২১

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

সবার দোয়া আর আন্তরীকতার জন্য ধন্যবাদ, আর Jol Konaর উপদেশের জন্য ধন্যবাদ, আমার বাসা mizvibappa ভাইয়ের এলাকায়, সবাই দোয়া করবেন

নিজে শিক্ষিত হলে হবে না- প্রথমে বিবেকটাকে শিক্ষিত করতে হবে

২২

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

মহান আল্লাহ আপনাকে সুস্থতা দান করুন-আমিন

জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু......
<script type="text/javascript" src="http://www.golpokobita.com/embeds/baaaE6.js?layout=hori&h=360&w=567"></script>

২৩

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

ছবি-Chhobi লিখেছেন:

মহান আল্লাহ আপনাকে সুস্থতা দান করুন-আমিন

ধন্যবাদ দোয়া করার জন্য

নিজে শিক্ষিত হলে হবে না- প্রথমে বিবেকটাকে শিক্ষিত করতে হবে

২৪

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

May ALLAH cure you.

২৫

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

এখন আস্তে আস্তে হাটতে পারছি, দোয়া করবেন

নিজে শিক্ষিত হলে হবে না- প্রথমে বিবেকটাকে শিক্ষিত করতে হবে

২৬

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

আপনার জন্য শুভকামনা রইলো, দোয়া করি সুস্থ্য হয়ে আবার আগের মত জীবন যাপন করতে পারেন।

IMDb; Phone: Lumia 730; PC: Windows 10 Pro 64-bit

২৭

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

প্রায় বছর হয়ে যাচ্ছে
বিশ্রাম এখন ক্লান্তির মনে হয়

নিজে শিক্ষিত হলে হবে না- প্রথমে বিবেকটাকে শিক্ষিত করতে হবে

২৮ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আউল (০৭-০৯-২০১৮ ১৫:৪৬)

Re: আমি ভীষন অসুস্থ

এক বছর পুরন হল, ২০১৭ সালের ১৩ই সেপ্টেম্বর আমি শয্যাশায়ী হই !

আমি পোশাক রপ্তানি প্রতিষ্ঠানে মার্চেন্ডাইজিং ও মার্কেটিং বিভাগে বিনা বিরতিতে দীর্ঘ বছর কাজ করছি, ২০১৭ সালের ঈদ উল আযহা এর বন্ধর পর ৯ই সেপ্টেম্বর অফিস খুলে, সে দিন থেকে আমার জর আশে, আমি জর নিয়ে ৯ই সেপ্টেম্বর থেকে ১২ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কাজ করি, হটাত ১৩ই সেপ্টেম্বর সকালে অফিসে আশার প্রস্ততি নিতে গিয়ে হতাত, দাঁড়ানো থেকে হাঁটু ভেঙ্গে পড়ে যাই, হাসপাতালে নেওর পর খুব দ্রুত ইমারজেঞ্চিতে ঢুকায়, আর আমার পরিবারের সদস্যদের বলেন জররি ভিত্তিতে ১২ লাখ টাকা রেডি করতে, আমি জিবিএস ভাইরাস এ আক্রান্ত হই ,নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি হই, অনেক ইঞ্জেক্সান ঔষধ চলে, তার মধ্যে ১ টি ইনজেকশান ৩০,০০০ টাকা করে ২৫ টা দিয়েছি,  প্রচুর টাকা ব্যায় করার পর ভাইরাস মুক্ত হই, কিন্ত আমার ২ হাত আর ২ পা সম্পূর্ণ প্যারালাইসিস হয়ে যায়, বর্তমানে আমি এক জন ফিজিওর আন্ডারে চিকিৎসাধীন তাকে আগে প্রতিদিনে ১০০০ টাকা করে দিতে হত, সে তখন দিনে ২ বার আসত, সকল জমা টাকা , ডি পি এস সেশ তাই তিনি দিনে একবার আসে, এখন প্রতিদিনে ৫০০ টাকা করে দিতে হয়,  ঔষধ চলে প্রতিদিন তার উপর সাংসার খরচ, ২ ছেলে ইংলিশ ভারসান সায়েঞ্চে কলেজে সবে উঠেছে , ২ জনের কলেজে ফি , প্রাইভেট পড়ার খরচ , যাতায়াত খরচ, ইত্যাদি , আমি গত ২০১৭ সেপ্টেম্বর থেকে শয্যাশায়ী , কোন উপার্জন নাই,

আমি সারা দিন ফেইস বুক, ফোরাম এ কাটাই, ৮/৯ টি বায়ার কিছু ইনকুইরি দিয়েছে কিন্তু কাজ করতে পারিনি, যাদের বলছি হেল্প করতে কেউ ইনকুইরি নিয়ে সয়হতা করেনি, ০
আমি এখন সম্পূর্ণ বেকার, আমি যে কোন অনলাইন কাজ করতে আগ্রহী,
যদি মনে করেন আমি পারব এমন অনলাইন কাজ, আমাকে জোগাড় করে দিলে আমি উপকৃত হব,
ইংরেজে তে আমার দক্ষতা আছে, কাজের প্রয়োজনে আমাকে প্রচুর মেইল লিখিতে হয়েছে প্রতিদিন এবং বিদেশিদের সাথে কথা বলতে হয়েছে প্রায় প্রতিদিন, আমার ঘরে ২৪ ঘণ্টা ইন্টারনেট সহ ল্যাপটপ ডেস্কটপ পিসি আছে,

নিজে শিক্ষিত হলে হবে না- প্রথমে বিবেকটাকে শিক্ষিত করতে হবে