টপিকঃ ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত  হয়েছেন ?

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

দ্যা ডেডলক লিখেছেন:

ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত  হয়েছেন ?

না, চুক্তি না করাতে তাকে রাখবে না বোর্ড

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

আমি শুনসি বরখাস্ত  হয়েছেন।

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

rubelbd লিখেছেন:

আমি শুনসি বরখাস্ত  হয়েছেন।

আমিও তাই শুনেছি ।

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

আসলে এসব কিছুই না। উনি হুগো সেভেজের সাথে মোলাকাত করেছেন। তার শাস্তি সরুপ ওবামার পক্ষ থেকে সামান্য উপহার! big_smile

তামিম৬৯'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

না, ম্যারাডোনা বরখাস্ত হননি। হুলিও গ্রন্দোনা উনাকে বলেছিলেন উনার ৭ জন কোচিং ষ্টাফকেই পাল্টে নিতে। যেটা ম্যারাডোনা পছন্দ করেননি। কাজেই উনি নিজেই পদত্যাগ করেছেন।

চতুর্মাত্রিক.কম | IntoWindows | Phototuts+
~~~
"If you have an apple and I have an apple and we exchange apples then you and I will still each have one apple. But if you have an idea and I have an idea and we exchange these ideas, then each of us will have two ideas." - George Bernard Shaw

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

নির্ঝর লিখেছেন:

না, ম্যারাডোনা বরখাস্ত হননি। হুলিও গ্রন্দোনা উনাকে বলেছিলেন উনার ৭ জন কোচিং ষ্টাফকেই পাল্টে নিতে। যেটা ম্যারাডোনা পছন্দ করেননি। কাজেই উনি নিজেই পদত্যাগ করেছেন।

হ্যা ঠিক উনি শর্ত দিয়েছিলেন সব কোচিং ষ্ঠাফকে নিয়েই তিনি চলতে চান ফেডারেশন রাজি না হওয়ায় তার সাথে চুক্তি নবায়ন করা হয় নাই।

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?

বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায়ের পর আর্জেন্টিনা ফুটবল দল নিয়ে আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন দিয়েগো ম্যারাডোনা। দেশটির সাবেক অধিনায়ক এবং '৮৬-এর বিশ্বকাপ জয়ের নায়কের ভাগ্যে কী আছে তা নিয়ে প্রতিনিয়তই আসছিল নতুন নতুন খবর। এক সময় মনে হয়েছিল, ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য পরবর্তী বিশ্বকাপ পর্যন্ত ম্যারাডোনাকেই দেখা যাবে আর্জেন্টিনার কোচ হিসেবে। তারপরও ম্যারাডোনা আলোচনার শেষ কোথায় তা দেখার জন্য সবার অপেক্ষা ছিল মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (এএফএ) সভা পর্যন্ত। কারণ কিছু কঠিন শর্ত দিয়ে কোচ হিসেবে দায়িত্ব চালিয়ে যেতে রাজি হয়েছিলেন ম্যারাডোনা। তবে দেশটির ফুটবল কর্তৃপক্ষ ম্যারাডোনার শর্ত না মেনে তার সঙ্গে চুক্তি না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় মঙ্গলবার। সেই সঙ্গে দেশটির সাবেক কোচদের তালিকায় লেখা হয়ে যায় ম্যারাডোনার নাম। ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে মুখপাত্র বিয়ালো জানান, 'আমাদের এর বিকল্প কোনো পথ ছিল না। তাকে রাখতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তার দেওয়া শর্তগুলো আমাদের পক্ষে পূরণ সম্ভব নয়।'
১১ আগস্ট ডাবলিনে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রদর্শনী ম্যাচের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে গত বেইজিং অলিম্পিকে স্বর্ণ জেতানো কোচ সার্জিও বাতিস্তাকে। ২০০৮ সালে আলফিও বাসিলের পরিবর্তে জাতীয় দলের কোচ হিসেবে ম্যারাডোনাকে দায়িত্ব দিয়েছিল আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। ম্যারাডোনার অধীন আর্জেন্টিনা সর্বশেষ ম্যাচে জার্মানির কাছে ০-৪ গোলে হেরে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেয়। ম্যারাডোনাকে বাদ দেওয়ার পর এখন আর্জেন্টিনা ফুটবলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, কে হচ্ছেন দেশটির নতুন কোচ। এস্টাডিয়ান্তিসের আলেজান্দ্রো সাবেলা, রেসিংয়ের মিগুয়েল রুসো এবং এথেন্স অলিম্পিকে স্বর্ণজয়ী কোচ মার্সেলো বিয়েলসার নাম শোনা যাচ্ছে মেসিদের নতুন বস হিসেবে।
সূত্র : http://www.samakal.com.bd/details.php?n … pub_no=410

Re: ম্যারাডোনা কি বরখাস্ত হয়েছেন ?


গ্রন্ডোনা মিথ্যাবাদী, বিলার্দো বিশ্বাসঘাতক: ম্যারাডোনা

