টপিকঃ আনলাকি 13

আনলাকি 13

০১।
অনেকের মতে......
Alexander the Great  ছিলেন একসময়কার প্রচন্ড ক্ষমতাশালী সম্রাট। কিন্তু তার দম্ভ একসময় ছাড়ি যেতে চায় স্বর্গ রাজ্যকেও। সে নিজেকে দেবতাদের সমকক্ষ ভাবতে শুরু করেন, এরই ফলস্রুতিতে সে তার রাজধানীতে নিজের বিশাল আকৃতির মূর্তী তৈরি করেন ১৩টি। তখনকার সময় তার জনগন ১২ মাসের জন্য ১২জন দেবতাকে পূজা করতো। তাই Alexander the Great এর মৃত্যুর পর লোকজন ভাবতে শুরু করেছিলো Alexander the Great  ১৩ নাম্বার দেবতা ছিলো আর তাই তার মৃত্যু হয়েছে। এর পর থেকেই এই ১৩কে আনলাকি বিবেচনা করা হয়। (অসমর্থিত সূত্র)


০২।
আমরা জানি যিশুর Last Supper এর সময় মোট ১৩ জন ব্যাক্তি উপস্থিত ছিল। আবার যীশুকে শূলে চড়ানো হয় শুক্রবার, আর সেদিনের তারিখটি ছিলো ১৩।  তাই এখনো খ্রীষ্টানরা যেকোনো শুক্রবার ১৩ তারিখ হলে সেই দিনটিকে অশুভ বিবেচনা করে।
http://upload.wikimedia.org/wikipedia/commons/7/7d/Simon_ushakov_last_supper_1685.jpg





০৩।
বার আর তারিখের কথা যখন আসলোই তাহলে এখানে আরো একটু বলে রাখা ভালো...
আমরা সকলেই জানি ১২ মাসে ১ বছর, কিন্তু কয় জন জানি ১ বছরে সর্বচ্চ কয়টি শুক্রবার ১৩ তারিখে হতে পারে?  উত্তর হচ্ছে সর্বচ্চ ৩টি শুক্রবার ১৩ তারিখে হতে পারে। তাছাড়া প্রতি বছরেই কমপক্ষে একটি শুক্রবার ১৩ তারিখে হবেই, আর খুঁজলে পরে দুটি শুক্রবার ১৩ তারিখে পরে এমন বছরও বেশ পাওয়া যাবে। তবে ৩টি শুক্রবার ১৩ তারিখে পরে এমন বছরের সংখ্যা খুব বেশী নেই। কাছা কাছি সময়ের মধ্যে ১৯৯৮ইং সাল ও গতবছর অর্থাৎ ২০০৯ইং সালে তিনটি করে ১৩ তারিখের শুক্রবার ছিল। আর এই বছর ২০১০ইং সালে ১৩ তারিখের শুক্রবার মাত্র একটি- আগষ্টের ১৩ তারিখ। আর একটি কথা জানিয়ে রাখি এখানে, যে মাসের ১ তারিখ হয় রবিবারে, সেই মাসের ১৩ তারিখ অবশ্যই শুক্রবার হবে। আর যদি ফেব্রুয়ারী মাস (লিপইয়ার ছাড়া) শুরু হয় রবিবারে, তবে ফেব্রুয়ারী ও মার্চ উভয় মাসেরই ১৩ তারিখ হবে শুক্রবার ।


০৪।
আগামী বছর ২০১১ইং সালের  ১৩ই মে চমৎকার অথবা ভয়ংকর একটি দিন হবে, কারণ এই দিনটি হবে শুক্রবার। কিন্তু এখানেই শেষ নয়, আমরা তারিখটি লিখবো এভাবে -  “১৩/৫/২০১১”। তারিখের সবকটি অংক এবার যোগকরুন দেখি (১+৩+৫+২+০+১+১) = ১৩, বুঝুন অবস্থা, প্রথমেতো ১৩ তারিখ শুক্রবার তার উপরে আবার যোগকরলেও ১৩। সাবধানে থাকবেন দয়াকরে!! একবার যদি দিনটিকে পার করতে পারেন তাহলে আর ভয়নেই, এই নশ্বর জীবনে আর দেখা পাবেন না এমন আর একটি দিনের। কারণ এর পরে এমন দিনটি আবার আসবে ২১৪১সালের ১৩ই জানুয়ারিতে। আর সেদিনের তারিখটি হবে ১৩/১/২১৪১। এখানে মজার বিষয় হচ্ছে সাল দুটিই (২০১১ ও ২১৪১) কিন্তু প্রাইম সংখ্যার সাল।


০৫।
আমরা সবাই জানি এক বছর  = ৫২ সপ্তাহ, যা ১৩ এর গুণনিয়ক।


০৬।
১৩কে চন্দ্র সংখ্যাও (moon number) বলা হয়। কারণ এক সৌরবছর সমান-সমান ১৩ চন্দ্র মাস (moon months)। আবার আকাশ পথে চাঁদ প্রায় ১৩ ডিগ্রী (degree) পথ অতিক্রম করে এক দিনে। এর জন্যই সৌর বছরের সঙ্গে এই তারতম্য হয়।


০৭।
Apollo 13 এর কথা কমবেশি সকলেই শুনেছি। চাঁদে যাওয়ার এই Apollo 13 Mission টি সফল হয়নি অক্সিজেন টেঙ্কের একটি বিস্ফরণ (oxygen tank explosion) জনিত দূর্ঘটনার জন্য। চাঁদে মানুষ যাওয়ার একমাত্র ব্যর্থ Mission এই Apollo 13। মজার বিষয় হচ্ছে Apollo 13 launch pad থেকে 13:13 (CST) hours military timeএ launch করে। Apollo 13 এর Earth orbit insertion time ছিলো 02:25:40 p.m যোগকরে দেখেন (০+২+২+৫+৪+০) = ১৩। আবার Apollo 13 এর Splashdown time ছিলো 01:07:41 p.m যোগকরে দেখেন (০+১+০+৭+৪+১) = ১৩। Apollo 13 কিন্তু  দূর্ঘটনাতে পতিত হয় ১৯৭০ সালের এপ্রিল মাসের ১৩ তারিখে। (আপনি জানেন নিশ্চই এপ্রিলের ১৩ তারিখে হচ্ছে বছরের ১০৩তম দিন।) সুখের বিষয় হচ্ছে Apollo 13এ অবস্থানরত তিনজন নবচারীই বেঁচে যান।
http://www.dennishanna.com/apollo13%20damage.jpg





০৭।
অতি সম্প্রোতি দূর্ঘটনায় পতিত হয় Columbia Space Shuttle নবযানটি। Columbia Space Shuttle টি মহাকাশে গিয়েছিলো ১৬-১-২০০৩ তারিখে। তারিখটির সবকটি অংক যোগদিলে আমরা পাবো (১+৬+১+২+০+০+৩) = ১৩। Columbia মহাকাশ থেকে ফেরার সময় একটি বিষ্ফোরনের সাথে ধ্বংষ হয়ে যায়। Columbiaতে অবস্থানকারী সকল crew দুঃখজনক ভাবে মৃত্যুবরন করেন। এই দূর্ঘটনায় প্রাণ হারায় আমাদের পার্শবর্তীদেশ ভারতের মহিলা নবচারী কল্পনা চাওলা।
http://www.solarnavigator.net/aviation_and_space_travel/aviation_space_images/space_shuttle_launch_cape_canaveral.jpg



০৯।
Greek জাতীর কাছে ১৩ একটি আনলাকি (unlucky) নাম্বার, কারণ তাদের Constantinople city বেদখল হয়ে যায় ১৪৫৩ সালের ২৯শে মে তে। সালের অংকগুলির যোগফল (১+৪+৫+৩) = ১৩। 





১০।
সাদ্দাম হোসেনের কথা এখানে একটু না বললেই নয়। সে খারপ কি ভালো তার বিচার আমরা করবো না, আমরা শুধু দেখবো ১৩এর পাঁকে তার করুন পরিনতি......
ইংরেজীতে “সাদ্দাম হোসেন” লিখতে ১৩টি অক্ষর (letter) লাগে।
SADDAM HUSSEIN = (S, A, D, D, A, M,   H, U, S, S, E, I, N) = ১৩টি অক্ষর।
আবার সাদ্দাম হোসেনেকে কবে গ্রেফতার করা হয়েছিলো আপনার মনে আছে কি?
দিনটি ছিলো ২০০৩ সালের ১৩ই ডিসেম্বার।

শুধু সাদ্দামই নয়, Osama bin Laden লিখতেও ১৩ টি অক্ষর (letter) লাগে।


১১।
পৃথিবীর প্রায় সকল মুসলমান পুরুষ তাদের নামের আগে বা পরে Muhammad শব্দটি ব্যবহার করেন। মজার বিষয় হচ্ছে এই M অক্ষরটি ইংরেজী বর্ণমালার ১৩তম অক্ষর। অনেকের মতে শুধু মাত্র এই কারণেই অমুসলিমগন ১৩কে আনলাকি হিসেবে উপস্থাপন করে।


১২।
পৃথিবীর প্রাপ্তবয়স্ক বেশীরভাগ মানুষের মূত্রাশয় (bladder) ১৩ আউন্সের মত (ounce) তরল ধারন করতে পারে।


১৩।
ইংরেজীতে অক্ষর সংখ্যা (alphabet) ২৬টি, যা ১৩ এর গুণনিয়ক ।
আর
যদি ১৩ হয় আনলাকি তাহলে.......
PRIME MINISTER,
CHIEF MINISTER,
CHIEF ENGINEER,
VICE PRINCIPAL
এই সমস্ত পদে যারা রয়েছেন তাদের কি হবে? উপরের প্রতিটি বানানে ১৩টি করেই অক্ষর রয়েছে। এও উচ্চ পর্যায়ের লোকের ভাগ্য খারাপ বা খারাপ ভাগ্যের লোক এতো উচ্চ পর্যায়ে যায় বিষয়টি ঠিক আন লাকির সাথে মেলে না। আসলে সংখ্যার মাঝে কোনো লাকি আ আনলাকি থাকে না। প্রতিটি সংখ্যাই নিতান্ত নিরিহ। আমি আপনাকে নিশ্চয়তা দিয়ে বলতে পারি মাসের ৭ তারিখের দুর্ঘটনার তালিকা ১৩ তারিখের চেয়ে কম নয় বরং বেশীই খুঁজে পাওয়া যাবে, আমার ৭ তারিখের দূর্গটনাগুলিকে খুঁজিনা তাই চোখে পরে না।

আমি জানি আনেকের হাতই চুলকাচ্ছে মাইনাস দেয়ার জন্য, কারো টপিকটি পড়ে আর কারো না পড়েই। যদি অলরেডি মাইনাস দিয়ে ফেলে থাকেন তাহলে বলার কিছু নাই, আর যদি না দিয়ে থাকেন তাহলে একটু সাফাই গাইতে চাই। আমার উদ্দেশ্য মোটেও কুসংস্কার ছড়ানো নয়। এই লেখাটি আমার বিশাল একটি লেখার প্রথম অংশ, সম্পূর্ণ লিখাটি একবারে পোস্ট করা গেলো না।  লেখাটিতে আমি  পর্যায়ক্রমে দেখাবো ১৩কে আনলাকি বলা হলেও গাণিতিক অনেক মজাই লুকিয়ে আছে ১৩-এর বুকে। ১৩এর বুক  লুকিয়ে থাকা সেই মজাগুলিই আমি তুলে আনবো আপনাদের সামনে ধীরে ধীরে। কুসংস্কার বা ধর্ম কোনো রকম ভাবেই আমার লিখার বিষয় নয় তবে যতটুকো দেখতে পাচ্ছেন তা না দেখারেই নয়। রবীন্দ্রনাথ বলে ছিলেন সন্ধ্যায় বাতী জালবার জন্য দিনের বেলাতেই তার সলতে তৈরি করতে কয়। এই লেখাটিও আমার জন্য তেমনই।
আশা করি থাকবেন আমার সাথে...
চলবে...

(সকল প্রকারের অনিচ্ছাকৃত ভুল ও অপারদর্শিতা হেতু  অস্বচ্ছতার  জন্য ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। গুণীজন নিজ গুণেই আমার ভুলগুলি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এ আশাই রইলো। ধন্যবাদ, ভালো থাকবেন সকলে।)

===============================================================
আমার লিখা আরো কিছু মজার সংখ্যাঃ
আশ্চর্য! একটি সংখ্যা ৬৬৬......
আশ্চর্য একটি সংখ্যা ১৪২৮৫৭
আশ্চর্য একটি সংখ্যা ৬১৭৪
আশ্চর্য সংখ্যা Shliced Number
“১৫৩” একটি অবাক করা সংখ্যা
দুর্গা ধ্রুবক
সংখ্যা রঙ্গ সমগ্র
সংখ্যা রঙ্গ সমগ্র ২
"আশ্চর্য কিছু ক্রমিক সংখ্যা"
আশ্চর্য একটি সংখ্যা 076923
রামানুজন সংখ্যা ১৭২৯
১ ২ ৩ ৪ ৫ ৬ ৭ ৮ ৯ = ১০০
পারফেক্ট নাম্বার
অদ্বিতীয় সংখ্যা বা UNIQUE NUMBER
ক্রমিক সংখ্যার মজা (প্রথম পর্ব),

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।

Re: আনলাকি 13

আপনি তো দেখছি এখানে মাত্র ১৩টি পয়েন্ট উল্লেখ করেছেন...  roll

মরুভূমির জলদস্যু লিখেছেন:

১১।
পৃথিবীর প্রায় সকল মুসলমান পুরুষ তাদের নামের আগে বা পরে Muhammad শব্দটি ব্যবহার করেন। মজার বিষয় হচ্ছে এই M অক্ষরটি ইংরেজী বর্ণমালার ১৩তম অক্ষর। অনেকের মতে শুধু মাত্র এই কারণেই অমুসলিমগন ১৩কে আনলাকি হিসেবে উপস্থাপন করে।

আমিও এটাই জানতাম এবং সেই সাথে আরো জানতাম যে খ্রিষ্টানদের যীশু মানে তার নামের আদ্যক্ষর G (7 তম Alphabet) বলে লাকি সেভেন (7) কথাটিও সেভাবেই এসেছে।

Flickr     500px    Facebook     SRS    Twitter

শিমুল১৩'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

Re: আনলাকি 13

চমৎকার। ধন্যবাদ। Friday the 13th মিথের ব্যাক্ষা ড্যান ব্রাউনের কোন এক বইতে পড়েছিলাম।

Re: আনলাকি 13

শিমুল১৩ লিখেছেন:

খ্রিষ্টানদের যীশু মানে তার নামের আদ্যক্ষর G

Jesus - J দিয়ে শুরু হয়

Re: আনলাকি 13

শিমুল১৩ লিখেছেন:

আমিও এটাই জানতাম এবং সেই সাথে আরো জানতাম যে খ্রিষ্টানদের যীশু মানে তার নামের আদ্যক্ষর G (7 তম Alphabet) বলে লাকি সেভেন (7) কথাটিও সেভাবেই এসেছে।

হিহি জিসু=জিসাস=Jesus (বিশ্বাস না হইলে গুগলান)

এম. মেরাজ হোসেন
IQ: 113
http://www.iq-test.cc/badges/4774105_3724.png

Re: আনলাকি 13

ভিন্নধর্মালম্বীরা নাকি ৭ কে লাকি ভাবে ইংরেজী ৭ম ক্যারেক্টার এর জন্য(G>>GOD) আর ১৩ আনলাকি কারন (M>>Mohammad)
আমার কাছে ১৩ লাকি।

Re: আনলাকি 13

সকলকে আমার তরফ থেকে অসংখ্য ধন্যবাদ চমৎকার সব আলোচনা করার জন্য।

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।