৪১

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

@tamim_lio, আপনার পোস্ট পড়ে আমি সত্যিই হো হো করে হেসেছি। সুন্দর একটা পোস্ট লিখেছেন, দিলাম একটা লেগু hehe

৪২

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

ভাই নতুন লিনাক্স ব্যবহারকারী। কারও পক্ষে - বিপক্ষে হলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।
মাত্র তিন দিন হল লিনুক্স ব্যবহার করছি। এর getup দেখে তো আমি পাগল। এর মধ্যে প্রায় ৩০ ঘন্টা লিনুক্স নিয়ে ঘাটাঘাটি করেছি। আমার কাছে তো যথেষ্ট মজাই লাগছে। ভাবছি লিনাক্সকে আর ছাড়ব না। আচ্ছা এত ঝগড়া বিবাদ না করলেই কি নয়। games খেলার জ়ন্য  windows ব্যবহার করলেই তো হয়  (যেটা আমি করি)। যার জেটা ইচ্ছা সে সেটা ব্যবহার করলেই তো পারেন।

৪৩ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সাইফ দি বস ৭ (০৫-০৬-২০১০ ১০:৩৩)

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

শামীম লিখেছেন:

@সাইফ দি বস
আমার ধারণা আমি মাইক্রোসফট অফিস যতদুর ব্যবহার করেছি তা তোমার চেয়ে অনেক বেশি: কম্পিউটার ব্যবহার শুরু থেকে এসাইনমেন্ট + বি.এস.সি, মাস্টার্স, পি.এইচ.ডি.'র থিসিস/প্রেজেন্টেশন, জার্নাল পেপার পর্যন্ত এটা দিয়ে করা। দূঃখিত এই কারণে যে, এখন প্রায় সাড়ে তিন বছর ওপেন অফিস ব্যবহার করার পর,
মাইক্রোসফট অফিস রকস্ বলতে পারলাম না ...

আমার চেয়ে আপনার ইউজ করার টাইমটা অনেক বেশী এবং অভিজ্ঞ হওয়ায় স্বাভাবিক! কিন্তু আপনি হয়ত শুরু করেছিলেন অফিস এক্সপি/2003 দিয়ে! কিন্তু আমার বেলায় তা ঘটে নি! অফিস 2003 ইউজ করেছি খুবই অল্প সময়...তারপরই অফিস 2007...অফিস 2007 এর রিবন সিস্টেমের বিকল্প আমার মনে হয় নি ওপেন অফিসে আছে। আমার মনে হয় নি অফিস 2007 এর লাইভ প্রিভিউ সুবিধার বিকল্প ওপেন অফিসে আছে। কিন্তু ওপেন অফিসেরও হয়ত এমন অনেক ফিচার আছে যা MS Office এ নেই! ওপেন অফিস ইউজারদের যদি তখন এই এনভাইরনমেন্টে ছেড়ে দিলে তাদের কাছে আমার যেমন ওপেন অফিস পানসে লাগে ওরকম লাগবে!
অফিস 2010 এও মাইক্রোসফ্ট বেশ কিছু ছোট ছোট কাজ করেছে। যেমন লোডিং টাইম বহু গুণে কমিয়ে আনা। যেই ফাইল ওপেন অফিসে খুলতে আমার 10-12 সেকেন্ড লাগে MS অফিসে লাগে মাত্র 3-4 সেকেন্ড!

OH DEAR NEVER FEAR SAIF IS HERE
BOSS অর্থাৎ সাইফ
Cloud Hosting BossHostBD

৪৪

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

যাকে আজেন্টিনার খেলা ভালো লাগবে সে আর্জেন্টিনাকেই সাপোর্ট করবে। আর যার ব্রাজিলের খেলা ভালো লাগবে সে ব্রাজিলকেই সাপোর্ট করবে।

সেরকমই যার উইন্ডোজের ফিচারগুলো ভালো লাগবে সে উইন্ডোজ ব্যবহার করবে। আর যার লিনাক্স ভালো লাগবে সে সেটাই ব্যবহার করবে! এখানে তর্ক-বিতর্ক, ঝগড়া করে কি লাভ ভাই ?

আমিও তো একসময় মাইক্রোসফটের ভক্ত ছিলাম (এখনো আছি, থাকবো)। আমার নামই পরে গিয়েছিল মাইক্রোফাহিম!

আমাকে উইন্ডোজকে সহজ এবং আমার জন্য পারফেক্ট মনে হয় তাই আমি এটাই ব্যবহার করি! আর যাকে লিনাক্স পারফেক্ট মনে হবে সে সেটাই ব্যবহার করবে!

আমি এখন এক্সপি ব্যবহার করছি। কিন্তু ভালোবাসি সেভেনকে! কিন্তু আমার পিসির কনফিগারেশন জঘন্য খারাপ হবার জন্য আমি আপগ্রেড করতে পারছি না। আমার ফ্রীল্যান্সিং এর টাকাটা পেলেই আমি আমার পিসি আপগ্রেড করব এবং সেভেনে চলে যাব! smile

তবে আমাকে আই৬ রাখতেই হবে! কেননা সিএসএস এর কাজ করার সময় আই৬ এ তা টেষ্ট করতে হয়। আমি আশায় আছি আই৯ এর! আশা করি মাইক্রোসফট আমার আশা প্রতিফলিত করতে পারবে!

৪৫

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

উইন্ডোজ বনাম লিনাক্স বিতর্ক- প্রজন্ম ফোরামের এই ব্যাপারটা/টপিকটা আমার খুব মজা লাগে । কয়েক সপ্তাহ/মাস পরপর এই টপিকটা খোলা হয়। এবং সাথে সাথে সবাই তর্কে ঝপিয়ে পরে।

আমার উইন্ডোজের প্রতি চরম আকর্ষন নেই। লিনাক্স এর প্রতিও নেই। এগুলো আমার কাছে শুধু একটা “টুল”-প্রয়োজনীয় টুল। আফটার অল,আমি ওগুলো বানাইনি বা ওগুলোকে রিপ্রেজেন্ট করিনা বা ওগুলোর প্রতি ইমোশনালি রিয়েক্টও করিনা।

অবশ্য, উইন্ডোজ বনাম লিনাক্স বিতর্ক’র কিছু কিছু ব্যাপারে আমি কনফিউসড! তাই আমার এই লেখা।

আমি একটি আঊটসোর্সিং(বিপিও) কোম্পানিতে এ্যাডমিন লেভেলে কাজ করছি অনেক বছর হলো। কোম্পানিটা আইটি রিলেটেড। আমরা বর্তমানে আমেরিকা আর জার্মানির কিছু প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করছি। আমরা কানাডা,ইঊকে,অস্ট্রেলিয়ার কাজ পাবার চেষ্টা করছি। আমাদের অফিস চব্বিশ ঘন্টা খোলা থাকে,আর প্রায় সত্তুর জন লোক কাজ করে। আমাদের কাজগুলো হয় সম্পুর্নরুপে কম্পিউটারের মাধ্যমে এবং রিয়েল টাইমে/লাইভ।

কথাগূলো লিখলাম কারনবশত।

আমি যতগুলো বাইরের ক্লায়েন্টের কাজ করেছি,তারা সবাই উইন্ডোজ ব্যবহার করে। আমার ক্লায়েন্টদের কাজ সাধারন মানের নয়। আমরা আমেরিকার পনেরটি স্টেটের মেডিকেল বিলিং থেকে শুরু করে কোডিং-সবটাই করি। এবং সবকিছু হয় উইন্ডোজ এনভাইরনমেন্টে।

আপনারা কি বলতে পারেন কেন তারা উইন্ডোজ ব্যবহার করে?

