টপিকঃ গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

রং আল্লাহতায়ালার এক অপার সৃষ্টি। এই মহাবিশ্বের যেদিকেই তাকান না কেন, চারদিকে দেখবেন শুধু রঙের খেলা। চন্দ্র-সূর্য, আকাশ-মাটি, গ্রহ-নক্ষত্র, ফুল-ফল, নদী-নালা, পাহাড়-পর্বত যেদিকেই তাকান রঙের অকল্পনীয় শৈল্পিক ব্যবহার বারবার আপনার চোখে ধরা দিতে থাকবে। রঙের জগত হচ্ছে এক অবাক করা মায়াবী জগত। গ্রাফিক্স ডিজাইনারের যতগুলো অপর নাম আছে তার একটি হলো কালার স্পেশালিস্ট। অর্থাৎ গ্রাফিক্স ডিজাইনারের আরেক নাম রং বিশেষজ্ঞ। রঙের মাত্রাজ্ঞান, তার যত মহিমা-বৈশিষ্ট্য, এর প্রয়োগ কলাকৌশল, রঙের ভাষা, রঙের ক্ষমতা ইত্যাদি সম্পর্কে যিনি যত বেশি জানেন অর্থাৎ যিনি যত বেশি অভিজ্ঞ, তিনি তত বড় ডিজাইনার।

প্রতিটি মৌলিক রঙেরই এক একটি বৈশিষ্ট্য আছে। রং ব্যবহারের মাধ্যমে আমরা নিজেদের অজান্তেই আমাদের রুচি, অনুভূতি, দৃষ্টিভঙ্গি, সরলতা ইত্যাদি প্রকাশ করে থাকি। তাই যেকোনো ডিজাইনেই রঙের ব্যবহার সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। রঙের ভাষা কি? কেমন? কিভাবে প্রকাশ করা হয়? আসুন এ ব্যপার গুলো নিয়ে আলোচনা করা যাক...
রঙের বিভিন্ন রকম পরিচিতি আছে, লাল রং আপনাকে থেমে যাওয়ার নির্দেশ দেয় আর সবুজ রং আপনাকে এগিয়ে যেতে বলে। ঠিক তেমনি হলুদ রং আপনাকে অপেক্ষা করার আবেদন জানায়। কালো রং শোক প্রকাশ করে আবার সাদা রং সরলতার প্রতীক। একটি রং যখন আরেকটি রঙের সাথে মিলিত হয় তখন একটি অপরটির দ্বারা প্রভাবিত হয়ে থাকে। ছবিতে দেখুন একই রং অন্যান্য রঙের সংস্পর্শে এসে কিরকম প্রভাবিত হয়েছে...

http://img29.imageshack.us/img29/5948/rongervasha01.png

রঙের যথাযথ ব্যবহার আপনার পণ্যের বিক্রি বাড়িয়ে দেবে বহুগুন, ঠিক তেমনি ভুল রঙের ব্যবহার আপনার পণ্যকে নিমিষেই ফ্লপ করিয়ে দিতে পারে। আপনি রঙের মানানসই প্রয়োগ দেখতে বিশ্বের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট গুলোতে ঢুঁ মারতে পারেন। সেখানে দেখতে পাবেন কিভাবে রঙের সামঞ্জস্য করা হয়েছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এক রঙের ব্যবহার দেখা যায়, কারন একটি ডিজাইনে একই রঙের বিভিন্ন মাত্রা ব্যবহার করে দেখা গেছে যে খুব সহজেই ফাটিয়ে দেয়া যায়।

