টপিকঃ পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

অবশেষে পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা।

http://public.web.cern.ch/public/roadblock/img/CMS-event-candidate-higgs-2.png


কনার ভর ১২৫ +/-  ০.৬ গিগা-ইলেক্ট্রন ভোল্ট
ফলাফলের সিগনিফিচেন্ট ল্যাভেল বা স্ট্যান্ডার্ড ডিভিয়্যেশন হল ৪.৯ সিগমা

পদার্থ বিজ্ঞানে একবিংশ শতাব্দীর সবচেয়ে বড় আবিস্কার (এখন পর্যন্ত)। ২০০০ সালে টাউ-নিউট্রিনো কনা আবিস্কারের পর থেকে গত ১২ বছের পদার্থ বিজ্ঞানের আর কোন উল্ল্যেখযোগ্য উন্নতি বা আবিস্কার হয়নি।

যাক! প্রায় ১০ বিলিওন ডলারের সোনার হাতি (লার্জ হ্যাড্রেন কোলাইডার) অবশেষে বাচ্চা দিল। আমি সবসময় মনে করতাম পুরো প্রজেক্টটাই একটা বেহুদা খরচ। এরচেয়ে এই খরচ একটা এফটিএল ইঞ্জিন তৈরীতে ব্যায় করলে লাভ হত। কিন্তু তারা শেষ পর্যন্ত এই প্রজেক্টের যোগ্যাতা প্রামান করল। যদিও ৪.৯ স্ট্যান্ডার্ড ডিভিয়্যেশন আমার কাছে গ্রহন যোগ্য মনে হচ্ছেনা। ৫ বা আরোও বেশী হলে ভাল হত।

যারা হিগস্‌ বোসন কনা সম্মন্ধে জানেন না তাদের জন্য বলছি। হিগস্‌ বোসন কনা হচ্ছে একটা কাল্পনিক কনা (আজ থেকে বাস্তব) যার মাধ্যমে আমাদের পদার্থ বিজ্ঞানের বর্তমান মডেল ব্যাখ্যা করা হয়েছে। হিগস্‌ বোসন কনার দ্বারা অন্যান্য কনার ভর ব্যাখ্যা করা হয়। যেমন কেন একটি টপ-কোয়ার্ক কনার ভর একটি ইলেক্ট্রনর কনার ভরের ৩৫০,০০০ গুন।

২০১৫ (প্রজেক্টের ডেডলাইন) সালের মধ্যে এই কনা না পাওয়া গেলে সারা দুনিয়ার সমস্ত পদার্থ বিজ্ঞানের বই নতুন করে লিখতে হত!

মুল প্রেস রিলিজ

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

একটু বিস্তারিত বলেন ...।  roll

শ্রাবন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

শ্রাবন লিখেছেন:

একটু বিস্তারিত বলেন ...।  roll

পদার্থ বিজ্ঞানে যে কোন বস্তুর (অনু, পরমানু, গ্রহ, নক্ষত্র সবকিছু)
অবস্থা বা অস্তিত্ব ব্যাখ্যায় যে মডেল ব্যাবহার করা হয় তাকে বলা হয় স্ট্যান্ডার্ড মডেল


এই মডেল দাড় করানো হয় ১৯৬০ থেকে ১৯৭০ সালে। তখন এই মডেল ভরা ছিল কাল্পনিক শক্তি এবং কনাতে যার মধে কম বেশী সবগুলোই গত ৪০/৫০ বছরে বাস্তব প্রমানিত হয়েছে। যার মধ্যে সবচেয়ে গুরত্বপূর্ন কনাটা আবিস্কৃত হল আজ।

এই মডেল অনুযায়ী পরমানুর মৌলিক কনাগুলোকে তিনটি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে।
1. Leptons
2. Quarks
3. Bosons

ল্যাপটন গুপে আছে ইলেক্ট্রন এবং নিউট্রনোর কনা সমুহ

কোয়ার্ক গ্রুপে আছে আপ, ডাউন...ইত্যাদি... কোয়ার্ক এগুলো মুলত প্রোটন এবং নিউট্রনের বিল্ডং ব্লক

বোসন গ্রুপে আছে ফোটন, জি-বোসন ইত্যাদি এগুলো মুলত বল শক্তির ধারক এবং বাহক

এই সব কনাগুলো একসাথে মিলে পরমানু গঠন করার কথা নয়, যে যার মত বিশ্ব ব্রহ্মান্ডে ছুটাছুটি করার কথা। যে কারনে সেটা হচ্ছেনা সেটা হল ভর। এই ভর জিনিসটা কি বা কোথা থেকে এল? একেকটা কনার ভর কেনই বা একেক রকম? এই পশ্নের উত্তর দিতে কাল্পনিক হিগস্‌ ফিল্ডের প্রবর্তন করা হয়। বলা হয় এই ফিল্ড মৌলিক কনা গুলোকে ভর প্রদান করে।

যেই কনা এই ফিল্ডের সাথে বেশী সক্রিয় সেই কনার ভর তত বেশী। এই করনেই প্রোটন/নিউট্রনে ভর ইলেক্ট্রন/ফোটনের চেয়ে অনেক অনেক অনেক গুন বেশী। এই কারনেই পরমানু গঠন করা সম্ভব হয়েছে। এবং এই কারনেই আপনার শরীরের প্রতিটি পরমানুর ভেতরে থাকা মোলিক কনা গুলো শূন্যে মিলিয়ে যাচ্ছে না।

এই ব্যাখ্যার পুরোটাই এতোদিন ছিল তত্বগত। হিগস্‌ বোসন কনা আবিস্কারের মধ্যে দিয়ে এটার বস্তুগত প্রমান পাওয়া গেল। মানে হল এতোদিন আমরা যা বুঝে আসছি তা সঠিক ছিল!!

