সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আউল (০৭-১০-২০২১ ১২:২৩)

টপিকঃ প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পরে বুঝতে পেরেছিলেন এমন কিছু জিনিস কী কী?

প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পরে বুঝতে পেরেছিলেন এমন কিছু জিনিস কী কী?
শেয়ার করুন ঃ

https://i.pinimg.com/originals/76/44/e1/7644e1659589d338c89931f58dfd0cf1.jpg

১. নিশ্চুপ থাকা ভালো। কখনো কখনো আপনি অনেক বেশি বর্ণনা করেন কিন্তু তা কোনো কাজেই আসেনা! আপনি যত বেশি ব্যাখ্যা করবেন তত বেশি লোক আপনাকে সন্দেহ করবে। মানুষ আজকাল অন্যের কাছ থেকে শুনতে পছন্দ করে না, তারা কেবল সেই উত্তরটিই শুনতে চায় যা তারা তাদের আশা করে।

২. সামাজিক মাধ্যমগুলো কোনো কাজের না। এই বিষয়টা অনুধাবন করার আগেই এইসব এপ থেকে নিজেকে বিরত রাখুন বা সীমিত ব্যবহার করুন।

৩. বন্ধুরা জরুরি নয়। তাদেরকে আপনার অগ্রাধিকার সূত্র বানাবেন না।

৪. আপনার মা ছাড়া কেউ বিশ্বাসযোগ্য নয়। আপনি আমার সাথে একমত হবেন তখন, যখন আপনি এমন কারো দ্বারা প্রতারিত হবেন যা আপনি ভাবেননি।

৫. একা থাকা অত্যধিক ভালো এবং অত্যন্ত চমৎকার। যখন আপনি একা কোনো কিছু খাবেন বা করবেন, তখন কেউ আপনার দিকে তাকাবে না। এটা শুধু আপনার নিজের ভ্রম।

৬. বন্ধু না থাকা আপনাকে দুঃখিত/প্রাণহীন/অদ্ভুত বানায় না, বরং বেশি বন্ধু থাকলেও আপনি একাকি বোধ করেন।

৭. পিতামাতাই আপনার একমাত্র সত্যিকারের প্রয়োজন।

৮. কেউ আপনাকে ভুল বুঝুক ঠিক আছে। আপনার কারও কাছে কোন ব্যাখ্যা দেয়ার নেই।

৯. কোনো কিছুই চিরস্থায়ী নয়, বিশেষত বন্ধুত্ব, সুতরাং দুঃখিত হওয়া যাবেনা।

১০. যদি তারা মূল্যহীন হয় তবে শুধু বন্ধু কেনো বেস্টফ্রেন্ডকেও হারানো ঠিক আছে।

১১. কথাগুলো নিজের মধ্যে রাখাই ভালো। সোশ্যাল মিডিয়াতে আমার কাজ জানানোর কোনো দরকার নেই। কারণ কেউ পরোয়া করেনা। আপনার কঠিন সময়ে কেউ আপনাকে সাহায্য করবে না, তারা শুধু কমেন্ট করবে "শক্ত হও" "তুমি এটা পারবে" অথবা শুধুই স্ক্রল করে চলে যাবে।

১২. কান্না আপনাকে অপরিপক্ক করে তোলে না।

১৩. লোকজন আপনাকে পছন্দ করবে বলে নিজেকে পরিবর্তন করার কোনো দরকার নেই। তারচেয়ে নিজের মতো হোন, লোকেরা আপনাকে এতেই পছন্দ করবে।

১৪. দামী বস্ত্র পরিধান করা আপনার যোগ্যতার প্রমান দেয় না।

১৫. মানুষের কথা নয় বরং আপনার মতামতই ব্যাখ্যা করে আপনি কে। তাদের মতামত সত্যিই কোনো বিষয় না, আপনার সম্পর্কে আপনার মতামতই সবচেয়ে বড় কথা।

১৬. তুলনা আপনাকে অনুপ্রাণিত করতে পারে না, এটি কেবল আপনাকে ঈর্ষান্বিত এবং হিংসুক করে তুলতে পারে। এছাড়া আর কিছু নয়। তাই তুলনা না করে নিজের কাজে মন দিন।

১৭. যদিও আপনি সঠিক তারপরও তর্ক করার চেয়ে ছেড়ে দেয়া ভালো। ওইসব নিম্নবুদ্ধি লোকের সাথে তর্ক করা আপনাকে শুধু নিচই করে তোলে। তর্ক থেকে সরে যাওয়া মানেই এই নয় যে আপনি ভুল।

১৮. অধিকাংশের প্রবণতাকে অনুসরণ করা আপনাকে সময়োপযোগী করেনা বরং আপনাকে "সাধারন" করে দেয়।

১৯. ভুল করলে ঠিক আছে। কেউই যথাযথ নয়, এবং ভুল এটা প্রমাণ করে না যে আপনি ব্যর্থ।

২০. আপনার যত কম থাকবে, আপনার জীবন ততই শান্তিময় এবং সুখের হবে।

২১. আপনি কোন পরিস্থিতিতে আছেন সেটা বড় কথা নয়, অন্তত কৃত্রিম হাসি দিন।


অনুবাদকঃ তানিয়া জান্নাত (Tania Jannat) - মূল লেখাঃ Celine Hely Anderson

#সংগৃহীত

"We want Justice for Adnan Tasin"