টপিকঃ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

একুশে ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের জনগণের গৌরবোজ্জ্বল একটি দিন। এটি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবেও সুপরিচিত। বাঙালি জনগণের ভাষা আন্দোলনের মর্মন্তুদ ও গৌরবোজ্জ্বল স্মৃতিবিজড়িত একটি দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ১৯৫২ সালের এই দিনে (৮ ফাল্গুন, ১৩৫৮) বাংলাকে পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণে কয়েকজন তরুণ শহীদ হন। তাই এ দিনটি শহীদ দিবস হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ২০১০ খ্রিস্টাব্দে জাতিসংঘ কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারি বিশ্বব্যাপী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়।

আমি ভাষা আন্দোলন দেখিনি, আমি স্বাধীনতা দেখিনি। শুধু শুনে এসেছি।

সূত্রঃhttps://bn.wikipedia.org/wiki/%E0%A6%86 … C%E0%A6%B8

নামায সবার উপর ফরয করা হয়েছে

Re: আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

ঠিক বলেছেন

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আউল (২৩-০২-২০১৯ ২২:৫৯)

Re: আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

https://scontent.fdac29-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/52595900_339887139982318_5679948082632982528_n.jpg?_nc_cat=102&_nc_ht=scontent.fdac29-1.fna&oh=716e595cb57163bf390b346df5ffa092&oe=5CE3B8BC ( ছবিতে বাঁ পাসে আদনান তাসিন হাতে কালো ঘড়ি ও কাল পেন্ট  - সাদা পাঞ্জাবি পরা )


“মাগো, ওরা বলে সবার কথা কেড়ে নেবে।
তোমার কোলে শুয়ে গল্প শুনতে দেবে না।
বলো, মা, তাই কি হয়?”

সিকান্দার আবু জাফর একুশে ফেব্রুয়ারিকে নিয়ে লিখেছিলেন অমর এক কবিতা। কবিতাটিতে আমরা এক কিশোরকে দেখি, যে মায়ের কাছে ফিরতে চেয়েছিলো, মায়ের ভাষায় কথা বলতে চেয়েছিলো! কিন্তু সে ফিরতে পারে নি। তার রক্তের বিনিময়ে আজ আমরা মায়ের ভাষায় কথা বলতে পারি, নিজের ঘরে ফিরতে পারি একরাশ আনন্দ নিয়ে
কিন্ত আমার আদরের অবুঝ শিশু সন্তান আদনান তাসিন
কলেজের থেকে আর মায়ের বুকে ফিরে আসতে পারনি
রাস্তা পারাপারের সময়ে হায়না শকুন বাস
তাকে নৃশংস নির্মমভাবে খুন করে

আমার আদরের পরম স্নেহের ছোট ছেলে #আদনান_তাসিন,
যে বিশ্বাস করতো ২১ মানে মাথা নত না করা কিন্তু বাস্তবে ?
সে তার মৃত র মধ্য দিয়ে আজ অনেক কিছুই বুঝেছে !

সে বারিধারা স্কলারস থেকে এস এস সি পাস করে সেন্ট জোসেফ কলেজে ভর্তি হয় !! সে শুধু লেখা পড়ায় নয় - খেলাধুলা থেকে শুরু করে কালচারাল কর্ম কাণ্ডে সব সময়ই প্রথম কাতারে !!

ঢাকা বিমান বন্দর সড়কে শেওড়া বাস স্ট্যান্ড এ "ফুট ওভার" ব্রিজ ছিল - হটাত করে কোন বিকল্প না করে তা সরিয়ে ফেলা হল, সবাই চুপ !!

তখন আমার ছেলে "জিয়া কলনি" এলাকার "ফুট ওভার" ব্রিজ দিয়ে চলাচল করত!!!

কিন্তু হটাত করে একদিন সেই ঢাকা বিমান বন্দর সড়কে শেওড়া বাস স্ট্যান্ড এ পথচারীদের কৌশলে মারার জন্য রাস্তায় সাদা দাগ দেয়া হয় , বোকা পাবলিকদের মত আমার অবুঝ নাবালক ছেলে তাকে "জেব্রা ক্রসিং" মনে করে ১১ই ফেব্রুআরি সড়ক পার হতে চেষ্টা করে - কিন্তু "জেব্রা ক্রসিং" মানে যে শুধু সাদা রঙ নয় অবুঝ শিশু তা বুঝে নি , নাই কোন স্পীড ব্রাকার, নাই ট্র্যাফিক , নাই কোন ট্র্যাফিক সিগ্নাল, রাস্তা পার হবার সময়য়ে হায়না শকুনের দল বাস রূপে খুব দ্রুত গতিতে তাকে হত্যা করে - অট্ট হাসি দিতে দিতে চলে যায় - নিথর হয়ে পড়ে থাকে তার নরম তুলতুলে শরীর - যে শরীরে কোনদিন পলকের আঘাত লাগেনি -
- আশেপাশের কেউ প্রতিবাদ করেনি
- কেউ সহয়তা করতে এগিয়ে আসেনি
- কেউ মামলা করেনি
- কেউ ড্রাইভার মালিক কে গ্রাফতারের দাবি করেনি
- কেউ বিচার দাবি করেনি
- কেউ দুঃখ প্রকাশ করেনি
- কেউ সংবাদটি টিভি বা সংবাদ পত্রে প্রকাস করেনি
- নার্সারি থেকে এস এস সি পর্যন্ত যে @BSI এ পড়ে ছিল তারা কেউ এগিয়ে এলনা
- যেখানে সে পড়তো @সেন্টজোসেফ এর সবাই চুপ , কোন প্রতিবাদ , মানব বন্ধন , সংবাদ , সাংবাদিক সম্মেলন কিছুই না

তার বাবা গত প্রায় ২ বছর যাবত GBS এ আক্রান্ত হয় সম্পূর্ণ প্যারালাইসিস হয়ে শয্যাশায়ী - তার কোন সহ কর্মী বা বন্ধু কেউ তার খবরি রাখানা - সেখানে তার ছেলে কথায় মরে পড়ে আছে কে তার খবর রাখে !!

আজ আমার ছেলে মরেছে - কাল আপনার ছেলে মরবে - ঠিক একি ভাবে, কারন আপনি - আপনারা- এলাকার মানুষ- শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাথা নত করে আছে সেইসব হায়না শকুনের কাছে, আর প্রশাসন আছে গপাল ভাঁড়ের ভুমিকায় - সন্তান মরে আমাদের আর তারা অট্ট হাসি হাসে - ভাঁড়ামি করে - কারন তাদের সন্তান ত মরছে না
আর আমাদের সন্তান মরলে আমরা তাদের ভয়ে চুপসে থাকি , আমার ছেলে মরেছে বলে আপনি ভাবছেন, "মরছে তার সন্তান আমার কী" এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে হায়নার দল একের পর এক মেরেই চলছে - তারা জানে তাদের কেউ ধরবে না,

আমার সন্তান মরেছে আমি কিছুই করতে পারছি না - কারন আমি সম্পূর্ণ প্যারালাইসিস হয়ে শয্যাশায়ী= আপনি বা আপনারও কি সম্পূর্ণ প্যারালাইসিস? নাকি ভীরু ? নাকি কা পুরুষ? আপনার সন্তান মরেনি তাতে কি দেশের মানুষ মরছে, তাদের বাঁচান

https://www.facebook.com/permalink.php? … 9126650786

"We want Justice for Adnan Tasin"

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন খাইরুল (২৩-০২-২০১৯ ২০:৪৫)

Re: আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

আমরা এর বিচার চাই। আপনি মামলা বা অন্য কিছু করতে পারেন।
যদি আমাদের কোন সাহায্য দরকার হয় বলবেন। আমি আশাকরি ফোরামের সবাই  আপনার পাশে থাকবে।

নামায সবার উপর ফরয করা হয়েছে

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আউল (২৩-০২-২০১৯ ২২:৫৫)

Re: আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

খাইরুল লিখেছেন:

আমরা এর বিচার চাই। আপনি মামলা বা অন্য কিছু করতে পারেন।
যদি আমাদের কোন সাহায্য দরকার হয় বলবেন। আমি আশাকরি ফোরামের সবাই  আপনার পাশে থাকবে।

আজ ১২ দিন হল আমার কলিজার  টুকরা  কে প্রকাশে দিবাোকে খুন করা হল
এখন ও তার শিক্ষাপ্ষ্ঠান সেন্ট জসেফ , Baridhara BSI সহ কোন মিডিয়া কারো  কোন সহানুভুতি পাইনি
আমিত ২ বছর যাবত gbs আক্রান্ত হয়ে পারালিসেস হশয্যাশায়ী

"We want Justice for Adnan Tasin"