সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন শিমুল১৩ (১০-০৪-২০১০ ০৯:২০)

টপিকঃ সহজ, সাধারন কিন্তু আকর্ষণীয় (Image Editing Workflow) P-01

যে ছবিটি নিয়ে আমরা কাজ করবো...
http://img683.imageshack.us/img683/6973/uzzal02.th.jpg

আমাদের ফাইনাল আউটপুট...
http://img714.imageshack.us/img714/7351/uzzalsoftglow.jpg

বাইদাওয়ে, ইনি হলেন আমাদের উজ্জল খান  big_smile
উজ্জল ভাইয়ের অনুমতি সাপেক্ষে তার ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। সবাই উনাকে একটা রেপু দেন  tongue
তাহলে শুরু করা যাক...

০১. মেনু থেকে Image>Adjustments>Auto Levels এ ক্লিক করুন অথবা কিবোর্ড থেকে Ctrl+Shift+L চাপুন। এ অপশনটি সব ছবির ক্ষেত্রে ভালো ফলাফল নাও দিতে পারে। তাছাড়া এ অপশন খুব একটা জরুরী নয়, আপনি ইচ্ছে করলে এ অপশনটি এড়িয়ে যেতে পারেন।
http://img94.imageshack.us/img94/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

০২. টুলস প্যানেল থেকে Healing Brush Tool সিলেক্ট করুন এবং মুখের যেখানে যেখানে দাগ আছে তার কাছাকাছি ভালো কোনো অংশ থেকে কিবোর্ডের মাধ্যমে Alt কী চেপে ধরে ক্লিক করুন। তারপর Alt কী ছেড়ে দিয়ে যেখানে দাগ আছে সেখানে ক্লিক করুন। এভাবে মুখের, ঘাড়ের, গলার দাগ গুলো পরিষ্কার করুন। খেয়াল রাখবেন, আপনি যখন যে দাগ পরিষ্কার করতে চাচ্ছেন এবং ঐ দাগ পরিষ্কারের জন্য কাছাকাছি যে অংশ থেকে স্যাম্পল নিতে চাচ্ছেন তখন স্যাম্পল নেবার আগে আপনার ব্রাশের সাইজ সংশ্লিষ্ট দাগের চেয়ে সামান্য বড় করে নিবেন। ব্রাশের সাইজ ছোট বড় করার জন্য ছবিতে গোলাপী বৃত্তটি খেয়াল করুন এবং কোন স্পটের জন্য কোন জায়গা থেকে স্যাম্পল নিতে হবে তা স্পষ্ট করে দেখানো হয়েছে (লাল বৃত্তগুলির অধীনে যে দাগ রয়েছে তার জন্য স্যাম্পল নিতে হবে সবুজ বৃত্তগুলি যেখানে অবস্থিত সেখান থেকে)।
http://img709.imageshack.us/img709/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

০৩. টুলস প্যানেল থেকে Dodge Tool সিলেক্ট করুন অথবা কিবোর্ড থেকে O চাপুন। তারপর ত্বকের যে অংশ অন্ধকার বা কালো দেখাচ্ছে সেখানে ক্লিক করে হালকাভাবে ড্র্যাগ করুন। হালকাভাবে ড্র্যাগ করা মানে আপনি যদি হালকাভাবে মাউস ধরে ড্র্যাগ করেন তাহলে কিন্তু হবেনা tongue আপনাকে অবশ্যই উপরের অপশন থেকে (ছবিতে দেখুন) মান নির্ধারন করে দিতে হবে। এবং ব্রাশ সাইজ আপনার প্রয়োজন মত ছোট বড় করে নিবেন (গোলাপী বৃত্তটি খেয়াল করুন)। তবে খেয়াল রাখবেন সবসময়, কালো কিংবা অন্ধকার অংশ উজ্জল করতে গিয়ে যেনো আবার বেশি উজ্জল করে ফেলবেন না। ত্বকের সব অংশতো আর একরকম নয় তাইনা, একটু ভারসাম্য রাখবেন। অবশ্য উজ্জল ভাইকে বেশি উজ্জল করলে সমস্যা নেই  tongue
http://img683.imageshack.us/img683/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

