টপিকঃ কবিতা

একটা ডালে দুইটি পাখি করতে ছিল
গান,
ভাঙ্গতে চেয়ে পাশের ডালে
কোকিল পাখির মান।
গানের সুরে একটু দুরে নাচতে ছিল
টিয়া,
পাখনা দুটো উচু করে মাথায় ঘুমটা
দিয়া।
কোকিল পাখির দুটি আঁখি সিক্ত ছিল
জলে,
হৃদয়টা তার ভেঙ্গে ছিল এক প্রেমের
ছলে।
টিয়ার মনে সর্ব ক্ষণে ছিল আনন্দের
ঢেউ,
হৃদয় মাঝে পেয়েছিল মনের মত কেউ।
একটু পরে করুন সুরে কোকিল পাখি বলে,
মিষ্টি কথায় কঠিন মনটা গিয়েছিল
গলে।
মন জগতের গাছের উপর বানালাম একটা
বাসা,
থাকবো দুজন হেসে খেলে জাগলো
মনে আশা।
স্বপ্ন এল নয়ন জুড়ে স্বপ্ন দেখি দিনে,
এনেছিলাম সুখের বাতি রক্ত দিয়ে
কিনে।
দুটি মন জানি না কখন এক হয়ে ছিল,
হঠাৎ এক ঝড় এসে তা ছিন্ন করে দিল।
ঝড়ের পরে আমার ঘরে পরেছিল তার
দেহ,
কোথায় গেল দেহের আত্না উত্তর দিল
না কেহ।
নিঃস্ব হয়ে অশ্রু দিয়ে প্রকাশ করি
ভাব,
জীবের জীবন যাবে চলে এটাই তার
স্বভাব।