২১ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন স্বপ্নীল (০৭-০৮-২০১১ ০০:১৮)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

জেলাল লিখেছেন:
হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

প্রজন্মে আমরা ধর্ম বিষয়ক পোস্টকে উৎসাহিত করি না।

আচ্ছা, তাই নাকি?

কি অদ্ভুত জিনিস!! ধর্ম বিষয়ক এত ভাল ভাল লেখা প্রজন্মে গত এক বছর দেয়া হয়েছে যা আমাদের সর্বদাই অনুপ্রানীত করছে ভাল পথে চলতে, স্মরন করে দিয়েছে আমাদের সৎ থাকতে-সেই ধর্ম বিষয়ককে পোস্টকে কেন নিরুৎসাহিত করা হবে? কারো যদি ধর্মীয় টপিকের প্রতি ব্যাক্তিগত সমস্যা থাকে, তাহলে সে এসব এড়িয়ে যাবে। কিন্তু  বাস্তব জীবনের নানাবিধ অস্থিরতায় মনের শান্তি খুজে পাই যে ধর্মে, সেই ধর্মীয় বিষয়ক টপিককেই আপনি কিনা নিরুৎসাহিত করছেন? কেন?  surprised


জেলাল লিখেছেন:

ধর্মীয় বিষয়ে আলোচনা মানে ধর্ম নিয়ে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি হয় -জিন্দেগিতে এই প্রথম শুনলাম মনে হয়।

জেলাল লিখেছেন:

উপবিভাগের বাইরে লিখলে সেটা কি অস্বীকৃতি হয়ে যায়? তার মানে, অস্বীকৃত কিছু জিনিসকে আমরা কবুল করে নিচ্ছি?

জেলাল ভাই, একদম ঠিক বলেছেন। আমি ঠিক এখনো বুঝতে পারছিনা কোডার ভাই এসব কি যুক্তি দিচ্ছেন। এরকম পরষ্পর বিরোধী কথা বার্তা বেশ গোলমেলে লাগছে  hmm

২২ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন হৃদয় (০৭-০৮-২০১১ ০১:৪২)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

আমার এখনো মনে হচ্ছে ধর্ম বিষয়ক আলাদা বিভাগ হওয়া ঠিক না, কারণ তাহলে কিছুটা নিয়ন্ত্রণহীনতা আসবেই। নিঃসন্দেহে কয়েকজন ফোরামিকের ধর্মবিষয়ক পোস্ট খুবই সুন্দর হয়, কিন্তু ধর্মীয় বিভাগ থাকলে কি হতে পারে তার নিকৃষ্টতম দৃষ্টান্ত আমি প্রত্যক্ষ করেছি, যেটা প্রকাশ করতে আগ্রহী নই।

                              হ্যাঁ, নিশ্চই ধর্মীয় টপিকগুলি সাজানো গোছানো থাকবে, কিন্তু তার সাথে এই নিরাপত্তা কখনোই পাওয়া যাবে না যে সেখানে কখনই কোন প্রসঙ্গে কারো ধর্মকে আঘাত করা হবে না। কখনো কটু ইঙ্গিত করা হবে না অন্য ধর্মের দিকে। যেটা বর্তমানে অনেকটা নিয়ন্ত্রিত।

আমি যে কথা গুলো বলছি সবই আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতায় ধর্মীয় বিভাগ থেকেই আহরণ করা। ধর্মীয় বিভাগেই এই ঘটনা ঘটেছে।

নিশ্চই মডারেশান বিভাগের কাছে অভিযোগ করলে তাঁরা তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা নেবেন, কিন্তু যতক্ষণ তাঁরা উপস্থিত না আছেন ততক্ষণ সেই কমেন্ট বা পোস্ট জ্বাজ্জল্যমান থাকবে আমার চোখের সামনে, যাতে আমার আজন্মলালিত ধর্মের অস্তিত্ত্ব অস্বীকার করা হয়েছে, তাকে মিথ্যা বলা হয়েছে, কিংবা উদ্দেশ্যমূলক ভাবে পোষ্টের নির্দিষ্ট একটি অংশ, দুটি-তিনটি শব্দ বা একটি বাক্যাংশ বিশেষভাবে চয়ন করে এনে কোট করে ভিন্ন ধর্মীয়দের দেখাতে চাওয়া হয়েছে--- এই দেখো, তোমরা কত নিকৃষ্ট, আমাদের কাছে তোমার এই অবস্থান।