০৪. এখন আমরা লেয়ার ডুপ্লিকেট করবো। আপনি যখন কোনো একটি JPEG(.jpg) ফরমেটের ছবি ওপেন করবেন তখন তাতে কেবলমাত্র একটি লেয়ার থাকে, যাকে বলা হয় Background লেয়ার। এখন এই ব্যাকগ্রাউন্ড লেয়ারকে ডুপ্লিকেট করতে হলে আপনাকে মেনু থেকে Layer>Duplicate Layer এ যেতে হবে, কোনো ডায়ালগ বক্স আসলে ওকে করতে হবে। অথবা লেয়ার প্যানেল থেকে Background লেয়ারের উপর রাইট ক্লিক করে সেখান থেকে Duplicate Layer সিলেক্ট করতে হবে। এক্ষেত্রেও যদি কোনো বক্স আসে তাহলে চোখ বন্ধ করে ওকে করতে হবে। আসলে লেয়ার ডুপ্লিকেট করার আরো অনেক পদ্ধতি আছে, তবে সবচেয়ে সহজ যেটা (আমার কাছে যেটা সবচেয়ে সহজ মনে হয়) সেটা হল যে লেয়ার আপনি ডুপ্লিকেট করতে চাচ্ছেন ঐ লেয়ারটি সিলেক্ট থাকা অবস্থায় কিবোর্ড থেকে Ctrl+J প্রেস করুন।
http://img97.imageshack.us/img97/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

০৫. যাক আমরা শেষ পর্যন্ত লেয়ার ডুপ্লিকেট করলাম। এখন আমরা লেয়ার রিনেম করব। লেয়ার রিনেম করার জন্য লেয়ার প্যানেল থেকে লেয়ারের নামের উপর ডাবল ক্লিক করুন। লেয়ারের নতুন নাম দিন Uzzal। আপনি যদি লেয়ারের নামের উপর ক্লিক না করে যদি লেয়ারের নামের ডানপাশে কিংবা বামপাশে লেয়ার Thumbnail এ ডাবল ক্লিক করেন তাহলে কিন্তু লেয়ার স্টাইল ডায়ালগ বক্স চলে আসবে। সেক্ষেত্রে Cancel বাটনে ক্লিক কিংবা Esc কীতে  ক্লিক করে লেয়ার স্টাইল ডায়ালগ বক্স আপাতত বিদায় করতে পারেন।
http://img97.imageshack.us/img97/1301/simpleawesomeimageeditie.jpg

০৬. এখন আমরা Uzzal নামক লেয়ারে একটি মাস্ক তৈরি করবো। মাস্কের কাজ হচ্ছে কোন লেয়ারের কিছু অংশ কিংবা লেয়ারে প্রদত্ত ইফেক্ট সাময়িক ভাবে লুকানো বা হাইড করে রাখা। আমি বোধহয় ব্যাপারটা ভালোভাবে বুঝাতে পারিনি। যাই হোক আমরা পরবর্তীতে উদাহরনের মাধ্যমে মাস্কের কাজ সম্বন্ধে জানবো। আপাতত আপনি লেয়ার প্যানেল থেকে এড লেয়ার মাস্ক আইকনে ক্লিক করুন (অবশ্যই Uzzal নামক লেয়ার সিলেক্ট থাকতে হবে)। তারপর উক্ত লেয়ারের দিকে লক্ষ্য করলেই দেখবেন নতুন একটি সাদা থাম্বনেইল তৈরি হয়েছে।
http://img97.imageshack.us/img97/1583/simpleawesomeimageeditio.jpg

