টপিকঃ দেখো একদিন..

দেখো একদিন

দেখো, একদিন ঠিকই যাব চলে
আর আসব না হয়ত ফিরে
তিক্ত এই জীবন-নদীর যন্ত্রণা ক্লিষ্ট তীরে।
পড়ে র’বে খাঁচা খানি আমার
শূন্য নীরব হাহাকারে নিথর
মন পাখি যাবে যে উড়ে।

দেখো, একদিন ঠিকই হেঁটে যাবো
আমার আজন্ম সাধের
শান্ত মায়ালু মেঠো পথটি ধরে।
নীল আকাশটা কে সাক্ষী রেখে,
পথের ধূলো গায়ে মেখে,
বেরিয়ে পড়বো
সকল পিছুটান উপেক্ষা করে।

দেখো, একদিন হয়ত উড়েই যাবো
উদাস নীড়-ভোলা এক বিহঙ্গ হয়ে,
বহু কাংখিত মুক্তির অনাবিল আলো
ডানায় মেখে উড়বো
অকপট বিশাল ওই আকাশে।

দেখো, একদিন ঠিকই যাবো হারিয়ে
চলে যাবো দূরে বহু দূরে কোথাও
যেখানে কেউ খুঁজে পাবে না এই আমায়
ভুলে গিয়ে সকল স্মৃতি...
আর ছিঁড়ে বন্ধনের ক্রমঃশিথীল গ্রন্থি
মিশে যাবো অজানা অচেনা জনারণ্যে।
হারিয়ে যাব, সত্যিই হারিয়ে যাবো
একদিন সবার অলক্ষ্যে।

উদাসীন

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

Re: দেখো একদিন..

উদাসীন ভাই, ৩ নম্বর পারায় হয়তো শব্দটা কি আগের লাইনগুলোর থেকে কিছুটা বিপরীতমূখী নয়??? কবিতাটি খুব ভাল লেগেছে আমার। আমি মাধ্যমিকে পড়ার সময় প্রায়ই এমন পাগলামী করতাম। আমি খুব স্বাধীনতার কাঙ্গাল ছিলাম। কেউ শাসন করলে মন হতে এখনই কোথাও চলে যাই যেখানে কেউ আমার স্বাধীনতায় ব্যাঘাত ঘটাবে না।

শুধুমাত্র আমি আমার স্বাধীনতা থেকে বঞ্চিত হবো বলে, আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির চেষ্টা করিনি। থাকতে চেয়েছি সকলের থেকে দুরে, স্বাধীনভাবে।

অনেকদিন পরে আমার অতীতকে ফিরে পেলাম।  এমন একটি কবিতার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Re: দেখো একদিন..

প্রথমে ধন্যবাদ আপনাকে ধৈর্য্য নিয়ে পড়ার জন্য। আসলে ওই জায়গাটায় আমি একটু দ্বিধান্বিত..। মুক্তি আসলেই কঠিন। তবে আপনি যেটা বলেছেন সে অনুযায়ী 'ঠিকই' শব্দ টা বসালেও অসুবিধা নেই। আবারো ধন্যবাদ আপনাকে এই বিশ্লেষণের জন্য। ভালো থাকবেন।

উদাসীন

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: দেখো একদিন..

ৃেেবৃ

Re: দেখো একদিন..

oxyzen লিখেছেন:

ৃেেবৃ

বুঝলাম না।

"We want Justice for Adnan Tasin"

Re: দেখো একদিন..

ভাল কবিতা। শুভেচ্ছা সতত।

ভেতরে  বাইরে আগুন
তবু এ হৃদয় বড় উচাটন
কখন আসবে ফাগুন

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: দেখো একদিন..

উদাসীন লিখেছেন:

দেখো একদিন

দেখো, একদিন ঠিকই যাব চলে
আর আসব না হয়ত ফিরে
তিক্ত এই জীবন-নদীর যন্ত্রণা ক্লিষ্ট তীরে।
পড়ে র’বে খাঁচা খানি আমার
শূন্য নীরব হাহাকারে নিথর
মন পাখি যাবে যে উড়ে।

দেখো, একদিন ঠিকই হেঁটে যাবো
আমার আজন্ম সাধের
শান্ত মায়ালু মেঠো পথটি ধরে।
নীল আকাশটা কে সাক্ষী রেখে,
পথের ধূলো গায়ে মেখে,
বেরিয়ে পড়বো
সকল পিছুটান উপেক্ষা করে।

দেখো, একদিন হয়ত উড়েই যাবো
উদাস নীড়-ভোলা এক বিহঙ্গ হয়ে,
বহু কাংখিত মুক্তির অনাবিল আলো
ডানায় মেখে উড়বো
অকপট বিশাল ওই আকাশে।

দেখো, একদিন ঠিকই যাবো হারিয়ে
চলে যাবো দূরে বহু দূরে কোথাও
যেখানে কেউ খুঁজে পাবে না এই আমায়
ভুলে গিয়ে সকল স্মৃতি...
আর ছিঁড়ে বন্ধনের ক্রমঃশিথীল গ্রন্থি
মিশে যাবো অজানা অচেনা জনারণ্যে।
হারিয়ে যাব, সত্যিই হারিয়ে যাবো
একদিন সবার অলক্ষ্যে।

উদাসীন

অসম্ভব সুন্দর হয়েছে

ডিজিটাল বাংলাদেশে ত আর সাক্ষরের নিয়ম চালু নাই।সবটায় দেখি বায়োমেট্রিক।তাই আর সাক্ষর দিতে পারলাম না।দুঃখিত।