সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন নিয়াজ মূর্শেদ (০৩-০৫-২০১৬ ১০:০৫)

টপিকঃ হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

কেয়ামত আসতে আর বেশি দেরি নাই।
..................

সমকামিতার সময় হাতেনাতে ধরা পড়লেন তিন মাদ্রাসা শিক্ষক !

http://ctvnews24.com/wp-content/uploads/2016/03/1455301723-e1458804294700-465x275.jpg

সিটিভি নিউজ৥ এবার মাদ্রাসার বাথরুমে সমকামীতা করার সময় হাতে নাতে ধরা খেলেন তিন শিক্ষক। বরিশাল জেলার নথুল্লাবাদ এলাকার নজরুল একাডেমিক মাদ্রাসায় এই ঘটনাটি ঘটেছে।

মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, টিফিন পিরিয়ডের সময় ষষ্ঠশ্রেণীর অংক শিক্ষক মোজাম্মেল হক ও নবম শ্রেণীর ইংরেজি শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন ছাত্রদের টয়লেটে যান। তাদের দুজনকে একসাথে টয়লেটে ঢুকতে দেখে মাঠের আরেক প্রান্ত থেকে ধর্ম শিক্ষক খসরুও দ্রুত হেঁটে টয়লেটের দিকে যান। মূলত কোমলমতি শিশু খুঁজতেই তারা সেখানে গিয়েছিলেন।

এসময় এক ছাত্র পাশে দিয়ে হেঁটে যাবার সময় ধস্তাধস্তির শব্দ শুনতে পেয়ে টয়লেটের দরজার ফাঁক দিয়ে উঁকি মেরে দেখে, মাদ্রাসার দুজন শিক্ষক মিলে আরেকজন শিক্ষককে জোরপূর্বক শারীরিক নির্যাতন করছে। পুরো ঘটনাটি সে ফোনে ভিডিও করে রাখে। তবে ভিডিওর শেষাংশে দেখা যায়, দুজনের কাজ করা হয়ে গেলে ধর্মশিক্ষক খসরুও তাদের সাথে যোগ দিয়েছিলেন। মূলত এটি ছিলো একটি সমকামীতা প্রকল্প।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, উপযুক্ত প্রমাণের ভিত্তিতে তিন শিক্ষককেই মাদ্রাসা থেকে বহিষ্কার করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়েছে।

http://ctvnews24.com/?p=81906#sthash.4kVrvks0.dpbs

Re: হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

বুঝিনা চট্টগ্রাম আর বরিশালে কি এই প্রবণতা বেশী নাকি??

  “যাবৎ জীবেৎ সুখং জীবেৎ, ঋণং কৃত্ত্বা ঘৃতং পিবেৎ যদ্দিন বাচো সুখে বাচো, ঋণ কইরা হইলেও ঘি খাও.

Re: হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

তাও ভালো ছাত্রদের সাথে করে নাই। অনেক স্থানে ছাত্রদের সাথে জোর করে করে সেটা অনেক খারাপ। কেউ যদি মেন্টালি সমকামী হয় তখন আসলেই তার কিছু করার থাকে না। শুধু মানুষ না, সব প্রাণিদের মধ্যেই সমকামীতা আছে।

আজকেই সত্য ঘটনা অবলম্বনে এক শিকক্ষকের সমকামীতা নিয়ে এক হিন্দি মুভি দেখলাম ALIGARH (2016) । আপনিও দেখতে পারেন। তাহলে দেখবেন মানুষ কেন  সমকামী হয়।

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

Re: হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

আপনারা হায় হায় করছেন, পশ্চিমে এটা হলে বরং বেচারাদের(!) বহিস্কারের বিরুদ্ধে সবাই হায় হায় করত! আপাতত দেশে দেশ আইন করে এটাকে বৈধতা দেয়া হচ্ছে ৫০/১০০ বছর পর ধর্ম বইতেও ঢুকে যাবে। তখন আর হায় হায় করতে হবেনা!  hehe

সমাজ... ভাল/মন্দ সবই বদলায়...

রিংলিংব্রোস এর বিখ্যাত হাতির সার্কাস দেখার অনেক ইচ্ছে ছিল। সময়/সুযোগের অভাব, এটা সেটার কারনে কখনো যাওয়া হয়ে ওঠেনি। এ্যানিম্যাল রাইটস্‌ এক্টিভিস্টদের সাথে দশক ধরে কশাকশি করার পর গত পরশু হাতির সার্কাস চিরতরে বন্ধ করে দেয়া হল!  এই জীবনে রিংলিং হাতির সার্কাস আর দেখা হলনা!  brokenheart সে যাইহোক, প্রায় দেড়শ বছর আগে এই সার্কাস যখন শুরু হয়েছিল... যখন সার্কাস তো ছাড়, গুলি করে হাতি মারাও বেআইনী এমনকি সামাজিক ভাবেও নিন্দনিয় ছিলনা। তখন কেউ যদি বলত যে দেড়শ বছর পর হাতির মানসিক শান্তির বিবেচনায় সার্কাস বন্ধ করে দেয়া হবে, তাকে কেউ উম্মাদ বৈই অন্য কিছু বলত না!

Re: হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

@সদস্যদা নিজের ইচ্ছায় আর জোর করে দুইটার মাঝে তফাত আছে না?

  “যাবৎ জীবেৎ সুখং জীবেৎ, ঋণং কৃত্ত্বা ঘৃতং পিবেৎ যদ্দিন বাচো সুখে বাচো, ঋণ কইরা হইলেও ঘি খাও.

Re: হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

তফাত বৈকি! জোর করে ছিল নাকি... পুরোটা পরে দেখিনি!

Re: হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

তারা প্রথমে মানুষ
তারপর বাংলাদেশী
তারপর মাদ্রাশার শিক্ষক

এই খবরটি দেখুন...........................

http://www.somewhereinblog.net/blog/mztanim/29837796

Re: হায় রে, এই বুঝি মাদ্রাসার শিক্ষক !

আশা করি "জঙ্গীদের চাপাতিতে কুপিয়ে তিন মৌলানা হত্যা" এমন কোনো খবর পড়তে হবে না।

পোয়েটিক জাস্টিস....  neutral

Calm... like a bomb.