বাইরের দেশে কর্পোরেট লেভেলে লিনাক্স আসলে কতটা ব্যবহার করা হয় বা ভবিষ্যতে হবে?

আমরা যদি বাইরের দেশের আঊটসোর্সিং(বিপিও) এর কাজগুলো করতে চাই,তাহলে সেখানে লিনাক্স কতটা সাহায্য করবে? ইন্ডিয়া কি আঊটসোর্সিং(বিপিও) এর কাজগুলো লিনাক্স দিয়ে করছে? কতটা করছে?

বাইরের দেশের সাথে বানিজ্যিক/অর্থনৈ্তিক সম্পর্ক তৈরিতে লিনাক্স আমাদের কতটা সাহায্য করবে বা করছে?

আমি কি আমার ক্লায়েন্টকে বলতে পারি,আমি একজন লিনাক্স প্রেমিক,তাই তাকেও সবকিছু লিনাক্স দিয়ে করতে হবে?

আমরা যদি নিজের দেশের দিকে তাকাই,তাহলে কি দেখতে পাই? আমাদের দেশের কোম্পানিগুলো কি লিনাক্স ব্যবহার করছে নাকি উইন্ডোজ? বেশিরভাগ কোম্পানি কি উইন্ডোজ ব্যবহার করছে না?

এই রকম অবস্থায়,আপনারা যারা আজ,ভার্সিটি লেভেলে আছেন এবং ভবিষ্যতে চাকুরির জন্য ইন্টারভিউ দিবেন,তাদের জন্য কোনটা ব্যবহার করা সুফলদায়ক- উইন্ডোজ নাকি লিনাক্স?

আমাদের কোম্পানিতে যারা কাজ করে তাদের সংসার চালায়,তারা একসময় উইন্ডোজ শিখেছিল বলে আজ টাকা উপার্জন করতে পারে,কাজ পেয়েছে।

আপনারা কি কখনো অর্থনৈ্তিক দিকটার কথা ভেবেছেন? কিংবা, উইন্ডোজ বা লিনাক্স’র উপযোগিতা?


না!! আমি বলছি না, লিনাক্স বেহুদা একটা অপারেটিং সিস্টেম বা এর কোন উপযোগিতা নেই। আমি ব্যাক্তিগতভাবে লিনাক্স’র উন্নতি এবং বিস্তার চাই। আফটার অল,মাইক্রসফট মনোপলি বিজনেস করে। এবং লিনাক্স এর ভাল অপনেণ্ট।

কিন্তু সবকিছুর শেষে কথা থাকে। আমরা কোন পথে যাচ্ছি,কিংবা আমরা কি বিগ পিকচারটা দেখছি?শুধু গেম খেলা,টাইপ করা,ইন্টারনেট ব্রাউজ করার মাধ্যমে কি একটা অপারেটিং সিস্টেমের উপযোগিতা বা অনুপযোগিতা মাপা উচিত? নাকি আমাদের ব্যাক্তিগত বা দেশের অর্থনৈ্তিক উন্নতিতে কোন অপারেটিং সিস্টেম কি ভুমিকা রাখছে তাও বিবেচনা করা উচিত?

- অভ্রকে ধন্যবাদ তার চমৎকার সফটওয়্যারটির জন্য! অভ্রর পাশে আছি।

৪৬ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন tamim_lio (০৫-০৬-২০১০ ১৩:৫৮)

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

তারেক হাসান লিখেছেন:

@tamim_lio, আপনার পোস্ট পড়ে আমি সত্যিই হো হো করে হেসেছি। সুন্দর একটা পোস্ট লিখেছেন, দিলাম একটা লেগু hehe

ধন্যবাদ তারেক ভাই । সবই আপনাদের দোয়া ।  wink wink

@ মাইক্রসফ্ট প্রেমিকস্ - ভাই,আমরা যারা লিনাক্স কে ভালবাসি তার একটা সুনির্দিষ্ট কারন আছে । প্রথম কথা হল লিনাক্স ও আমাদের ভালবাসে ,তাই লিনাক্স পুরো সফ্টোয়্যার ওয়ার্ল্ড কে আমাদের সামনে উন্মুক্ত করে দিয়েছে । অপরদিকে মাইক্রসফ্ট আপনাদিগকে মোটেও ভালবাসে না । এর মার্কেটিং পলেসি দেখে আমি যারপরনাই বিস্মিত হয়েছি । আপনারাও একটু ঘাটাঘাটি করে দেখুন ।
এবার আসা যাক এই টপিক টার টাইটেল কি বলছে ? " Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !"
আমার জানামতে কম্পিউটার ইউজার তিন ধরণের ।
১.সাধারন ইউজার, যারা কম্পিউটার কে একটা এন্টারটেইনমেন্ট ও পড়াশুনার সহকারি একটা উপকরণ হিসেবে ব্যাবহার করেন । এবং আমার জানামতে এ ধরনের ইউজার ই বেসি ।
২. প্রোগ্রামার ঘরানার ইউজার । এ সকল ইউজার রা মহা জাননেওয়ালা । সাধারন ইউজার দের চে অনেক বেসি জানেন এবং কম্পিউটার নামক বস্তুটার জান চিপে চিপে রস বের করে পান করেন ।
৩. গেমার । এদের সংখ্যা কম । কারন যারা গেম খেলেন,তাদের বেশিরভাগ ই ১ নম্বর কেটাগরির মধ্যে পরেন । এই কেটাগরির ইউজার রা হলেন হার্ডকোর গেমার । ( এদের সংখ্যা কম বলছি কারন এদের বেসিরভাগ ই এখন পিএস২,পিএস৩ এর দিকে ঝুকছে ।

