টপিকঃ ২০২৭ সাল পর্যন্ত এলডিসির সুবিধা পাচ্ছে বাংলাদেশ

২০২৪ সালে এলডিসি থেকে বের হলেও বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে এলডিসি হিসেবে যেসব সুবিধা পায় বাংলাদেশ, তা ২০২৭ সাল পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। ২০২৪ সালে স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকা থেকে বের হবে বাংলাদেশ। তবে ২০১৮ সালেই বাংলাদেশ প্রয়োজনীয় লক্ষ্যগুলো প্রাথমিকভাবে অর্জন করবে। নিয়ম অনুযায়ী, মাথাপিছু আয়, মানব উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক ভঙ্গুরতা—এ তিনটি সূচকের মধ্যে কমপক্ষে দুটিতে নির্ধারিত লক্ষ্য অর্জন করতে হয়। এরপর আরও তিন বছর অর্থাৎ ২০২১ সাল পর্যন্ত অর্জনগুলোর ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে। পরে নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে ২০২৪ সালে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে বাংলাদেশকে এলডিসি থেকে উত্তরণের বিষয়টি অনুমোদন হবে। এলডিসি থেকে বের হয়ে যাওয়া গুরুত্বপূর্ণ নয়; উন্নয়ন কতটা টেকসই হলো, সেটা দেখতে হবে। টেকসই উন্নয়ন হলে পরবর্তী সময়েও এগিয়ে যাওয়া সহজ হয়। টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে একটি জাতীয় নীতিমালা প্রয়োজন। সেই লক্ষ্যেই কাজ করছে সরকার। উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি অর্থনীতির কাঠামোগত পরিবর্তন, মানব উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক ভঙ্গুরতা উন্নয়নে সকল উদ্যোগ নিচ্ছে বর্তমান সরকার। বর্তমানে জিডিপিতে উৎপাদন খাতের অনুপাত—এসব সূচকে শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যেই আছে বাংলাদেশ। সরকারের পাশাপাশি দেশের সকল মহলকে এই বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে তাহলেই বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন সম্ভব।

Re: ২০২৭ সাল পর্যন্ত এলডিসির সুবিধা পাচ্ছে বাংলাদেশ

Good News ForBangladesh produces