হয়তো কিছুই বোঝাতে পারলামনা। আমি নিজেই বুঝিনা অন্যকে কিভাবে বোঝাব। আশার কথা হল এই বিষয়ে অনেক বই এবং ডকুমেন্টেশন আছে তাই নিজে নিজে জানুন।

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

যদিও জিন্সটা সমন্ধে আইডিয়া নাই, মনে হচ্ছে ভালো আবিষ্কার ।

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

হা হা স্টিফেন হকিন্স শেষমেষ ১০০ ডলার হেরে গেলেন। lol2 যাই হোক পদার্থবিদ্যার জগতে এই মহান আবিস্কারের জন্য  yahoo

hit like thunder and disappear like smoke

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

মুকুট লিখেছেন:

যদিও জিন্সটা সমন্ধে আইডিয়া নাই, মনে হচ্ছে ভালো আবিষ্কার ।

ভাই কি আসলেই বুয়েটে পড়েছেন?  donttell

এনিওয়েইজ আবিষ্কারের পিছনের কাহিনী শেয়ার করলে আরো ইন্টারেস্টিং হতো সদস্য ভাই

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

সদস্য ভাই, দারুণ লিখেছেন।

@m0N লিখেছেন:

হা হা স্টিফেন হকিন্স শেষমেষ ১০০ ডলার হেরে গেলেন। lol2 যাই হোক পদার্থবিদ্যার জগতে এই মহান আবিস্কারের জন্য  yahoo

বেচারা ইদানীং হারতেই আছেন। tongue

সদস্য ভাইয়ার জন্য থাকল, গরমা গরম রেপু............. big_smile

"সংকোচেরও বিহ্বলতা নিজেরই অপমান। সংকটেরও কল্পনাতে হয়ও না ম্রিয়মাণ।
মুক্ত কর ভয়। আপন মাঝে শক্তি ধর, নিজেরে কর জয়॥"

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

সদস্য_১ ভাইয়ের পোস্ট দুটো থেকে অনেক কিছু জানলাম  smile
তাকে একটা ছোট্ট এলাচ আর প্রাণঢালা শুভেচ্ছা  cool

roll

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

যাঁদের হিগস-বোসন সম্পর্কে ধারণা নেই তাঁদের জন্য, সদস্য_১ ভাইয়ের ব্যাখ্যাটি পড়ার পর এই ভিডিওটি দেখলে বিষয়টা কিছুটা ক্লিয়ার হবে।

নি:সন্দেহে এই কণার বাস্তব অস্তিত্ব প্রমাণ হওয়া আধুনিক বিজ্ঞানের একটা অসাধারণ অ্যাচিভমেন্ট।

"No ship should go down without her captain."

হৃদয়১'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

১০

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

আরণ্যক লিখেছেন:

সদস্য ভাই, দারুণ লিখেছেন।

@m0N লিখেছেন:

হা হা স্টিফেন হকিন্স শেষমেষ ১০০ ডলার হেরে গেলেন। lol2 যাই হোক পদার্থবিদ্যার জগতে এই মহান আবিস্কারের জন্য  yahoo

বেচারা ইদানীং হারতেই আছেন। tongue

সদস্য ভাইয়ার জন্য থাকল, গরমা গরম রেপু............. big_smile


উনি হারার জন্যই বাজী ধরেন  lol এটা মূলত: একটা পাবলিসিটি স্টান্ট।
গত সপ্তাহে হিগস বোসনের উপরে নাসা একটি চমৎকার কার্টুন রিলিজ করেছিলো - ভিডিওটি এখানে

Calm... like a bomb.

১১

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

invarbrass লিখেছেন:
আরণ্যক লিখেছেন:

সদস্য ভাই, দারুণ লিখেছেন। বেচারা ইদানীং হারতেই আছেন। tongue

সদস্য ভাইয়ার জন্য থাকল, গরমা গরম রেপু............. big_smile


উনি হারার জন্যই বাজী ধরেন  lol এটা মূলত: একটা পাবলিসিটি স্টান্ট।
গত সপ্তাহে হিগস বোসনের উপরে নাসা একটি চমৎকার কার্টুন রিলিজ করেছিলো - ভিডিওটি এখানে

আজ্ঞে, এই কথাটাই সাহস করে বলতে পারছিলাম।  tongue

"সংকোচেরও বিহ্বলতা নিজেরই অপমান। সংকটেরও কল্পনাতে হয়ও না ম্রিয়মাণ।
মুক্ত কর ভয়। আপন মাঝে শক্তি ধর, নিজেরে কর জয়॥"

১২

Re: পাওয়া গেল হিগস্‌ বোসন কনা!

আমি এই জিনিশের কথা হুমায়ুন এর একটা বইয়ে পড়েছিলাম , সে লিখেছে যদি এই তত্ত্ব ভুল প্রমানিত হয় তবে পদার্থ বিজ্ঞানের সব বই ন্তুন করে লিখতে হবে , কি ভয়ঙ্কর ।
যাক  বিপদ কাটা গেছে । ও না আলো নিয়া কি জানি একটা আছে , আলোর চাইতে বেশী গতির কিছু পাওয়া গেলে এই জাতীয় কিছু একটা হতে পারে ...ঠিক মনে নাই...

এই ব্যাক্তির সকল লেখা কাল্পনিক , জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিল পাওয়া গেলে তা সম্পুর্ন কাকতালীয়, যদি লেখা জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিলে যায় তার দায় এই আইডির মালিক কোনক্রমেই বহন করবেন না। এই ব্যক্তির সকল লেখা পাগলের প্রলাপের ন্যায় এই লেখা কোন প্রকার মতপ্রকাশ অথবা রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।