১ নাম্বার কেটাগরির ইউজার দের জন্য উবুন্টু বেস্ট । আপনারা যদি একটু সময় নিয়ে উবুন্টু নিয়ে ঘাটাঘাটি করুন এবং এটা বুঝার চেষ্টা করুন । একটা উদাহরন দেই,VLC প্লেয়ার ইনষ্টল দেওয়ার জন্য উইন্ডোজ এ আপনাকে প্রথমে .exe ফাইল টা খুজে বের করে ডিউনলোড করে তারপর বেস কয়েকবার next>  বাটন ক্লিক করতে হবে। আর উবুন্টু তে সিম্পলি টার্মিনাল বের করে sudo apt-get install vlc কপি পেষ্ট করে একটা ইন্টার মারলেই কাজ হয়ে যাবে ।
২ নাম্বার কেটাগরির ইউজার দের কে আমি আর কি বলব,,আপনারা ত বস্ পাবলিক । আপনাদের জন্য উবুন্টু তে আছে শক্তিশালি gedit । আর আপনারা ইচ্ছা করলে উবুন্টু কে নিজের ইচ্ছামত একটা OS এ রুপান্তর করতে পারবেন যেটা হাজার হাজার টাকা দিয়ে কিনেও মাইক্রসফ্ট আপনাকে সে রাইট টা দিবে না ।
গেমিং এর দিক থেকেও উবুন্টু কে আমি পিছিয়ে রাখতে চাই না । এখন আপনারা য়দি সত্যি সত্যি টাকা দিয়ে গেম কম্পানি গুলোর কাছে থেকে কিনে গেম খেলতে চান,সে ক্ষেত্রে আপনাদের জন্য উবুন্টু তে রয়েছে এমন কিছু টুল্স্ যা দিয়ে উবুন্টু তে উইন্ডোজ এর গেম খেলতে দিবে । আর আপনি যদি চোরাই গেমার হন , আই মিন বাজার থেকে ৫০ টাকার DVD কিনে এনে গেম খেলেন,তা হলে আপনার জন্য আমার আর কিছু বলার নাই ।

আর সারা বিস্বে ৯০% মাইক্রসফ্ট ইউজার আছে,এটা মানলাম । এই মুহূর্তে যদি মাইক্রসফ্ট সকল cracked version উইন্ডোজ বন্ধ করে দেওয়ার কোন পদক্ষেপ আবিষ্কার করে ফেলে ও তা প্রয়োগ করে তা হলে দেখবেন এই সংখ্যা কোথায় গিয়ে দাড়ায় । অন্তত ১০০ টা চোরাই উপায় আছে যা দিয়ে আপনি আপনার উইন্ডোজ অরিজিনালে রুপান্তর করতে পারবেন ।
আর সিকিওরিটির কথা না হয় না ই বল্লাম ।  lol

হিজিবিজি হিজিবিজি

৪৭

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

shame লিনাক্স এবং উবুন্টু কে নিয়ে আমি খারাপ কিছু বলি নাই !  notlistening তাই শুধু শুধু মাইক্রোসফট কে নিয়ে অযথা বাজে কথা বলবেন না । অনেকেই লিনাক্স এবং উবুন্টু নিয়ে মাতামাতি শুরু করছে তাই আমিও একটু মাইক্রোসফট নিয়ে মাতামাতি করলাম big_smile । যদিও আমি মাইক্রোসফট এর সাপোর্টার তারপরও আপনাদের এরকটা কথা বলে রাখি যে গুগল আর মাইক্রোসফট ব্যবহার করবে না কারন মাইক্রোসফট এ সিকিউরিটি সমস্যা আছে ! thumbs_down খবরটা শুনে আপনারা খুশিই হবেন কারন আপনারা মাইক্রোসফট পছন্দ করেন না ! আমি ইচ্ছা করেই এই পোস্টটা করলাম একটু তর্কবিতর্ক করার জন্য ! যাই হোক , আমি শুধু একটা কথাই বলি যে মাইক্রোসফট চালানো থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !  shame

৪৮

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

ওপেন অফিস খুলতে গেলে কিংবা কোন ফাইল ওপেন অফিসের মাধ্যমে খুলতে গেলে জাভা লোড হতেই মোটামুটি ভালো সময় নেয়।....  mad donttell ঘটনা বুঝলাম না। অফিস সফটওয়্যারের সাথে জাভার এত গলায় গলায় ভাবের পেছনের কারণটা....  brokenheart

