টপিকঃ এই সব কি

ব্যক্তিগতভাবে আমি মানুষের মত প্রকাশের পক্ষে।
একজন মানুষের ধর্ম পালনের যেমন অধিকার থাকা উচিত, ধর্ম না পালনের অধিকার থাকা উচিত।
তবে শর্ত হল কাউকে আঘাত দেওয়া যাবে না।আপনি সুন্দরভাবে আপনার মত প্রকাশ করবেন।কাউকে,কারো ধর্মকে গালি দিবেন না।যারা গালাগালি, অবমাননাকর কথা বলেন তাদের বিচার হওয়া উচিত।
ফেবুতে অনেকেই অবমাননাকর নাম দিয়ে আইডি খুলেন,যেমন খারাপ মুহাম্মদ বা এজাতীয় কিছু,লুইচ্ছা কৃষ্ণ,জম্নপরিচয়হীন নাস্তিক বা এ জাতীয় কিছু।অনেকেই গালাগালি করেন।আমি এদের বিপক্ষে।আমি ধর্মে ভালকিছু পেলে শেয়ার করবো, খারাপ কিছু পেলে মতামত প্রকাশ করবো।কিন্ত রিপর্ট করে আইডি নষ্ট করবো কেন?
এটা কি আমার জন্য অবমানকর নয়?আমি কী নিজের ধর্মের সত্যতা বা নাস্তিকতার স্বরুপ তুলে ধরতে পারবো না?যদি না পারি তাহলে সেটা নিয়ে মাথা ঘামানোই উচিত নয়।

Re: এই সব কি

mistarbabu লিখেছেন:

ব্যক্তিগতভাবে আমি মানুষের মত প্রকাশের পক্ষে।
একজন মানুষের ধর্ম পালনের যেমন অধিকার থাকা উচিত, ধর্ম না পালনের অধিকার থাকা উচিত।
তবে শর্ত হল কাউকে আঘাত দেওয়া যাবে না।আপনি সুন্দরভাবে আপনার মত প্রকাশ করবেন।কাউকে,কারো ধর্মকে গালি দিবেন না।যারা গালাগালি, অবমাননাকর কথা বলেন তাদের বিচার হওয়া উচিত।
ফেবুতে অনেকেই অবমাননাকর নাম দিয়ে আইডি খুলেন,যেমন খারাপ মুহাম্মদ বা এজাতীয় কিছু,লুইচ্ছা কৃষ্ণ,জম্নপরিচয়হীন নাস্তিক বা এ জাতীয় কিছু।অনেকেই গালাগালি করেন।আমি এদের বিপক্ষে।আমি ধর্মে ভালকিছু পেলে শেয়ার করবো, খারাপ কিছু পেলে মতামত প্রকাশ করবো।কিন্ত রিপর্ট করে আইডি নষ্ট করবো কেন?
এটা কি আমার জন্য অবমানকর নয়?আমি কী নিজের ধর্মের সত্যতা বা নাস্তিকতার স্বরুপ তুলে ধরতে পারবো না?যদি না পারি তাহলে সেটা নিয়ে মাথা ঘামানোই উচিত নয়।

উলঙ্গতা যেমন কারো ব্যাক্তিগত স্বাধীনতা হতে যারে না কারন এটা কুরুচিপুর্ন , দৃস্টি কটু, তেমনই মত প্রকাশের স্বাধীনতা মানে "আক্রমনাত্বক" মুখে যা আসবে তা বলা নয়, হোক সেটা ধর্ম নিয়ে বা কোন গোস্টি বা ব্যাক্তকে নিয়ে, যারা নিজেকে নিজে মহা জ্ঞানি ভাবেন তারা আসলে মুর্খের জগতে বসবাস করেন

"We want Justice for Adnan Tasin"

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন নিয়াজ মূর্শেদ (১২-০৭-২০১৫ ১৫:২০)

Re: এই সব কি

আউল লিখেছেন:

উলঙ্গতা যেমন কারো ব্যাক্তিগত স্বাধীনতা হতে যারে না কারন এটা কুরুচিপুর্ন , দৃস্টি কটু, তেমনই মত প্রকাশের স্বাধীনতা মানে "আক্রমনাত্বক" মুখে যা আসবে তা বলা নয়, হোক সেটা ধর্ম নিয়ে বা কোন গোস্টি বা ব্যাক্তকে নিয়ে, যারা নিজেকে নিজে মহা জ্ঞানি ভাবেন তারা আসলে মুর্খের জগতে বসবাস করেন

গাফফার চৌধুরী বলেছেন, আল্লাহ শব্দটি এসেছে কাবা শরীফের প্রধান মূর্তির নাম থেকে। একটি বড় প্রমাণ হলো যে, আমাদের রাসুল্লাহর (স.) বাবার নাম ছিল আবদুল্লাহ। - See more at: http://www.sheershanewsbd.com/2015/07/1 … Wh37d.dpuf

- See more at: http://www.sheershanewsbd.com/2015/07/1 … Wh37d.dpuf

আবারও তিনি আল্লাহ নিয়ে স্পর্শকাতর বক্তব্য দিলেন।  neutral উনি 'আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারী' গানটি লিখে ইতিহাসের পাতায় স্মরনীয় হয়ে থাকবেন কিন্তু উনার এসব বক্তব্যের কারনে মৌলবাদীরা এই দুনিয়াতে উনাকে আর রাখবে না। উনার সাবধানে কথা বলা উচিত।

উনি যেটা বলেছেন সেটা সত্যি। কাবার প্রধান উপাস্যের নাম ছিলো আল্লাহ যার কিনা তিন কন্যা সন্তান ছিলো। আল্লাত, মানাত ও উজ্জা দেবী। যাদের মাধ্যমে আরবের প্যাগানেরা আল্লাহর কাছে সুপারিশ করতো। এটা তো কোরআনেই লেখা আছে কিন্তু সবাই তো আর এত কিছু জানে না। তাই এসব ব্যাপারে বেশি না বলাই ভালো।

গাফফার চৌধুরীকে যেনো অভিজিৎ রায়ের মতো পরিনতি ভোগ করতে না হয়। বেচারা বুড়া মানুষ। তাই বেশি বলছে ইদানিং। হে ভাইয়েরা উনাকে মাফ করে দেন।

Re: এই সব কি

নিয়াজ মূর্শেদ লিখেছেন:

উনি যেটা বলেছেন সেটা সত্যি। কাবার প্রধান উপাস্যের নাম ছিলো আল্লাহ যার কিনা তিন কন্যা সন্তান ছিলো। আল্লাত, মানাত ও উজ্জা দেবী। যাদের মাধ্যমে আরবের প্যাগানেরা আল্লাহর কাছে সুপারিশ করতো। এটা তো কোরআনেই লেখা আছে কিন্তু সবাই তো আর এত কিছু জানে না। তাই এসব ব্যাপারে বেশি না বলাই ভালো।

বিষয়টি গোলমেলে লাগছে??

"We want Justice for Adnan Tasin"