জমকালো রং মানেই উৎকৃষ্ট ডিজাইন নয়। বরং এর বিপরীত টাই উৎকৃষ্ট ডিজাইন। হ্যাঁ, অনেক সময় দেখা গেছে যে ডিজাইনের প্রয়োজনেই (যেমন রঙের ডিব্বা কোম্পানির বিজ্ঞাপন, রঙে রঙে রাঙিয়ে দিলাম টাইপের বিজ্ঞাপন) জমকালো রং ব্যবহার করতে হয়। সেক্ষেত্রে রং সম্বন্ধে, রঙের ব্যবহার সম্বন্ধে আপনার যথেষ্ট জ্ঞান বা অভিজ্ঞতা না থাকলে ডিজাইনের শ্রেষ্ঠত্ব বিনষ্ট হতে বাধ্য।

ব্যাকগ্রাউন্ডে এক কালার রং ব্যবহার করার যুগ এখন প্রায় অতীত। দুই রং বা তিন রঙের গ্রেডিয়েন্ট (একটি রং হালকা হতে হতে এক সময় মিশে যায় এবং ঠিক একই ভাবে আরো এক বা একাধিক রং হালকা থেকে গাঢ়তর হয়ে ফুটে ওঠে) ব্যবহারের মাধ্যমে আকর্ষনীয় ব্যাকগ্রাউন্ড তৈরি করা সম্ভব। তবে হ্যা, ব্যাকগ্রাউন্ডে যদি এক রঙের প্রয়োগ ঘটান তাহলে, যে রং টি ব্যবহার করছেন ঐ একই রঙের বিভিন্ন মাত্রাসহ ব্যবহার আপনার ডিজাইন কিংবা ব্যাকগ্রাউন্ডের সৌন্দর্য বাড়িয়ে দেবে বহুগুন। রঙের মাত্রা সম্পর্কে এবার একটু আলোচনা করা যাক...
সাদা, কালো এবং ধূসর রং দিয়ে আমি ব্যাপারটা সহজ করে বুঝিয়ে দিচ্ছি।

http://img682.imageshack.us/img682/4889/rongervasha02.png

এখানে পিউর হোয়াইট এবং পিউর ব্ল্যাক এর মধ্যে যতগুলো রং দেখছেন সবগুলো হচ্ছে ধূসর বা গ্রে কালারের বিভিন্ন মাত্রা। আবার পিউর হোয়াইট থেকে ৪০% গ্রে পর্যন্ত যতগুলো রং বিদ্যমান সেগুলোকে আপনি সাদা রঙের বিভিন্ন মাত্রাও বলতে পারেন। কালো রঙের মাত্রাও তেমনি ৬০% গ্রে থেকে পিউর ব্ল্যাক পর্যন্ত। আর ৫০% গ্রে কালারটিকে পিউর গ্রে কালারও বলতে পারেন। এভাবে লাল, নীল, সবুজ, হলুদ সব রকম রঙেরই বিভিন্ন মাত্রা আছে।

হ্যাঁ, রঙের ক্ষমতা সম্পর্কে আরো কিছু বলা যাক...
রং আপনার চোখে ও অন্তরে প্রশান্তি এনে দিতে পারে, আবার আপনার চোখে জ্বালা ধরিয়ে দিতেও রঙের জুড়ি নেই। রং আপনার মানসিকতা পরিবর্তন করতে পারে। আপনার মনে উত্তেজনার ঝড় বইয়ে দিতে রঙের ভূমিকা অনস্বীকার্য। কিছু কিছু রং আছে একজন আরেকজনকে সহ্য করতে পারেনা। মানে এদের সহাবস্হান ততটা সুখকর নয়।

অনেক হয়েছে, এবার প্রচলিত কয়েকটি রং সম্বন্ধে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করে এই লেখার ইতি টানা যাক।

নীলঃ নীল একটি ঠান্ডা রং। সাধারনত শান্তি, স্নিগ্ধতা, আবেগ-অনুভূতি, সম্প্রীতি, কোমলতা ইত্যাদি বুঝাতে নীল রং ব্যবহার করা হয়। খুব সিম্পল টাইপের ডিজাইনে নীল রঙের ব্যবহার বেশি হলেও অ্যাবস্ট্রাক্ট টাইপের ডিজাইনে স্পিড আনতে নীল রঙের জুড়ি নেই। নীলের সাথে সাদা, কালো বা গ্রে ভালো মানায়। ঠিক তেমনি গোধূলির মত কমলা বা গোলাপী রং নীলের সাথে ব্যবহার করলে ফলাফল তেমন একটা ভালো হয়না।

লালঃ লাল একটি চোখ ধাঁধানো তীব্র রং। সাধারনত ডিজাইনে বিষয়বস্তুর তীব্রতা বোঝাতে এর ব্যবহার দেখা যায়। স্পিড, এডভেঞ্চার, ভায়োলেন্স, এক্সাইটিং ইত্যাদি ভাব প্রকাশার্থে লাল রং আপনাকে সবচেয়ে বেশি সাহায্য করতে পারে। তবে ডিজাইনে লালের ব্যবহার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলা ভালো। আর সেই সাথে লাল-সবুজ, লাল-হলুদ, লাল-বেগুনি ইত্যাদি ডিজাইনে ব্যবহার করা অনুচিত। কারন এদের সহাবস্হান ভালো ফলাফল দেয়না।

বেগুনিঃ আধ্যাত্মিকতা, আভিজাত্য বিশেষ করে রাজকীয় ডিজাইনে বেগুনির ব্যবহার ভালো ফল দেয়। ধর্মীয় ডিজাইনে এর ব্যবহার বেশি। ব্যাকগ্রাউন্ড কালার হিসেবেও বেগুনি দারুন কাজ করে।

সবুজঃ প্রানচাঞ্চল্য, সজীবতা, নিসর্গ, আন্তরিকতা ইত্যাদি বুঝাতে সবুজ রং ব্যবহার করা হয়। সবুজের সাথে বাংলাদেশের প্রকৃতির যথেষ্ট সখ্যতা আছে। সবুজের সাথে একমাত্র লালের ব্যবহারেই সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত।

হলুদঃ হলুদ রং সাধারনত প্রফুল্লতা, সাহস ইত্যাদি বুঝাতে ব্যবহার করা হয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই টেক্সটকে হাইলাইট করতে ডার্ক ব্যাকগ্রাউন্ডে হলুদ রঙের টেক্সট ব্যবহার করা হয়।

গোলাপিঃ গোলাপি রং রমণীয়, কমনীয় আর রূপ লাবণ্যের প্রতীক। ডিজাইনে সৌন্দর্য বাড়াতে কিংবা আনকমন একটা ভাব আনতে এর ব্যবহার দেখা যায়। তবে এর বাড়াবাড়ি রকমের ব্যবহার আপনার ডিজাইনকে নষ্ট করে দেবে।

কমলাঃ ন্যাচারাল ডিজাইন ছাড়া কমলার ব্যবহার তেমন একটা দেখা যায় না। অথচ হালকা পরিমানে কমলার ব্যবহার আপনার ডিজাইনকে আনকমন ও গুডলুকিং করে তোলে।

ধূসরঃ সাদাকালো ডিজাইনের ক্ষেত্রে গ্রে কালারের ভূমিকা অনস্বীকার্য। অবশ্য গ্রে নিজেই সাদাকালো রঙের মধ্যে পড়ে। রঙিন ফটোগ্রাফ থেকে সমস্ত রং শুষে নেওয়ার মাধ্যমে খুব সহজেই সাদাকালো ইফেক্ট দেওয়া যায়, সেক্ষেত্রে অনেক সময় দেখা যায় যে সাদাকালো ইফেক্ট তেমন মানানসই হয়নি। এমতাবস্হায় গ্রে কালার ব্যবহারের মাধ্যমে সাদাকালো ইফেক্টকে আকর্ষনীয় করে তোলা যায়।

সাদাঃ এটি একটি নিরীহ টাইপের রং। সাধারনত সরলতা, শক্তি আর তারুন্যের প্রতীক এই সাদা রং। আপনার ডিজাইনে ঝকঝকে, তকতকে, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ভাব আনতে এর প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম।

কালোঃ এটি সর্বাধিক রঙের মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত একটি রং। কালো রং সাধারনত শোক প্রকাশে ব্যবহৃত হয়। পাশাপাশি এর ভেতর রহস্যময়তা ও খান্দানি ভাব আছে। কালোর সাথে যেকোনো রং মানায়। আপনার ডিজাইনে গাম্ভীর্য টাইপের ভাব প্রকাশেও এটি অনন্য। ব্যাকগ্রাউন্ডের ক্ষেত্রে এক কালার কালো ব্যবহার না করে কালোর বিভিন্ন মাত্রাসহ ব্যবহার কিংবা কালোর সাথে অন্য কোনো রঙের গ্রেডিয়েন্ট ব্যবহার করলে অত্যন্ত ভালো ফল পাওয়া যায়।

বিঃ দ্রঃ এত বড় টিউটোরিয়াল কষ্ট করে পড়ার জন্য ধন্যবাদ। এখানে অসংখ্য ভুল থাকতে পারে। সেক্ষেত্রে দয়া করে এই অধমকে গালাগালি না করে নিজ গুনে ক্ষমা করে দেবেন। লিখতে লিখতে তো জান কয়লা হয়ে গেছে। কিবোর্ডের কী ও দুয়েকটা নষ্ট হয়ে গেছে (মনে হয়)।

Flickr     500px    Facebook     SRS    Twitter

শিমুল১৩'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

বিশাল টপিকের জন্য ধন্যবাদ। clap
সাথে একটা পেলুসও  tongue

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন মিলন (১২-১১-২০০৯ ১৩:২১)

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

অসাধারন বিশ্লেষন।

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

ভাল একটা টিউটোরিয়াল। আমার কাজে আসবে।

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

টিপস নিয়ে বলার কিছু নাই। ঝাক্কাস হয়েছে।
তবে রঙের ব্যাখ্যা নিয়ে কিছু কথা আছে।
নীলঃ এটা কিন্ত বেদনার রঙ হিসাবে সর্বাধিক পরিচিত।
সাদাঃ এটা মোটেও নীরিহ টাইপের রঙ নয়। এটা শান্তির রঙ বা প্রতীক হিসাবে বহুল পরিচিত।
কালোঃ বস্তুত এটা কোন রঙ নয়। বরং কোথায় কোন রং না থাকলেই সেটা কালো হয়।

তোমাকে ভালবাসি, তোমারই চরণে ঠাঁই,
মা,
তোমার ভালবাসার কোন তুলনা নাই।

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

পুরো পোস্ট নীল কালিতে পড়তে খুবই কষ্ট হয়। রংয়ের ব্যবহারে যত্ন নিতে হয়। যাদের জন্য তৈরী তারা পড়তে/দেখতে/ব্যবহার করতে পারবে কিনা, সেটা বোঝা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

সহজবোধ্য সুন্দর পোস্ট। এরকম আরো পোস্ট করার জন্য উৎসাহিত করছি।

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

তপু লিখেছেন:

টিপস নিয়ে বলার কিছু নাই। ঝাক্কাস হয়েছে।
তবে রঙের ব্যাখ্যা নিয়ে কিছু কথা আছে।
নীলঃ এটা কিন্ত বেদনার রঙ হিসাবে সর্বাধিক পরিচিত।
সাদাঃ এটা মোটেও নীরিহ টাইপের রঙ নয়। এটা শান্তির রঙ বা প্রতীক হিসাবে বহুল পরিচিত।
কালোঃ বস্তুত এটা কোন রঙ নয়। বরং কোথায় কোন রং না থাকলেই সেটা কালো হয়।

আপনাদের সাথে তর্ক করব না। নীল বেদনার রং হিসেবে সর্বাধিক পরিচিত হলেও আমি মূলত ডিজাইনে নীল রং কিভাবে ব্যবহার করলে সবচেয়ে ভালো হয় সে ব্যাপারে আলোচনা করেছি। তাছাড়া সংক্ষিপ্ত বর্ননায় আর কি বলা যেত? সাদা তো একেবারেই নিরীহ এবং সিম্পল টাইপের রং। হ্যা, শান্তি লিখতে গিয়ে আমি শক্তি লিখে ফেলেছি। ভুলের জন্য দুঃখিত। আর কালোর ব্যাপারে আপনি যেটা বলেছেন সেটা প্রাকৃতিক না কি আধ্যাত্মিক কি একটা আছে না, ওটার ক্ষেত্রে হয়ত ঠিক। গ্রাফিক্সের জগতে কালো একটি রং তো বটেই, অত্যন্ত গুরুত্তপূর্ন রংও বটে।

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

পুরো পোস্ট নীল কালিতে পড়তে খুবই কষ্ট হয়। রংয়ের ব্যবহারে যত্ন নিতে হয়। যাদের জন্য তৈরী তারা পড়তে/দেখতে/ব্যবহার করতে পারবে কিনা, সেটা বোঝা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

নীল কালিতে পড়তে তো সমস্যা হওয়ার কথা না। ফন্টের আকার এত ছোট যে নীল আর কালো-র মধ্যে তেমন কোন পার্থক্য নেই। হলুদ বা উজ্জল কোন রং হলে সমস্যা হত।

Flickr     500px    Facebook     SRS    Twitter

শিমুল১৩'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

শিমুল১৩ লিখেছেন:

আর কালোর ব্যাপারে আপনি যেটা বলেছেন সেটা প্রাকৃতিক না কি আধ্যাত্মিক কি একটা আছে না, ওটার ক্ষেত্রে হয়ত ঠিক। গ্রাফিক্সের জগতে কালো একটি রং তো বটেই, অত্যন্ত গুরুত্তপূর্ন রংও বটে।

RGB (Red, Green, Blue) কালার মোডে R=0, G=0, B=0 হলে যে রংটি হয় সেটি হলো "কালো"। তপু ভাই হয়তো তাই বোঝাতে চেয়েছেন।

তবে, CMYK (Cyan, Magenta, Yellow, BlacK) কালার মোডে Black = 100 এবং বাকীগুলো প্রত্যেকটির মান 0 হলে লব্ধ রংটি হবে "কালো"।

নাকি ভুল বললাম?

১০

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

জেলাল লিখেছেন:
শিমুল১৩ লিখেছেন:

আর কালোর ব্যাপারে আপনি যেটা বলেছেন সেটা প্রাকৃতিক না কি আধ্যাত্মিক কি একটা আছে না, ওটার ক্ষেত্রে হয়ত ঠিক। গ্রাফিক্সের জগতে কালো একটি রং তো বটেই, অত্যন্ত গুরুত্তপূর্ন রংও বটে।

RGB (Red, Green, Blue) কালার মোডে R=0, G=0, B=0 হলে যে রংটি হয় সেটি হলো "কালো"। তপু ভাই হয়তো তাই বোঝাতে চেয়েছেন।

তবে, CMYK (Cyan, Magenta, Yellow, BlacK) কালার মোডে Black = 100 এবং বাকীগুলো প্রত্যেকটির মান 0 হলে লব্ধ রংটি হবে "কালো"।

নাকি ভুল বললাম?

না, আপনি ঠিকই বলেছেন। ধন্যবাদ।

দক্ষিণের-মাহবুব লিখেছেন:

বিশাল টপিকের জন্য ধন্যবাদ। clap
সাথে একটা পেলুসও  tongue

ধন্যবাদ, মাহবুব ভাই।

মিলন লিখেছেন:

অসাধারন বিশ্লেষন।

ধন্যবাদ।

সাদাত হাসান লিখেছেন:

ভাল একটা টিউটোরিয়াল। আমার কাজে আসবে।

ধন্যবাদ, আমার পরিশ্রম তাহলে সার্থক হল।

উদাসীন লিখেছেন:

সহজবোধ্য সুন্দর পোস্ট। এরকম আরো পোস্ট করার জন্য উৎসাহিত করছি।

ধন্যবাদ ভাইয়া আমাকে সাপোর্ট দেওয়ার জন্য। আশা করছি সামনে আরো ভালো পোস্ট উপহার দিতে পারবো।

Flickr     500px    Facebook     SRS    Twitter

শিমুল১৩'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

১১

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

চমৎকার পরিশ্রমী পোস্ট।  thumbs_up

তবে স্বপ্নচারী ভাইয়ের মত আমারও লেখার রংটা কালো হলে আরামদায়ক বোধ হত। এই ব্যাপারটা আবার ফোরামের থিমের সাথে সম্পর্কযুক্ত। আমার মন্তব্যটা অক্সিজেন থিমের জন্য বলা।

রং সম্পর্কে আমিও প্রজন্মে একখান খটমটে পোস্ট করেছিলাম।

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১২ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন জেলাল (১২-১১-২০০৯ ২০:২৩)

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

তপু লিখেছেন:

কালোঃ বস্তুত এটা কোন রঙ নয়। বরং কোথায় কোন রং না থাকলেই সেটা কালো হয়।

Abstract লেভেলে RGB (Red, Green, Blue) কালার স্পেসের ক্ষেত্রে এই কথাটি ঠিক। আবার যেমন Red=০, Green=০, Blue=০ হলে প্রাপ্ত রংটি হবে কালো; তেমনি Red=২৫৫, Green=২৫৫, Blue=২৫৫ হলে প্রাপ্ত রংটি হবে "সাদা"। অর্থাৎ এই ক্ষেত্রেও "সাদা" নিজে কোন মৌলিক রং নয়।

তবে মৌলিক হোক আর যৌগিক হোক এই কালো ও সাদা কিন্তু থ্রি-ডি টেকনোলজিতে যথাক্রমে স্বচ্ছতা ও অস্বচ্ছতা নির্ধারণ করার জন্য ব্যবহৃত হয়; কিংবা ভিডি এডিটিং (যেমন- এডোবি প্রিমিয়ার) বা পোস্ট পোডাকশন (যেমন- এডোবি আফটার ইফেক্ট্‌স) টেকনোলজীতে Keying বা Matting এর ক্ষেত্রে এই ২টি রং গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। অবশ্য ভিডি এডিটিং এর ক্ষেত্রে সাধারণভাবে "সবুজ" কালারকে Key-out করা জনপ্রিয় প্রায়োগিক উদাহরণ।

আর থ্রি-ডি টেকনোলজীতে (যেমন- আর্কিটেকচারাল ভিজুয়ালাইজেশনে গাছ বুঝানোর জন্য ফেইক থ্রি-ডি গাছ এর ব্যবহার এর ক্ষেত্রে) ম্যাটেরিয়ালের Transparency/Opacity কে define করার জন্য কালো/সাদা রং এর বিকল্প নেই। যেমন- ধরুন, নিচের গাছটি থ্রি-ডি তে মডেল করা একটি আর্কিটেকচারাল দৃশ্যে সেট করতে চাই:

http://cgwebsoft.com/tree_diffuse.jpg

তাহলে একটি ফ্ল্যাট প্যানেল ("Plain" or "Grid" primitive object বলা হয় থ্রি-ডি সফটওয়্যারে যা গাছটির প্রতিনিধিত্ব করবে) এ যে মেটেরিয়ালটি এসাইন করতে হবে তার Opacity ইমেইজ হিসেবে ব্যবহার করতে হবে নিচের ছবিটি:

http://cgwebsoft.com/tree_opacity.jpg

ফলাফল দাঁড়াবে অনেকটা এইরকম:

http://cgwebsoft.com/tree_scene.jpg

কিছুটা হলেও আমার পোস্টের উপরোক্ত অংশটা খানিকটা অফটপিক হয়েছে হয়তো। এজন্য দুঃখিত।

শিমুল১৩ লিখেছেন:

নীল একটি ঠান্ডা রং। সাধারনত শান্তি, স্নিগ্ধতা, আবেগ-অনুভূতি, সম্প্রীতি, কোমলতা ইত্যাদি বুঝাতে নীল রং ব্যবহার করা হয়। খুব সিম্পল টাইপের ডিজাইনে নীল রঙের ব্যবহার বেশি হলেও অ্যাবস্ট্রাক্ট টাইপের ডিজাইনে স্পিড আনতে নীল রঙের জুড়ি নেই। নীলের সাথে সাদা, কালো বা গ্রে ভালো মানায়। ঠিক তেমনি গোধূলির মত কমলা বা গোলাপী রং নীলের সাথে ব্যবহার করলে ফলাফল তেমন একটা ভালো হয়না।

চমৎকার বলেছেন। বিভিন্ন লোগো বা থিম ব্যাকগ্রাউন্ড ডিজাইনের ক্ষেত্রেও এই ব্যাপারগুলো বিবেচনায় আনা হয়। কালারের শীতলতা বা উষ্ণতা বোঝানোর ক্ষেত্রে নিচের ছবিটি প্রণিধানযোগ্য:

http://www.colorguides.net/images/color_wheel.gif

১৩ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন স্বপ্নীল (১২-১১-২০০৯ ২০:১৯)

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

শামীম লিখেছেন:

তবে স্বপ্নচারী ভাইয়ের মত আমারও লেখার রংটা কালো হলে আরামদায়ক বোধ হত। এই ব্যাপারটা আবার ফোরামের থিমের সাথে সম্পর্কযুক্ত।

পুরোপুরি একমত।

১৪

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

শিমুল ভাই এবং সবাইকে ধন্যবাদ, সবার আলোচনা থেকে অনেক কিছু শেখা গেল.....

চলো আমারা মোমবাতির মত বাঁচি, নিজে জ্বলে কিন্তু অন্যকে আলো দিয়ে।

১৫

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

ভাল পোস্ট.. clap

১৬

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

শামীম লিখেছেন:

চমৎকার পরিশ্রমী পোস্ট।  thumbs_up

তবে স্বপ্নচারী ভাইয়ের মত আমারও লেখার রংটা কালো হলে আরামদায়ক বোধ হত। এই ব্যাপারটা আবার ফোরামের থিমের সাথে সম্পর্কযুক্ত। আমার মন্তব্যটা অক্সিজেন থিমের জন্য বলা।

রং সম্পর্কে আমিও প্রজন্মে একখান খটমটে পোস্ট করেছিলাম।

ধন্যবাদ শামীম ভাই। আসলে আমি খেয়াল করে দেখলাম, টিউটোরিয়াল টা অনেক বড়, সেকারনে নীল রঙে পড়তে কষ্ট হচ্ছে। ৪/৫ লাইনের লেখা হলে তেমন কোন সমস্যা হত না। এব্যাপারটা আসলে খেয়াল করা উচিত ছিল।

জেলাল লিখেছেন:
তপু লিখেছেন:

কালোঃ বস্তুত এটা কোন রঙ নয়। বরং কোথায় কোন রং না থাকলেই সেটা কালো হয়।

Abstract লেভেলে RGB (Red, Green, Blue) কালার স্পেসের ক্ষেত্রে এই কথাটি ঠিক। আবার যেমন Red=০, Green=০, Blue=০ হলে প্রাপ্ত রংটি হবে কালো; ....................... .......................................... ................বিভিন্ন লোগো বা থিম ব্যাকগ্রাউন্ড ডিজাইনের ক্ষেত্রেও এই ব্যাপারগুলো বিবেচনায় আনা হয়। কালারের শীতলতা বা উষ্ণতা বোঝানোর ক্ষেত্রে নিচের ছবিটি প্রণিধানযোগ্য:

http://www.colorguides.net/images/color_wheel.gif

ধন্যবাদ জেলাল ভাই, আপনার কাছ থেকেও কিছু জানা হল।

স্বপ্নীল লিখেছেন:
শামীম লিখেছেন:

তবে স্বপ্নচারী ভাইয়ের মত আমারও লেখার রংটা কালো হলে আরামদায়ক বোধ হত। এই ব্যাপারটা আবার ফোরামের থিমের সাথে সম্পর্কযুক্ত।

পুরোপুরি একমত।

ধন্যবাদ।

smamdad লিখেছেন:

শিমুল ভাই এবং সবাইকে ধন্যবাদ, সবার আলোচনা থেকে অনেক কিছু শেখা গেল.....

ধন্যবাদ ভাই, ভালো থাকবেন।

সেলিম রাজ লিখেছেন:

ভাল পোস্ট.. clap

আপনাকেও ধন্যবাদ।

আচ্ছা, আমাদের দেশী মডেল তিশার ছবি ব্যবহার করে আমি একটা টিউট লিখেছি। সেটা কি প্রজন্মে পোস্ট করা যাবে?

Flickr     500px    Facebook     SRS    Twitter

শিমুল১৩'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

১৭

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

শিমুল১৩ লিখেছেন:

আচ্ছা, আমাদের দেশী মডেল তিশার ছবি ব্যবহার করে আমি একটা টিউট লিখেছি। সেটা কি প্রজন্মে পোস্ট করা যাবে?

শিমুল ভাই, এ ক্ষেত্রে মনে হয় তিশার একটা অনুমতি লাগতে পারে। কপিরাইটের ব্যাপার আছেতো। তার অনুমতিপত্রকে "মডেল রিলিজ" হিসেবে প্রজন্ম ফোরামের এডমিনিস্ট্রেটর এর কাছে সাবমিট করতে পারেন।

এটা জাস্ট আমার ব্যক্তিগত মতামত।

১৮

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

জেলাল লিখেছেন:
শিমুল১৩ লিখেছেন:

আচ্ছা, আমাদের দেশী মডেল তিশার ছবি ব্যবহার করে আমি একটা টিউট লিখেছি। সেটা কি প্রজন্মে পোস্ট করা যাবে?

শিমুল ভাই, এ ক্ষেত্রে মনে হয় তিশার একটা অনুমতি লাগতে পারে। কপিরাইটের ব্যাপার আছেতো। তার অনুমতিপত্রকে "মডেল রিলিজ" হিসেবে প্রজন্ম ফোরামের এডমিনিস্ট্রেটর এর কাছে সাবমিট করতে পারেন।

এটা জাস্ট আমার ব্যক্তিগত মতামত।

আমার মতে পোস্ট করা যেতেই পারে। একটা ছবিতে আর কিইবা হবে।

১৯

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

আমার প্রশ্নটার উত্তর আমি এডমিন কিংবা মডুদের কাছে জানতে চাচ্ছি।

Flickr     500px    Facebook     SRS    Twitter

শিমুল১৩'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

২০

Re: গ্রাফিক্সের মোস্ট ওয়ান্টেড টিপস (রঙের ভাষা)

প্রথমে ধন্যবাদ শিমুল ১৩ ভাইকে। তারপর আলোচক-সমালোচক ভাইদের যাদের অংশ গ্রহণে গ্রাফিক্স এর অত্যন্ত গুরুত্বপূণর্ বিষয় রং এর বিভিন্ন দিক অত্যন্ত সুন্দরভাবে ফুটে উঠেছে এই পোস্টে।