তখন মাথার যন্ত্রণা কমানোর জন্য একটা পেইনকিলার খেয়ে মানে মানে ফোরাম ত্যাগ করা ছাড়া আর কিছুই করার ক্ষমতা আমার থাকবে না।

নিঃসন্দেহে ফোরামিকদের অধিকাংশই শুভবুদ্ধির এবং মানবতার উন্নয়নের জন্যই ধর্মীয় সাবফোরামে ধর্মচর্চা করবেন। আমি দৃষ্টি ফেরাতে চাইছি কতিপয় ব্যক্তির দিকে যারা এই সাবফোরামকে ব্যবহার করবেন ছবি আঁকা নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে, কাফেরদের সাথে বন্ধুত্ত্ব করা নিষেধ করতে, মন্দিরের উপর ক্রসচিহ্ন এঁকে পোস্টার দিতে এবং কয়েকজন আসবেন হিন্দু ছাড়া বাকি ধর্মীয়দের সাবস্পিসিস প্রমাণ করতে, এবং এটাকে নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হবে। তাই হয়ে এসেছে।

প্রজন্মে এগুলোর কোনটাই এখনো পর্যন্ত নেই। কিন্তু "ধর্মীয় বিভাগ" নামটা দেখেই কেন যেন এই ধরণের কাজ করতে কয়েকজন চুম্বকের টানে এগিয়ে আসেন। এখন যেমন ধর্মচর্চা হচ্ছে তেমনই হবে, কিন্তু "ধর্মীয় বিভাগ" নামটা আকৃষ্ট করে আনবে কয়েকজনকে যাঁদের কাজই হল ফোরামের পরিবেশ গরম করা। এবং মডারেশান করতে করতে মাঝে মাঝে খুব দেরি হয়ে যায়, সেই সময়ে ঘটনাস্রোত অনেকদূর বয়ে যায়।

[বড় কমেন্ট আমার নিজের কাছেই বিরক্তিকর লাগে, অতএব বিশাল সাইজের কমেন্ট করার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী---]

"No ship should go down without her captain."

হৃদয়১'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

২৩ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন স্বপ্নীল (০৭-০৮-২০১১ ০১:৪৬)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

হৃদয় , খুব ভুল একটা কথা বললেন। যারা ঝামেলা পাকাতে চায়, তারা কিন্তু উপবিভাগ এর ধার ধারে না, চাইলে এখুনি বাধাতে পারে। এখানে উপবিভাগ হলেই সবাই ঝাপিয়ে পড়ে ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি রকম পোস্ট দিয়ে দেবে- অন্তত প্রজন্মের মত ফোরামে সেটা খাটছে না। আপনার মূল্যবোধে আঘাত করতে কারো "উপবিভাগ" নামক জিনিসটার আদৌ দরকারই নেই, সেটা কদিন আগে এক ধর্মীয় টপিক থেকেই টের পেয়েছেন আশা করি।

২৪

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

আমার মনে হয় না উপবিভাগ খুললে কোনো অসুবিধা হবে।কোডার ভাই যে কথাগুলো বললেন সেগুলোর কোনো জোরালো মানে পেলাম না। ধর্মীয় পোস্টতো এখনো হচ্ছে। এই পোস্টগুলোই শুধুমাত্র আলাদা উপবিভাগে হলো,তাতে অসুবিধা কি তাই বুঝলাম না। বরং এটাতো ফোরামের জন্য আরোও ভালো, যে এখানে এ টু জেড সব বিষয়ের উপরই আলোচনা হয়।
বাই দা ওয়ে,আপনারা না চাইলে তো কখনই হবে না।
@হৃদয়, এই সমস্যা শুধুমাত্র উপবিভাগ খুললেই হবে? উপবিভাগের পোস্টগুলতো এখনো হচ্ছে।