০৭. এখন আমরা Uzzal নামক লেয়ারে একটি ইফেক্ট দিবো। তবে তার জন্য আপনাকে উক্ত লেয়ারের Uzzal থাম্বনেইল টি সিলেক্ট করতে হবে। ছবিতে দেখুন সেখানে মাস্ক থাম্বনেইল সিলেক্ট করা আছে (লাল তীর চিহ্নিত)। কিন্তু আমাদেরকে নীল তীর চিহ্নিত থাম্বনেইলে ক্লিক করতে হবে। তাহলে মাস্ক লেয়ারটি ডিসিলেক্ট হবে এবং সেই সাথে মেইন লেয়ারটি সিলেক্ট হবে।
http://img440.imageshack.us/img440/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

০৮. মেনু থেকে Filter>Blur>Gaussian Blur সিলেক্ট করুন। (না বুঝলে ছবিতে দেখুন)
http://img338.imageshack.us/img338/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

০৯. এবার নিশ্চয়ই গসিয়ান ব্লার ডায়ালগ বক্স এসেছে? এখন কি করবেন? এক কাজ করতে পারেন, এটা যেহেতু হাই রেজুলুশনের ছবি তাই আমি Gaussian Blur এর Radius নির্ধারন করেছি 20.0। আপনি আপনার ছবির রেজুলুশন দেখে নিয়ে তারপর ব্লার এর মাত্রা কম-বেশি করতে পারেন। রেজুলুশন কম হলে ব্লার এর মান কমিয়ে দিতে পারেন। আবার তেমনি বেশি রেজুলুশনের ছবিতে বাড়িয়ে দিতে পারেন ব্লার এর মান।
http://img695.imageshack.us/img695/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

১০. নিচের ছবিটাতে একটু লক্ষ্য করলেই দেখবেন আমাদের উজ্জল মিয়ার গেঞ্জিতে সাদা রং এবং গেঞ্জির কালারের সামঞ্জস্য রক্ষা করে একটি হালকা ডিজাইন রয়েছে (লাল বৃত্তটি খেয়াল করুন)। আপনি ব্লার এর মান যদি খুব বাড়িয়ে দেন তাহলে ডিজাইন করা অংশটুকু অতিরিক্ত ঘোলা হয়ে এমন অবস্থা হবে যে শেষ পর্যন্ত আপনি নিজেও বুঝতে পারবেন না এটা কিসের দাগ। মনে হবে কেউ যেনো ছবিটাকে নষ্ট করার জন্য ইচ্ছে করে সাদা রং দিয়ে পেইন্ট করে দিয়েছে। সুতরাং ব্লার এর মান এমন ভাবে নির্ধারন করবেন যাতে ছবিটা ঘোলা হয়ে গেলেও বোঝা যায় যে এটা গেঞ্জিরই একটা ডিজাইন। আর একটা ব্যাপার লক্ষ্য রাখবেন ব্লার করার সময়, আপনার ছবির ডিটেইলস্ ভালো করে দেখে নিবেন প্রথমেই, বিশেষ করে ব্যাকগ্রাউন্ড। তারপর প্রয়োজন মত ব্লার করবেন।
http://img291.imageshack.us/img291/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

১১. এখন আমাদেরকে নতুন একটি লেয়ার তৈরি করতে হবে। নিউ লেয়ার তৈরি করতে চাইলে কিবোর্ড থেকে Ctrl+Shift+N চাপুন অথবা লেয়ার প্যানেল থেকে (ছবিতে দেখুন) Create A New Layer আইকনে ক্লিক করুন।
http://img267.imageshack.us/img267/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

১২. টুলস প্যানেল থেকে Rectangular Marquee Tool সিলেক্ট করুন। আপনি ইচ্ছে করলে কিবোর্ড থেকে M কী প্রেস করেও এই কাজ করতে পারেন। এবার ছবির মত করে একটি সিলেকশন আঁকুন। সিলেকশন তৈরি করার জন্য ছবির উপর ক্লিক করে চেপে ধরে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত পর্যন্ত টানাটানি করুন, যখন আপনার সিলেকশনটি নিচের ছবির মত হবে তখন আপনি মাউস ছেড়ে দিতে পারেন।
http://img638.imageshack.us/img638/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