চতুর্মাত্রিক.কম | IntoWindows | Phototuts+
~~~
"If you have an apple and I have an apple and we exchange apples then you and I will still each have one apple. But if you have an idea and I have an idea and we exchange these ideas, then each of us will have two ideas." - George Bernard Shaw

৪৯

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

নির্ঝর লিখেছেন:

ওপেন অফিস খুলতে গেলে কিংবা কোন ফাইল ওপেন অফিসের মাধ্যমে খুলতে গেলে জাভা লোড হতেই মোটামুটি ভালো সময় নেয়।....  mad donttell ঘটনা বুঝলাম না। অফিস সফটওয়্যারের সাথে জাভার এত গলায় গলায় ভাবের পেছনের কারণটা....  brokenheart

openoffice বানাইছে সান মাইক্রোসিস্টেম। জাভাও সানের প্রডাক্ট।

তবে উবুন্টু লুসিডের সাথে ওপেনওফিসের নতুন যে ভারসান দিছে সেটা বজ্রবিদ্যুতের গতিতে প্রবর্তনা হয়। (গুগলের ভাষায়)

আর এমএস ওফিস ২০০৭ ওপেন হতে হতে যে ঘুম ধরে যাইতো সেটা আমি এখনও ভুলি নাই।

সারিম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৫০

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

সারিম লিখেছেন:

তবে উবুন্টু লুসিডের সাথে ওপেনওফিসের নতুন যে ভারসান দিছে সেটা বজ্রবিদ্যুতের গতিতে প্রবর্তনা হয়। (গুগলের ভাষায়)

কথা মিথ্যা! আমি নিজে এক্সেল ওপেন করতে যেয়ে সিস্টেম ক্র্যাশ খাইছিল!  neutral

সারিম লিখেছেন:

আর এমএস ওফিস ২০০৭ ওপেন হতে হতে যে ঘুম ধরে যাইতো সেটা আমি এখনও ভুলি নাই।

মানা যায়। কারণ ২ জিবি র‌্যামে লোড হতে মোটামুটি টাইম লাগত। কম কনফিগারেশনের পিসিতে ঘুম আসতেই পারে!

OH DEAR NEVER FEAR SAIF IS HERE
BOSS অর্থাৎ সাইফ
Cloud Hosting BossHostBD

৫১

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

সাইফ দি বস ৭ লিখেছেন:

কথা মিথ্যা! আমি নিজে এক্সেল ওপেন করতে যেয়ে সিস্টেম ক্র্যাশ খাইছিল! 

ওপেনওফিসে এক্সেল কই পাইলা ?  surprised surprised surprised surprised surprised

সারিম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৫২

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

সাইফ দি বস ৭ লিখেছেন:

আমার চেয়ে আপনার ইউজ করার টাইমটা অনেক বেশী এবং অভিজ্ঞ হওয়ায় স্বাভাবিক! কিন্তু আপনি হয়ত শুরু করেছিলেন .......................
.......................
কিন্তু ওপেন অফিসেরও হয়ত এমন অনেক ফিচার আছে যা MS Office এ নেই! ওপেন অফিস ইউজারদের যদি তখন এই এনভাইরনমেন্টে ছেড়ে দিলে তাদের কাছে আমার যেমন ওপেন অফিস পানসে লাগে ওরকম লাগবে!

আসলে কথা সেটা না, কথা হচ্ছে অভ্যস্ততার। তুমি MS Office ব্যবহার করে অভ্যস্ত। কোন মেনুতে কি আছে জান, সব তোমার কাছে ফ্লেক্সিবল। কিন্তু ওপেন অফিস এর স্ট্রাকচারটা একটু আলাদা, তুমি MS Office এ অভ্যস্ত বলে ওপেন অফিস কে সহজে মেনে নিতে পারছ না, সমস্যা এইখানেই।

যখন উইন্ডোজ ব্যবহার করতাম, আমি তখন উইন্ডোজেই অভ্যস্ত। আমার সব কাজের ইনভায়রনমেন্ট তৈরী করে নিয়েছি উইন্ডোজে। মাঝে মধ্যে যখন উবুন্টুর স্বাদ নিতে ঢুকতাম, বেশীক্ষণ থাকতে পারতাম না, দম বন্ধ হয়ে আসত। কারণ আমি উইন্ডোজে অভ্যস্ত, অচেনা পরিবেশে তখন ভাল লাগবে না এইটাই ঠিক। যখনই মনস্থির করলাম উবুন্টুতে সুইচ করব, সেই অস্থির মনোভাব নিমেষেই হাওয়া। ঠিক তখন থেকেই আমি উবুন্টুকে একদম নিজের মত করেই ব্যবহার করতে পারছি। কোন কিছুকেই তখন অযথা বা বিরক্তিকর মনে হচ্ছিল না। আবার যখন লুসিডে ক্লোজ, ম্যাক্সিমাইজ, মিনিমাইজ বাম পাশে সরিয়ে নেয়া হল, আমি প্রথমে মনে করেছিলাম যাই হোক একটু অসুবিধা হলেও আমি বাম পাশেরটাতেই কাজ করব, তখন থেকে আমার একদম অসুবিধা হয় নি। আমি যখন পুরা উবুন্টুতে সুইচ করি ততদিনে অভ্রর লিনাক্স ভার্সণ চলে এসেছে, এর আগে উবুন্টুতে না আসার অযুহাত হিসেবে অভ্রর কথা বলতাম tongue । কিন্তু অভ্রতে আমার কিছু সমস্যা দেখা দিচ্ছিল। তাই ঠিক করে নিলাম অভ্র ব্যবহার করব না, প্রভাত ব্যবহার করা শিখব। ইউনিজয় ব্যবহার করার মোটেই ইচ্ছা নেই, কারণ দূর্বোদ্ধ কিবোর্ড লেআউট। মজার কথা আমি দুই দিনেই প্রভাত শিখে গেলাম। যেই আমি অভ্র না থাকার অযুহাতে এতদিন উবুন্টুতে সুইচ করি নাই, সেই আমি কিনা অভ্র আসার পরেও অন্য একটা লেআউট প্রভাত শিখলাম। কেন? কারণ আমার কিছু সমস্যা হচ্ছিল এবং আমি মেনে নিয়েছিলাম আমি প্রভাত শিখব। তাই এতে আমার একদমই কোন সমস্যা হয় নি। সুতরাং ইউজার ফ্রেন্ডলিনেস কে আমার মেনে নেয়ার মতই মনে হয়। আপনি মেনে নিলেই সোজা, নাহলে এর চেয়ে কঠিন কিছু নেই আপনার কাছে।

mrtq13 লিখেছেন:

উইন্ডোজ বনাম লিনাক্স বিতর্ক- প্রজন্ম ফোরামের এই ব্যাপারটা/টপিকটা আমার খুব মজা লাগে । কয়েক সপ্তাহ/মাস পরপর এই টপিকটা খোলা হয়। এবং সাথে সাথে সবাই তর্কে ঝপিয়ে পরে।

কথা সত্য big_smile। আসলে এইরকম না হলে গা ম্যাজম্যাজ করে সবার  lol

mrtq13 লিখেছেন:

আপনারা কি বলতে পারেন কেন তারা উইন্ডোজ ব্যবহার করে?

মাইক্রোসফটের মার্কেটিং নিয়ে আপনার কোন আইডিয়া আছে? অ্যাপল এর ম্যাকের মত একটা অ্যারিস্টোক্র্যাটিক ওএস থাকতে কেন মানুষ উইন্ডোজ ব্যবহার করে? যেখানে মাইক্রোসফ্ট তাদের সব প্রডাক্টের নকল করে ম্যাক আর লিনাক্সের মত ওএসের কাছ থেকে? অ্যাপলের প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস আক্ষেপ করে বলেছিলেন, মাইক্রোসফট ব্যবসা করে এতদূর এগিয়েছে, এতে তার কোন আক্ষেপ নেই। তার আক্ষেপ এক জায়গাতেই, তাদের একটা প্রডাক্টের আইডিয়া নিজস্ব না। সব অনুকরণ করা। একমাত্র মার্কেটিং এর জোরে উইন্ডোজ মানুষের ঘরে ঘরে। গ্রামীনের চেয়ে কলরেট কম সিটিসেলের, ওয়ারিদের, বাংলালিংকের। তবুও সবাই গ্রামীন নেয়, গালাগালি করে, তাও নেয়। গ্রামের মানুষ গ্রামীণ ছাড়া অন্যকোন ফোনের নাম জানেনা, কেন? একমাত্র মার্কেটিং এর জোরে। কারণ গ্রামীণ ব্যবসাটা খুব ভাল বোঝে। এই মার্কেটিং এর জোরে সবাই উইন্ডোজ ব্যবহার করে, আর আমরা/আপনারা উইন্ডোজের জন্য প্রোগ্রাম বানাই। সব সফটওয়ার কোম্পানী উইন্ডোজের জন্য প্রোডাক্ট বানায়।

mrtq13 লিখেছেন:

বাইরের দেশের সাথে বানিজ্যিক/অর্থনৈ্তিক সম্পর্ক তৈরিতে লিনাক্স আমাদের কতটা সাহায্য করবে বা করছে?
আমি কি আমার ক্লায়েন্টকে বলতে পারি,আমি একজন লিনাক্স প্রেমিক,তাই তাকেও সবকিছু লিনাক্স দিয়ে করতে হবে?

আপনি লিনাক্স দিয়ে সবই করতে পারবেন। কোন কাজটা করতে পারবেন না আমাকে একটু জানাবেন? আপনি লিনাক্স প্রেমিক ঠিক আছে, কিন্তু তাকে কেন লিনাক্স ব্যবহার করতে হবে? এটা যার যার ইচ্ছা।

mrtq13 লিখেছেন:

এই রকম অবস্থায়,আপনারা যারা আজ,ভার্সিটি লেভেলে আছেন এবং ভবিষ্যতে চাকুরির জন্য ইন্টারভিউ দিবেন,তাদের জন্য কোনটা ব্যবহার করা সুফলদায়ক- উইন্ডোজ নাকি লিনাক্স?

আমাদের কোম্পানিতে যারা কাজ করে তাদের সংসার চালায়,তারা একসময় উইন্ডোজ শিখেছিল বলে আজ টাকা উপার্জন করতে পারে,কাজ পেয়েছে।

আবারও একই প্রশ্ন, উইন্ডোজে যা করা যায় আপনি তার কোনটা লিনাক্স দিয়ে করতে পারেন না? গেমের কথা আমি বাদ দিচ্ছি, কারণ গেম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লিনাক্সের জন্য গেম বানায় না, ইউজার নাই।

আসলে কেউ লিনাক্স ব্যবহার করেনা, কারণ লিনাক্স ব্যবহার বান্ধব না। এই কথাটা কিছুদিন আগে পর্যন্ত সত্য ছিল। কিন্তু উবুন্টু আসার পর ভোজবাজির মত সব হিসাব পাল্টে গেছে। বাংলা কমিউনিটিতে এখন উবুন্টু জনপ্রিয় হয়ে উঠছে প্রতিনিয়ত। মাইক্রোসফট নিজেই উবুন্টুকে নিজের সবচেয়ে বড় থ্রেট মনে করছে। এইজন্যেই এখন মাইক্রোফটের বিভিন্ন ক্যাম্পইনে, কুইজে সব লিনাক্স বিরোধি কথাবার্তা পাবেন। আমাদের প্রযুক্তি ফোরামে একটা পোস্ট আছে এই নিয়ে, খুঁজে পাচ্ছি না। কেউ যদি লিংকটা দেন তাহলে ভাল হয়। আগে মানুষজন জানত না যে উইন্ডোজ বাদে কোন অপারেটিং সিস্টেম আছে। কম্পিউটার বলতেই উইন্ডোজ নির্ভর। এখন মানুষ জানছে যে উইন্ডোজ বাদেও অন্যকোন অপারেটিং সিস্টেম আছে। মানুষ জানত না, কারণ লিনাক্সের মার্কেটিং করার মত কেউ নাই। কারণ এর কোন মালিক নাই, জনগণই এর মালিক। এমন না যে আপনি টাকা দিয়ে উইন্ডোজ কিনলেন, আপনার বাসায় দুইটা পিসি। কিন্তু মাইক্রোসফট আপনাকে একটা পিসিতেই উইন্ডোজটা ব্যবহার করতে দিবে। টাকা দিয়ে কিনে আনা একটা উইন্ডোজ আপনি যদি আপনার দুইটা পিসিতে ইন্সটল দেন তাহলে আপনি পাইরেসি করলেন। কারণ মাইক্রোসফট আপনাকে একটা পিসিতেই ব্যবহার করার জন্য বিক্রি করেছে। দুইটা পিসিতে ব্যবহার করতে হলে আপনাকে দুইটা অপারেটিং সিস্টেম কিনতে হবে।

আমরা কেন লিনাক্স ব্যবহার করি? কারণ অত দাম দিয়ে অপারেটিং সিস্টেম, সফটওয়ার কেনার মত টাকা আমাদের নাই এবং আমরা চুরি করতে চাই না। আমরা সব ফ্রী সফটওয়ার ব্যবহার করতে পারি এবং আপনি যদি প্রোগ্রামার হন, চাইলে ইচ্ছামত এর পরিবর্তন করতে পারেন, কোন বাধা নাই। যেটা মাইক্রোসফট থেকে টাকা দিয়ে উইন্ডোজ কিনলেও আপনাকে কোনদিন করতে দিবে না। এইসব কারনেই আমরা লিনাক্স ব্যবহার করি এবং লিনাক্সকে আমরা ভালবাসি। ভালবেসে নিজেরাই এর মার্কেটিং করি।

ঠিক এইকথা গুলাই সেদিন রিকসায় যেতে যেতে আমার এক বন্ধুকে বলেছিলাম। ফলাফল স্বরুপ তার পিসিতে উইন্ডোজ সেভেন ডিলিট হয়ে সেখানে উবুন্টু লুসিড লিংক্স শোভা পাচ্ছে।

জীবনে এতবড় লেখা এই প্রথম লিখলাম big_smile

৫৩

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