অল্প কিছু শব্দের মাধ্যমে অনেক সওয়াব পেতে হাদীস অনুযায়ী নিচের শব্দগুলোই যথেষ্ট।
সুবহানাল্লাহ,আলহামদুলিল্লাহ,লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ, আল্লাহু আকবার ।
অর্থ:-  আল্লাহু সুমহান , আল্লাহ-র জন্যই সমস্ত প্রশংসা,আল্লাহু ছাড়া কোনো ইলাহ নেই,আল্লাহ বিরাট ( মহান ) ।

imran ahmed'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

২৫ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন স্বপ্নীল (০৭-০৮-২০১১ ০২:০৭)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

imran ahmed লিখেছেন:

ধর্মীয় পোস্টতো এখনো হচ্ছে। এই পোস্টগুলোই শুধুমাত্র আলাদা উপবিভাগে হলো,তাতে অসুবিধা কি তাই বুঝলাম না।

@হৃদয়, এই সমস্যা শুধুমাত্র উপবিভাগ খুললেই হবে? উপবিভাগের পোস্টগুলতো এখনো হচ্ছে।

হাহাহা..একদম ঠিক বলেছেন। আমি এখনো ঠিক বুঝলাম না, উপবিভাগ করাকে কেনো বার বার দোষ দেয়া হচ্ছে?? যেসব সমস্যার কথা কোডার বা হৃদয় বলছেন: সেসব তো এখনও হতে পারে, কদিন আগেই হয়েছে একটা টপিক নিয়ে। কিন্তু সেসব তো আর উপবিভাগ নামের বস্তুটির কারণে হয় নাই   confused  আমি ঠিক বুঝতে পারছি না: আসল সমস্যাটা কোন জায়গায়  waiting

২৬

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

ধর্ম নামে উপবিভাগ খোলা যেতেই পারে।যারা ভেজাল বাধাতে চায় তারা চাইলে যেকোন বিভাগেও ভেজাল বাধাতে পারে।কোডার ভাইয়ের কথাগুলো মানতে পারলাম না।

নিশাচর নাইম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

২৭ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আহমাদ মুজতবা (০৭-০৮-২০১১ ০৪:৩৫)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

মাদেরকে সেগুলো পুরোপুরিই নিষিদ্ধ করতে হবে।  কারণ একটি উপবিভাগ মানে অফিসিয়ালি সেসব বিষয়ক পোস্টের

    thumbs_up thumbs_up thumbs_up thumbs_up এপ্রিশিয়েট করি এইটা  smile 

আমার মতে উপ-বিভাগ খোলা মানে হচ্ছে জিনিস টা একদম হাইলাইটে চলে আসা। এখন যেমন ধর্মীয় টপিক গুলো খুব একটা চোখে পড়ে না, বা পড়লেও কেউ কারো ইচ্ছে মতো এভয়েড করে নেয়, তবে উপবিভাগ খুললে জিনিসটাকে পুরোপুরি অন্যরকম ভাবে অবস্থান দেয়া হয় যেটা করতে এ ফোরামের এডমিন গন ইচ্ছুক না। এবং এটা করাও ঠিক না, যার যার ধর্ম তার তার কাছে। এটা বাংগালীদের ফোরাম বলে মুসলিমদের সংখ্যা আজ বেশী বলে এখানে ইসলাম রিলেটেড পোস্টই হচ্ছে কিন্তু উপবিভাগ খোলা হলে যে আরো কয়েকটা নতুন টপিক এড হবে না এমন কোনো শিওরিটি নেই, তখনই কাদা ছোড়া ছুড়ি হবে। আর স্বপ্নীল ভাইয়া ফোরামের পোস্ট দেখে ধর্মের প্রতি ভালোবাসা জাগা বা নতুন করে হেদায়েত হওয়াটা আমার কাছে হাস্যকর মনে হলো, যার ভালো হবার সে এমনিই হবে এর জন্য আলাদা করে ঢাক ঢোল পিটিয়ে বিভাগ খুলা পাবলিক রে হেদায়েত করার প্রয়োজন দেখছি না।

