সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন ইলিয়াস (০৩-০৯-২০১৪ ০৮:৩১)

টপিকঃ দেওয়ানে বু-আলী শাহ্ কালান্দার

গতকাল রাতে পড়ে শেষ করলাম  "দেওয়ানে বু-আলী শাহ্ কালান্দার"। মূলত মারেফতের উপরে বু-আলী শাহ্ এর লেখা কিছু কথা এখানে উপস্থাপন করা হয়েছে। পড়ে কিছুই বুঝতে পারলাম না কেন এই বইটি লেখা হলো। তবে কিছু কিছু কথা খুবই চমৎকার লেগেছে। যেমন:-

"মিলনের পথটি খুবই পিচ্ছিল এবং অতি উঁচু স্তরের বিষয়।"

“তখন আমার শান আমার নিকট প্রকাশ হয়ে পরে, আমার মাঝে যখন আমার মুর্শিদ পুরোপুরি সমাসীন।”

“তুমি আমার মধ্যে আর আমি আমি তোমার মধ্যে, প্রেমিকের এইতো রীতি।”

“যখন সমস্ত কিছু তোমার ভিতরে, তখন এখানে সেখানে গিয়ে লাভ কি?”

“নতুন জামাতা যেমন নির্জনতায় স্ত্রীর গুপ্ত অঙ্গের লুকাইত সৌন্দর্যগুলো অবলোকন করে, আমি সেভাবে গুপ্ত রহস্যের বিষয়গুলো প্রকাশ্যে অবলোকন করলাম।”

“আমি যখন আমার বন্ধুকে স্মরণ করার অভ্যাস আয়ত্ত করলাম, এখন আমি ইচ্ছায় অনিচ্ছায় তাকে স্মরণ করি, তখন দেখি সেও আমাকে স্মরণ করে।”

“আমার লায়লা তো আমার ভেতরের রাজ প্রাসাদেই লুকিয়ে আছে।”

“প্রেমিকের মনের ও কানের মধ্যে লাজ শরম ও প্রবঞ্চনা প্রবেশ করতে পারে না।”

“নিজের অহঙ্কারের পর্দাগুলোকে সরিয়ে দাও, তখন দেখবে তোমার মনের উপর জ্যোতির্ময় আলোক শিখা কিভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়।”

“আমার কাছে যা শাহী তাজ, খসরুর নিকট তা পাপোষ।”

“সত্যি কারের প্রেমিক সে, যে মরিচিকার পেছনে না দৌড়ে নিজের ভেতরেই অবস্থান করে।”

“লমে লাদুনী বা খোদায়ী জ্ঞান একমাত্র প্রেমিকদেরই দান করা হয়।”

“জগৎ সংসারের লোভ লালসার ঝড়ে আমার জীবনের তরী ডুবে যাওয়ার অবস্থা।”

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।

Re: দেওয়ানে বু-আলী শাহ্ কালান্দার

qshohenq লিখেছেন:

“নিজের অহঙ্কারের পর্দাগুলোকে সরিয়ে দাও, তখন দেখবে তোমার মনের উপর জ্যোতির্ময় আলোক শিখা কিভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়।”

এই কথাটা আমার ভাল লেগেছে। সত্যি কথা বলেছে।