২১ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন রাশ (১৯-০২-২০০৯ ১৪:০৩)

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

tridib লিখেছেন:

যেই ডারউইনের বিবর্তনবাদ নি্যে এতো কথা সেই মতবাদ কি সবাই গ্রহন করেছে ?
   অবশ্যই না ।

      আপনারা কি জাকির নায়েকের ভিডিওটা দেখেছেন? নাকি না দেখেই মাতামাতি!!
অখানে তো স্পস্টই বলা হয়েছে যে এই মতবাদ কে কে গ্রহন করেনি এবং কেন করেনি ।যেখানে এক টা
মতবাদ নিয়েই এত বিভক্তি সেখানে এম্নিতেই এটার ওয়েট অনেক কমে যায়,
       আপনারা কি সবাই ধরেই নিচ্ছেন ডারউইনের বিবর্তনবাদ ১০০% সঠিক? তাহলে তো বলতে হয় আপনারা ডারউইনের বস, কারন তিনি নিজেও এটাকে ১০০% ঠিক বলেন নি।
  আর যদি মনে করেন ১০০% সঠিক না, তাহলে আপনাকে বলছি- যেই জিনিস ১০০% ঠিক না, সেটা নিয়ে ইসলামএ কোন মাথাব্যথা নেই ।

   আর আপনি যদি এরকম কোন বিভ্রান্তিকর জিনিশের সাথে ইসলাম কি বলেছে তার তুলনা করতে যান তাহলে সেটফ আপনার বোকামি অথবা কোন বেধর্মির(অমুস্লিম/নাস্তিক) কূটকৌশলে পা দেয়া ছাড়া আর কিছুই না ।

##জাকির নায়েক সম্বন্ধে শামীম ভাইসহ অনেকে বেশকিছু অপমানজনক কথা বলেছেন, জানি না সেটা হয়তো তাকে ভালভাবে না জানার জন্য অথবা তাকে পছন্দ না করার জন্য(যদিও সেটা ঠিক হয়নি),
আমি জানি না তার মত কয়জন স্কলার আমরা পেয়েছি?

thumbs_upthumbs_up(y)


আরে ডারউহনের দেশের লোকেরাই তো ৬০% তত্বটা বিশ্বাস করে না । এই তত্ব যেদিন থেকে প্রকাশ হইছে সেদিন থেকেই এটার পেছনে বিতর্ক , বিশ্বাস , অবিশ্বাস লেগেই আছে। তো একটা মতবাদ ২০০/২৫০ বছরেও ইস্টাবলিশ হতে পারেনি তাইলে এটা নিয়ে হুদাই টানাটানির কি মানে আছে?   

শামীম লিখেছেন:

প্রমাণের কথা বললেন ... এ পর্যন্ত যত ফসিল পাওয়া গেছে তাতে কিন্তু উল্টা কথাই বলে। কোরআন সম্পর্কে অত দক্ষ নই ... তবে সেখানে ৬০ হাত / ৯০ হাত লম্বা লোকের কথা বলা আছে যা শাব্দিকভাবে পুরাপুরিই ভুল (মানুষ ইতিপূর্বে আরোও খাটো ছিল) ... তবে দার্শনিক অর্থে সেগুলো খুবই সুগভীর অর্থ (সত্য) বহন করে।

আমি ঠিক জানিনা। ঢাকা মিউজিয়ামে মোঘলদের আমলের ব্যাবহারের জিনিসপত্র, অস্ত্র যেমন, মাথায় পরে যুদ্ধ করে ওটারে কি বলে? হেলমেট, বর্শা, তলোয়ার, ঢাল, ইত্যাদি দেখে মনে করছিলাম সে আমলের লোকজন দৈত্যের মতো বিশাল ছিল।:-?

আসল ঘটনা কি ..........শামীম ভাই যদি একটু বুঝিয়ে বলতেন............:)

I am not far, but alone. Like a pair of rail tracks in winter morning.............

২২ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন invarbrass (১৯-০২-২০০৯ ১৪:২৯)

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

সচলের পোস্টটা পড়লাম। মজার ব্যাপার, পুরো ব্যাপারটিই অন্য এক ইংরেজী ইসলামিক ফোরামে কিছুদিন আগে পোস্ট করা হয়েছিলো, সচলের পোস্টটি সেই মূল ইংরেজী আর্টিক্ল-এর বাংলা অনুবাদ বৈ আর কিছু নয়। এটা পোস্টার নিজেই স্বীকার করেছেন।

যাই হোক, পুরো পোস্টটিই ভিত্তি করা হয়েছে বক্তৃতার ট্রান্সক্রিপ্ট-এর উপর, যাতে অসংখ্য ভুল আছে। তবে আমার মনে প্রশ্ন জেগেছে, ট্রান্সক্রিপ্টটা আসলে কার দ্বারা লিখিত? জাকির নাইকের মত ব্যস্ত টিভি ইভাঞ্জেলিস্ট-এর পক্ষে নিশ্চই বসে বসে দুই ঘন্টা ধরে নিজের দেয়া ট্রান্সক্রিপ্ট টাইপ করার সময় নেই, এটা আন্দাজ জন্য রকেট সাইন্টিস্ট হতে হয় না। অতএব, মোটামুটি নিশ্চিতভাবে ধরে নেয়া ট্রান্সক্রিপ্টটা ডঃ নাইকের কোন কর্মচারী বা ভক্তের কাজ। এমবিবিএস সার্টিফাইড ডঃ জাকির নাইকের বিদ্যা আর স্বল্প-শিক্ষিত কর্মচারীর বিদ্যা নিশ্চয়ই সমান স্তরের হবেনা? ট্রান্সক্রিপ্ট-এর নামধাম/বানানগুলো প্রায় ৯৫%-ই ভুল - এটাতো যিনি ট্রান্সক্রিপ্ট টাইপ করেছেন তাঁরই কির্তী বলেই ধারণা হয়।

একবার চিন্তা করুন, যিনি ফটাফট মুখে খই ফোটার মত বিবর্তনের বিপক্ষে একের পর এক রেফারেন্স, কাউন্টার-যুক্তি ছুঁড়ছেন, তাঁর এই ব্যাপারে সামান্য জ্ঞান তো নিশ্চয়ই আছে। কিছু না হলেও এই ব্যাপারে জাকির নাইকের একটু আধটু পড়াশোনা তো আছেই। আমার প্রশ্ন হল, যিনি বিবর্তন সম্পর্কে এত কিছু জানেন যে পুরো সিস্টেমটিকেই রিজেক্ট করছেন (কোন ধারণা গ্রহণ করতে যতটুকু জ্ঞান লাগে, তা প্রত্যাখ্যান করতে তার চেয়েও বেশী জানতে হয়), এহেন ব্যক্তির পক্ষে কি এক নাগাড়ে ২৫-৩০টা ভুল নাম, রেফারেন্স দেয়া সম্ভব? আপনার সাধারণ বিবেচনা কি বলে? আজকাল স্কুলের বাচ্চা ছেলেও মেন্ডেল, ডারউইন, এইচএমএস বীগল, গালাপাগোস, ইগুয়ানা এই সবের নাম জানে। কাজেই বিবর্তন সম্পর্কে দীর্ঘ ট্রান্সক্রিপ্ট-এ যদি দেখি যে গ্যালাপাগোসের মত বিখ্যাত নাম বিকৃত হয়ে ক্যাল্ট্রোপিস হয়ে গেছে, তবে সেটা জাকির নাইকের কির্তী মনে করে নিলে নিজের আইকিউ-কেই অপমান করা হয়। দুঃখজনকভাবে গতকালই ইন্টারনেট স্পীড কচ্ছপ গতির হয়ে গেছে, না হলে ইউটিউবের মূল ফুটেজটা দেখে ভেরিফাই করতে চেয়েছিলাম। যাইহোক, ফিঞ্চ থেকে নীচ, গ্যালাপাগোস থেকে ক্যাল্ট্রোপিক এই ধরণের শব্দবিকৃতী দেখলে কমন সেন্সই জানিয়ে দেবে স্পীচ আর ট্রান্সক্রিপ্ট-এর রচয়িতা ভিন্ন ভিন্ন ব্যক্তি।

অতএব, ট্রান্সক্রিপ্ট-এ ২৮টা নাম ভুল দেয়া আছে, তার মানে জাকির নাইক ২৮টা মিথ্যা বলেছে - এই দাবীটা একটু বালখিল্য বলেই মনে হচ্ছে। আবার পোস্টার নিজেই স্বীকার করেছেন, ট্রান্সক্রিপ্ট-এ (ভুল বানানে) যে সব ব্যক্তির রেফারেন্স দেয়া আছে, তার বেশিরভাগই খুঁজে পাওয়া গেছে ইন্টার্নেট-এ। কিছু ঘটনার সত্যতাও পেয়েছেন নেট ঘেঁটে (যদিও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই জাকির নাঈক মূল ঘটনাকে বিকৃত করে উনার মত করে পরিবেশন করেছেন)।

এখন আসল প্রশ্ন হলো, জাকির নাঈক ডারউইনিজমের বিরুদ্ধে এত মাল মশলা কোথায় পেলেন? জ্বীনা, জাকির নাঈক নিজে অসংখ্য বই-পত্তর ঘাঁটাঘাঁটি করে যুক্তি খাড়া করেছেন, আমি তা মানতে আমি রাজি নই।

কারো কারো মনে থাকতে পারে, বছর ৪/৫ আগে ডিস্কভারী চ্যানেল-এ এভোল্যুশন নামে বিরাট এক সিরিজ দেখাতো। প্রায় ১ বছর চলেছিলো সিরিজটা, যদ্দুর মনে পড়ে বুধবার রাতে এপিসোডগুলো দেখানো হতো। (সিরিজটার প্রতি একরকম নেশাই জমে গেছিলো, বুধবার রাত সাড়ে ১০টা মানেই ডিস্কভারী চ্যানেল! lolroll) যাক, ওই সিরিজে একটা এপিসোড ছিলো - যার শিরোনাম "but... what about God?"। কেউ যদি ওই এপিসোডটা দেখে থাকেন, তবে জাকির নাঈকের বক্তব্যের সাথে অদ্ভূত মিল পাবেন।

জ্বী হ্যাঁ, আমি বলতে চাচ্ছি আজকে, জাকির নাঈক যে সব যুক্তি দিয়ে বিবর্তন মতবাদকে খন্ডন করে ইসলামীক মতবাদ প্রতিষ্ঠিত করতে চাচ্ছেন, সেই একই যুক্তি বহু বছর আগে থেকেই রাইট-উইং ক্রিশ্চিয়ান ইভাঞ্জেলিস্টরা ব্যবহার করে আসছেন তাঁদের মতবাদকে সঠিক প্রমাণিত করার জন! জাকির নাঈকের বক্তব্য নতুন কিছুই নয় - এ্যান্টি-এ্যাভুল্যুশন ক্রিশ্চিয়ান, যারা নিজেদেরকে "ক্রিয়েশনিস্ট" নামে ডাকেন, এরা বহু স্যূডো-সাইন্টিফিক যুক্তি খাড়া করেছে বিবর্তনবাদের বিরুদ্ধে। বিবর্তনবাদের পোস্টারবয় মরহুম ডারউইন সাহেবের পার্সোনাল লাইফ-ও এরা বিতর্কের বাইরে রাখেনি।

ডঃ জাকির নাঈক চতুর ব্যক্তি, উনি বিধর্মী নাসারাদের থেকে মাল মশল্লা গিলে স্টেজে বমি করে নিজের টিআরপি রেটিং বাড়াচ্ছেন।

শুধু জাকির নাঈকই নন, হারুণ ইয়াহিয়া নামক আরেক (সম্ভবতঃ টার্কিশ) ছাইন্টিশ ছাহেব আছেন, কয়েকশ ই-বুক লিখে ফেলেছেন ইতোমধ্যেই। ইনার মতবাদও হুবহু জাকির নাঈকের সাথে মিলে যায় (সেই সাথে ক্রিয়েশনিস্ট ক্রিশ্চিয়ানদেরও)। আমার তো মনে হয়, জাকির নাইক উনার বক্তৃতার মসলা সংগ্রহ করেছেন হারুণ ইয়াহিয়া চটি বই থেকে, যিনি আবার নাসারা ইভাঞ্জেলিস্টদের থেকে টুকলিফাইং করেছেন। অনেকটা আমাদের ঢালিঊড স্টাইল - হলিউডের ছবি নকল করে বলিউড, আবার বলিউডকে নকল করি আমরা - মাল্টিলেভেল চোথাফাইং! হেহে, আমাদের মেডিকেল কলেজে পরীক্ষার সময় মাঝে মাঝে সামনের বেঞ্চের থেকে দেখে লিখতো পেছনের বেঞ্চ-এর একজন, আবার তার থেকে দেখে লিখতো তারও পেছনের বেঞ্চের আরেকজন! big_smile

জাকির নাঈক যে সকল তথ্য প্রমাণ হাজির করিয়াছেন উনার বক্তৃতায়, সেই সকল তথ্যসমূহ বহু আগেই পরিবেশন করা হইয়াছে অন্যান্য ধর্মাবলম্বী কর্তৃক, এবং তাহা খন্ডিতও হইয়াছে বহুবার। একই খাসী বারংবার জবাই চলিতেছে।

অফটপিকঃ এই প্রসঙ্গে ডিস্কভারী চ্যানেলের ওই এপিসোডটির কথা বলার লোভ সামলাতে পারলামনা। ওটার কথা এখনও মনে আছে চরম ড্রামাটিক ওপেনিং সিকোয়েন্স-এর জন্য। প্রোগ্রামের একদম শুরু থেকেই আকর্ষণীয় ৩ডি এ্যানিমেশনের মাধ্যমে দেখাচ্ছিলো মহাবিশ্বের সৃষ্টি, ছবির সাথে এক মহিলা ভয়েস-ওভার বর্ণনা করছিলো বিলিয়ন বিলিয়ন বছর আগের সিঙ্গুলারিটি... বিগ ব্যাং... তারপর এক্সপ্যান্ডিং ইউনিভার্স... গ্রহ নক্ষত্রের সৃষ্টি... পৃথিবী... প্রাইমর্ডিয়াল স্যুপ... এ্যামাইনো এসিড-এর সৃষ্টি... প্রথম প্রাণের জন্ম... এক কোষী প্রাণি থেকে বহু কোষী প্রাণী... কোষ থেকে কলা... কলা থেকে তন্ত্র... জটিল প্রাণের সৃষ্টি... ডাইনোসর যুগ... আইস এজ... অবশেষে আধুনিক মানুষ...।  এতটুকু এসেই টিভিস্ক্রীণ টা কালো হয়ে গেলো, surprised তারপর মোটা মোটা সাদা অক্ষরে পর্দায় ভেসে উঠলো এপিসোডটার শিরোনামঃ
but....

what
about
God?

আহা, সংগ্রহে রাখার মত এক সিরিজ ছিলো বটে! clap আবার যদি রিপিট করতো সিরিজটা!:">

Calm... like a bomb.

২৩ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন হাঙ্গরিকোডার (১৯-০২-২০০৯ ২৩:২৭)

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

ভাস্কর১৬০ লিখেছেন:
আহমাদ মুজতবা লিখেছেন:

আজ পর্যন্ত যেখানে কেউই ভুল বের করতে পারলো না সেখানে আপনি সরাসরি ভুয়া বললেন। বাহ মহা আনন্দ পাইলাম lollol:lol::lol:

মুক্তমনাতে অনেক আর্টিকেল আছে যেখানে কোরানের বিভিন্ন আয়াতের সাথে বিজ্ঞানের অমিল দেখানো হয়েছে। বিশেষ করে অভিজিৎ রায়ের "বিজ্ঞানময় কিতাব" নামে একটা লেখা আছে। একটু পড়ে দেখবেন। শুধু কোরান পড়লে তো হবে না, অন্যান্য লেখাগুলোও পড়ুন।

ভাই কিছু অন্যধর্মের লোক আছে যারা চায় ভালো এবং মহৎ কিছুর ভুল বের করতে এদের জন্য কোরান চ্যালেন্জ স্বরূপ যদিও এরা কিছুই প্রতিষ্ঠিত ভাবে করতে পারছে না এবং পারবেও না এইসব লোকদের ভুল চিন্তা তাদের ব্লগ বা সাইট পর্যন্তই সীমাবদ্ধ কিন্তু যারা বুঝে এবং আসলেই মহান বিজ্ঞানী তাদের কথার সাথে কোরানের কথার অমিল হয় না। এইরকম অনেক প্রমাণ আপনি ঘাটলেই পাবেন। সুতরাং অবুঝদের কথায় কোরান বিচার করে মূর্খতার পরিচয় কেউ দিতে যাবেন না আশা করি। যারা কোরান সম্পর্কে জানে তাদের কথায় কিছু বলার থাকলে বলুন।

ভাই যেই লোকটা লিখছেন উনি জাকির নায়েকের ব্যাপারে কিছুই জানেন না মানে সচলায়তনের মি। শিক্ষানবিস। তার প্রথম কারণ উনি উনার লেখায় জাকির নায়েকের লেকচারের দর্শকদের কটাক্ষ করেছেন। জাকির নায়েকের অনেক ভিডিও আছে যেগুলা উনি বাইরের দেশে এম্রিকা ইউরোপে বসে করেছেন। সেইখানে আমার মনে হয় না আজে বাজে কোনো লোক এইরকম সেমিনার বা গঠনমূলক বক্তৃতা শুনার জন্য আসবেন। আরো মজার ব্যাপার মাঝে মাঝে উনার অনু্ষ্ঠানে প্রধান অতিথি করা হয় বিধর্মীদের মাঝে জ্ঞানী ব্যক্তিদেরই। এছাড়াও এইরকম বিশাল অনুষ্ঠানে কখনই এইসব আজে বাজে তথ্য বলে জাকির নায়েক পরিত্রান পেতেন না এতদিন এইসব চললে উনার লেকচার অনেক আগেই বন্ধ হয়ে যাবার কথা। যাই হোক উনি অনেক এপিসোডে বিধর্মীদের সাথে বিতর্ক করেছেন দয়া করে সেগুলা দেখুন তারপরে একটু কমেন্ট গুলা করুন।

ইনভার ভাইয়া thumbs_upthumbs_up(y)(y)(y)(y)

Rhythm - Motivation Myself Psychedelic Thoughts

লেখাটি CC by 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

২৪

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

আজকে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং-এর যুগেও যে বিবর্তনবাদ নিয়ে সন্দেহ থাকতে পারে, সেটা জেনেই আমি আশ্চর্য হলাম। চোখের সামনেই কত বিবর্তন দেখছি প্রতিনিয়ত। কত ধরণের ক্রস করছি এক প্রজাতির সাথে আরেক প্রজাতির। ক্লোনিং করা হচ্ছে এখানে সেখানে। তারপরও???

মেহেদী আকরাম, সূর্য পৃথিবীর চারিদিকে ঘোরে এটা বিজ্ঞান ছিল না। ওটা ছিল দর্শন। বিজ্ঞান প্রমাণ দিয়ে পৃথিবীকে সূর্যের চারিদিকে ঘুরিয়েছে। বরং যখন এসব প্রমাণ দেখিয়েছে বিজ্ঞান, তখন ধর্মপ্রাণরাই এর বিরোধিতা করেছে। প্রচুর বিজ্ঞানীকে ধার্মিকদের বিরোধিতার কারণে কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হয়েছে। তারপর সেটা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর সেই ধার্মিকরাই ধর্মগ্রন্থে এই আবিষ্কারের হিন্ট পেয়েছে।

২৫ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন শামীম (১৯-০২-২০০৯ ১৬:৫২)

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

@রাশ:
বুঝিয়ে লিখতে পারবো না ... দূঃখিত। কারণটা ব্যাখ্যা করার জন্য অন্যরকম একটা উদাহরণ দিচ্ছি, আশা করি বুঝতে পারবেন

আর্সেনিক দূরীকরণ প্রজেক্টের ফিল্ডে একজন ব্যবহারকারী বিভিন্ন রকম ভুল করেন। আমরা ভাবি, এই লোক কি বোকা! সুন্দর প্রশিক্ষণ দেয়ার পরও সে বেসিক ভুল করে।

কিন্তু আসল ব্যাপার হল, আমি ৪ বছর ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে, ২.৫ বছর এনভায়রনমেন্ট ল্যাবে গবেষণা সহকারী হিসেবে পূর্ণকালীন চাকুরী করে, মাস্টার্স করে, পিএইচডি করে যেই জিনিষ মুহুর্তে বুঝতে পারছি সেটা আরেকজনের পক্ষে আয়ত্ব করতে কিছুটা সময় তো লাগবেই। প্রতিনিয়ত লেগে থেকে যে জিনিষ শিখতে আমার ১০ বছর লেগেছে, এ্যাত সময় না লাগুক, ভাল আই.কিউ. এর জোরে হয়তো ৫ বছরেই বুঝতে পারবে -- এর কমে কোনক্রমেই নয়।

যদি কোন প্রজেক্টের পরিকল্পনাকারী ভাবেন, এটা একজন গ্রামের অর্ধশিক্ষিত ব্যবহারকারীকে দুইদিন/দুই সপ্তাহের প্রশিক্ষণ দিয়েই বুঝাতে পারবেন, তাহলে সেই পরিকল্পনাকারীর চিন্তাভাবনার গভীরতা নিয়ে সন্দেহ করা যেতে পারে।

ছোটকাল থেকে বিভিন্ন তরিকার মানুষের মধ্যে বড় হয়ে যে জিনিষ একটু একটু করে বুঝতে পেরেছি সেটা এক/দশ পোস্টে আপনাকে বুঝানোর মত করে লেখার ক্ষমতা আমার নাই। (লিনাক্স কিন্তু মাত্র আড়াই বছরের কম সময় ধরে চিনেছি; জন্ম থেকে নয় hehe)

বিবর্তনবাদ জন্ম থেকে জানিনা ... তারপরেও বিভিন্ন উৎস থেকে একটু একটু করে অনেক ঘন্টা ব্যয় করে জেনেছি।

@invarbrass
ঐ পোস্টে লেখক বলেছেন যে ইংরেজি লিখিত অংশটা উনি মূল বক্তব্য শুনে মিলিয়ে যাচাই করে তারপর নিয়েছেন। আপনার মনে হয় চোখ এড়িয়ে গেছে। এছাড়া যেহেতু ভিডিওটা আপনিও দেখে মিলাননি, কাজেই একই রকম সন্দেহ আপনার সন্দেহের উপরও পড়ে।

ডিস্কভারি চ্যানেলের ডকুমেন্টারি ভিডিওটা ঢাকার বাজারে পাওয়া যেতে পারে।

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

২৬

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

পোস্টি ছিল জাকির নায়েকের মিথ্যাচার কিন্তু ক্রমেই তা এন্টি ইসলামিক দিকে যাচ্ছে। এই পোস্টে তীব্র ভাষায় নিন্দা জানাই angry
ধর্ম হল সম্পূর্ণ trust এর বিষয় এখানে কোন প্রমান লাগে না।

২৭ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন কাউছার আহমেদ (১৯-০২-২০০৯ ১৮:৪২)

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

google লিখেছেন:

পোস্টি ছিল জাকির নায়েকের মিথ্যাচার কিন্তু ক্রমেই তা এন্টি ইসলামিক দিকে যাচ্ছে। এই পোস্টে তীব্র ভাষায় নিন্দা জানাই angry
ধর্ম হল সম্পূর্ণ trust এর বিষয় এখানে কোন প্রমান লাগে না।

ইসলাম ধর্ম শুধুই ট্রাস্টের বিষয় নয়, এটা সম্পূর্ণ প্রমানিত ও সত্য ধর্ম। এটি একটি পরিপূর্ণ জীবন বিধান।
আমি একটা ব্যাপার বুঝিনা, আপনারা কোরানের বিপরীতে এত বড় বড় কথা বলছেন কি করে? আপনারা কতটুকু জানেন? আপনাদের জ্ঞান কতটুকু? এতই যদি জ্ঞানী হয়ে থাকেন তবে বলেন তো একজন মৃত ও একজন জীবিত মানুষের মধ্যে কি এমন পার্থক্য যার জন্য একজনকে মৃত ও অন্যজনকে জীবিত বলা যায়??? আমি জানি পারবেন না, কারন আমাদের জ্ঞান সীমিত। আমরা আমাদের এই সীমিত জ্ঞান নিয়ে কতই না বড়াই করছি, আফসোস........
http://rds.yahoo.com/_ylt=A9G_bDlmU51JTdUAojejzbkF/SIG=12bfagbh2/EXP=1235133670/**http%3A//www.backtoislam.com/images/laillahaillaallah.jpg

২৮

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

এখানে কোরআনের বিরুদ্ধে কে কথা বললো? আর এসব ফালতু ছবি দিয়ে ইসলাম প্রমাণ করতে হবে নাকি? এরকম আরও প্রচুর ছবি আছে অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের জন্যও। সেগুলো কি প্রমাণ করে সেই ধর্মগুলো সঠিক?

আমরা যারা কোরআন নিয়ে এত কথা বলি, তারা শুধু বিশ্বাস থেকেই বলি। কোন প্রমাণ দিয়ে না। আপনি নিজে কি কোরআন বুঝে পড়েন? তাহলে প্রমাণ খোঁজেন কেন?

২৯

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

মেহেদী আকরাম লিখেছেন:

বিজ্ঞান সব সময় সত্য কথা বল না।
আগে বিজ্ঞান স্বীকৃতি দিয়েছিলো সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে। এটাই বহুকাল মানুষ বিশ্বাস করে এসেছে। কিন্তু সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে কথাটা বললে আপনি তাকে কি বলবেন? বিজ্ঞান তার পূর্বের প্রমাণকে মিথ্যা প্রমাণ করে নতুন তথ্য প্রমাণ দিয়েছে।

এর অর্থ বিজ্ঞানের তথ্য সবকিছুই প্রতিষ্ঠিত সত্য নয়।

আন্ডারলাইন করা অংশটুকু আসলে বিজ্ঞানের কথা না। এটা হল সেই সময়কার কথা। যখন প্রভাবশালী কিছু দার্শনিকরা যা বলত সাধারণ মানুষেরা তাই বিশ্বাস করত। যে বা যারা এটা বলেছিল তারা কোন প্রমান দেয় নি। তারা বিজ্ঞানী ছিল না। তারা ছিল দার্শনিক। তারা ভেবে চিন্তে বের করেছিল যে পৃথিবীর চারিদিকে সুর্য ঘোরে। আর যেহেতু তারা ছিল বেশ সম্মানী ও প্রভাবশালী ব্যক্তি, কেউ তাদের কথার বিপরীতে কিছু বলতে পারেনি। অনেকদিন পর একজন (জিয়োর্দানো ব্রুনো, ঠিক শিউর না) যখন বলল, তাকে আগুনে পুড়িয়ে মারা হল। সে শুধু উল্টো কথা বলেছিল। তাতেই এই পরিণতি। তাহলে কি কেউ অন্য কোন মতবাদ দেবার সাহস পাবে?? নিজের জানের মায়া সবারই আছে।

আলোর অনেকগুলো তত্ত্ব আছে। কনা তত্ত্ব, কোয়ান্টাম তত্ত্ব ইত্যাদি। ঐ তত্ত্বগুলো বিজ্ঞানীদের হলেও কোন প্রমান নেই (লেটেস্ট খবর জানিনা)।   আলোর বিভিন্ন রকম বৈশিষ্ট বিভিন্ন তত্ত্বকে সাপোর্ট করে।  এটাও হয়ত কোনএকদিন প্রমানিত হবে।  মানে কোন প্রমানিত সত্য বের হবে। তখন আর কেউ ঐসব তত্ত্বের কথা মনে রাখবে না।

ভাল কথা, ডারউইন  কি তার থিওরির(তত্ত্ব) কোন প্রমাণ দিয়েছিল??

Feed থেকে ফোরাম সিগনেচার, imgsign.com
ব্লগ: shiplu.mokadd.im
মুখে তুলে কেউ খাইয়ে দেবে না। নিজের হাতেই সেটা করতে হবে।

শিপলু'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

৩০ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন হাঙ্গরিকোডার (১৯-০২-২০০৯ ২৩:৩০)

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

রাশ লিখেছেন:
শামীম লিখেছেন:

প্রমাণের কথা বললেন ... এ পর্যন্ত যত ফসিল পাওয়া গেছে তাতে কিন্তু উল্টা কথাই বলে। কোরআন সম্পর্কে অত দক্ষ নই ... তবে সেখানে ৬০ হাত / ৯০ হাত লম্বা লোকের কথা বলা আছে যা শাব্দিকভাবে পুরাপুরিই ভুল (মানুষ ইতিপূর্বে আরোও খাটো ছিল) ... তবে দার্শনিক অর্থে সেগুলো খুবই সুগভীর অর্থ (সত্য) বহন করে।

আমি ঠিক জানিনা। ঢাকা মিউজিয়ামে মোঘলদের আমলের ব্যাবহারের জিনিসপত্র, অস্ত্র যেমন, মাথায় পরে যুদ্ধ করে ওটারে কি বলে? হেলমেট, বর্শা, তলোয়ার, ঢাল, ইত্যাদি দেখে মনে করছিলাম সে আমলের লোকজন দৈত্যের মতো বিশাল ছিল।:-? 
আসল ঘটনা কি ..........শামীম ভাই যদি একটু বুঝিয়ে বলতেন............:)

এটা আমিও জানতে আগ্রহী।

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

আজকে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং-এর যুগেও যে বিবর্তনবাদ নিয়ে সন্দেহ থাকতে পারে, সেটা জেনেই আমি আশ্চর্য হলাম। চোখের সামনেই কত বিবর্তন দেখছি প্রতিনিয়ত।

আপনার চোখের সামনে দেখা কিছু বিবর্তন বললে আমার জ্ঞানভান্ডার সমৃদ্ধ করতে পারতাম।

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

এখানে কোরআনের বিরুদ্ধে কে কথা বললো?

কোরআনের কোন কথা অস্বীকার করা মানে তো কোরআনের বিরূদ্ধে কথা বলা।তাই না?

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

আর এসব ফালতু ছবি দিয়ে ইসলাম প্রমাণ করতে হবে নাকি?

মানুষের অনুভূতিকে সম্মান করা উচিৎ।এটা আবেগ অনুভূতির ব্যাপার।অনেকে স্ত্রী বা প্রেমিকার ছবি পকেটে নিয়ে ঘুরে।কিন্তু এটা কি তার ভালোবাসার প্রমাণের জন্য অপরিহার্য্য?তাহলে সে কেন এটা করে?

৩১

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

স্পাইডারম্যান লিখেছেন:
স্বপ্নচারী লিখেছেন:

আজকে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং-এর যুগেও যে বিবর্তনবাদ নিয়ে সন্দেহ থাকতে পারে, সেটা জেনেই আমি আশ্চর্য হলাম। চোখের সামনেই কত বিবর্তন দেখছি প্রতিনিয়ত।

আপনার চোখের সামনে দেখা কিছু বিবর্তন বললে আমার জ্ঞানভান্ডার সমৃদ্ধ করতে পারতাম।

কেন, ক্রস-ব্রিডিং আর ক্লোনিং কি বিবর্তন নয়? সেটা কি বলিনি আগে? বিবর্তন মানে আজকের মুরগী থেকে কালকে ঈগল হয়ে যাওয়া নয়। বাজারের যে ব্রয়লার মুরগী খান, সেটাই বিবর্তন। একটা রূপ থেকে আরেকটা রূপে পরিবর্তিত হতে সময়ের প্রয়োজন হয়।

বিগ ব্যাং থিওরী গ্রহণ করে নিতে পারে সবাই। কিন্তু বানর থেকে মানুষ হওয়াটা গ্রহণ করতে পারে না। বিগ ব্যাং-ও বিবর্তনের একটা উদাহরণ।

স্পাইডারম্যান লিখেছেন:
স্বপ্নচারী লিখেছেন:

এখানে কোরআনের বিরুদ্ধে কে কথা বললো?

কোরআনের কোন কথা অস্বীকার করা মানে তো কোরআনের বিরূদ্ধে কথা বলা।তাই না?

কোরআনে কোথায় বলা আছে বিবর্তন হয় নাই কোথাও? কিছুদিন আগে এই ফোরামেই কথা হলো কোরআনে এম্বায়োটিক বিবরণ আছে বলে। ওটার সাথে বিবর্তনের সংঘর্ষটা কোথায়?

কোরআনে সব লেখা থাকলে বিজ্ঞানীদের কেন সব আবিষ্কার করতে হয়? কোরানের সহি-শুদ্ধ পন্ডিতরা কেন সেগুলো মানুষকে জানাতে পারে না? বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করলেই তারা কোরআনে সেটা পায়। শুধু আবিষ্কার না, যুগের পর যুগ ধরে সেটাকে প্রমাণ করতে হয়। শুধু পরীক্ষা দিয়ে না, অহেতুক বিতর্ক দিয়ে।

৩২

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

স্পাইডারম্যান লিখেছেন:

জাকির নায়েক সত্য মিথ্যা যাই বলুক বিবর্তনবাদ ভুল প্রমাণের জন্য কোরআন হাদিসের সুস্পষ্ট বর্ননা কি যথেষ্ট নয়?

বিবর্তনবাদ এখন সর্বজন স্বীকৃত । কোরআনে কি লিখা আছে, বাইবেলে কি আছে - তাতে কী আসে যায়?:-@

৩৩ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন হাঙ্গরিকোডার (১৯-০২-২০০৯ ২৩:২৪)

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

স্পাইডারম্যান লিখেছেন:
স্বপ্নচারী লিখেছেন:

আর এসব ফালতু ছবি দিয়ে ইসলাম প্রমাণ করতে হবে নাকি?

মানুষের অনুভূতিকে সম্মান করা উচিৎ।এটা আবেগ অনুভূতির ব্যাপার।অনেকে স্ত্রী বা প্রেমিকার ছবি পকেটে নিয়ে ঘুরে।কিন্তু এটা কি তার ভালোবাসার প্রমাণের জন্য অপরিহার্য্য?তাহলে সে কেন এটা করে?

ভাই এইধরণের ছবি যেমন নেট-এ পাওয়া যায়, তেমনি "ওই" ধরণের ছবিও পাওয়া অহরহ। গত সপ্তাহেই এক ফানী পিকচার্স টাইপের এক ব্লগে দেখলাম এক ছবি - প্রথম দর্শনে মনে হচ্ছিলো যীশু খ্রীষ্ট লম্বা আলখেল্লা হাত তুলে পরে দাঁড়িয়ে আছেন। আমি হয়তো ফটোটা ইগ্নোর করেই যেতাম, কিন্তু চোখে পড়লো ছবির ক্যাপশনে লেখা আছে "watch closely"। বাস্তবিকই তাই, খেয়াল করে দেখার পর বুঝলাম ওই ছবিটা আসলে এক কুকুরের পশ্চাদ্দেশের ফটো, লেজ তুলে বিশেষ জায়গার ছবি তুলেছে। কিন্তু প্রথম দেখায় সম্পূর্ণ অন্য জিনিস মনে হয়, ফোরামের অনেকেই হয়তো এই ধরণের ছবি দেখে থাকবেন।

জীসাস ক্রাইস্ট ভুয়া না জেনুইন সেটা এক ফালতু ফটো দিয়ে কি প্রমাণ হয়?

স্পাইডারম্যান লিখেছেন:
স্বপ্নচারী লিখেছেন:

আজকে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং-এর যুগেও যে বিবর্তনবাদ নিয়ে সন্দেহ থাকতে পারে, সেটা জেনেই আমি আশ্চর্য হলাম। চোখের সামনেই কত বিবর্তন দেখছি প্রতিনিয়ত।

আপনার চোখের সামনে দেখা কিছু বিবর্তন বললে আমার জ্ঞানভান্ডার সমৃদ্ধ করতে পারতাম।

HIV ভাইরাসের নাম শুনেছেন কখনো? নেট-এ একটু ঘেঁটে দেখুন তো, এই ভাইরাসের এ্যান্টিডোট বানাতে গিয়ে তিন/চার দশক ধরে দুনিয়ার তাবড়তাবড় ঝানু সাইন্টিস্টরা হিমশিম খেয়ে যাচ্ছেন কেন?

আপনি কি কখনো রিচার্ড ডকিন্সের নাম শুনেছেন? না শুনলে উনার লেখা "The Selfish" এবং "The God delusion" বই দু'টো একটু নেড়ে চেড়ে দেখতে পারেন, লোকাল ব্রিটিশ কাউন্সিলেই পেয়ে যাবেন। আর নেট-এও PDF পাবেন। (তবে ডকিন্স আমার পছন্দের লেখক নন। উনার সাইন্টিফিক তথ্যগুলো ইন্টারেস্টিং লাগে, কিন্তু তা করতে গিয়ে যেভাবে প্রচলিত ধর্মগুলোকে তুলোধুনা করেন তা সমর্থন করিনা।)

এই প্রসঙ্গে একটা মজার কথা মনে পড়লো, সম্ভবতঃ ইস্কুলে পড়েছিলাম। আমাদের ডঃ মুঃ শহীদুল্লাহ ভবিষ্যতবাণী করেছিলেন বহু দশক আগে, যে বিবর্তিত হতে হতে এক সময় মানুষের ফিজিক্যাল স্ট্রাকচারই চেঞ্জ হয়ে যাবে। তিনি মজা করে বলেছিলেন, আগামী বিশ্বে মস্তিষ্কের কাজ বেশি করবে মানুষ, আর শারিরীক পরিশ্রম কমে যাবে। ফলে একদিন দেখা যাবে মানুষের ব্রেইন ইয়া বড় হয়ে যাবে, আর হাতপা গুলো লিকলিকে দুর্বল হয়ে যাবে - অনেকটা মাকড়সার মত! big_smile


দশ বছর আগে বিবিসির খবরঃ http://news.bbc.co.uk/1/hi/sci/tech/262724.stm
দশ বছর পরে গার্ডিয়ান-এর খবরঃ http://www.guardian.co.uk/science/2007/ … matechange
গত বছর জাপানেঃ http://www.dailymail.co.uk/sciencetech/ … YEARS.html
২০০৩ঃ http://www.usatoday.com/news/science/20 … usat_x.htm

Calm... like a bomb.

৩৪

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

আমার মাথা তো আউলাইয়া গেল । এক জনে বলে বিবর্তন মিথ্যা আরক জনে বলে সত্যি তাহলে বিবর্তন সত্যি নাকি মিথ্যা নিচের লিঙ্ক গুলা পড়ে আমাকে কি একটু বুজয়ে বলবেন। বিশেষ করে যারা বিবর্তনে বিশ্বাসী তারা একটু কষ্ট করে নিচের লিঙ্কের লেখা গুলা পড়ে আমাদেরকে একটু বুজিয়ে দেন যারা বিবর্তনে বিশ্বাস করিনা।http://prothom-aloblog.com/users/base/serendipity/74
http://prothom-aloblog.com/users/base/serendipity/75
http://prothom-aloblog.com/users/base/serendipity/78
http://prothom-aloblog.com/users/base/serendipity/80
http://prothom-aloblog.com/users/base/serendipity/81

একটি শান্তিপূর্ণ পৃথিবী চাই
[img]http://farm4.static.flickr.com/3352/3314886460_16e219bded.jpg?v=0[/img]

৩৫

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

বাংলানতুন লিখেছেন:

আমার মাথা তো আউলাইয়া গেল । এক জনে বলে বিবর্তন মিথ্যা আরক জনে বলে সত্যি তাহলে বিবর্তন সত্যি নাকি মিথ্যা নিচের লিঙ্ক গুলা পড়ে আমাকে কি একটু বুজয়ে বলবেন। বিশেষ করে যারা বিবর্তনে বিশ্বাসী তারা একটু কষ্ট করে নিচের লিঙ্কের লেখা গুলা পড়ে আমাদেরকে একটু বুজিয়ে দেন যারা বিবর্তনে বিশ্বাস করিনা।

কোরআন হাদীস পড়েন, বিবর্তনবাদ না বুঝলেও চলবে।
এত বুইঝা কি লাভ?? big_smiletongue_smiletongue_smile
(মা খা এ ন)

৩৬

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

@ স্পাইডারম্যান
যদি ডারউইনের বিবর্তনবাদ ভুলেও যাই (কেননা এটা সময়সাপেক্ষ , কয়েক বছরের নয় কয়েক শতাব্দীর ব্যাপার) তাহলেও একবার নিজের দিকে তাকিয়ে দেখুন।
আমরা জন্মাই একরকমের স্বভাব নিয়ে (Dominance , Extroversion , Patience , Conformity etc.) , পারিপার্শ্বিকের চাপে ২০ বা ২৫ বছর পরে কি একিরকম থাকি? আমাদের স্বভাবের পরিবর্তন হয় না? এটাই তো বিবর্তন। এটা ছোট স্কেলে বললাম বড় স্কেলে এটাই ডারুইনের বিবর্তনবাদ । আর "Survival Of The Fittest " তো প্রতিদিন চোখের সামনে দেখতে পাচ্ছি।

৩৭

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

আড্ডা ক্রমশঃ গরম হয়ে উঠেছে, আসেন ভাই মাথাটা একটু ঠান্ডা করি।
চলেন দেখি...
জাকির নাইক বনাম সানিয়া মির্জা
পার্ট ওয়ানঃ
http://www.youtube.com/watch?v=EtE3uL9J0PA
big_smilebig_smile:D

Calm... like a bomb.

৩৮

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

কেন, ক্রস-ব্রিডিং আর ক্লোনিং কি বিবর্তন নয়? সেটা কি বলিনি আগে? বিবর্তন মানে আজকের মুরগী থেকে কালকে ঈগল হয়ে যাওয়া নয়। বাজারের যে ব্রয়লার মুরগী খান, সেটাই বিবর্তন। একটা রূপ থেকে আরেকটা রূপে পরিবর্তিত হতে সময়ের প্রয়োজন হয়।

আমাদের বিতর্ক আজকের মুরগী থেকে কালকের ঈগল হয়ে যাওয়া টাইপের বিবর্তন নিয়ে।এটাকে পাশে ঠেলে আলোচনা চালানোর কোন মানে হয় না।

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

কোরআনে কোথায় বলা আছে বিবর্তন হয় নাই কোথাও? কিছুদিন আগে এই ফোরামেই কথা হলো কোরআনে এম্বায়োটিক বিবরণ আছে বলে। ওটার সাথে বিবর্তনের সংঘর্ষটা কোথায়?

কোরআন হাদীসে পরিস্কারভাবে বলা আছে আল্লাহ আদম (আঃ) কে মানুষের আকৃতিতে সৃষ্টি করেছেন।তারপর তা থেকে আমাদের জন্ম হয়েছে।
আপনি কোরআনে ডারউইনের বিবর্তনবাদের স্বপক্ষে কিভাবে বা কোন সূরায় পেলেন?

স্বপ্নচারী লিখেছেন:

কোরআনে সব লেখা থাকলে বিজ্ঞানীদের কেন সব আবিষ্কার করতে হয়? কোরানের সহি-শুদ্ধ পন্ডিতরা কেন সেগুলো মানুষকে জানাতে পারে না?

কোরআনে বিজ্ঞানের সব বিস্তারিত নেই।হয়তো অনেক বিষয় আছে যেগুলো কোনভাবেই নেই।কিন্তু মানবসৃষ্টির ব্যাখ্যা কোরআনে পরিষ্কারভাবে আছে।

৩৯

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

টপিক আনসাবস্ক্রাইব করলাম।

৪০

Re: প্রসঙ্গ: জাকির নায়েকের মিথ্যাচার (ইসলাম বনাম বিবর্তনবাদের বিতর্কে পরিণত!)

harculis লিখেছেন:
স্পাইডারম্যান লিখেছেন:

জাকির নায়েক সত্য মিথ্যা যাই বলুক বিবর্তনবাদ ভুল প্রমাণের জন্য কোরআন হাদিসের সুস্পষ্ট বর্ননা কি যথেষ্ট নয়?

বিবর্তনবাদ এখন সর্বজন স্বীকৃত । কোরআনে কি লিখা আছে, বাইবেলে কি আছে - তাতে কী আসে যায়?:-@

আপনার কিছু না হলেও পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষের আসে যায়।

invarbrass লিখেছেন:

ভাই এইধরণের ছবি যেমন নেট-এ পাওয়া যায়, তেমনি "ওই" ধরণের ছবিও পাওয়া অহরহ। গত সপ্তাহেই এক ফানী পিকচার্স টাইপের এক ব্লগে দেখলাম এক ছবি - প্রথম দর্শনে মনে হচ্ছিলো যীশু খ্রীষ্ট লম্বা আলখেল্লা হাত তুলে পরে দাঁড়িয়ে আছেন। আমি হয়তো ফটোটা ইগ্নোর করেই যেতাম, কিন্তু চোখে পড়লো ছবির ক্যাপশনে লেখা আছে "watch closely"। বাস্তবিকই তাই, খেয়াল করে দেখার পর বুঝলাম ওই ছবিটা আসলে এক কুকুরের পশ্চাদ্দেশের ফটো, লেজ তুলে বিশেষ জায়গার ছবি তুলেছে। কিন্তু প্রথম দেখায় সম্পূর্ণ অন্য জিনিস মনে হয়, ফোরামের অনেকেই হয়তো এই ধরণের ছবি দেখে থাকবেন।

জীসাস ক্রাইস্ট ভুয়া না জেনুইন সেটা এক ফালতু ফটো দিয়ে কি প্রমাণ হয়?

আপনি আমার পোস্টের থীম বুঝতে পারেননি।বুঝতে না পারলে কয়েকবার পড়েন।তারপরও বুঝতে না পারলে চুপে চুপে বলি আমি কিন্তু ছবি দিয়ে প্রমাণের কথা বলিনি বরং ছবি দেওয়ার পেছনের আবেগের কথা বলেছি।