এনিওয়েজ আমি কমেন্ট করি না সিরিয়াস কিছুতে অনেক দিন পর করলাম, কাউকে হার্ট করে থাকলে দু:খিত, এটা সম্পূণ আমার পার্সোনাল ওপিনিওন প্লিজ কেউ মাইন্ড করবেন না

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

২৮

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:
হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

মাদেরকে সেগুলো পুরোপুরিই নিষিদ্ধ করতে হবে।  কারণ একটি উপবিভাগ মানে অফিসিয়ালি সেসব বিষয়ক পোস্টের

    thumbs_up thumbs_up thumbs_up thumbs_up এপ্রিশিয়েট করি এইটা  smile

হা হা, উপবিভাগ ছাড়া পোস্ট হলেও কি এডমিনরা দায় এড়াতে পারবেন? ধরেন বিবিধ বিভাগে কেউ সরকারের ব্যাপারে এমন কিছু লিখলো,এবং সরকার এর বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নিবে। তখন সরকার কাকে ধরবে? সরাসরি এডমিনকেই ধরবে।
অতএব মনে হয় না এটা উপবিভাগ না খুলার পিছনে কোনো যুক্তি হলো। তবে এই ব্যাপারটা সম্পুর্নই তাদের ইচ্ছা। আমরা যতই চাই না ক্যান, উনানা না চাইলে তো আর হবে না।

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

আমার মতে উপ-বিভাগ খোলা মানে হচ্ছে জিনিস টা একদম হাইলাইটে চলে আসা। এখন যেমন ধর্মীয় টপিক গুলো খুব একটা চোখে পড়ে না, বা পড়লেও কেউ কারো ইচ্ছে মতো এভয়েড করে নেয়, তবে উপবিভাগ খুললে জিনিসটাকে পুরোপুরি অন্যরকম ভাবে অবস্থান দেয়া হয় যেটা করতে এ ফোরামের এডমিন গন ইচ্ছুক না।

উপবিভাগ খুললেই যে, সবাই এখানে এসে মারামারি বাধিয়ে দেবে তা তো নয়। বরং যার ভালো লাগবে সে আসবে।
আমার নিজের কথাই বলি, উচ্চশিক্ষা ও কর্মজীবন-ভ্রমণ- o স্বাস্থ্য  o চায়ের কাপে ঝড়  o দূর-পরবাস  o সংবাদ বিশ্লেষন আর পুরো একটা বিভাগ "ফোকাসে" যে আমি কয়বার গেছি তা হয়তো গননাই করা যাবে।

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

আর স্বপ্নীল ভাইয়া ফোরামের পোস্ট দেখে ধর্মের প্রতি ভালোবাসা জাগা বা নতুন করে হেদায়েত হওয়াটা আমার কাছে হাস্যকর মনে হলো, যার ভালো হবার সে এমনিই হবে এর জন্য আলাদা করে ঢাক ঢোল পিটিয়ে বিভাগ খুলা পাবলিক রে হেদায়েত করার প্রয়োজন দেখছি না।

আপনার হয়তো কোনো কাজে আসেনি। কিন্তু আমি যথেষ্ট উপকার পেয়েছি বেশ কিছু পোস্ট থেকে।

অল্প কিছু শব্দের মাধ্যমে অনেক সওয়াব পেতে হাদীস অনুযায়ী নিচের শব্দগুলোই যথেষ্ট।
সুবহানাল্লাহ,আলহামদুলিল্লাহ,লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ, আল্লাহু আকবার ।
অর্থ:-  আল্লাহু সুমহান , আল্লাহ-র জন্যই সমস্ত প্রশংসা,আল্লাহু ছাড়া কোনো ইলাহ নেই,আল্লাহ বিরাট ( মহান ) ।

imran ahmed'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

২৯

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

ধর্ম বিভাগ হোক বা না হোক তাতে আমার কোন আপত্তি নেই। তবে রাজনীতি বিভাগ সরিয়ে ফেলার জন্য তুমুল দাবি জানাচ্ছি। ফালতু পোস্ট ছাড়া কাজের একটাও পোস্ট দেখলাম না এখনও এই বিভাগে neutral