দারুন বলেছেন তারেক ভাই! অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে চমতকারভাবে জিনিসগুলো বলার জন্য। উইন্ডোজ-লিনাক্স কেচাল কি কয়েক মাস পর পরই হয় নাকি? কয়েকটা লিংক দিবেন?

তারেক হাসান লিখেছেন:

মাইক্রোসফট নিজেই উবুন্টুকে নিজের সবচেয়ে বড় থ্রেট মনে করছে। এইজন্যেই এখন মাইক্রোফটের বিভিন্ন ক্যাম্পইনে, কুইজে সব লিনাক্স বিরোধি কথাবার্তা পাবেন। আমাদের প্রযুক্তি ফোরামে একটা পোস্ট আছে এই নিয়ে, খুঁজে পাচ্ছি না। কেউ যদি লিংকটা দেন তাহলে ভাল হয়।

দয়া করে কেউ লিংক দেবেন টপিকটার??

৫৪

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

তারেক হাসান লিখেছেন:

আর আমরা/আপনারা উইন্ডোজের জন্য প্রোগ্রাম বানাই। সব সফটওয়ার কোম্পানী উইন্ডোজের জন্য প্রোডাক্ট বানায়।

আমার প্রশ্ন এখানেই! আমি বা আপনি বা সব সফটওয়ার কোম্পানী উইন্ডোজের জন্য প্রোডাক্ট বানায় কেন ? তারা তো লিনাক্সের জন্যও প্রোডাক্ট বানাতে পারত ?
তাদের কোন ঠেকা যে তারা উইন্ডোজের জন্য প্রোডাক্ট বানাবে ?

৫৫ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন সাইফ দি বস ৭ (০৫-০৬-২০১০ ১৭:৪৫)

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

সারিম খান লিখেছেন:

ওপেনওফিসে এক্সেল কই পাইলা ?  surprised surprised surprised surprised surprised

ওহহ! এক্সেল না ... Open Office SpreadSheet!  wink

তারেক হাসান লিখেছেন:

আসলে কথা সেটা না, কথা হচ্ছে অভ্যস্ততার। তুমি MS Office ব্যবহার করে অভ্যস্ত। কোন মেনুতে কি আছে জান, সব তোমার কাছে ফ্লেক্সিবল। কিন্তু ওপেন অফিস এর স্ট্রাকচারটা একটু আলাদা, তুমি MS Office এ অভ্যস্ত বলে ওপেন অফিস কে সহজে মেনে নিতে পারছ না, সমস্যা এইখানেই।

ঐটাই তো! আমি কয়েকবার ওপেন অফিস শেখার ট্রাই করেছিলাম... যথেষ্ট ভালবাসা নিয়ে, ধৈর্য্য নিয়ে!!! কিন্তু এর সৌন্দর্য, ফ্লেক্সিবলনেস, স্ট্রাকচার, ইউজারফ্রেন্ডলিনেস (যদিও একএকজনের কাছে একএক রকম এর সংজ্ঞা) কোন কিছুই আমার দুর্বোধ্য ছাড়া কিছু মনে হয় নি! অন্যদিকে এটাও মনে হচ্ছিল যে ইতিমধ্যেই যখন এরচেয়ে ভাল জিনিস (বলতে গেলে বেস্ট) আমাকে আরেকজন দিচ্ছে সেটা নিব না কেন?(যেই দিক না কেন!)

OH DEAR NEVER FEAR SAIF IS HERE
BOSS অর্থাৎ সাইফ
Cloud Hosting BossHostBD

৫৬

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

মোঃ ফাহিম মুর্শেদ লিখেছেন:

আমার প্রশ্ন এখানেই! আমি বা আপনি বা সব সফটওয়ার কোম্পানী উইন্ডোজের জন্য প্রোডাক্ট বানায় কেন ? তারা তো লিনাক্সের জন্যও প্রোডাক্ট বানাতে পারত ?
তাদের কোন ঠেকা যে তারা উইন্ডোজের জন্য প্রোডাক্ট বানাবে ?

আমিতো বলেই দিলাম মার্কেটিং এর জোর। মাইক্রোসফটের মার্কেটিং এর জোর এমন যে সবাই মাইক্রোসফটের প্রোডাক্ট ব্যবহার করে। তো তারা কি মাইক্রোসফটের জন্য প্রডাক্ট না বানিয়ে ওপেন সোলারিসের জন্য প্রোডাক্ট বানাবে? জনগন ব্যবহার না করলে কোম্পানীগুলো কেন বানাবে? তবে এখন তাদের বানাতে হবে, যুগ পাল্টাচ্ছে।

সাইফ দি বস ৭ লিখেছেন:

অন্যদিকে এটাও মনে হচ্ছিল যে ইতিমধ্যেই যখন এরচেয়ে ভাল জিনিস (বলতে গেলে বেস্ট) আমাকে আরেকজন দিচ্ছে সেটা নিব না কেন?(যেই দিক না কেন!)

আমরা কি কেউ ব্যবহার করতে মানা করেছি নাকি করছি? আমাদের টাকা নাই তাই ফ্রী জিনিস ব্যবহার করি। ফ্রী জিনিস বলে যে বস্তাপচা মার্কা প্রোডাক্ট না সেটাই আমরা বলছি। তোমার টাকা থাকলে তুমি টাকা দিয়ে কিনে ঘোড়া কিনবে না হাতি কিনবে সেটা তোমার ব্যাপার। সেটা যত ভালই হোক বা খারাপ হোক আমাদের বলার কিছু নাই।

৫৭

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

সাইফ দি বস ৭ লিখেছেন:

অন্যদিকে এটাও মনে হচ্ছিল যে ইতিমধ্যেই যখন এরচেয়ে ভাল জিনিস (বলতে গেলে বেস্ট) আমাকে আরেকজন দিচ্ছে সেটা নিব না কেন?(যেই দিক না কেন!)

মাইক্রসফট অফিস ২০০৭ আল্টিমেট এর দাম প্রায় ৬০০ ডলার । তার উপর সিপিং চারজ আছে । আমার ভাই অত টাকা নাই । থাক্লেও কিনার ইচ্ছা নাই ।

হিজিবিজি হিজিবিজি

৫৮

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

তারেক হাসান লিখেছেন:

আমাদের টাকা নাই তাই ফ্রী জিনিস ব্যবহার করি। ফ্রী জিনিস বলে যে বস্তাপচা মার্কা প্রোডাক্ট না সেটাই আমরা বলছি। তোমার টাকা থাকলে তুমি টাকা দিয়ে কিনে ঘোড়া কিনবে না হাতি কিনবে সেটা তোমার ব্যাপার।

টাকার ব্যাপারটা তো পরে...আমি বলতে চাচ্ছিলাম প্রোডাক্ট কোনটা ভাল...

OH DEAR NEVER FEAR SAIF IS HERE
BOSS অর্থাৎ সাইফ
Cloud Hosting BossHostBD

৫৯ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন উন্মাতাল_তারুণ্য (০৫-০৬-২০১০ ২২:৫৮)

