টপিকঃ এল ই ডি টিভি কেনার কথা ভাবছেন ? যে বিষয় গুলো যানা উচিত ।

https://pentanik.com/wp-content/uploads/2020/01/39-smart-pentanik-2.png
আমারদের হটাৎ টিভি কিনার প্রয়োজন হলে , অথবা বাসার টিভি টি পুরাতন মডেলের নস্ট হয়ে গিয়েছে, এখন নতুন এল ই ডি টিভি কিনার কথা ভাবছেন । ধরে নেন আপনি একটা টিভি কিনেই ফেলেছেন, কিন্তু বাসায় এসে দেখলেন এই টিভিটিতে ইন্টারনেট কনেক্ট করতে গিয়ে  অপশনটি নেই । তখন শো রুমে যোগাযোগ করে দেখলেন, আপনি যে টিভি টি ক্রয় করেছেন এই টিভি টি স্মার্ট টিভি না । তখন আপনার খুব খারাপ লাগবে এই ভেবে  যে, আপনি যদি টিভি কিনার আগে   এই বিষয়ে ধারনা নিতেন তাহলে এই সমস্যা’টি হতোনা অথবা আপনি আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হতেন না । তাহলে আসুন যেনে নেই স্মার্ট / ইন্টারনেট টিভি কি?

ইন্টারনেট টিভি কি?

সহজ কথায় বলতে গেলে ইন্টারনেট টিভি হচ্ছে এমন একটি টিভি যার মাধ্যমে আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন ঠিকই কিন্তু সেটা স্মার্টলি হ্যান্ডেল করতে পারবেন না। যেমন ধরেন আপনি একটা প্রয়োজনীয় সফটওয়ার ডউনলোড দিতে গেলে, সেটা আপনি এই টিভিতে  পারবেন না ।


স্মার্ট টিভি কি?

প্রযুক্তির পরিবর্তনের সাথে সাথে আমাদের টেকনোলজির পদ্ধতিও পরিবর্তিত হচ্ছে।স্মার্ট টিভি তারই একটি উদাহরণ। সাধারণভাবে, "স্মার্ট টিভি" দ্বারা এমন একটি টিভিকে বুঝায় যেখানে স্মার্ট অপারেটিং সিস্টেমসহ এপপ্স এবং ইন্টারনেটের সকল সুবিধা পাওয়া যাবে।

এখন প্রায় সব এক্সক্লুসিভ টিভি সিরিজ ওয়েব বেজড আর নেটফ্লিক্স, ইউটিউব এর মতো এপপ্সের জনপ্রিয়তা এখন কারোই অজানা নয়, যা স্মার্ট টিভিতে উপভোগ করা গেলেও অন্যান্য টিভিতে যায়না।



একটি নন স্মার্ট টিভিতে আপনি   ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন না । শুধুমাত্রই usb দিয়ে ভিডিও চালাতে পারবেন । HDMI  কেবল থাকলে CC ক্যামেরা ব্যাবহার করতে পারবেন । ডিশ লাইন দিয়ে টিভি চ্যানেল দেখতে পারবেন । সাধারণত আমারা নন স্মার্ট টিভি কে বেসিক টিভি বলে থাকি ।


বেসিক টিভি ও স্মার্ট টিভির মধ্যে পার্থক্য কি ?
স্মার্ট টিভির প্রসেসর বেসিক টিভি থেকে অনেক উন্নত হয় এবং এতে একটি অপারেটিং সিস্টেম থাকে। বর্তমান মার্কেটে সাধারণত অ্যান্ড্রয়েড (android), ওয়েব Os এবং লিনাক্স   অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্ট টিভি রয়েছে। বেশির ভাগ  স্মার্ট টিভিতে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়। স্মার্ট টিভি বলতে যে টেলিভিশন দিয়ে ইন্টারনেট চালানোর সুবিধা এবং এর মাধ্যমে বর্তমান সময়ের স্মার্ট ডিভাইসের সুবিধা পাওয়া যায় তাই বোঝায়। এতে ইন্টারনেটভিত্তিক বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের সুযোগ থাকে। স্কাইপে, টুইটার, ফেসবুক, ইউটিউব ব্যবহার করা যায়। স্মার্ট টিভিতে ওয়াই-ফাই বা ইন্টারনেট ব্রাউজ করার সুবিধা থাকে। কিন্তু বেসিক টিভি তে সেই সুবিধা গুলো থাকে না ।
যাঁরা নতুন করে টিভি কেনার কথা ভাববেন, আপনার বাসায় যদি ইন্টারনেট থাকে তাহলে  অবশই স্মার্ট টিভি কেনার কথা ভাবা উচিত।

স্মার্ট টিভি কেনার আগে আরও দেখে নিতে হবে এতে ইউএসবি পোর্ট সুবিধা আছে কি না। স্মার্ট টিভি কেনার আগে তা পোর্টেবল হার্ডডিস্ক বা কোন ধরনের ডিজিটাল ফরম্যাট সমর্থন করে, তা অবশ্যই যাচাই করে নিতে হবে। স্মার্ট টিভিতে  এইচডিএমআই পোর্ট আছে কি না, তা পরীক্ষা করে দেখুন। কমপক্ষে দুটি এইচডিএমআই পোর্ট না থাকলে সেই টিভি কেনা উচিত হবে না। স্মার্ট টিভি কেনার আগে তাতে viewing angle,  sound  এর মান কেমন তা যাচাই করে কেনা উচিত। বর্তমান বাজারে অনেক ধরনের ও বিভিন্ন ব্রান্ডের  টিভি পাওয়া যায় ।

বাজারে বিভিন্ন মাপের স্মার্ট টিভি পাবেন। তবে তা কেনার আগে আপনার প্রয়োজন ও রুমের পরিধির কথা চিন্তা করে কিনতে হবে। যদি টিভি থেকে বসে দেখার দূরত্ব আট ফুট হয় তবে টেলিভিশনের মাপ হতে হবে ৩২ ইঞ্চি থেকে সর্বোচ্চ ৫৫ ইঞ্চি আর যদি ১০ ফুট বা তার অধিক হয় তবে ৫৫-৬৫ ইঞ্চি টিভি কিনতে পারেন ।তবে টিভি যত বড় হবে দেখার জন্য তত ভাল ।
টিভির রেজুলেশন কেমন দেখে কিনবেন ?
টিভির রেজুলেশন কেমন দেখে কিনবেন তার আগে যেনে নেওয়া উচিত বাজারে কি রেজুলেশন এর টিভি পাওয়া যায় । চলুন যেনে নেয়া যাক
HD (720x1366p)
Full HD (1080x1920p)
4k (2160x3840p) ইত্যাদি ।
৩২ ইঞ্চি টিভির ক্ষেত্রে এইচ ডি হলেই চলে আর যদি ৪০ ইঞ্চি এর উপরে টিভি কিনতে চান তাহলে কমপক্ষে ফুল এইচ ডি রেজুলেশন এর টিভি দেখে কেনা উচিত। ৫৫ ইঞ্চি
এর উপরে টিভি কিনতে হলে অবশ্যই  4k  ২১৬০x৩৮৪০ পিক্সেল এর টিভি দেখে কেনা উচিত ।

তবে বলা হয়, টিভি যত বড় হয় দেখতে তত সুবিধা। এ সূত্র অনুযায়ী বাজেটের মধ্যে এ মাপের যেকোনো মডেল কিনতে পারেন। আপনার বাজেটের ওপর নির্ভর করে, আপনি এর মধ্যে কোন সাইজের টিভি কিনবেন। একটি পরিপূর্ণ স্মার্ট টিভিতে ইন্টারনেট কানেক্টিভিটিতে কেবল ও ওয়াই-ফাই উভয়ই থাকতে হবে। নেট ব্রাউজিং সুবিধা থাকতে হবে। অ্যাপস ইনস্টল সুবিধা থাকতে হবে। স্ক্রিন শেয়ারিং সুবিধা থাকতে হবে। কিছু জনপ্রিয় অ্যাপ বিল্টইন থাকতে হবে।এর স্মার্ট ফিচারগুলো ভালো করে দেখে নেওয়া উচিত। বিশেষ করে টিভিটি কতটা র্যা ম এবং রম কত জিবি, কী প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে ইত্যাদি দেখতে হবে।
কোন ব্র্যান্ডের টিভি কিনবেন ?
ইন্টারনেট সুবিধাযুক্ত টিভিতে ভিডিও দেখার সুবিধা থাকায় অনেকেই এ টিভি কিনছেন। তবে এ টিভি কেনার আগে জেনে বুঝে, মান দেখে কেনা উচিত। বাজারে অনেক ব্র্যান্ডের টিভি পাওয়া যায় । আপনি কোন ব্রান্ড এর টিভি কিনবেন তা আপনাকেই ঠিক করতে হবে । তবে এই ক্ষেত্রে আপনার বাজেট খুব গুরুত্বপূর্ণ  । আপনার বাজেট যদি সল্প থাকে তাহলে আপনার জন্য পেন্টানিক টিভি কেনা অতি উত্তম । কেননা উপরোক্ত সকল সুবিধা গুলো পেন্টানিক টিভিতে পাবেন এবং দামের দিক দিয়েও আপনার বাজেট এর মধ্যে । পেন্টানিক টিভির কিছু মডেলের দাম নিচে দেওয়া হলো । 
পেন্টানিক ২৪ ইঞ্চি টিভিটি  পাবেন মাত্র ৬০০০ টাকায় । ৩২ ইঞ্ছি বেসিক টিভি পাবেন মাত্র ৯০০০ টাকায় আর স্মার্ট টিভি পাবেন ১০৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ১৮০০০ টাকার মধ্যে । ৫৫ ইঞ্ছি  4k  টিভি পাবেন মাত্র ৫২৫০০ টাকায় ।
এছাড়া সকল টিভির মুল্য দেখতে চাইলে নিচের লিংকে ক্লিক করুনঃ
Smart Tv Price In Bangladesh
  all Led tv price In Bangladesh

Re: এল ই ডি টিভি কেনার কথা ভাবছেন ? যে বিষয় গুলো যানা উচিত ।

ধন্যবাদ শিয়ার করার জন্য ।