৩০

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

দক্ষিণের-মাহবুব লিখেছেন:

ধর্ম বিভাগ হোক বা না হোক তাতে আমার কোন আপত্তি নেই। তবে রাজনীতি বিভাগ সরিয়ে ফেলার জন্য তুমুল দাবি জানাচ্ছি। ফালতু পোস্ট ছাড়া কাজের একটাও পোস্ট দেখলাম না এখনও এই বিভাগে neutral

রাজনীতি বিভাগের বদলে ধর্ম বিভাগ দিলে আপত্তি নাই!

imran ahmed লিখেছেন:

ধরেন বিবিধ বিভাগে কেউ সরকারের ব্যাপারে এমন কিছু লিখলো,এবং সরকার এর বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নিবে। তখন সরকার কাকে ধরবে? সরাসরি এডমিনকেই ধরবে।

জ্বী না, ফোরামের পোস্টের দায়িত্ব সম্পূর্ণ রুপে ফোরামিকের নিজের।

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

এখন যেমন ধর্মীয় টপিক গুলো খুব একটা চোখে পড়ে না, বা পড়লেও কেউ কারো ইচ্ছে মতো এভয়েড করে নেয়, তবে উপবিভাগ খুললে জিনিসটাকে পুরোপুরি অন্যরকম ভাবে অবস্থান দেয়া হয় যেটা করতে এ ফোরামের এডমিন গন ইচ্ছুক না।

তাতে তো আরও সুবিধা! চলতি টপিক দেখার সময় আপনি দেখতে পারবেন পোস্টটি ধর্ম বিষয়ক কি-না।

<?php
ঘুরে আসুন আমার ব্লগ Adhikary.NET
%>

অনিরুদ্ধ'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৩১

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

এনিওয়েজ আমি কমেন্ট করি না সিরিয়াস কিছুতে অনেক দিন পর করলাম, কাউকে হার্ট করে থাকলে দু:খিত, এটা সম্পূণ আমার পার্সোনাল ওপিনিওন প্লিজ কেউ মাইন্ড করবেন না

জুতা মেরে তারপর .........
ভালই বলেছেন  smile
ধর্ম আসলেই প্রচরের দরকার নাই তাইলে প্রযুক্তিবিষয়ক জিনিস প্রচারেরই বা দরকার কি? যার দরকার শিখে নিবে  angry

৩২ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন ইলিয়াস (০৭-০৮-২০১১ ০৯:৪৪)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

ক্যাচাল যদি কেউ করতে চায় তবে সেটা উপ-বিভাগ ছাড়াও করতে পারবে। বিভাগ করলে ক্যাচাল বাধার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে কথাটা আমিও মানি। যেহেতু কোন মডারেটর এ বিভাগের দায়িত্ব নিতে চান না সেহেতু বিভাগ না করাই ভাল।

হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

কারণ একটি উপবিভাগ মানে অফিসিয়ালি সেসব বিষয়ক পোস্টের এক ধরনের স্বীকৃতি।

রাজু ভাইয়ের প্রতিটা কমেন্ট হতে একটা বিষয় পরিস্কার সেটা হলো। প্রজন্মে ধর্মীয় বিভাগ খোলার নীতিগত সমস্যা এ ছাড়া কোন সমস্যা নাই। যেহেতু এটা নীতিগত সমস্যা আমার মনে হয় এ বিষয় নিয়ে আর কোন আলোচনা করার মানে নেই।

৩৩

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

একটা জিনিস আমার কাছে অবাক লাগে যে, প্রজন্ম ফোরাম কি তাহলে বর্তমান প্রজন্মকে ধর্মহীন রাখতে উৎসাহিত করছে! নাকি তারা এতোটাই ধর্মজ্ঞানহীন বলে নিজেদের মনে করে যে, ধর্মের সামনাসামনি হয়ে যাওয়াকে ভয় পায়? আমি নিজে বর্তমান প্রজন্মের একজন প্রতিনিধি কিন্তু আমি তো ওরকম ভীতু নই ... তাহলে সমস্যাটা কাদের মধ্যে তা ভেবে দেখার বিষয়। কি আজব প্রজন্ম এখন, নিজেকে একটি ধর্মের বলে দাবী করে কিন্তু নিজের ধর্ম নিয়ে কথা বলতেই ভয় পায় ... এটা কিসের প্রকাশ?  dontsee

৩৪

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

ধর্ম নিয়ে বিতর্ক হবে কেন? আমি সেটাই বুঝি না । কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত না করলেই হয় । ধর্ম বিষয়ক একটা উপ-বিভাগ থাকলে ভালই হতো.....

জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু......
এই মেঘ এই রোদ্দুর

৩৫

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

সবাই দেখি ইমোশনালি দেখছে ব্যাপারটা এটা একটা পাবলিক ফোরাম সো আশা করি সবাই আরেকটু রেশনালি ভাববেন ব্যপারটা..  smile

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৩৬

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

সবাই দেখি ইমোশনালি দেখছে ব্যাপারটা এটা একটা পাবলিক ফোরাম সো আশা করি সবাই আরেকটু রেশনালি ভাববেন ব্যপারটা..  smile

এখানে ঠিক কোথায় দেখলা সবাই ইমোশনালি দেখছে  confused  আমি তো উল্টো আরো দেখলাম,  তোমার লেখাতেই যুক্তিহীন কিছু ইমোশন ছিল। আমরা সবাই বেশ ভালভাবে যুক্তি সহকারে নিজেদের মতামত উপস্থাপন করছি। কমেন্টগুলো ভাল মত পড়েছ তো?  waiting

৩৭

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

ধর্মীয় উপবিভাগ হওয়া না হওয়ার প্রশ্নে পরেই আসি, খোলা হবে কিনা সেই টপিক খোলা হতে না হতেই এত তর্ক বিতর্ক। কিভাবে আশা করবো যে এই তর্ক বিতর্ক সামনে আর এগুবে না ?  worried
আপনাদের বিপক্ষে রায় আপনারাই তৈরী করে ফেলছেন।

সীমান্ত ঈগলঃ প্রজন্ম কখনোই ধর্মহীন রাখার কথা বলে নি, পূর্বে ধর্ম নিয়ে অনেক সুন্দর টপিক এসেছে এবং প্রজন্ম ফোরাম কখনোই এর বিরোধিতা করে নি। সমস্যা হচ্ছে, শুধু একটি উপবিভাগ ই সমস্যা নয়, ধর্মীয় ব্যাপারগুলো খুবই স্পর্শকাতর। আপনি মনের অজান্তেই কাউকে হয়তো আঘাত করে বসতে পারেন। এবং আমার নিজের অভিজ্ঞতায় দেখেছি এ নিয়ে কম ঝামেলা হয় নি, আপনার নিজেরও খুব ভাল করেই জানার কথা সেটা। তাছাড়া বিভিন্ন বিভাগ যেমন হাসির বাক্স, তথ্য প্রযুক্তি কিংবা বিবিধ এর সাধারন টপিকগুলো যুক্তি দিয়েই বিচার করা যায়, সেগুলোর ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া যায়। কিন্তু ধর্মীয় ব্যাপারগুলো যুক্তিবিদ্যাতেই সীমাবদ্ধ নয়, বিশ্বাসের একটা ব্যাপার রয়েছে। তাছাড়া রাজনীতি আর ধর্মীয় ব্যাপারগুলোতে সত্য মিথ্যা এবং ভুল এই তিনটির আনাগোনা খুব বেশী হয় যখনই আপনি নির্দিষ্ট কিছু জিনিসের বাইরে যাবেন। আর সেটা বিচার করার জন্য আমাদের দরকার একজন নিরপেক্ষ এবং সঠিক মানুষ যার প্রতিটি ধর্ম সম্পর্কে সমান জ্ঞান রয়েছে, যে সবার জন্য নিরপেক্ষ ভাবে ব্যাপারগুলো তদারকি করতে পারবেন।  ব্যাক্তিগত ভাবে আমার মতামত: নিরপেক্ষভাবে ধর্মীয় ব্যাপারগুলো সবসময় সমাধান করা যায় না। ফোরামে সবাইকেই সমানভাবে দেখার চেষ্টা করা হয়, কাজেই নিরপেক্ষতার প্রশ্নটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রজন্মফোরামকে একটি নির্দিষ্ট ধর্মের দাবী করাটাও অযৌক্তিক, কেননা তাতে অন্যান্য ধর্মালম্বীদের খানিকটা প্রায়োরিটি কমিয়ে ফেলা হয় বলেই মনে হয়। 