১৩. এখন আমাদেরকে সিলেকশনটি সাদা রং দিয়ে পূর্ন করতে হবে। সাদা রং দিয়ে পূর্ন করার সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি হলো কিবোর্ড থেকে Ctrl+Delete প্রেস করা। তবে আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড কালার সাদা সিলেক্ট করা আছে কিনা। তা নাহলে আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড কালার যা আছে সেই রং দিয়েই আপনার সিলেকশনটি পূর্ন হয়ে যাবে। ফোরগ্রাউন্ড কালার এবং ব্যাকগ্রাউন্ড কালার যাই থাকুক না কেন আপনি ছবিতে নীল চতুর্ভুজ চিহ্নিত আইকনে ক্লিক করলে আপনার ফোরগ্রাউন্ড কালার কালো এবং ব্যাকগ্রাউন্ড কালার সাদা হয়ে যাবে। একাজটি কিবোর্ডের মাধ্যমে করতে চাইলে আপনাকে D প্রেস করতে হবে।
http://img638.imageshack.us/img638/972/simpleawesomeimageeditin.jpg

১৪. কিবোর্ড থেকে Ctrl+D চাপুন। আপনার সিলেকশনটি ডিসিলেক্ট হয়ে যাবে। তারপর টুলস্ প্যানেল থেকে পুনরায় Rectangular Marquee Tool সিলেক্ট করে নিন (যদি সিলেক্ট করা না থাকে)। তারপর ছবির মত করে দুইপাশে কিছু অংশ খালি রেখে নতুন আরেকটি সিলেকশন তৈরি করুন। এরপর এই সিলেকশনকে ফেদার করতে কিবোর্ড থেকে Ctrl+Alt+D চাপুন। অতঃপর ফেদারের ডায়ালগ বক্স আসলে মান লিখুন 100। তারপর ওকে করুন।
http://img694.imageshack.us/img694/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

১৫. এবার সিলেকশনের উপর রাইট ক্লিক করুন (অবশ্যই Marquee Tool সিলেক্ট করা থাকতে হবে) এবং Select Inverse এ ক্লিক করুন। অথবা আপনি যদি কিবোর্ড থেকে এই কাজটি করতে চান (যেকোনো টুল সিলেক্ট থাকতে পারে, কোনো সমস্যা নেই) তাহলে Ctrl+Shift+I চাপতে পারেন। এরপর কিবোর্ড থেকে Delete কী চাপুন তাহলে যেটুকু সিলেক্ট করেছেন সেটুকু মুছে যাবে। ডিসিলেক্ট করার জন্য Ctrl+D চাপুন।
http://img709.imageshack.us/img709/6717/simpleawesomeimageeditiz.jpg

১৬. আমরা এতক্ষন আমাদের বর্ডারের চারটি অংশের একটি অংশ তৈরি করলাম। এখন আমরা এই এক-চতুর্থাংশ বর্ডারকে Duplicate করবো। কিবোর্ড থেকে Ctrl+J চাপুন অথবা (০৪) নং অংশ আবার ভালোভাবে পড়ে নিন। লেয়ার Duplicate করা হয়ে গেলে টুলস প্যানেল থেকে Move Tool সিলেক্ট করুন অথবা কিবোর্ড থেকে V কী চাপুন। তারপর নতুন লেয়ারের উপর ক্লিক করে চেপে ধরে এটিকে সমান্তরালভাবে নিচে নামিয়ে আনুন। আসলে আমরা চাচ্ছি আমাদের মডেল অর্থাৎ উজ্জলের মুখের চারপাশ দিয়ে একটি ফ্রেম বা বর্ডার তৈরি করা। এক্ষেত্রে লেয়ারকে নিচে আনার সময় মাউস নড়ে গেলে সমস্যা হয়ে যাবে। ফ্রেমটা তখন তার সৌন্দর্য হারাবে। আপনি যখনই লেয়ার Duplicate করবেন তারপর Move Tool সিলেক্ট করে কিবোর্ড থেকে Down Arrow কী চাপতে থাকুন, দেখবেন এটি আস্তে আস্তে সমান্তরালভাবে নিচে নামতে থাকবে। এখানে একটা ছোট্ট টিপস জানিয়ে রাখি যে Down Arrow কী একবার চাপলে যে লেয়ারটি সিলেক্ট করা আছে সেটি এক পিক্সেল (Pixel) পরিমান নিচে নামবে। আপনি যদি শুধু Down Arrow কী না চেপে Shift চেপে ধরে Down Arrow কী চাপেন তাহলে লেয়ারটি একসাথে দশ পিক্সেল করে নামতে থাকবে। এভাবে লেয়ারকে উপরে উঠানোর জন্য Up Arrow অথবা Shift+Up Arrow... ডানে/বামে নেওয়ার জন্য Right/Left Arrow অথবা Shift+Right/Left Arrow চাপতে পারেন।
http://img94.imageshack.us/img94/6669/simpleawesomeimageeditim.jpg

