টপিকঃ পানি পড়া

পানি পড়া  

http://www.nokshablog.net/files/image/img_20150226_231128.jpg
পানি পড়া বা পড়া পানি গ্রামের সাধারণ মানুষের কাছে খুবি জনপ্রিয় একটি ধর্মীয় বিশ্বাসের নাম। আর এর পিছে আছে আমাদের মহান ইসলাম ধর্মের নামে , বিশ্বাসের নামে মহা মহা ধোঁকাবাজি।
যদিও গ্রামের অল্পশিক্ষিত মানুষজন ধর্মের নামে বছরের পর বছর তাদের আকিদার একটি  অংশ বানিয়ে ফেলেছে। আর তার ফায়দা তুলে নিচ্ছে অল্প শিক্ষিত কিছু মৌলভি। তাদের প্রচার প্রচারনায় এটি ভাল একটা ধর্মীয় ব্যবস্যায় পরিণত করেছে কিছু জালিয়াত মৌলভি। 
ছোটতে প্রায় দেখতাম গ্রামের মহিলারা কাচের গ্লাসে কুয়োর পানি নিয়ে গ্রামের মসজিদে হাজির। আর মসজিদের ইমাম( মৌলভি ---) সেই গ্লাস হাতে নিয়ে বিড় বিড় করে দোয়া পড়ে সেই গ্লাসের পানিতে ফু-দিয়ে মহিলার হাতে ফেরত দিয়ে দিচ্ছে। আর মহিলা পরম বিশ্বাসের সঙ্গে তা হাতে নিয়ে শাড়ির আঁচলে বাঁধা ৫-১০ টাকার ময়লা এক খানা নোট বাড়িয়ে দিচ্ছে মৌলভির দিকে। পান খাওয়া দাতে দেতল হাসি দিয়ে সেই টাকা জুব্বার( পাঞ্জাবি) পকেটে চালান করে দিচ্ছেন তিনি।
আমিও যে দুই একবার সেই পানি খাইনি তা বলা যাবে না( সঠিক মনে নেই, খেলে খেতেও পারি) ।
এই পড়া পানি এখনকার হুমিয়/ইউনানি... (যারা প্রচার করে তাদের ঔষধ সব রোগের জন্য অব্যর্থ ) ঔষধের মত সব রোগ নিরাময় করতে পারে। আর সত্যি সত্যি কেও কেও ভালও হয়ে যেতেন।
এই ১৫ সালে এসেও গ্রামে গিয়ে এই পড়া পানির কেরামতি এখনো মহা সমারোহে চলছে এবং চলবে।

এবার একটা মজার ঘটনা দিয়ে শেষ করি---
এই ঘটনাটা বলছি ১৯৮০ দিকের। তখন আমার জন্মও হয়নি। একবার আমার দাদীর কি যেন অসুখ। তো তিনি আমার বড় ভাই কে পাশের গ্রামের বিখ্যাত মৌলভি সাহেবের নিকট হতে তার জন্য পানি পড়া  আনতে বললেন। ও তখন আবার ডাক্তার আর ঔষধের খুব একটা চল ছিলনা আমাদের অঞ্চলে। তো আমার বড় ভাই বদ, পাশের গ্রামের মৌলভির কাছে না গিয়ে, বাড়িতে থাকা বোতলে  খাটি কুপের পানি  এনে দাদীকে দিয়ে বললেন এই নাও ( --- ) মৌলভির পানি পড়া।  আর আমার দাদী মহা সমারহে খাটি বিশ্বাস নিয়ে পানি পড়া খেয়ে যেতে লাগলেন, এবং বিস্ময়ের ব্যপার পরের দিন দুপুরে তিনি মোটামুটি সুস্থ হয়ে উঠলেন। পরের দিন একেবারে সুস্থ।
বিঃদ্রঃ আমার দাদী ২ বছর আগে ইন্তেকাল করেছেন। সকলে তার জন্য দোয়া করবেন।

গোলাম মাওলা , ভাবুক, সাপাহার, নওগাঁ

Re: পানি পড়া

কিভাবে এই ধরনের কুস্বংষ্কার দুর করা যায়?

????????????????????????????????????????????????????????????????????
Nothing Like Anything
????????????????????????????????????????????????????????????????????

Re: পানি পড়া

পানি পড়া ঠড়া জানি না। তবে একবার বাস জার্নি করে গ্রামে যাওয়ার সময় চোখে যেন কি যেন পড়ল, খুব চুলকাচ্ছিল। ২দিন ধরে প্রচুর পানি ঢাললাম, চোখের খচখচানি গেল না। পরে কে যেন হুজুরের পানি পড়া এনে দিল। দেওয়ার ১০ মিনিটের মাথায় ম্যাজিকের মত সেরে গেল।

সাইন্স যেটা বলে সেটা হল আমি ৪৮ ঘন্টায় ১৫-২০ বার পানি ঢালায়, চোখের মধ্যে পড়া বস্তুটা চোখ থেকে বের হয় নাই। কিন্তু ৪৮ ঘন্টা পর একটা গ্লাসের পানি ১ বার দেওয়াতেই চোখে পড়া বস্তু টা পড়ে গেল। কো-ইনসিডেন্স? মে বি!   thinking

OH DEAR NEVER FEAR SAIF IS HERE
BOSS অর্থাৎ সাইফ
Cloud Hosting BossHostBD

Re: পানি পড়া

ঠিক একইভাবে হোমিওপ্যাথিকে অনেকে হেসে উড়িয়ে দিবেন, তবে কাজ কিন্তু আসলেই হয়।
যাহোক ক্যাচাল বাঁধাতে চাইনা, যার বিশ্বাস সে নিয়ে থাকুক।
নবীজি নিজেও সুরা কেরাতের মাধ্যমে অনেকের রোগ সারিয়েছেন। এমনকি উনি নিজে যখন কঠিন রোগে আক্রান্ত তখন সুরা ফালাক ও নাস এর মাধ্যমে সেই রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

আবার ধর্মের নামে টাকা পয়সা খাওয়া হুজুরদের হাতের পানি পড়া দিয়ে কতটুকু কাজ হবে সেটাও ভেবে দেখার বিষয়।

IMDb; Phone: OnePlus 8T; PC: Asus Zenbook 14x OLED with Windows 11 Pro 64-bit

Re: পানি পড়া

বোরহান লিখেছেন:

ঠিক একইভাবে হোমিওপ্যাথিকে অনেকে হেসে উড়িয়ে দিবেন, তবে কাজ কিন্তু আসলেই হয়।
যাহোক ক্যাচাল বাঁধাতে চাইনা, যার বিশ্বাস সে নিয়ে থাকুক।
নবীজি নিজেও সুরা কেরাতের মাধ্যমে অনেকের রোগ সারিয়েছেন। এমনকি উনি নিজে যখন কঠিন রোগে আক্রান্ত তখন সুরা ফালাক ও নাস এর মাধ্যমে সেই রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

আবার ধর্মের নামে টাকা পয়সা খাওয়া হুজুরদের হাতের পানি পড়া দিয়ে কতটুকু কাজ হবে সেটাও ভেবে দেখার বিষয়।

হ্যা ঠিক
হোমিওপ্যাথেও অনেক রোগ সাড়ে ।
গ্রামে যখন থাকতাম তখন গ্যাসের প্রচন্ড ব্যথা হলে চাচা এক ফোটা ঔষধ দিতেন পাচ মিনিটের মধ্যে সেড়ে যেতো

মাছের কাটা লাগলেও আমরা একটা ঔষধ খাই খুব কাজ দেয়। আসলেই কাজ হয় অনেকবার অনেক উপকার পেয়েছি।

আর পানি পড়া........ সুরা পড়ে ফু দেয়া পানি
আল্লাহর রহমত আর বিশ্বাসে অনেকটা রোগ সেড়ে যায় ......

জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু......
এই মেঘ এই রোদ্দুর

Re: পানি পড়া

ছবি-Chhobi লিখেছেন:
বোরহান লিখেছেন:

ঠিক একইভাবে হোমিওপ্যাথিকে অনেকে হেসে উড়িয়ে দিবেন, তবে কাজ কিন্তু আসলেই হয়।
যাহোক ক্যাচাল বাঁধাতে চাইনা, যার বিশ্বাস সে নিয়ে থাকুক।
নবীজি নিজেও সুরা কেরাতের মাধ্যমে অনেকের রোগ সারিয়েছেন। এমনকি উনি নিজে যখন কঠিন রোগে আক্রান্ত তখন সুরা ফালাক ও নাস এর মাধ্যমে সেই রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

আবার ধর্মের নামে টাকা পয়সা খাওয়া হুজুরদের হাতের পানি পড়া দিয়ে কতটুকু কাজ হবে সেটাও ভেবে দেখার বিষয়।

হ্যা ঠিক
হোমিওপ্যাথেও অনেক রোগ সাড়ে ।
গ্রামে যখন থাকতাম তখন গ্যাসের প্রচন্ড ব্যথা হলে চাচা এক ফোটা ঔষধ দিতেন পাচ মিনিটের মধ্যে সেড়ে যেতো

মাছের কাটা লাগলেও আমরা একটা ঔষধ খাই খুব কাজ দেয়। আসলেই কাজ হয় অনেকবার অনেক উপকার পেয়েছি।

আর পানি পড়া........ সুরা পড়ে ফু দেয়া পানি
আল্লাহর রহমত আর বিশ্বাসে অনেকটা রোগ সেড়ে যায় ......



হুম হুম

গোলাম মাওলা , ভাবুক, সাপাহার, নওগাঁ

Re: পানি পড়া

এটা কুসংস্কার ছাড়া র কিছু না

Re: পানি পড়া

শুধু পানি পড়া না গ্রামে মানুষ পরিক্ষার আগে কলম পড়ে আনে ।
ভোক্তি তে মুক্তি

Re: পানি পড়া

বিশ্বাস এ মেলায় বস্তু,তর্কে বহুদূর smile

ডিজিটাল বাংলাদেশে ত আর সাক্ষরের নিয়ম চালু নাই।সবটায় দেখি বায়োমেট্রিক।তাই আর সাক্ষর দিতে পারলাম না।দুঃখিত।