@অনিরুদ্ধঃ আমার মনে হয় না, কথাটা বলে ফোরাম কর্তৃপক্ষ পার পেয়ে যাবে। ফোরামে কোন কিছু হলো, এবং সরকার যদি সেটার বিরুদ্ধে এ্যাকশন নেয়ার কথা ভাবে, তখন প্রথমে সে এডমিনকেই ধরবে, তার নিয়ন্ত্রনের ভিতরে কেন এমন কিছু হল যে সরকারকে তার বিরুদ্ধে যেতে হচ্ছে এই কৈফিয়তের জবাব নিতে।

৩৮ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন স্বপ্নীল (০৭-০৮-২০১১ ১৪:০০)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

মেহেদী৮৩ লিখেছেন:

ধর্মীয় উপবিভাগ হওয়া না হওয়ার প্রশ্নে পরেই আসি, খোলা হবে কিনা সেই টপিক খোলা হতে না হতেই এত তর্ক বিতর্ক। কিভাবে আশা করবো যে এই তর্ক বিতর্ক সামনে আর এগুবে না ?  worried
আপনাদের বিপক্ষে রায় আপনারাই তৈরী করে ফেলছেন।

আজব একটা ব্যাপার। আমরা কি এখানে কোথাও ঝগড়া করছি?? আলাপ-আলোচনা-তর্ক তো হবেই। সেটাকে খারাপ চোখে দেখার মানেটা কি? বরং সবাই যে এখনো ধৈর্য্য ধরে এত ভালভাবে মাথা ঠান্ডা রেখে শান্তিপূর্নভাবে নিজ নিজ যুক্তি প্রদর্শন করছে -সেটা একবারও চোখে পড়ল না??  confused


আগুন লাগল, আগুন লাগল বলে আসলে এক অর্থে আগুনহীন এক জায়গাতে আগুনই ধরিয়ে দেয়া হচ্ছে  - যেটা মোটেই কাম্য নয়    thumbs_down


আর ক্যাচালের কথা যখন আসলই, তখন তো বলতে হয় উইন্ডোজ-লিনাক্স নিয়ে ভয়ংকয় লেবু কচলাকচলি, ঝগড়া-ঝাটি এত এত হবার পর সেটাই সবার আগে বন্ধ করে দেয়া উচিত ছিল।

সমস্যা যেকোন টপিক নিয়েই হতে পারে, হয়েছেও, দোষ শুধু ধর্মের টপিকের হবে কেনো? সেজন্য কোন উপবিভাগ বন্ধ বা না খোলা কোন সমাধান নয়।

৩৯

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

স্বপ্নীল লিখেছেন:

উইন্ডোজ-লিনাক্স নিয়ে ভয়ংকয় লেবু কচলাকচলি, ঝগড়া-ঝাটি এত এত হবার পর সেটাই সবার আগে বন্ধ করে দেয়া উচিত ছিল।

ধর্মকে অাপনি উইন্ডোজ-লিনাক্স এর সমগোত্রীয় বলে মনে করেন ?

Despise Wisdom

৪০ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন স্বপ্নীল (০৭-০৮-২০১১ ১৪:২৭)

Re: প্রজন্মে ধর্ম নিয়ে আলাদা উপবিভাগ চাই

অলোক লিখেছেন:

ধর্মকে অাপনি উইন্ডোজ-লিনাক্স এর সমগোত্রীয় বলে মনে করেন ?

আপনি সম্ভবত সবগুলো কমেন্ট না পড়েই কমেন্ট করেছেন। ভাল করে আবার সব পড়ুন। সহজেই বোঝে যাবেন কেন এটা বলেছি। তারপরেও না বুঝলে কিছু করার নাই, সরি।