১৭. এবার আমরা একই লেয়ার আবার ডুপ্লিকেট করবো। আপনি একটু আগে তৈরি করা (একটু আগে আমরা বর্ডার তৈরি করার জন্য যে দুইটি লেয়ারের উৎপত্তি ঘটিয়েছি) দুইটি লেয়ারের যেকোনো একটিকে ডুপ্লিকেট করলেই হবে। তবে ছবিতে Layer 1 নামক লেয়ারটি সিলেক্ট করা আছে। এই অবস্থায় আমরা কিবোর্ড থেকে Ctrl+J চাপলেই লেয়ারটি ডুপ্লিকেট হয়ে যাবে।
http://img32.imageshack.us/img32/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

১৮. এখন আমাদের লেয়ারটিকে লম্বালম্বিভাবে দাড় করাতে হবে। এবং এটা করার জন্য কিবোর্ড থেকে Ctrl+T চাপতে হবে। ওহ ভালো কথা, আমরা নতুন যে লেয়ারটি তৈরি করেছি সেটি কিন্তু পূর্বের লেয়ারের উপরেই তৈরি হয়েছে, তাই সেটা দেখা যাচ্ছেনা। যাইহোক, Ctrl+T চাপার পর নতুন লেয়ারটিতে একটি বক্স আসবে Transform করার জন্য। আপনি শুধু মাউস দিয়ে রাইট ক্লিক করুন আর নিচের লিস্ট থেকে Rotate 90 CW তে ক্লিক করুন। দেখবেন লাইনটি ঘুরে লম্বা হয়ে গেছে। তারপর (১৬) নং অংশের মত করে লাইনটিকে উজ্জল ভাইয়ের মুখের একেবারে বাশ পাশে এনে স্থাপন করুন। প্রয়োজনে (১৯) নং অংশের ছবি দেখুন।
http://img32.imageshack.us/img32/1460/simpleawesomeimageeditix.jpg

১৯. আমরা লেয়ারটি জায়গামত বসালাম, কিন্তু এখানে একটি সমস্যা হয়ে গেছে। লাল বৃত্তটি খেয়াল করুন। আমরা চাইনা ফ্রেমের এই অংশটি কাটা পড়ুক। তাছাড়া এই অংশটি আমাদের এত লম্বা করার দরকার নেই। আমরা তাই এটাকে একটু ছোট করে ফেলবো। এমনভাবে ছোট করবো যাতে এটি লম্বায় সমান্তরাল লেয়ার দুটির বাইরে সমানভাবে সামান্য অংশ দখল করে।
http://img718.imageshack.us/img718/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

২০. কিবোর্ড থেকে আবারও Ctrl+T প্রেস করুন। তারপর Vertical Scale (ছবিতে লাল বৃত্তটি লক্ষ্য করুন) এর মান 100% এর নিচে এবং আপনার প্রয়োজনমত নির্ধারন করুন। আমি এখানে করেছি 87%।
http://img30.imageshack.us/img30/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