সব কিছুই ঠিক ছিল। আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনও আগামী বিশ্বকাপ পর্যন্ত ডিয়েগো ম্যারাডোনাকেই কোচ হিসেবে রেখে দিতে চেয়েছিল। কেবল কয়েকটি জায়গায় মতের অমিল হওয়ায় আর্জেন্টিনার কোচ হিসেবে ম্যারাডোনা অধ্যায় এখন ইতিহাসের অংশ।
কোচ হিসেবে চুক্তি নবায়িত না হওয়ার এক দিন পরেই মুখ খুলেছেন ক্ষুব্ধ ম্যারাডোনা। তিনি আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান হুলিও গ্রন্ডোনাকে ‘মিথ্যাবাদী’ বলে অভিহিত করেছেন। এর পাশাপাশি তিনি বলেছেন, আর্জেন্টাইন জাতীয় ফুটবল দলের টেকনিক্যাল ডাইরেক্টর ও ’৮৬-র বিশ্বকাপ জয়ী দলের কোচ কার্লোস বিলার্দো নাকি তাঁর সঙ্গে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ করেছেন।
চুক্তি নবায়ন প্রশ্নে আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে মতৈক্যে পৌঁছতে না পারার পরপরই রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সের একটি রেস্তোরাঁয় ম্যারাডোনা নিজেই আয়োজন করেছিলেন সংবাদ সম্মেলন। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের সামনে একটি লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান। সেই বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হুলিও গ্রন্ডোনা আমার সঙ্গে মিথ্যাচার করেছেন। এর পাশাপাশি আমি টেকনিক্যাল ডাইরেক্টর কার্লোস বিলার্দোর বিশ্বাসঘাতকতার শিকার।’
ম্যারাডোনা বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে জার্মানির সঙ্গে পরাজয়ের দিনটির কথা উল্লেখ করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘জার্মানির সঙ্গে ৪-০ গোলে হেরে আমরা যখন শোকে মুহ্যমান ঠিক তখনই আর্জেন্টিনার ড্রেসিংরুমে উদয় হয়ে গ্রন্ডোনা আমায় বললেন, “অসাধারণ খেলেছ তোমরা।” বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার পারফরম্যান্সে তিনি সন্তুষ্ট।’ গ্রন্ডোনা সেদিনই তাঁকে কোচ হিসেবে কাজ চালিয়ে যাওয়ার কথা বলে এসেছিলেন বলে জানান ম্যারাডোনা। ম্যারাডোনা আরও বলেন, ‘গ্রন্ডোনা আমায় কোচ হিসেবে কাজ চালিয়ে যেতে বলেছিলেন। কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে গোটা জাতি যখন শোকস্তব্ধ ঠিক তখনই আমাকে কোচের পদ থেকে সরিয়ে দিতে তলে তলে ষড়যন্ত্র করে গেছেন কার্লোস বিলার্দো।’
আর্জেন্টিনার কোচ হিসেবে নিজের চুক্তি নবায়িত না হওয়ার পেছনে কয়েকটি কারণ রয়েছে বলে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, ‘আমি কোচ হিসেবে কাজ চালিয়ে যাওয়ার প্রশ্নে রাজি ছিলাম। কিন্তু বৈঠকে গ্রন্ডোনা হঠাত্ আমায় বললেন, “কোচ হিসেবে আমি দায়িত্ব পালন করে যেতে পারব, তবে এ জন্য আমাকে জাতীয় দলের সাতজন কোচিং স্টাফকে বাদ দিতে হবে।” ব্যাপারটি আমার জন্য খুবই বিব্রতকর, তা ছাড়া নিজস্ব কোচিং স্টাফ ছাড়া কোচ হিসেবে কাজ করে যাওয়াও আমার জন্য অসম্ভব। ব্যাপারটি গ্রন্ডোনাও খুব ভালো করে জানেন।’
সংবাদ সম্মেলনে ম্যারাডোনা ছিলেন বিষণ্ন। লিখিত বক্তব্য পড়ার সময় তাঁকে কয়েকবারই চোখ মুছতে দেখা যায়। সব শেষে আবেগপূর্ণ কণ্ঠে তিনি বলেন, ‘আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের জার্সি গায়ে আমার সব কিছুই উজাড় করে দিয়েছি। আমি নিশ্চিত বর্তমান ও ভবিষ্যতের খেলোয়াড়েরাও আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে নিজেদের উজাড় করে দেবে।’
এদিকে ম্যারাডোনার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে হুলিও গ্রন্ডোনা বলেন, ‘আমরা ম্যারাডোনাকে তো কোচ হিসেবে রেখেই দিতে চেয়েছিলাম। তাঁকে কেবল বলা হয়েছিল কোচিং স্টাফে কিছু রদবদল করতে। এটা বলা তো কোনো অন্যায় নয়। এখন আমি তাঁর সঙ্গে কী মিথ্যাচার করলাম, সেটাই তো বুঝতে পারছি না।’
আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টিনা ফার্নান্দেজ কোচ হিসেবে ম্যারাডোনাকেই দেখতে চেয়েছিলেন। তিনি বলেছেন, ম্যারাডোনার বিদায়ে তিনি দুঃখ পেয়েছেন। প্রেসিডেন্টের দপ্তর থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে ক্রিস্টিনা বলেন, ‘বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার পারফরম্যান্স ছিল চমৎকার। একটি ম্যাচে খারাপ করে আমাদের বিদায় নিতে হয়েছে। আমি চেয়েছিলাম আগামী বিশ্বকাপেও কোচ হিসেবে ম্যারাডোনা থাকুন। তবে জানি না ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে বৈঠকে কী ঘটেছে। আমার মনে হয় আবার সবাই একসঙ্গে বসে এ ব্যাপারে একটা মীমাংসায় পৌঁছান উচিত।’রয়টার্স।

http://www.prothom-alo.com/detail/date/ … news/82378

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত