টপিকঃ কপি-পেষ্টীয় শুভেচ্ছা

একটা সময় ছিল যখন মনের কথা বাটন মোবাইলে টিপে টিপে বন্ধু, আত্মীয় স্বজন দের প্রেরণ করাতাম আমরা। কেউ ম্যাসেজ পাঠাইলেও একটা ফিলিংস হত, বন্ধু আমার জন্য কি লিখেছে দেখি!
আর এখন। একজনের টা আরেকজন কে কপি করে পাঠায়, সে আবার আর একজন কে, তার থেকে আর একজন , শেষে দেখা যায় একটু আগে যে ম্যাসেজ আমি পাঠিয়েছি সেটা কয়েকজনের মোবাইল ঘুরে আবার আমার কাছে।তাই ঈদ, নব বর্ষ, হাজারো দিবসে ম্যাসেজ এলে চোখ বন্ধ করে ডিলিট। ফিলিংস টা হারিয়ে গেছে। ম্যাসেজ এলেই মনে  হয় ঐযে কপি পেস্ট এলো।
আবার যিনি পাঠান তিনিও যে সব সময় ম্যাসেজ পড়ে পাঠান তাও না। দেখা গেল যিনি পাঠিয়েছে send from এ অন্য একজনের নাম। যিনি পাঠাচ্ছেন তিনি যে আমাকে পাঠাচ্ছেন তাও হয়ত জানেন না । কন্টাক্ট সিলেক্ট অল করে দেয় সেন্ড করে।
ডিজিটাল যুগে সব কিছুই কপি-পেস্ট হয়ে গেছে......।

Re: কপি-পেষ্টীয় শুভেচ্ছা

কথা সত্য। আমাকেও অনেকে পাঠায়। আমি অবাক হয়ে যাই। কপি করলেও নিজস্ব কিছু কথা জুড়ে দেয়া উচিত বোধ করি।

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত