টপিকঃ কোন কোন কাজে মেয়েদের লজ্জা পাওয়া উচিত নয়?

নিজের প্রয়োজনে কাউকে মুখের উপর 'না' বলতে লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


পোশাক নির্বাচনে কখনোই লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।তা যতই ছোট এবং যতই আঁটোসাঁটো হোক না কেন।


খোলামেলা আলোচনা এবং খোলামেলা চলাফেরা করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় কখনোই লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


কারো প্রতি দুর্বলতা থাকলে কিংবা কারো প্রেমে পড়লে সেটি প্রকাশ করতে লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


রাত বারোটার পর,সন্ধ্যার পর অথবা যখন-তখন বাসা থেকে বের হতে লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


ডিভোর্স নিয়ে কখনো সংকোচ থাকা উচিত নয়।


নিজের শরীর নিয়ে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


অপরিচিত মানুষ অথবা পরপুরুষের সামনে দেখা দিতে লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


জৈবিক চাহিদা পূরণে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


নিজেকে কর্মক্ষেত্রে প্রবৃত্ত করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


স্বাধীনভাবে চলাফেরা করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


চোখে চোখ রেখে কথা বলতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


ভণ্ডদের মুখোশ উন্মোচিত করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


বিয়ের ক্ষেত্রে নিজের পছন্দের ব্যক্তিকে বিয়ে করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


অন্যের সাথে মজা নিতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


কখনো কখনো বেয়াদবি করতেও লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


ট্যাবু ও কুসংস্কার ভাঙতে এবং স্রোতের প্রতিকূলে চলতে লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


নিজের অধিকার আদায়ে কখনো কারো কাছে মাথা নত করা উচিত নয়।


নিজের বাকস্বাধীনতার জন্য লড়াই করতে কখনোই লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


ব্যাক্তিস্বাধীনতার চর্চা করতে কখনোই লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


নিজের পছন্দের পেশা নির্বাচন করতে এবং নিজের পছন্দমতো বিয়ে করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


নিজের স্বাধীন মতামত প্রকাশ করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


নিজের বয়স উন্মুক্ত করতে কখনো লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


টিকে থাকার জন্য ও লড়াই করার প্রয়োজনে যেকোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে কখনোই লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


নিজের জীবনকে উপভোগ করতে কখনোই লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


মোদ্দাকথা যার যার শরীরের নিয়ন্ত্রক সে নিজে,কাজেই শরীর সংক্রান্ত কোন অংশ নিয়ে কখনোই লজ্জা পাওয়া উচিত নয়।


#সংগৃহীত

"We want Justice for Adnan Tasin"