কেটে দিচ্ছে! অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা আর সেই কারখানা থেকে নির্দেশ এলো একটা ম্যাসেজ দিলে কেমন হয়!


আপনাকে বিরক্ত করার কোন উদ্দেশ্য নেই আমার কিন্তু একটা অনুরোধ, দয়া করে ফোন রিসিভ করবেন না।আমি শুধু গান শোনার জন্য কল দিয়েছি।
ম্যাসেজ দিয়েই মনে হল এ কেমন কাণ্ড করে বসলো অয়ন, এ তো ১৬/১৭ বছরের ছেলেদের মত আচরণ হয়ে গেলো। পত্রিকায়  চাকরির বিজ্ঞাপন দেখে বাকিটা দিন পার হয়ে গেলো। বিকেলে রানা আর আসিফের সাথে আড্ডা দিতে যাওয়ার সময় পকেটে মোবাইলের টুং টুং আওয়াজ, ম্যাসেজ! আরে এ তো ওই নাম্বার থেকেই রিপ্লাই এসেছে দেখা যাচ্ছে। দুরু দুরু বুকে ইন-বক্স ওপেন করলো অয়ন, ''আচ্ছা ঠিক আছে, আর রিসিভ করবো না'' আরে বাঃ!


আসিফ আর রানাকে গান শোনানোর জন্য ফোন টিপল অয়ন, এখন তো আর রিসিভ হয়ে যাওয়ার ভয় নেই। এই তো রিং হচ্ছে ''বধূ কোন আলো লাগলো চোখে হে বধূ কোন আলো লাগলো চোখে'' কিন্তু একি, একবার রিং হতেই কেউ ওপাশ থেকে রিসিভ করে ফেললো আবার চাপা হাসি ও শোনা যাচ্ছে।
(চলবে)

১০

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

ইমরান তুষার লিখেছেন:

উফ নাজাপু! এত ভাল লিখেন কি করে? ধ্যানমগ্ন হয়ে পড়ছিলাম। isee isee দ্রুত চাই পরের পর্ব। waiting waiting waiting

উফ ইমরান তুমি কি পলাশ হতে চাও নাকি!
তবে পড়ার জন্য ধন্যবাদ

নতুন পণ্ডিত লিখেছেন:

পরের পর্ব পাবার অপেক্ষায়  love love love

অপেক্ষা ক্ষণ জলদি ই শেষ হবে আশা করি

ভাই সাব্বির আপনি পুরো গল্পই কোট করে দিলেন roll

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১১

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

ক্যারেক্টারগুলান সেরাম হইছে। কিপিটাপ। প্রথম প্যারাটা সবচেয়ে মনে ধরছে, বেস্ট। চলুক চলুক!

নাদিয়া জামান লিখেছেন:

চাকরি না পাওয়ার আফসোসে নয় আস্ত সিগারেটের অপচয়ে দুজনের মেজাজ খিটখিট করছে।

  thumbs_up

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১২

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

ক্যারেক্টারগুলান সেরাম হইছে। কিপিটাপ। প্রথম প্যারাটা সবচেয়ে মনে ধরছে, বেস্ট। চলুক চলুক!

মেনি মেনি মেনি মাছ মুজ থুক্কু ধন্যবাদ মুজ ভাই... ২য় পর্ব পোস্ট করে দিলাম, জলদি শেষ করতে চাই নয়তো বাবুনের মত হারিয়ে যাওয়ার ভয় আছে।

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৩

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

নাদিয়া জামান লিখেছেন:
মাসুদ৩০১১ লিখেছেন:

কার কন্ঠে ?
সাগর সেন নাকি কোন নারী কন্ঠে ??

আমার তো মনে হয় নারী কণ্ঠ ই হবে, নইলে কি আর অয়ন এমন মায়াজালে জড়ায় whats_the_matter

আমারও মনে হয় কিছু কিছু গান আছে নারী কন্ঠে এক্কেবারে মানায় না,
এইটাও তেমনি একটা.....

একজন মানুষের জীবন হচ্ছে - ক্ষুদ্র আনন্দের সঞ্চয়। একেকজন মানুষের আনন্দ একেক রকম ...
এসো দেই জমিয়ে আড্ডা মিলি প্রাণের টানে !
   
স্বেচ্ছাসেবকঃ  ফাউন্ডেশন ফর ওপেন সোর্স সলিউশনস বাংলাদেশ, নীতি নির্ধারকঃ মুক্ত প্রযুক্তি।

১৪

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

দু টান দেয়া সিগারেট ছুঁড়ে ফেলে দিলো অয়ন আর তখন ই ভেজা কাপড়ের বালতি হাতে বুয়াকে ছাদে দেখা গেলো। চাকরি না পাওয়ার আফসোসে নয় আস্ত সিগারেটের অপচয়ে দুজনের মেজাজ খিটখিট করছে।

এটুকু পড়েই অনেক হাসলাম।  লেখার ধরন অনেক ভাল আপনার চালিয়ে যান।

Allah is a better planner... so whenever u'r plan fails, cheer up... Allah has a better plan for you

Shahanur79'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৫

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

Shahanur79 লিখেছেন:

লেখার ধরন অনেক ভাল আপনার চালিয়ে যান।

বাহ বেশ উৎসাহ পেলুম আপনার মন্তব্যে, নিয়মিত পড়বেন আশা রাখি।
ভালো থাকুন সবসময়।

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৬

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

পড়লাম এবং ভাল লাগিল !  smile

১৭

Re: ছাদ থেকে এখন শুধু আকাশ দেখা যায়

ইলিয়াস লিখেছেন:

পড়লাম এবং ভাল লাগিল !  smile

ধন্যবাদ আপনাকে ইলিয়াস ভাই।

ঘরের কোনে মনের বনে, তোমার সাথে জোছনা স্নান...
তোমার দুহাত থাকলে হাতে; স্বপ্নে জাগে মধুর প্রাণ।
ছড়া সব করে রব

নাদিয়া জামান'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত