টপিকঃ এপিগ্রাম ইন "অয়োময়" ও "অদ্ভুত সব গল্প"

হুমায়ূন আহমেদের বইগুলির সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক যেটা আমার কাছে মনে হয় তা হচ্ছে “এপিগ্রাম”। বই পড়ার সময় এপিগ্রাম গুলি সহজাত ভাবেই আমার চোখে পড়ে, আর সেগুলিকে আলাদা করে টুকে রাখাটা আমার স্বভাব। শত শত বইয়ের এপিগ্রাম দুটি ডায়রিতে লেখা আছে। এখনও বই পড়ার সময় এই অভ্যাস নিরবে কাজ করে যায়। তারই ফল এই লেখাগুলি। এখানে আজ হুমায়ূন আহমেদের লেখা "অয়োময়" ও "অদ্ভুত সব গল্প" বই দুটির এপিগ্রাম শেয়ার করবো।


https://i.imgur.com/3wnmdBw.jpg
অয়োময় গল্পের বইটিতে মাত্র ৩টি এপিগ্রাম আমি পেয়েছি।

১। টাকা পয়সা, ক্ষমতা, এই সব বেশী থাকলে মানুষের স্বভাব ঠিক থাকে না।

২। মৃত্যুর ভয় নিয়ে বেচে থাকার চেয়ে মরে যাওয়া ভালো।

৩। শিক্ষক সম্প্রদায়ের স্বভাবই হচ্ছে যখন তখন উপদেশ দিয়ে বেরানো।




https://i.imgur.com/3wnmdBw.jpg
অদ্ভুত সব গল্প গল্পের বইটিতে মাত্র ৭টি এপিগ্রাম আমি পেয়েছি।

১। শরম নারীর ভূষণ, পুরুষের কলঙ্ক।

২। সকাল বেলার সময়টা হল ব্যস্ততার সময়।

৩। সবকিছু সবাইকে বলে বেরাতে হবে তাতো না।

৪। অফিসের লোকজন অকাজের কথা বলতেই বেশি পছন্দ করে।

৫। যে যেটা অপছন্দ  করে তার কপালে সেটাই জোটে।

৬। মানুষের সবচেয়ে ভাল লাগে অচেনা কোন যায়গা থেকে উপহার পেতে।

৭। মূর্খদের সবাই স্নেহ করে। বুদ্ধিমানদের কেউ স্নেহ করেনা, ভয় পায়।

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।