টপিকঃ এখন সবাই দাদা

এখন সবাই দাদা
গিনি
চড়ুই ভাতি হবে নগেন
আসিসি সামনের ছুটিতে,
বাড়ির ছাদে জ্বালবো চুলা
পুরাতন ইট দিয়ে জুটিতে।
আসবে ক্ষিতিস, পলাশ
আর ডাগর চোখের রমা,
চলা আনিস, বাকি হাঁড়ি পাতিল,
চাল, ডাল,লবণ, ঘি রাখবো আমি জমা।
সেদিন গুলি ইতিহাস।
কত দিন যে গল্পে গেছে,
কত খেলায় বেলা মিছে,
মাছ মারবো কত হৈ চৈ,
কোথায় তারা পিছে!
নগেন এখন মোরা সবাই দাদা,
ভাবি কি করে সে সব করতাম
লাগে শুধুই ধাঁ ধাঁ।
নগেন, সেই যে ঘরের পিছে
জাম গাছটা কি এখনও তেমন,
বাদুর খাওয়া ফল গুল সব তবে যেমন!
কোষা নৌকা এখনই কি যায়
পিছের খাল বেয়ে?
রমা রা কি এখনও করে তোলপাড়
তাদের পুকুর এ নেয়ে।
আমরা ত ঘর ছেরেছিলাম
যতিন গুণ্ডার তারায়,
বলে ছিল বোনের পানি চায়
যদি থাকি সে পাড়ায়।
আমাদের ঘরে কারা থাকে বল?
চড়ুই ভাতি তারও কি করে?
সন্ধ্যা বেলার টিয়া গুলো
টি টি করে ফেরে ঘরে?
নগেন যদি চলতে পারিস,
তবে একবার আসিস,
শেষের দেখা টুকু হোকনা অল্প,
কিছু সময় কাটাবো দুজন,
উতফুল্লে যত পুরাতন গল্প।