সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আউল (২৭-০৫-২০১৯ ১৪:২২)

টপিকঃ ট্রেন এর অবিক্রীত ২৩,০০০ টিকেট !!

শালার !! দেশ থেকে লজ্জা জিনিসটা কি উঠে  গেছে ?
=======================================

* মানুষ ২০ ঘণ্টা লাইনে দাড়িয়ে  টিকেট পায় না বলে নাই !
* সারাদিন অনলাইনে এ চেষ্টা করে ঢুকতে পারে না,
  দিনশেষে ঢুকতে  পারলে    দেখে টিকেট নাই!!
* সারাদিন আপ্পস এ চেষ্টা করে ঢুকতে পারে না,
দিনশেষে ঢুকতে  পারলে    দেখে টিকেট নাই!!!

সব টিকেট কালোবাজারিদের কাছে , কালোবাজারিরা পরকাশে ৩২৫/৩৬০ টাকার টিকেট বিক্রি করে ৭০০ থেকে ১০০০ টাকা ,
এখন সেই সব কালোবাজারিদের থেকে এত দামে অনেকে কেনে আবার অনেকে কেনে না, তাই দিন শেষে অবিক্রীত ২৩,০০০  টিকেট , যা কালোবাজারিরা বিক্রি করতে পারেনি !! মানুষ টিকেট পায়না এখন বলছেন,অবিক্রীত ২৩,০০০  টিকেট - শালার !! দেশ থেকে লজ্জা জিনিসটা কি উঠে  গেছে ? lol2

বিশেষত ইদের বা পূজায় ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি হয়,  আগে লুকিয়ে লুকিয়ে কালোবাজারি হতো, এখন আধুনিকায়তন হয়ে, ফেসবুক এ দেখা যায় অনলাইন ট্রেন টিকিট বিক্রি প্রকাশ্যে, আগে কালোবাজারি তে লুকিয়ে ঢাকা চট্টগ্রাম আন্তনগর চেয়ার ৩২৫টাকার টিকেট বিক্রি হতো ৫০০, এখন সেই টিকিট ৭০০, ৮০০, ১০০০ wow, অনলাইনে সকাল থেকে চেষ্টা করেও ঢুকতে পারিনি, সিষ্টেম ইরোর, কিন্তু ২টার পরে  অটো ঢুকতে পারি, দেখি কোন ট্রেনের ই কোন সিট নেই, ঢাকা চট্টগ্রাম রুটে এতগুলো আন্তনগর, কিন্তু টিকিট নাই, ২/১টি সিট দেখালেও , কার্ড নাম্বার বসানোর আগে পরে হ্যাংগ হয়ে যায়, আবার নতুন ব্ল্যাঙ্গ পেজ আসে, সেবার নামে তারা আমটি ভালো করে চুষে আঁটিটা এপ ও অনলাইনে ছাড়ে, তার আগে তা সিষ্টেম করে রাখে !! কর্তৃপক্ষ এতকিছু দেখেন আর এইসব দেখেন না?


https://www.prothomalo.com/bangladesh/a … F#comments

অবিক্রীত থাকল ২৩ হাজার টিকিট


ট্রেনের অগ্রিম টিকিট পেতে শেষ দিনেও টিকিটপ্রত্যাশীদের ভিড়। গতকাল সকালে রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়েস্টেশনে। ছবি: শুভ্র কান্তি দাশট্রেনের অগ্রিম টিকিট পেতে শেষ দিনেও টিকিটপ্রত্যাশীদের ভিড়। গতকাল সকালে রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়েস্টেশনে। ছবি: শুভ্র কান্তি দাশপ্রতিবছর ঈদের আগে রেলপথের টিকিট কেনা নিয়ে থাকে যাত্রীদের ভোগান্তি। এবার ভোগান্তি কমাতে পাঁচ জায়গা থেকে টিকিট বিক্রির ব্যবস্থা, অর্ধেকসংখ্যক টিকিট অনলাইন ও অ্যাপের মাধ্যমে বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়। তবুও গত পাঁচ দিনে যাত্রীদের সেই পুরোনো ভোগান্তি একটুও কমেনি।

অ্যাপে ও কাউন্টারে প্রত্যাশিত টিকিট না পেয়ে প্রতিদিনই ভোগান্তির কথা জানিয়েছেন টিকিট–প্রত্যাশীরা। গতকাল রোববার টিকিট বিক্রির শেষ দিনে কমলাপুর কাউন্টারে এসেও কাঙ্ক্ষিত টিকিট না পেয়ে অনেককেই ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

"We want Justice for Adnan Tasin"

Re: ট্রেন এর অবিক্রীত ২৩,০০০ টিকেট !!

দেশে আর লজ্জা বলতে কিছু নেই। আর এসব প্রতি বছরের নাটক।

নামায সবার উপর ফরয করা হয়েছে

Re: ট্রেন এর অবিক্রীত ২৩,০০০ টিকেট !!

এটা তো নতুন কিছু না আমার মনে হয় । বাংলা সিনেমার মত এককাহানি ।