সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন গিনি (০৫-০৬-২০১৮ ১৯:৫৮)

টপিকঃ ভিতর বাহির

ভিতর বাহির
গিনি
ভিতরের আমি বলে মোরে,
দাড়া শক্ত হয়ে, আজি কার এই ভোরে,
মনের স্বাদ গুলি  পূরন কর
যা ছিল বাঁধা স্বপন ডোরে।
বাহিরের আমি আলস্য ঘুম ভাঙ্গা চোখে,
আরমোর দিয়ে অতি কষ্টে ছাড়ে শয়ন,
কয় অন্তর তরে,
আলো না হতেই এতো জাগরণ,
লক্ষি ছাড়া ওরে।
দু দণ্ড রুখতি আমি উঠতাম ঠিক,
ধীরে প্রাত সার সেরে দেখে চারি দিক,
কর্মে হতাম তৎপর
সকল বিবেচনা পরে।
ভিতর হয় চঞ্চল ,
কর্ণ বিদীর্ণে বলে,
তোর অতি ভাবনায় সব যায় পিছে চলে,
দেখ চেয়ে রবির কিরন খানি,
শ্লথ লাগে, কিন্তু সবার আগে ভাগে,
মুহূর্ত থামে না কখনও,
তরু ছায়া হেলে চলে সবার আগে।
এমনই বোঝা পরা সারাক্ষন দুজনায়,
এক জন বাহির ভাবে অপর জন অজানায়।