২১. এখন এই লেয়ারটি আবারও ডুপ্লিকেট করুন কিবোর্ড থেকে Ctrl+J চাপার মাধ্যমে। তারপর Move Tool সিলেক্ট করুন এবং সমান্তরাল ভাবে মডেলের মুখের ডানপাশে অর্থাৎ কানের কিছু অংশ পরে বসান। ছবিতে দেখুন লেয়ার প্যানেল দু'টোর মাঝখান দিয়ে মডেলের কানের পাশে নতুন লেয়ারটি স্থাপন করা হয়েছে। লেয়ারটি নিখুঁতভাবে বসানোর জন্য (১৬) নং অংশটি আবার দেখুন।
http://img32.imageshack.us/img32/8607/simpleawesomeimageeditiw.jpg

২২. এবার সবচেয়ে উপরের লেয়ারটি সিলেক্ট করুন। তারপর Shift চেপে ধরে চার নম্বর লেয়ারে ক্লিক করুন। তাহলে আমাদের ফ্রেমের সবগুলো লেয়ার সিলেক্ট হবে। আমরা এ চারটি লেয়ারকে গ্রুপ করবো, গ্রুপ করার জন্য কিবোর্ড থেকে Ctrl+G চাপুন।
http://img440.imageshack.us/img440/6748/simpleawesomeimageeditik.jpg

২৩. এখন আমরা একটি গ্রুপ লেয়ার পেলাম। গ্রুপ লেয়ারটির নামকরন করুন Border। সাধারন Layer যেভাবে নামকরন করা হয় ঠিক সেভাবেই গ্রুপ লেয়ারের নামকরন করা হয়।
http://img291.imageshack.us/img291/1166/simpleawesomeimageeditit.jpg

২৪. এখন টুলস প্যানেল থেকে Rectangular Marquee Tool সিলেক্ট করুন। ছবিতে লাল তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো হয়েছে। তারপর আমাদের বর্ডারের ভেতরের অংশ সিলেক্ট করুন। মানে মাউস চেপে ধরে সবুজ বৃত্ত থেকে শুরু করে নীল বৃত্ত পর্যন্ত টেনে নিয়ে যান। নিখুঁতভাবে সিলেকশন করার জন্য ছবিকে জুম করে বড় করে নিন। জুম ইন করার জন্য কিবোর্ড থেকে Ctrl+(+) এবং জুম আউট করার জন্য Ctrl+(-) চাপুন। এরপর কিবোর্ড থেকে Ctrl+Alt+D চাপুন এবং ফেদারের মান দিন 250। ওকে করুন। সিলেকশনটি কিছুটা গোলাকার আকার ধারন করবে। তারপর ফোরগ্রাউন্ড কালার এবং ব্যাকগ্রাউন্ড কালার ডিফল্টে আনুন। ছবিতে দেখা যাচ্ছে ব্যাকগ্রাউন্ড কালার ডিফল্টে থাকলেও ফোরগ্রাউন্ড কালার ডিফল্টে নেই। হলুদ তীর চিহ্নটি খেয়াল করলেই সব বুঝতে পারবেন। এবং ফোরগ্রাউন্ড কালার ও ব্যাকগ্রাউন্ড কালার ডিফল্টে আনার জন্য D চাপুন।
http://img30.imageshack.us/img30/2888/simpleawesomeimageeditib.jpg

২৫. তারপর Uzzal লেয়ারের মাস্কটি সিলেক্ট করুন। সবুজ রংয়ের থাম্বনেইল এ ক্লিক করলেই Uzzal লেয়ারের মাস্কটি একটিভ বা সচল হবে। আর হ্যাঁ, লাল রংয়ের থাম্বনেইলে ক্লিক করলে শুধু Uzzal লেয়ারটিই সিলেক্ট হবে, মাস্কটি সিলেক্ট হবেনা। মাস্ক সিলেক্ট করার পর কিবোর্ড থেকে Alt+Delete চাপুন। Uzzal লেয়ারের কিছু অংশ মাস্কের মধ্যে কালো রং দিয়ে তা ফিল করায় সেই অংশটুকু আপাতত মুছে গেছে। অর্থাৎ মাস্কটি যদি আমরা পুরা কালো রং দিয়ে ফিল করি তাহলে পুরো লেয়ারটি সাময়িকভাবে গায়েব হয়ে যাবে। কিন্তু আমরা চাচ্ছি শুধু মুখের অংশটুকু আপাতত মুছে ফেলতে। তাহলে যে অংশটুকু মুছে গেছে সেই অংশের ভিতর দিয়ে আমাদের ব্যাকগ্রাউন্ড লেয়ার দেখা যাচ্ছে।
http://img687.imageshack.us/img687/6506/simpleawesomeimageediti.jpg

২৬. একটি নতুন লেয়ার তৈরি করুন অর্থাৎ কিবোর্ড থেকে Ctrl+Shift+N চাপুন। একটি ডায়ালগ বক্স আসবে তাতে লেয়ারের নাম দিন Color। ওকে করুন। ফোরগ্রাউন্ড কালারের উপর ক্লিক করুন। ছবিতে লাল তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো হয়েছে।
http://img94.imageshack.us/img94/6748/simpleawesomeimageeditik.jpg

২৭. ফোরগ্রাউন্ড কালারের উপর ক্লিক করলে একটি Color Picker উইন্ডো আসবে। কালার কোড দিন 00ffff। ছবিতে গোলাপী চতুর্ভুজটি লক্ষ্য করুন। সেখানে 00ffff টাইপ করুন। এরপর ওকে করুন।
http://img30.imageshack.us/img30/6323/simpleawesomeimageeditiv.jpg

২৮. দেখে নিন Color নামক লেয়ারটি সিলেক্ট আছে কিনা। টুলস প্যানেল থেকে Brush Tool সিলেক্ট করুন অথবা কিবোর্ড থেকে B চাপুন। ব্রাশের সাইজ আপনার পছন্দ মত নিয়ে ইচ্ছামত আঁকাআকি করুন। কিছুক্ষন পর নীল রং সিলেক্ট করে আরো কিছুক্ষন আঁকুন আপনার মনের মাধুরী মিশিয়ে। এরপর গোলাপী রং সিলেক্ট করে আরো কিছু আঁকুন। অল্প করে সবুজ রংও দিতে পারেন। তবে বর্ডারের বেশি ভেতরের দিকে আঁকবেন না। ছবিতে দেখুন। ব্রাশের সাইজ ছোট বড় করতে (০২) নং অংশটি আবার দেখুন।
http://img338.imageshack.us/img338/7641/simpleawesomeimageeditic.jpg

সহজ, সাধারন কিন্তু আকর্ষণীয় (Image Editing Workflow) P-02

সহজ, সাধারন কিন্তু আকর্ষণীয় (Image Editing Workflow) P-03

Flickr     500px    Facebook     SRS    Twitter

শিমুল১৩'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সহজ, সাধারন কিন্তু আকর্ষণীয় (Image Editing Workflow) P-01

বাকিটুকু দেন। ইমেজগুলো আরেকটু লোকোয়ালিটি হলে ভাল হত। লোড হতে প্রচুর টাইম লাগে।
যাইহোক টিউটেরিয়ালটা ভালই। love

Re: সহজ, সাধারন কিন্তু আকর্ষণীয় (Image Editing Workflow) P-01

সুন্দর টিউট...
ধন্যবাদ শিমুল ভাই...
আশা করি অনেকেই উপকৃত হবে।

Re: সহজ, সাধারন কিন্তু আকর্ষণীয় (Image Editing Workflow) P-01

২২নং এ গিয় ফেল মারলাম। গ্রুপ করতে চাচ্ছি, কিন্তু পারতেছিনা। চারটা সিলে্ক্টই হচ্ছে না।  hairpull