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

mrtq13 লিখেছেন:

কিন্তু সবকিছুর শেষে কথা থাকে। আমরা কোন পথে যাচ্ছি,কিংবা আমরা কি বিগ পিকচারটা দেখছি?

আসলে আপনি যে অর্থনৈতিক ব্যাপারটার কথা তুলেছেন সেটা অত্যন্ত যুক্তিযুক্ত। এবং আমি আপনার সাথে মূল পয়েন্টে একমত।

কিন্তু আরো কিছু ব্যাপার আছে। থিওরি বাদ দিয়ে আসুন দুয়েকটা উদাহরণ পর্যালোচনা করা যাক।

১.
মনে করুন আজ থেকে কয়েক বছর আগের কথা। তখনকার দিনে একটা ওয়েব সাইট ডিজাইন করতে যেয়ে একজন ওয়েব ডেভেলপারের কিন্তু ব্রাউজার কম্পাটিবিলিটি নিয়ে তেমন কোন চিন্তা করতে হত না। কারণ দুটো ব্রাউজারে ঠিকমত দেখালেই ব্যস শেষ, আর কোন চিন্তা নাই। কিন্তু বর্তমান সময়ের কথা যদি দেখি, একজন ওয়েব ডেভেলপারকে একেবারে কিছু না হলেও কমপক্ষে ৫টি ব্রাউজারের কথা মাথায় রাখতে হয়। কারণটা কি? কারণ একটাই, তোমার সাইট যদি সব কটা ব্রাউজারে সুন্দর মত দেখা যায়, তাহলে তোমার সাইটটা ভাল। যদি একটায় ভাল আর অন্যটায় ভাঙ্গা দেখায়, তবে সাইটটা ভাল না।

একইভাবে যদি একটু দেখি হাল জমানায় খুব সম্প্রতি শুরু হওয়া ট্রেন্ডটা কি? ডেক্সটপ সফটওয়্যারের ক্ষেত্রে সাম্প্রতিক ট্রেন্ড হচ্ছে, তোমার সফটওয়্যার প্লাটফর্ম সাপোর্ট করে কয়টা? ওটা কি ম্যাকে চলবে? কিংবা ইউনিক্সে? লিনাক্সে চলবে না? যদি সব কয়টাতে চলে, তোমার সফটওয়্যারের মুভিবিলিটি ভাল। না চললে ভাল না। এখন প্রশ্ন করতে পারেন কয়টা মানুষ মুভিবিলিটি চায়? সাইকোলজিক্যালি একটু ভেবে দেখুন তো মানুষ এখন দাম বেশি হওয়ার পরও ডেক্সটপ কম্পিউটার ফেলে ল্যাপটপের পেছনে ছোটে কেন? আমার মাথায় উত্তর আসে একটাই, পোর্টেবিলিটি।

২.
একটু আগে যে ট্রেন্ডের কথা বললাম সেটার আরেকটু উদাহরণ দেই। আমরা জানি দুনিয়ার বড় একটা সফটওয়্যার কোম্পানি হচ্ছে Adobe. আর এই অ্যাডোবের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত দুটো সফটওয়্যার হচ্ছে Adobe Flash Player আর Adobe Acrobat Reader (PDF Reader). এতদিন এর উইন্ডোজ আর ম্যাক ভার্সন পাওয়া যেত। এখন কিন্তু লিনাক্স আর সোলারিস (ইউনিক্স) ভার্সনও পাওয়া যায়। খালি Adobe নয়, Google, Nero -এর মত আরো কিছু বড় বড় কোম্পানিও এখন নিজের সফটওয়্যারগুলো লিনাক্সে পোর্ট করা শুরু করেছে। মনে রাখতে হবে, এই কোম্পানিগুলো কিন্তু দাতব্য প্রতিষ্ঠান টাইপ কিছু নয়। এরা হচ্ছে আইটি জগতের 'লিডিং ব্যবসায়ী'।

৩.
হার্ডওয়্যারের ক্ষেত্রেও বসে নেই। লিনাক্সের ড্রাইভার বানাবার জন্য ইন্টেলের আলাদা প্রজেক্টই রয়েছে। নতুন প্রিন্টারের ক্ষেত্রে কোম্পানিগুলো লিনাক্সের জন্য ড্রাইভার বানিয়ে সেগুলো কার্নেলে সাথে যোগ করার জন্য অহরহ জমা দিয়ে চলেছে। DELL এর ল্যাপটপের সাথে উইন্ডোজও যেমন পাওয়া যায় তেমনি এখন উবুন্টুও পাওয়া যাচ্ছে। Acer এর ল্যাপটপের সাথে পাওয়া যাচ্ছে লিনপাস লাইট। আর স্মার্টফোনগুলোর অপারেটিং সিস্টেমে লিনাক্স কার্নেল তো ব্যবহৃত হচ্ছে বহুদিন ধরেই।

৪.
সংবাদ মাধ্যমের কল্যাণে যে খবরটা খুব ছড়িয়ে পড়েছিল সেটা হচ্ছে ফ্রেঞ্চ পুলিস ডিপার্টমেন্টের ৭০,০০০ কমপিউটার উইন্ডোজ থেকে উবুন্টুতে মাইগ্রেশন। এই মাইগ্রেশনের মূল কারণটা ছিল খরচ। ফ্রেঞ্চ পুলিস ডিপার্টমেন্টের হিসাব অনুযায়ী এই মাইগ্রেশনের ফলে তাদের সাশ্রয়ের পরিমাণ ৭ মিলিয়ন ইউরো। ডলারের হিসাবে ১০.৩ মিলিয়ন ডলার। এই টাকাটা তাদের দিতে হত শুধুমাত্র উইন্ডোজের লাইসেন্স ফি হিসেবে।

৫.
এবার আসুন একটু গাণিতিক হিসেব করি। আপনি বলছেন ক্লায়েন্টের কথা। ধরা যাক, আপনি আপনার ক্লায়েন্টকে একটি সফটওয়্যার বানিয়ে দেবেন। একজন্য ক্লায়েন্ট আপনাকে এককালীন দেবে ৫,০০০ ডলার আর এরপর কম্পিউটার প্রতি বছরে ১০০ ডলার। এখন এই সফটওয়্যারটি আপনার ক্লায়েন্টের ২০০ পিসিতে চলবে। এইসব পিসিতে তো আবার খালি একটা সফটওয়্যার হলেই হবে না। একেবারে কিছুই না হলেও নিদেন পক্ষে একটা অফিস স্যুট সফটওয়্যার লাগবে। এবার দেখি তাহলে আপনার ক্লায়েন্টের এক বছরের খরচের হিসাবটা কেমন হয়।

যদি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম হয় তাহলে:
উইন্ডোজ ৭ প্রফেশনাল এডিশন বাবদ খরচ : $২৯৯.৯৯ * ২০০ পিসি = $৫৯,৯৯৮ (দামসূত্র)
আপনার সফটওয়্যার বাবদ এককালীন খরচ : $৫,০০০
আপনার সফটওয়্যারের বাৎসরিক লাইসেন্স/সাপোর্ট ফি: $১০০ * ২০০ পিসি = $২০,০০০

অতএব মোট খরচ: $৫৯,৯৯৮ + $৫০০০ + $২০,০০০ = $৮৪,৯৯৮

আর এরসাথে যদি এমএস অফিস ২০০৭ একেবারে কমদামী স্টান্ডার্ড ভার্সনও যোগ হয় তাহলে খরচটা দাঁড়াবে: $৮৪,৯৯৮ + ($২৩৯.৯৫ * ২০০ পিসি) = $১৩২,৯৮৮ (দামসূত্র)

যদি উবুন্টু বা কোন ফ্রি লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম হয় তাহলে খরচ:
উবুন্টু ডেক্সটপ এডিশন বাবদ খরচ : $০ * ২০০ পিসি = $০
আপনার সফটওয়্যার বাবদ এককালীন খরচ : $৫,০০০
আপনার সফটওয়্যারের বাৎসরিক লাইসেন্স/সাপোর্ট ফি: $১০০ * ২০০ পিসি = $২০,০০০

অতএব মোট খরচ: $০ + $৫০০০ + $২০,০০০ = $২৫,০০০

উবুন্টুর সাথে যেহেতু অফিস স্যুট ফ্রি আসে তাহলে অফিস স্যুটসহই খরচটা দাঁড়াবে:  $২৫,০০০

দুই খরচের মধ্যে পার্থক্য: ($১৩২,৯৮৮ - $২৫,০০০) = $১০৭,৯৮৮

এখন যদি লিনাক্সের জন্য ওই সফটওয়্যারটি বানিয়ে দিয়ে উইন্ডোজের ডাবলও চার্জ করেন, তাহলেও তার খরচ $৫০,০০০ ডলার। এবং তখনও দুই খরচের মধ্যে পার্থক্য ($১৩২,৯৮৮ - $৫০,০০০) = $৮২,৯৮৮

এখানে উইন্ডোজের জন্য এন্টি-ভাইরাস কেনার খরচটা আর টানলাম না। যেহেতু আপনার ক্লায়েন্ট ব্যবসায়ী। তিনি কিন্তু হোম ইউজারদের ফ্রি ভার্সনটা ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত পিসিতে ব্যবহার করতে পারবেন না লাইসেন্সের কারণে।

উপরের হিসাবের মূল পয়েন্টটা হচ্ছে আপনার ক্লায়েন্টও কিন্তু ব্যবসায়ী। এবং $৮২,৯৮৮ অংকটাও উপেক্ষা করার মত ছোট নয়। উনি যদি তার অপারেটরদের লিনাক্স কি করে ব্যবহার করতে হয় সেটার উপর ট্রেনিংয়ের জন্য আরো $১০,০০০ খরচও করেন, তারপরও প্রায় ৭৩ হাজার ডলারের মত কম খরচ লাগছে। আপনার ক্লায়েন্ট হয়ত প্রযুক্তির এই দিকটা সম্পর্কে জানেনই না। অথচ আপনি উদ্যোগ নিলে ২৫ হাজারের যায়গায় ৫০ হাজার + ট্রেনিংয়ের ১০ হাজার = ৬০ হাজার ডলার কামাতে পারেন। এবং ক্লায়েন্ট যদি স্মার্ট ব্যবসায়ী হন তাহলে এই টাকাটা আপনাকে তার হাসতে হাসতেই দেবার কথা।

শেষ কথার আগের কথা:
গত বছর একেবারে ঢিলেঢালা ভাবেই একটা জরিপ হয়েছিল উবুন্টু ফোরামসের সাইটে, যে তাদের মধ্যে কে কে উবুন্টুতে Adobe Photoshop ব্যবহার করতে আগ্রহী। খুব সাদামাঠা ফলাফলটা হল ৩২,০০০ ইন্সট্যান্ট ভোট। এই ভোটাভুটি ক্যাজুয়্যাল হলেও ব্যাপারটা Adobe-এর নজর এড়ায় নি। অন্যদিকে অ্যাপলের সাথে সাম্প্রতিক মন কষাকষিতে Adobe-ও নাকি অ্যাপলের উপর নির্ভরতা কমাতে চাচ্ছে। আর তখনই নজরে পড়েছে গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে ওঠা উবুন্টু।

EA Games এরও নজর পড়েছে উবুন্টুর দিকে। তারা নাকি গত তিন বছরে উবুন্টুর জন্য যে পরিমাণ টাইটেল রিকোয়েস্ট পেয়েছে সে পরিমাণ নাকি ম্যাকের জন্যও পায়নি। তেনারাও এখন ওপেনজিএল দিয়ে কিছু করা যায় কিনা সেদিকটা খতিয়ে দেখছে।

শেষ কথা:
উপরের পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমি নিজে কিন্তু অতখানি অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তা দেখতে পাচ্ছি না। বরং সুযোগ দেখতে পাচ্ছি। এখন এই সুযোগ আমরা কাজে লাগাবো নাকি লাগাবো না সেটাই হচ্ছে কথা।

আমাদের দেশে বেশির ভাগ জিনিসই অন্যরা চুষে খেয়ে ছিবড়ে বানিয়ে যখন ফেলে দেয় তখন আমরা সেটা টুকিয়ে আনি। এবং তখন ওইখানে ছিঁবড়ে ছাড়া খুব বেশি কিছু অবশিষ্ট থাকে না। যদি সামনে এগুতে হয় তবে চিন্তাও সেরকম স্মার্ট হওয়া প্রয়োজন। ২০১০ সালে এসে ২০০০ সালের বিজনেস মডেলও কিন্তু পুরোনো হয়ে গেছে। পুরোনো পথে এগিয়ে সবিশেষ লাভ আছে বলে মনে হয় না।

একটি ছোট্ট সংবাদ
বাংলাদেশে ডেক্সটপ কম্পিউটারের জন্য উবুন্টু প্রফেশনাল সাপোর্ট দেয়া শুরু হতে যাচ্ছে শীঘ্রই। ইতিমধ্যে প্রাথমিক কথাবার্তা হয়েও গেছে। অল্পদিনের মধ্যেই বাংলাদেশের মোটামুটি পরিচিত একটি প্রতিষ্ঠানে তাদের অফিসে ব্যবহৃত পিসিগুলো উবুন্টুর কাস্টমড একটি ভার্সনে পরিবর্তন করার কাজ শুরু হয়ে যাবে।

" 'কত বড়ো আমি' কহে নকল হীরাটি। তাই তো সন্দেহ করি নহ ঠিক খাঁটি॥ " - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

উন্মাতাল_তারুণ্য'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

৬০

Re: Microsoft Windows OS থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয় ! !

@ উন্মাতাল_তারুণ্য

মাম্মা চরম!!!!!!!!!!!!!!!!!
(আপনি আমার চেয়ে বড় কিন্তু তাও মাম্মা বললাম আমার খুশির অনুভুতি প্রকাশের জন্য)।

এই পোস্টের পর আমি লিনাক্স মিন্ট নিয়ে কিছু ঘাটাঘাটি করলাম এবং অয়ন ভাইয়ের গাইডটা পেলাম। তারপর থেকে কেন জানি লিনাক্স মিন্ট ব্যবহার করার খুব ইচ্ছা হচ্ছে। যদিও দোকানে কেন জানি এই ডিস্ট্রোটা নাই (ইভেন পুরাতনটা ভার্শনও নাই!!)

ইএ যদি নজর দেয় তাহলে তো অনেক ভালই হবে। অপেক্ষায় থাকলাম গেমগুলোর...
____________________________________
আর আমি কিছু গেম এর লিঙ্ক (বলতে গেলে সাব-লিঙ্ক) দিলাম http://www.raymond.cc/blog/archives/201 … -shooters/  এই পেজের মাঝে আরও কিছু পোস্টের লিংক আছে, যেখানে অন্য গেম দেখতে পাবেন।